ড্যাশবোর্ডের মতো জ্বলজ্বল করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা: জনসন

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। ছবি: এপি

ড্যাশবোর্ডের মতো জ্বলজ্বল করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা: জনসন

করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চলগুলোকে মধ্যম, উচ্চ ও অতি উচ্চ ভাগে বিভক্ত করার কথা জানান জনসন।

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, বিমানের সতর্কতামূলক ড্যাশবোর্ডের মতো জনগণের সামনে জ্বলজ্বল করছে করোনাভাইরাসে ক্রমবর্ধমান আক্রান্তের সংখ্যা।

স্থানীয় সময় সোমবার দেশটির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউজ অফ কমন্সে এ কথা বলেন তিনি।

বক্তব্যে যুক্তরাজ্যে নতুন করে বেড়ে যাওয়া করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চলগুলোকে মধ্যম, উচ্চ ও অতি উচ্চ স্তরে বিভক্ত করার কথা জানান জনসন।

অতি উচ্চ স্তরে থাকা লিভারপুল শহরে স্থানীয় সময় বুধবার থেকে নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হতে যাচ্ছে।

এ বিষয়ে ইংল্যান্ডের প্রধান মেডিক্যাল কর্মকর্তা অধ্যাপক ক্রিস হুইটি জানান, করোনা মোকাবিলায় তিন স্তরের নিষেধাজ্ঞা কতটা কার্যকর হবে, তা নিয়ে সন্দিহান তিনি।

অতি উচ্চ স্তরের নিষেধাজ্ঞায় থাকা অঞ্চলগুলোর প্রশাসনকে আরও কঠোর হওয়ার পরামর্শ দেন ক্রিস হুইটি। কিন্তু এখনই কঠোর নিষেধাজ্ঞায় যেতে রাজি নন জনসন।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে গত মাসে সরকারের বিজ্ঞানবিষয়ক উপদেষ্টারা যুক্তরাজ্যে জাতীয় পর্যায়ে স্বল্পমেয়াদি লকডাউনের পরামর্শ দিয়েছিলেন।

ইংল্যান্ডের বেশির ভাগ এলাকা মধ্যম স্তরের নিষেধাজ্ঞার মধ্যে পড়েছে।

জনসন জানান, নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও দোকান, স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয় খোলা থাকবে।

তিনি বলেন, তিন স্তরের নিষেধাজ্ঞা ঠিকমতো বাস্তবায়ন করা গেলে করোনায় সংক্রমণের হার কমে আসবে।

তিন স্তরের মধ্যম ধাপে রেস্তোরাঁ ও মদের দোকান রাত ১০টায় বন্ধ থাকবে। ঘরের ভেতর ও বাইরে সর্বোচ্চ ছয় জন দেখা করতে পারবেন।

উচ্চ স্তরে থাকা অঞ্চলগুলোতে কারো ঘরে গিয়ে সাক্ষাৎ করা যাবে না। তবে বাইরে ছয় জন একসঙ্গে সাক্ষাৎ করতে পারবেন।

অতি উচ্চ স্তরে ঘরের ভেতর ও বাইরে সাক্ষাৎ নিষিদ্ধ। বারগুলো পুরোপুরি বন্ধ থাকবে। এলাকায় প্রবেশ ও বাইরে না যাওয়ার নির্দেশনা মেনে চলতে হবে। পার্ক ও সমুদ্র সৈকতে ছয় জন ব্যক্তি একত্রে যেতে পারবেন।

নটিংহ্যামশায়ার, ইস্ট ও ওয়েস্ট চেশায়ার এবং হাই পিক এলাকার একাংশ উচ্চ স্তরের নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়েছে। একই সঙ্গে বৃহত্তর ম্যানচেস্টার, সাউথ ইয়র্কশায়ারের কিছু অংশ ও ইংল্যান্ডের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করা হবে।

এসব এলাকার প্রায় ৪৪ লাখ মানুষকে নিষেধাজ্ঞা মেনে চলতে হবে।

সূত্র: বিবিসি

শেয়ার করুন