ফাইজারের টিকা: সময় নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য

ফাইজারের টিকা: সময় নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাশার খুরশীদ আলম বলেন, ‘ওরা (কোভ্যাক্স) আমাদের যে ইটিনারি দিয়েছিল ফ্লাইটের, সেই হিসাব অনুযায়ী (রোববার) সন্ধ্যায় রোববার টিকা আসার কথা। কিন্তু এখন আমাকে আবার জানাল যে, ওদেরের হিসেবে গন্ডগোল হয়েছে। সন্ধ্যা নয় কালকে আসবে। কাল কখন আসবে এই টাইমটা আমাকে জানানো হয়নি।’

করোনাভাইরাস প্রতিরোধী ফাইজার ও বায়োএনটেকের টিকার ১ লাখ ৬২০ ডোজের প্রথম চালান কখন দেশে পৌঁছাবে এ বিষয়ে একেক সময় একক তথ্য দিচ্ছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। তারা বলছে, গিনেজ সময়ের ব্যবধান বুঝতে পারেনি কোভ্যাক্স। ফলে সময় নিয়ে বিভ্রাট হচ্ছে।

কোভ্যাক্স থেকে ফাইজারের টিকার চালান দেশে পৌঁছানোর সম্ভাব্য সময়ের ভিন্ন ভিন্ন তথ্য আসার পর সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাশার খুরশীদ আলম।

তিনি বলেন, ‘ওরা (কোভ্যাক্স) আমাদের যে ইটিনারি দিয়েছিল ফ্লাইটের, সেই হিসাব অনুযায়ী (রোববার) সন্ধ্যায় রোববার টিকা আসার কথা। কিন্তু এখন আমাকে আবার জানাল যে, ওদেরের হিসেবে গন্ডগোল হয়েছে। সন্ধ্যা নয় কালকে আসবে। কাল কখন আসবে এই টাইমটা আমাকে জানানো হয়নি।

‘ওদের হিসেবে গন্ডগোল হওয়ার কারণে এই টাইমের কথা বলেছিল। গিনেস ঢাইমের গন্ডগোলের জন্য ওরা হিসেবটা বুঝতে পারেনি। তারা আগে যে তথ্য আমাদের দিয়েছিল সেই হিসেবে আমার কথা বলেছিলাম।’

অধিদপ্তরের ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির সদস্যসচিব ডা. শামসুল হক রোববার সকালে নিউজবাংলাকে বলেন, ‘কোভ্যাক্সের পক্ষ থেকে ফাইজারের ১ লাখ ৬২০ ডোজ টিকা রাত ১১টা ২০ মিনিটে কাতার এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে দেশে পৌঁছাবে।’

এরপর দুপুরে দেশের করোনাভাইরাসের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বুলেটিনে অধিদপ্তর মুখপাত্র রোবেন আমিন জানান, ফ্লাইট জটিলতার কারণে পূর্ব নির্ধারিত সময়ে ফাইজারের টিকা দেশে পৌঁছাচ্ছে না। টিকা আসতে আরও ১০ থেকে ১২ দিন সময় লেগে যেতে পারে।

তার কিছুক্ষণ পরই রোবেদ আমিন জানান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বুলেটিনে যে তথ্য জানানো হয়েছিল, তা ভুল। ভুল স্বীকার করে অধিদপ্তরের মুখপাত্র রোবেন আমিন জানিয়েছেন, রোববার রাতেই আসছে টিকা।

এরপর বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ফাইজারের টিকা রোববার আসছে না বলে জানানো হয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সিনিয়র কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম এক ক্ষুদে বার্তায় জানান, রোবাবার টিকা আসবে না ৩১ মে, সোমবার রাত ১১টা ২০ মিনিটে টিকা পৌঁছাবে।

এতে আরও বলা হয়, ফাইজারের টিকা রোববার রাতে দেশে আসার কথা ছিল। তবে এই টিকা ১০ দিন পরে আসবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বরাতে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে যে সংবাদ প্রচার হচ্ছে তা সঠিক নয়।

ফাইজারের টিকা দেশে পৌঁছানোর একাধিক সম্ভাব্য সময় জানানোয় গণমাধ্যম কর্মীদের মাঝে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। গণমাধ্যম কর্মী মাহবুব পারভেজ বলেন, ‘একবার আসবে। আরেকবার আসবে না। নিউজ আপডেট আর কতবার করতে হয়। এমন বিভ্রান্তিকর তথ্য না দেয়া ভালো।’

আরেক গণমাধ্যম কর্মী সেবিকা বলেন, ‘তথ্য সঠিক নয় মানে কী? স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত লোকজনই তো আমাদের এ তথ্য জানিয়েছেন।’

ন্যায্যতার ভিত্তিতে বিশ্বের সব দেশে করোনার টিকা নিশ্চিতের প্ল্যাটফর্ম কোভ্যাক্সের মাধ্যমে ফাইজারের টিকা দেয়া হচ্ছে বাংলাদেশকে।

কোভ্যাক্স প্ল্যাটফর্মটি গড়ে তোলা হয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ভ্যাকসিনস অ্যান্ড ইমিউনাইজেশনস (গ্যাভি) এবং কোয়ালিশন ফর এপিডেমিক প্রিপেয়ার্ডনেস ইনোভেশনসের (সিইপিআই) উদ্যোগে।

এই জোটের মাধ্যমে প্রতিটি দেশের মোট জনসংখ্যার ২০ শতাংশের জন্য বিনা মূল্যে টিকার ব্যবস্থা করার কথা। কোভ্যাক্স থেকে প্রথম পর্যায়ে ১ কোটি ২৭ লাখ ডোজ টিকা পাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের। কিন্তু বিশ্বজুড়ে টিকার সংকট দেখা দেয়ায় তা সম্ভব হচ্ছে না।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, ফাইজারের ডোজগুলো সংরক্ষণ করতে মাইনাস ৬০ ডিগ্রি থেকে মাইনাস ৯০ ডিগ্রি তাপমাত্রার রেফ্রিজারেটর দরকার। ২ থেকে ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় রাখা যাবে পাঁচ দিন। আর রেফ্রিজারেটরের বাইরে ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় রাখা যাবে দুই ঘণ্টা।

উৎপাদক প্রতিষ্ঠান দাবি করছে, কার্যকারিতার দিক থেকে ফাইজারের টিকা করোনা প্রতিরোধে ৯৫ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর। তবে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা কোভিশিল্ড, সিনোফার্মের টিকা বিবিআইবিপি-করভি, রাশিয়ার স্পুৎনিক-ভির মতোই ফাইজারের টিকাও নিতে হয় দুই ডোজ করে।

আরও পড়ুন:
বিদেশগামী কর্মীদের করোনার টিকায় অগ্রাধিকার দেবে সরকার
রাশিয়া থেকে টিকা কেনার সিদ্ধান্ত এ সপ্তাহেই
ফাইজারের টিকা নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভুল
ফ্লাইট না পাওয়ায় আসছে না ফাইজারের টিকা
ফাইজারের টিকা আসছে রাতে

শেয়ার করুন

মন্তব্য