১৩ কেন্দ্রে করোনা পরীক্ষা বন্ধ, অথচ কিট পর্যাপ্ত

১৩ কেন্দ্রে করোনা পরীক্ষা বন্ধ, অথচ কিট পর্যাপ্ত

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র বললেন, ‘র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষার জন্য আমাদের হাতে এখন যথেষ্ঠ কিট রয়েছে। আর আরটিপিসিআর পরীক্ষার করার জন্যও যথেষ্ঠ কিট রয়েছে। দেশে প্রতিটি জায়গায় আমার র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করতে পারছি।’

র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন কিট সংকটের কারণে রাজশাহীর ১৩টি কেন্দ্রে করোনার নমুনা পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে কয়েকদিন। করোনা পরীক্ষা জন্য নমুনা দিতে এসে ফিরেও যাচ্ছেন অনেক মানুষ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর তথ্য বলছে, কিটের কোনো সংকট নেই। কিট সংকটের কারণে দেশে কোথাও পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে এই সংবাদ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে কাছে নেই।

করোনাভাইরাসের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে রোববার স্বাস্থ্য বুলেটিনে অধিদপ্তরের মুখপাত্র নাজমুল ইসলাম এমন তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘দেশে কিট সংকটের কারণে কোনো কেন্দ্রে পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে এমন তথ্য আমাদের কাছে নেই। র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষার জন্য আমাদের হাতে এখন যথেষ্ঠ কিট রয়েছে। আরটি আরটিপিসিআর পরীক্ষার করার জন্যও যথেষ্ঠ কিট রয়েছে। দেশে প্রতিটি জায়গায় আমার র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করতে পারছি।’

দেশে এখন কী পরিমাণ কিট রয়েছে এবং এই কিট দিয়ে কতোদিন পর্যন্ত পরীক্ষা করা যাবে– এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘প্রতিদিন যে পরিমাণ আরটিপিসিআর পরীক্ষা হয়, তার অনেক বেশি সক্ষমতা আমাদের রয়েছে। এখানে একটি সংকট রয়েছে: করোনা আক্রান্ত অনেক মানুষ পরীক্ষা করতে আসে না। এই না আসার পরিমাণ বেশি হচ্ছে গ্রামে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে দিনে ২৫ হাজারের মতো করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর দিনে ৫০ হাজার পর্যন্ত পরীক্ষা করার সক্ষমতা রয়েছে।’

কোভ্যাক্সের আওতায় যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানি মডার্নার তৈরি করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম চালানে ২৫ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন দেশে আসছে। এই টিকা কাদের দেয়া হবে, এমন প্রশ্নের জবাবে নাজমুল ইসলাম বলেন, এই টিকা কীভাবে বিরতণ করা হবে, এ বিষয়ে পরে সিদ্ধান্ত হবে।

আরও পড়ুন:
শাটডাউনে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে জমায়েত
মাদারীপুরে ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ করোনা শনাক্ত ১০৯
খুলনা বিভাগে এত মৃত্যু ‘চিকিৎসায় বিলম্বে’
২৪ ঘণ্টায় কুমিল্লায় করোনা শনাক্ত ১৭৪, মৃত্যু ৩
কুষ্টিয়ায় এখন ভারতের দশা

শেয়ার করুন

মন্তব্য