করোনার নমুনা দিতে এসেও জটলা

করোনার নমুনা দিতে এসেও জটলা

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনার নমুনা দিতে এসে জটলা। ছবি: নিউজবাংলা

নমুনা সংগ্রহকারী মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট সুমন বলেন, ‘এখানে প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত নমুনা সংগ্রহ করা হয়। লাইলে দাঁড়িয়ে অনেকে মনে করেন লাইন থেকে সরে গেলেই নতুন কেউ এসে আগে নমুনা দিয়ে দেবে। এজন্যই মূলত জটলা বাঁধে।’

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনার নমুনা দিতে এসে শারীরিক দূরত্ব মানছেন না কেউ। লাইন থাকলেও জটলা করে দাঁড়াচ্ছেন উপসর্গ নিয়ে আসা রোগীরা। এতে নমুনা দেয়ার আগেই করোনায় আক্রান্তদের থেকে অন্যরা ঝুঁকিতে পড়ছেন।

সোমবার বিকেল পৌনে ৬টার দিকে নমুনা সংগ্রহ বুথের সামনে দেখা যায়, নারী-পুরুষ গা ঘেঁষে লাইনে দাঁড়িয়ে আছে। তাদের মধ্যে ন্যূনতম দূরত্বও নেই।

নমুনা সংগ্রহকারী মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট সুমন বলেন, ‘এখানে প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত নমুনা সংগ্রহ করা হয়। লাইলে দাঁড়িয়ে অনেকে মনে করেন লাইন থেকে সরে গেলেই নতুন কেউ এসে আগে নমুনা দিয়ে দেবে। এজন্যই মূলত জটলা বাঁধে।

‘শারীরিক দূরত্ব মানাতে আমরা গলা ফাটিয়ে বললেও কেউ মানে না। ফলে এখান থেকেও আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’

হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ফোকাল পার্সন ডা. মহিউদ্দিন খান মুন বলেন, ‘এমনিতেই করোনা আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। আইসিইউতে বেড ফাঁকা থাকছে না। এমন পরিস্থিতি চলতে থাকলে আগামী দিনে কী হতে পারে তা সবারই অনুমান করা প্রয়োজন। এজন্য নিজ থেকেই সবাইকে সচেতন হওয়া প্রয়োজন।’

দেশজুড়ে চলমান কঠোর লকডাউনেও ময়মনসিংহে করোনা পরিস্থিতির খুব একটা উন্নতি হয়নি।

রোববার সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এই হাসপাতালের করোনা ইউনিটে দ্বিতীয়বারের মতো সর্বোচ্চ ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে গত ৮ জুলাই এ হাসপাতালে ১৭ রোগীর মৃত্যু হয়েছিল।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. নজরুল ইসলাম জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ৮১৬টি নমুনা পরীক্ষায় ২৬৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১০ হাজার ১৪৬ জনের। জেলায় রোগী শনাক্তের হার ৩২ দশমিক ২৩ শতাংশ।

আরও পড়ুন:
শিবচরে ‘অক্সিজেন ব্যাংক’ উদ্বোধন
পাবনায় ২৪ ঘণ্টায় ৩ মৃত্যু
টিকার লাইনে নেই স্বাস্থ্যবিধি
যশোর হাসপাতালে সক্ষমতার দ্বিগুণ করোনা রোগী
দুই টিকা মিলিয়ে দেয়ার ঘোষণা থাইল্যান্ডের

শেয়ার করুন

মন্তব্য