× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

স্বাস্থ্য
Barrister Sumons security booth in the fight against Corona
google_news print-icon

করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ব্যারিস্টার সুমনের সুরক্ষা বুথ

ব্যারিস্টার সুমন
চুনারুঘাটে দুইটি করোনা সুরক্ষা বুথ উদ্বোধন করেন ব্যারিস্টার সুমন। ছবি: নিউজবাংলা
তিনি বলেন, ‘করোনার টিকা ও চিকিৎসা দেয়া ডাক্তারদের জন্য খুবই কঠিন হয়ে গেছে। তাই আমরা আজ দুটি সুরক্ষা বুথের ব্যবস্থা করেছি। এখান থেকে আপনারা মাস্কসহ করোনার সুরক্ষা সরঞ্জাম পাবেন। আমি আজ ঢাকা যাব। আমি চেষ্টা করব কিছু অক্সিজেনের ব্যবস্থা করা যায় কি না।’

করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষায় হবিগঞ্জে দুইটি সুরক্ষা বুথ স্থাপন করেছেন আলোচিত আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

চুনারুঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও উপজেলা পরিষদের সামনে স্থাপিত বুথ দুইটি রোববার দুপুরে তিনি উদ্বোধন করেন।

এরপর ব্যারিস্টার সুমন নিজের ফেসবুক পেজ থেকে লাইভে আসেন।

লাইভে তিনি বলেন, ‘আজকে আমাদের চুনারুঘাটে ৬৪ জনের করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে। জানি না কোন জায়গায় গিয়ে এটি শেষ হবে। করোনার বিরুদ্ধে আমাদের যত ধরনের শক্তি আছে তা নিয়েই ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের দেশে মানুষ বেশি। এজন্য অক্সিজেন দিয়ে কাভারেজ দেয়া খুবই কঠিন হয়ে গেছে। টিকা ও চিকিৎসা দেয়া ডাক্তারদের জন্য খুবই কঠিন হয়ে গেছে। তাই আমরা আজ দুটি সুরক্ষা বুথের ব্যবস্থা করেছি। এখান থেকে আপনারা মাস্কসহ করোনার সুরক্ষা সরঞ্জাম পাবেন।

‘এ ছাড়া আমি আজ ঢাকা যাব। আমি চেষ্টা করব কিছু অক্সিজেনের ব্যবস্থা করা যায় কি না।’

হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেন দেয়াসহ করোনা প্রতিরোধে সবার পাশে দাঁড়াতে সমাজের বিত্তবানদের আহ্বান জানান ব্যারিস্টার সুমন।

আরও পড়ুন:
কোপার ট্রফি উঠুক সালাউদ্দিনের হাতে: ব্যারিস্টার সুমন
বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে যেন গরু হাল চাষ করছে: ব্যারিস্টার সুমন
ভয়ানক পরিণতি ফুটবলের: ব্যারিস্টার সুমন
ব্যারিস্টার সুমনের নেশা তার পেশার চেয়েও বড়

মন্তব্য

আরও পড়ুন

স্বাস্থ্য
Iftar market for 10 taka

১০ টাকায় ইফতার বাজার

১০ টাকায় ইফতার বাজার মুন্সীগঞ্জে ১০ টাকায় ইফতার সামগ্রী দিয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিক্রমপুর মানব সেবা ফাউন্ডেশন। ছবি: নিউজবাংলা
সংগঠনের সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক হিরা বলেন, ‘দ্বিতীয়বারের মতো এ বাজার থেকে দুই শতাধিক মানুষ সহায়তা পেয়েছেন। আমরা অসহায় মানুষের আগ্রহ ও তৃপ্তির হাসি দেখে আনন্দিত হয়েছি।’

রমজান মাস ঘিরে ইফতার সামগ্রীর দাম যখন ঊর্ধ্বগতি, তখন নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য দ্বিতীয়বারের মতো ১০ টাকায় ইফতার সামগ্রী দিয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিক্রমপুর মানব সেবা ফাউন্ডেশন।

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার কামারখাড়া বাজারে শুক্রবার দুপুরে ‘১০ টাকায় ইফতার বাজার’ নামক এক ব্যতিক্রমী কর্মসূচি পালন করা হয়।

অস্থায়ী এই বাজার থেকে ১০ টাকার বিনিময়ে এক কেজি তেল, খেজুর, পেঁয়াজ, ছোলা, চিনি, চিড়া ও মুড়িসহ ইফতারে ৭টি পণ্য কিনে নেন নিম্ন আয়ের ২১০টি পরিবার। এমন আয়োজনে অসহায় নিম্ন আয়ের মানুষের মুখে তৃপ্তির হাসি ফোটে।

এর আগে, ১০ টাকায় গরুর মাংস ও ইফতার বাজার দিয়ে দেশব্যাপী আলোচনায় আসে এ সংগঠনটি।

সরেজমিনে দেখা যায়, অস্থায়ী এই বাজারের ভিন্ন ভিন্ন স্টলে সাজিয়ে রাখা হয়েছে তেল, খেজুর, পেঁয়াজ, ছোলা, চিনি, চিড়া ও মুড়ি। অন্য সব বাজারের মতো নিম্ন আয়ের মানুষ পছন্দমতো পণ্য সংগ্রহ করছেন। তবে সেগুলোর দাম রাখা হচ্ছে মাত্র ১০ টাকা।

রাউৎভোগ এলাকার রোকসানা বেগম বলেন, ‘পাশের বাড়ির একজন ছোলা-মুড়ি দিছিল। পাঁচ রোজায় সব শেষ হয়ে গেছে। পরে আর কিনে খাইতে পারি নাই। এহন ১০ টাকা দিয়া কত কিছু কিনে নিলাম, যা দিয়া বাকি রমজানগুলো কাটিয়ে দিতে পারমু।’

দিঘীরপাড় গ্রামের নাছিমা বেগম বলেন, ‘বাজারে যেখানে ১ লিটার তেলের দাম ১৯০ টাকা; সেখানে ৭টি পণ্য মাত্র ১০ টাকায় পেয়েছি। এখানে এসে মনে হলো বাপ-দাদার আমলের অল্প টাকায় আমরা বাজার থেকেই পণ্য নিচ্ছি। রোজার বাকি দিনগুলো ভালোভাবে কাটবে।'

সংগঠনের সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক হিরা বলেন, ‘দ্বিতীয়বারের মতো এ বাজার থেকে দুই শতাধিক মানুষ সহায়তা পেয়েছেন। আমরা অসহায় মানুষের আগ্রহ ও তৃপ্তির হাসি দেখে আনন্দিত হয়েছি।’

আরও পড়ুন:
রোজায় পানিশূন্যতা এড়ানোর ৭টি উপায়
রোজায় ডায়াবেটিস রোগীদের লাচ্ছির কুইক রেসিপি
তারাবির নামাজ ও কিয়ামুল লাইলের মধ্যে কোনো পার্থক্য আছে?
রোজা ভঙ্গ হয় না যেসব কারণে
রোজায় ডায়াবেটিস রোগীর ওষুধ খাওয়ার নিয়ম

মন্তব্য

স্বাস্থ্য
Arrest of accused under arrest warrant in 21 cases

২১ মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি গ্রেপ্তার

২১ মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি গ্রেপ্তার
বরুড়া থানার ওসি ফিরোজ হোসেন বলেন, ‘গ্রেপ্তার মনির ডাকাত ২১ মামলার আসামি অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় আরও একটি মামলা করা হবে। শুক্রবার ডাকাত মনিরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।’

কুমিল্লা বরুড়া উপজেলায় ২১ মামলার গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামিকে বন্দুক ও গুলিসহ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

উপজেলার চিতড্ডা ইউনিয়নের ভঙ্গুয়া ব্রিজের পাশ থেকে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

৩৮ বছর বয়সী গ্রেপ্তার মো: মনির হোসেন ওরফে মনির ডাকাত উপজেলার ঝলম মোল্লাবাড়ীর বাসিন্দা। গ্রেপ্তারের সময় মনিরের কাছ থেকে একটি দেশীয় পাইপ গান ও ২টি গুলি জব্দ করা হয়।

বরুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন শুক্রবার সকালে নিউজবাংলাকে এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘গ্রেপ্তার মনির ডাকাত ২১ মামলার আসামি অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় আরও একটি মামলা করা হবে। শুক্রবার ডাকাত মনিরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।’

ডাকাত মনিরকে গ্রেপ্তারের পর পুরো বরুড়া উপজেলায় স্বস্তি নেমে আসে।

ঝলম এলাকার বাসিন্দা আবদুল হালিম বলেন, ‘এমন কোনো অপরাধ নেই যা মনির করতো না। সকালে ডাকাত মনির গ্রেপ্তারের পর এলাকার মানুষ যেন ঈদের আগে ঈদের আনন্দ পেয়েছে।’

আরও পড়ুন:
সাবেক সেনা সদস্যকে হত্যায় আরেক সাবেক সেনা সদস্য গ্রেপ্তার
অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে শ্যালকসহ ভুয়া আইনজীবী গ্রেপ্তার
মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় পলাতক ফাঁসির আসামি গ্রেপ্তার
কিশোরীকে ধর্ষণের মামলায় যুবক গ্রেপ্তার
ইউটিউব থেকে শিখে মোটরসাইকেল চুরির পেশায় ঢাবি শিক্ষার্থী

মন্তব্য

স্বাস্থ্য
6 Chhatra League activists were injured in Barisal

বরিশালে ৬ ছাত্রলীগকর্মীকে কুপিয়ে জখম

বরিশালে ৬ ছাত্রলীগকর্মীকে কুপিয়ে জখম
বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সাহাদাৎ হোসেন বলেন, ‘আহতদের মধ্যে রিশাদ মাহামুদকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

বরিশালে আধিপত‌্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের ৬ কর্মীকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে।

তবে যে ছাত্রদল নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে তিনি জানান, ছাত্রলীগের অভ‌্যন্তরীণ দ্বন্দে কোপাকুপি করেছে কিশোর গ‌্যাং। এই ঘটনায় ধারালো দেশীয় অস্ত্র-দাসহ একজনকে আটকও করেছে পুলিশ।

বরিশাল নগরীর জীবনানন্দ দাশ সড়কের মল্লিকা কিন্ডারগার্টেনের সামনে বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত‌্যক্ষদর্শী ছাত্রলীগ কর্মী সিয়াম জানান, আধিপত‌্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সরকারি বরিশাল কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম টিপুর সঙ্গে ছাত্রলীগ কর্মী সরকারি সৈয়দ হাতেম আলী কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র এইচ এম রিশাদ মাহামুদের সঙ্গে দ্বন্দ ছিল দীর্ঘদিনের। রিশাদের সহচরীদের সরকারি বরিশাল কলেজে ছাত্রলীগের রাজনীতি করতে নিষেধ করছিলে টিপু।

কয়েকদিন আগে হৃদয় নামে এক ছাত্রলীগ-কর্মীকে মারধরও করেছিল টিপু। এসব নিয়ে দ্বন্দে টিপু তার দলবল নিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিশাদ সহ ৬ জনের উপর হামলা করে।

তিনি বলেন, ‘ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রিশাদসহ ইউনিভার্সিটি অব গ্লোবাল ভিলেজের ইংরেজী বিভাগের ছাত্র, ছাত্রলীগ কর্মী আব্দুল্লাহ আল মারুফ, ইমন, সোহান, এভ্রিল ও খালিদও গুরুতর আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।’

বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সাহাদাৎ হোসেন বলেন, ‘আহতদের মধ্যে রিশাদ মাহামুদকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

সরকারি বরিশাল কলেজ ছাত্রদলের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম টিপু বলেন, ‘কিশোর গ‌্যাং আব্বা গ্রুপের সদস‌্য রিশাদ। তার গ্রুপের সঙ্গে ছাত্রলীগেরই অপর একটি গ্রুপ কোপাকুপি হয়েছে বলে শুনেছি। রিশাদের সাথে যাদের কোপাকুপি হয়েছে তারা প্রভাবশালী হওয়ায় রিশাদের অনুসারীরা আমার নাম জড়াচ্ছে এই ঘটনায় শুধু শুধু। আমি কোনো কিছুই জানি না বা সম্পৃক্ত নই এই ঘটনায়।’

এদিকে প্রত‌্যক্ষদর্শী মল্লিক রোডের বাসিন্দা জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘আধিপত‌্য বিস্তার নিয়ে বরিশাল জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি সাজ্জাদ সেরনিয়াবাতের অনুসারী মো: সাদ ও মহানগর ছাত্রলীগের আহ্বায়ক রইজ আহম্মেদ মান্নার অনুসারী এইচ এম রিশাদ গ্রুপের সঙ্গে মারামারি হয় মল্লিকা কিন্ডারগার্টেনের পাশের রাস্তার মুখে বসে। ‘এক পর্যায়ে উভয় গ্রুপ ধারালো অস্ত্র নিয়ে কোপাকুপি করলে সাদ ও রিশাদসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। রিশাদ গ্রুপ সাদের পিঠে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ দিলে সে গুরুতর আহত হয় এবং স্থানীয়রা তাকে বরিশাল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করতে নিয়ে যায় এবং রিশাদ ও তার দলবলও আহত হলে তাদেরও হাসপাতালে নেয়া হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দাসহ একজনকে আটক করেছে।’

বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমানউল্লাহ বারী বলেন, ‘স্থানীয় দ্বন্দ নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে ঝামেলা হয়েছে। আমরা নাজিম মাহমুদ রাফি নামে একজনকে ধারালো দাসহ আটক করেছি। এ ঘটনায় কোনো মামলা বা অভিযোগ হয়নি।’

আরও পড়ুন:
জবি ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ হকারদের
প্রথম আলো সম্পাদককে গ্রেপ্তারের দাবিতে শাহবাগে অবরোধ ছাত্রলীগের
শজিমেক ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৮
‘প্রলয় গ্যাং’ ছাত্রলীগের সহযোগী সন্ত্রাসী সংগঠন: ছাত্রদল
কোমরে পিস্তল নিয়ে ফেসবুকে ছাত্রলীগ নেতা

মন্তব্য

স্বাস্থ্য
There is no shortage of food in the country Education Minister

দেশে খাদ্যের অভাব নেই: শিক্ষামন্ত্রী

দেশে খাদ্যের অভাব নেই: শিক্ষামন্ত্রী চাঁদপুর সদর উপজেলা অডিটোরিয়ামে বক্তব্য দিচ্ছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। ছবি: নিউজবাংলা
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বের বহু দেশ যেখানে খাদ্য আমদানিতে হিমশিম খাচ্ছে, সেখানে বাংলাদেশে খাদ্যের অভাব নেই। যুদ্ধাবস্থার কারণে বাংলাদেশে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, কিন্তু এটা সাময়িক; বেশি দিন থাকবে না।’

বাংলাদেশে খাদ্যের অভাব নেই বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

চাঁদপুর সদর উপজেলা অডিটোরিয়ামে শুক্রবার সকালে অবাঙালি বিভিন্ন জনগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষাবৃত্তি বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বের বহু দেশ যেখানে খাদ্য আমদানিতে হিমশিম খাচ্ছে, সেখানে বাংলাদেশে খাদ্যের অভাব নেই। যুদ্ধাবস্থার কারণে বাংলাদেশে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, কিন্তু এটা সাময়িক; বেশি দিন থাকবে না।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা পিছনে ফিরে যেতে চাই না। মানুষ এখন আর একই দিন ৫০০ জায়গায় বোমা-গ্রেনেড দেখতে চায় না, মানুষ এখন একই দিনে ৫০০ জায়গায় ব্রিজ আর সড়ক উদ্বোধন হচ্ছে, তা দেখতে চায়।

‘আজকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সারা দেশে দারিদ্র্যসীমা ১৪ ভাগে নেমে এসেছে। হতদরিদ্র নেমে এসেছে ৭ ভাগে। পৃথিবীর কোথাও এত দ্রুত দারিদ্র্য কমে না।’

ওই সময় উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইয়াসির আরাফাত, ভাইস চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী বেপারী, চাঁদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি এএইচএম আহসান উল্লাহ।

আরও পড়ুন:
নতুন পাঠক্রমের ওপর জঙ্গি হামলা হয়েছে: শিক্ষামন্ত্রী
শ্রেণিকক্ষে ৫ দিনই হবে পাঠদান: শিক্ষামন্ত্রী
এইচএসসিতে পাস করা শিক্ষার্থীর চেয়ে উচ্চশিক্ষায় আসন বেশি: শিক্ষামন্ত্রী
ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির দুটি বই প্রত্যাহার
শিক্ষাক্রম নিয়ে উদ্দেশ্যমূলক মিথ্যাচার হচ্ছে: শিক্ষামন্ত্রী

মন্তব্য

স্বাস্থ্য
2 were killed after being hit by a motorcycle while giving a microbus trial

মাইক্রোবাস ট্রায়াল দিতে গিয়ে মোটরসাইকেলে ধাক্কা, নিহত ২

মাইক্রোবাস ট্রায়াল দিতে গিয়ে মোটরসাইকেলে ধাক্কা, নিহত ২ প্রতীকী ছবি
দশমাইল হাইওয়ে থানার ওসি ননী গোপাল বর্মন জানান, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পরিবারের আবেদনে মরদেহ দুটি ময়নাতদন্ত ছাড়াই স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

দিনাজপুরে মাইক্রোবাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেলের দুই আরোহী মারা গেছে।

চিরিরবন্দর উপজেলায় মাইক্রোবাসটি মেরামত শেষে ট্রায়াল দিতে গিয়ে মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

দিনাজপুর-রংপুর মহাসড়কের চিরিরবন্দর উপজেলার চম্পাতলী বেকিপুল এলাকায় বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন চিরিরবন্দর উপজেলার কিসমত ফতেজংপুর ডাঙ্গারহাট গ্রামের গোলজার আলী ও জেলার খানসামা উপজেলার চরকডাঙ্গা দুবলিয়া গ্রামের ফজলে রাব্বী দুলাল।

স্থানীয়রা জানায়, মাইক্রোবাসটি মেরামত করে ট্রায়াল দেয়ার জন্য রানীরবন্দরে আসছিলেন। এ সময় মাইক্রোবাসের সামনে থাকা মোটরসাইকেল ধাক্কা দেয়। ধাক্কায় মোটরসাইকেল ও মাইক্রোবাসটি খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে দুই মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়।

দশমাইল হাইওয়ে থানার ওসি ননী গোপাল বর্মন জানান, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পরিবারের আবেদনে মরদেহ দুটি ময়নাতদন্ত ছাড়াই স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মাইক্রোবাস ও মোটরসাইকেল হাইওয়ে থানা হেফাজতে রয়েছে। এ বিষয়ে হাইওয়ে থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:
যাত্রাবাড়ীতে ‘বাড়িওয়ালার কিল-ঘুষিতে’ মারা গেলেন যুবক
শাহজাদপুরে অটোরিকশাকে চাপা ট্যাংকলরির, নিহত ২
কালীগঞ্জে পিকআপের ধাক্কায় দম্পতি নিহত
বাসের ধাক্কায় পিকআপ চালক নিহত, ৩ সন্তানকে নিয়ে দিশেহারা স্ত্রী
দেয়াল ধসে মাদ্রাসার নৈশপ্রহরী নিহত

মন্তব্য

স্বাস্থ্য
Attempt to kill the teenage bride by throwing her from the roof

ছাদ থেকে ফেলে কিশোরী বধূকে হত্যাচেষ্টা

ছাদ থেকে ফেলে কিশোরী বধূকে হত্যাচেষ্টা
ব‌রিশাল মে‌ট্রোপ‌লিটন পু‌লি‌শের কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমানুল্লাহ আল বারী বলেন, ‘মেয়েটি সুস্থ না হলে কি ঘটনা ঘটেছিল বলতে পারব না। পরিবারের পক্ষ থেকে পরিষ্কার কিছু জানাতে পারছে না। মেয়েটিকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিলো, সেটা নিশ্চিত বলা যায়।’

বরিশালে বিয়ের সাত মাসের মাথায় যৌতুকের দাবিতে কিশোরী বধূকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে।

নগরীর রুপাতলী হাউজিং এলাকার ২২ নম্বর সড়কের সারা-জারা ভবনের সামনে বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা।

১৪ বছর বয়সী কিশোরী বধূ জান্নাতুল ফেরদৌসি নগরীর রুপাতলী শের ই বাংলা সড়কের দিনমজুর রিপন হাওলাদারের মেয়ে।

কিশোরীর মা নূপুর বেগম জানান, তার কন্যা রুপাতলী এলাকার এ ওয়াহেদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী ছিল। সাত মাস আগে রুপাতলী ভাসানী সড়কের বাসিন্দা অটোচালক রাকিব হোসেনের সঙ্গে পালিয়ে বিয়ে করে। মেয়ে নিখোঁজের পর থানায় জিডিও করেন তিনি।

পরে ছেলের বাবা বিয়ের বিষয়টি জানিয়ে মীমাংসা করেন। এরপর থেকে মেয়ে ভাসানী সড়কের স্বামীর বাসায় থাকত। দুই মাস আগে মেয়েকে বাসায় দিয়ে যায় জামাই রাকিব। তখন দুই লাখ টাকার ফার্নিচার দিয়ে মেয়েকে পাঠিয়ে দেবেন। আমাদের সামর্থ্যে না থাকায় মেয়েকে না পাঠানোর সিদ্বান্ত নিই। তবে কয়েকদিন আগে আবারও মেয়ে জামাইর সঙ্গে পালিয়ে যায়। এরপর আর খোঁজ নেননি।

নূপুর বেগম বলেন, ‘রাত ১০টার দিকে এক লোক তাকে হাসপাতালে আসতে বলে। তারা আসার পর মেয়ে শুধু এটুকুই বলেছে, তার স্বামী ছাদ থেকে ফেলে দিয়েছে। আর কিছু তিনি জানেন না।’

রিপন হাওলাদার বলেন, যৌতুকের দাবিতে জামাই, শ্বাশুড়ি ও ননদ খুব মারধর করত। কীভাবে ও কয়তলা থেকে ফেলেছে, সেই কথা মেয়ে কিছুই বলতে পারে নাই। ঘটনাস্থল রুপাতলী হাউজিংয়ের ২২ নম্বর সড়কের সারা-জারা ভবনে গিয়েও সঠিক কোন তথ্য পাওয়া যায়নি।

কিশোরী বধূকে উদ্ধার করা ওই ভবনের প্রতিবেশি মো. নিজাম বলেন, ‘আমি বাই‌রে বের হওয়ার পর হঠাৎ করে উপর থেকে কিছু পড়ার শব্দ শুনতে পাই। পরে দেখি ভবনের সামনে রাস্তার ওপর কিছু পড়ে আছে। নারীর চিৎকার শুনে কাছে গিয়ে অজ্ঞান অবস্থায় অউ কিশোরীকে দেখতে পেয়ে ট্রিপল নাইনে কল করে এ্যাম্বুলেন্স এনে হাসপাতালে পাঠিয়ে দেই।

পাঁচতলা সারা-জারা ভবনের মালিক স্বপন সরদারের ছেলে মেহেদি বলেন, কীভাবে এখানে আসলো বা কয়তলা ছাদ থেকে ফেলা হয়েছে তা কিছুই বলতে পারি না।

এ সময় ঘটনাস্থলে আসা কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই জোবায়ের বলেন, ‘ঘটনা কী ঘটেছে তা জানার জন্য এসেছি। প্রকৃত ঘটনা এখনো জানতে পারিনি।’

বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সাহাদাৎ হোসেন বলেন, ‘উপর থেকে পরে যাওয়ায় দুই পা ভেঙ্গে হাড় বের হয়ে গিয়েছে। এ ছাড়াও মাথায় আঘাত পেয়েছে। পা ভেঙ্গে যাওয়ায় তাকে হাসপাতালের মহিলা অর্থপেডিক্স ওয়ার্ডে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। তার অবস্থা আশংকাজনক।’

মহিলা অর্থপেডিক্স ওয়ার্ডের সেবিকা তমালিকা হালদার বলেন, ‘অজ্ঞান অবস্থায় নিয়ে আসা হয়। এখানে আনার পর জ্ঞান ফিরেছিল। তখন সে জানিয়েছে, স্বামী ছাদ থেকে ফেলে দিয়েছে। এর বেশি সে কিছু বলতে পারেনি।’

ব‌রিশাল মে‌ট্রোপ‌লিটন পু‌লি‌শের কোতোয়ালি মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমানুল্লাহ আল বারী বলেন, ‘মেয়েটি সুস্থ না হলে কি ঘটনা ঘটেছিল বলতে পারব না। পরিবারের পক্ষ থেকে পরিষ্কার কিছু জানাতে পারছে না। মেয়েটিকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিলো, সেটা নিশ্চিত বলা যায়।’

আরও পড়ুন:
মামুন হত্যায় আনসার জড়িত থাকলে ব্যবস্থা: তেজগাঁও ডিসি
শিশু হাসপাতালে দলবদ্ধ পিটুনিতে যুবক নিহত
গণহত্যা দিবস: রাত সাড়ে ১০টায় দেশজুড়ে ব্ল্যাকআউট
শর্তের ৫ হাজার টাকা চাওয়ায় তরুণীকে গলা কেটে হত্যা
কুষ্টিয়ায় ইউপি মেম্বারকে কুপিয়ে হত্যা

মন্তব্য

স্বাস্থ্য
Wife raped in front of husband

স্বামীর সামনেই স্ত্রীকে ধর্ষণ,আটক

স্বামীর সামনেই স্ত্রীকে ধর্ষণ,আটক প্রতীকী ছবি
হাতীবান্ধা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহা আলম বলেন, নির্যাতিত গৃহবধূর স্বামীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি।

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় স্বামীর সামনেই এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে তাকে আটক করা হয়।

ভুক্তভোগীর ভাষ্য, তার স্বামীর উপস্থিতিতে জামাল নামে এক ব্যক্তি বুধবার মধ্যরাতে তাকে ধর্ষণ করেন। পরে বৃহস্পতিবার সকালে তাকে অসুস্থ অবস্থায় একটি অটোরিকশায় করে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়।

এ ঘটনাটি পরিবারকে জানালে ভুক্তভোগীর ভাই তাকে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করান।

হাতীবান্ধা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহা আলম বলেন, নির্যাতিত গৃহবধূর স্বামীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন:
শিশু ধর্ষণের অভিযোগে চাচা আটক
নেশাযুক্ত খাবার খাইয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার
খুকৃবির সাবেক ভিসি, বর্তমান রেজিস্ট্রারের নামে ধর্ষণ মামলা নেয়ার নির্দেশ
শেকলে বাঁধা স্বামীকে উদ্ধারে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার স্ত্রী
৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণ মামলায় ৫৫ বছরের ব্যক্তি গ্রেপ্তার

মন্তব্য

p
উপরে