20201002104319.jpg
সুপ্রিম কোর্টের বিচারক নিয়োগে ট্রাম্পের তোড়জোর

সুপ্রিম কোর্টের বিচারক নিয়োগে ট্রাম্পের তোড়জোর

যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের আলোচিত বিচারক রুথ ব্যাডের গিন্সবার্গের মৃত্যুতে খালি হওয়া পদে নতুন নিয়োগ দিতে তোড়জোর শুরু করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। 

আগামী শনিবারের মধ্যে বিচারক নিয়োগের ঘোষণা দেওয়ার কথা রয়েছে তার। 

গত শুক্রবার মৃত্যু হয় অগ্ন্যাশয়ের ক্যান্সারে আক্রান্ত ৮৭ বছর বয়সী উদারপন্থী বিচারক গিন্সবার্গের। তার মৃত্যুর পরপরই এ পদে নতুন নিয়োগ নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, বিচারক নিয়োগে সমর্থন দিতে সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠ রিপাবলিকান সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জানান, সম্ভাব্য পাঁচজনের মধ্যে এরই মধ্যে দুজনকে ঠিক করে ফেলেছেন তিনি। 

ওই দুজনের মধ্যে একজনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।  

যুক্তরাষ্ট্রে ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে বিচারক পদটি খালি রাখার পক্ষে ডেমোক্র্যাটিক পার্টি। তারা  আশা করেছিল, রিপাবলিকান পার্টির দুই সিনেটর চাক গ্রাসলি ও করি গার্ডনার নির্বাচনের আগে বিচারক নিয়োগের বিপক্ষে থাকবেন। 

কিন্তু ওই দুই সিনেটরই সোমবার জানান, ট্রাম্প মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে ভোট দেবেন তারা।

ট্রাম্প বলেন, ‘নির্বাচনের আগে আমাদের হাতে যথেষ্ট সময় আছে। বিচারক পদে এ সময়ের মধ্যে ভোট নেওয়া যাবে।’

ট্রাম্প নিযুক্ত আপিল বিভাগের দুই বিচারক সম্ভাব্য প্রার্থী হতে পারেন। তাদের মধ্যে একজন শিকাগোভিত্তিক সপ্তম আপিল বিভাগের সার্কিট কোর্টের বিচারক অ্যামি কোনি ব্যারেট। 

অন্যজন হলেন আটলান্টাভিত্তিক একাদশ আপিল বিভাগের সার্কিট কোর্টের বিচারক বারবারা লাগোয়া। 

স্থানীয় সময় সোমবার ব্যারেটের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ট্রাম্প।

সুপ্রিম কোর্টে দলীয় বিবেচনায় বিচারক নিয়োগের তাৎপর্য আছে। এতে গর্ভপাত, স্বাস্থ্যসেবা, অস্ত্র রাখার অধিকার, ভোটাধিকার, প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা ও মৃত্যুদণ্ড সংক্রান্ত রায়ে দলের প্রভাব থাকে। 

গিন্সবার্গের মৃত্যু রিপাবলিকান পার্টির জন্য সুফল বয়ে এনেছে বলে ধারণা করছেন বিশ্লেষকরা।

এদিকে ডেমোক্র্যাটরা রিপাবলিকান পার্টির সিনেটর মিচ ম্যাককনেলের বিরুদ্ধে ভণ্ডামির অভিযোগ এনেছে। কারণ নির্বাচনের আগেই ট্রাম্প মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে সমর্থন জানিয়েছেন ম্যাককনেল। 

কিন্তু ২০১৬ সালে বিচারক অ্যানটোনিন স্ক্যালিয়ারের মৃত্যুর পর তৎকালীন ডেমোক্র্যাটিক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা মনোনীত প্রার্থীকে বিচারক পদে নিয়োগের প্রতিবাদ করেছিলেন ম্যাককনেল। সে সময় তিনি বলেছিলেন, নির্বাচনের বছরে বিচারক পদে নিয়োগ অনুচিত হবে।

শেয়ার করুন