কুমিল্লায় সর্বোচ্চ শনাক্তের দিনে মৃত্যু ৮

কুমিল্লায় সর্বোচ্চ শনাক্তের দিনে মৃত্যু ৮

সিভিল সার্জন জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ১৮৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫৪৩ জন শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ৪৫.৭ শতাংশ। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৮ হাজার ৫৩০ জনে।

কুমিল্লায় গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ দিন জেলায় ৫৪৩ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ে। এ সময়ে মৃত্যু হয়েছে আটজনের।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন সিভিল সার্জন মীর মোবারক হোসাইন।

তিনি জানান, এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৮ হাজার ৫৩০ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ১৮৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫৪৩ জন শনাক্ত হয়। আক্রান্তের হার ৪৫.৭ শতাংশ।

তাদের মধ্যে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন এলাকায় ২০৩ জন, আদর্শ সদরে ২৫, সদর দক্ষিণে ১২, বুড়িচংয়ে ১৮, ব্রাহ্মণপাড়ায় ২০, চান্দিনায় ২২, চৌদ্দগ্রামে ৫৪, দেবিদ্বারে ২৩, দাউদকান্দিতে ২৭, লাকসামে ২৯, লালমাইতে ১৪, নাঙ্গলকোটে ১৪, বরুড়ায় ২৭, মনোহরগঞ্জে ৩, মুরাদনগরে ২০, তিতাসে ৭ ও হোমনায় ২৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

এ ছাড়া নতুন আটজনসহ এখন পর্যন্ত জেলায় মৃত্যু হয়েছে ৫৪৬ জনের।

সিভিল সার্জন বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি জনসচেতনতা বৃদ্ধি করে কীভাবে সংক্রমণ হ্রাস করা যায়, সে লক্ষ্যে প্রতিদিনই কাজ চলছে। পাশাপাশি শতভাগ টিকা নিশ্চিতের চেষ্টা করছি। করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে এখন প্রয়োজন সমন্বিত প্রয়াস।’

কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক রেজাউল করিম বলেন, ‘প্রতিদিনই রোগী বাড়ছে। এখনও সচেতনতা বাড়াতে না পারলে এক সময় রোগীর চাপ সামলানো কষ্টকর হয়ে যাবে।’

আরও পড়ুন:
দুস্থদের এক্স নটরডেমিয়ান ফাউন্ডেশনের সহায়তা
করোনায় মৃত্যু ২০৩, শনাক্ত ১২১৪৮
পেছাল ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা, শুরু ১ অক্টোবর
রেজিস্ট্রেশন করেই টিকাকেন্দ্রে, ভিড়ে সংক্রমণের ঝুঁকি
এবার জনসনের টিকা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কতা

শেয়ার করুন

মন্তব্য