ঘরোয়া টোটকায় নামান গলার কাঁটা

ঘরোয়া টোটকায় নামান গলার কাঁটা

গলায় বিঁধা কাটা নামাতে অনেকেই সরাসরি গিলে খান সাদা ভাত, মাতের মণ্ড। নরম ছোট কাঁটা হলে অনেক সময় এতেই কাজ হয়। কিন্তু সবসময় আবার হয়ও না। এমন হলে ঘরোয়া কিছু টোটকা কাজে লাগতে পারে।

খাবার হিসেবে বাঙালির অন্যতম পছন্দ মাছ। তাই আমাদের পরিচিতি মাছে-ভাতে বাঙালি হিসেবে।

তবে নতুন প্রজন্মের অনেকেই মাছ খেতে চান না কাঁটার ভয়ে। অনেকের কাছে আবার মাছ প্রিয় হলেও কাঁটার ভয়ে খেতে চান না ইলিশ। অনেকে আবার তৃপ্তি নিয়ে খান মাছ, কাঁটা মাছ পছন্দও করেন।

তৃপ্তিভরে মাছ ভাত খেতে গিয়ে গলায় কাঁটা বিঁধে গেলেই বাধে বিপত্তি।

গলায় বিঁধা কাটা নামাতে অনেকেই সরাসরি গিলে খান সাদা ভাত, মাতের মণ্ড। নরম ছোট কাঁটা হলে অনেক সময় এতেই কাজ হয়। কিন্তু সবসময় আবার হয়ও না। এমন হলে ঘরোয়া কিছু টোটকা কাজে লাগতে পারে। চলুন দেখি কি উপায়…

১. অলিভ অয়েল গলার কাঁটা নামাতে সহায়ক হয়। এ জন্য অল্প কিছু অলিভ অয়েল খেয়ে নিতে পারেন। এই তেল অন্য তেলের তুলনায় পিচ্ছিল, ফলে কাঁটা নামাতে সহায়ক হতে পারে।

২. লেবু-পানিও নামাতে পারে গলার কাঁটা। সে জন্য হালকা গরম পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে খেয়ে নিন। লেবুতে থাকা অ্যাসিডিক ক্ষমতা কাঁটাকে নরম করে দিতে সক্ষম। তাই এই পদ্ধতিতেও নামতে পারে গলার কাঁটা।

৩. ভিনেগারও নামাতে পারে গলার কাঁটা। এ ক্ষেত্রে পানিতে একটু ভিনেগার মিশিয়ে সেটি খেয়ে নিন। এই ভিনেগার-পানি গলার বিঁধে থাকা কাঁটাকে নরম করে দেয়। ফলে সহজেই কাঁটা নেমে যায়।

৪. লবনও কাঁটাকে নরম করে। তাই হালকা গরম পানিতে একটু লবন মিশিয়ে নিয়ে তা অল্প অল্প করে পান করুন। দেখবেন গলার কাঁটা নরম হয়ে একটা সময় পেটে চলে গেছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য