20201002104319.jpg
‘২৮ দিন পর্যন্ত সক্রিয় থাকতে পারে’ করোনাভাইরাস

‘২৮ দিন পর্যন্ত সক্রিয় থাকতে পারে’ করোনাভাইরাস

বস্তুর উপরিতলে ধারণার চেয়েও বেশি সময় ধরে থাকতে পারে ভাইরাসটি।

ব্যাংক নোট, মোবাইল ফোনের স্ক্রিন বা স্টেইনলেস স্টিলের মতো মসৃণ পৃষ্ঠে করোনাভাইরাস ২৮ দিন পর্যন্ত সংক্রামক থাকতে পারে বলে নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে।

অস্ট্রেলিয়ার ন্যাশনাল সায়েন্স এজেন্সির (সিএসআইআরও) গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয় ‘ভাইরোলজি জার্নাল’ নামের সাময়িকীতে।

এতে বলা হয়, করোনাভাইরাস বেশ শক্তিশালী। বস্তুর উপরিতলে ধারণার চেয়েও বেশি সময় ধরে থাকতে পারে ভাইরাসটি।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, কক্ষের স্বাভাবিক তাপমাত্রা (২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস) ও অন্ধকারে ব্যাংক নোট, মোবাইল ফোন ও স্টেইনলেস স্টিলে ভাইরাসটি অবস্থান করতে পারে।

তবে বস্তুর পৃষ্ঠে করোনাভাইরাস থাকলে তা আসলেই সংক্রমণে ভূমিকা রাখে কি না, এ নিয়ে বিশেষজ্ঞদের সংশয় আছে।

হাঁচি-কাশি বা কথা বলার সময় করোনা ছড়িয়ে পড়ে—এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা এখন পর্যন্ত নিশ্চিত।

এদিকে বাতাসে থাকা কণার মাধ্যমে ভাইরাসটি ছড়াতে পারে, এমন প্রমাণও পাওয়া গেছে।

ইউএস সেন্টার্স ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের (সিডিসি) তথ্য অনুযায়ী, সংক্রমিত ধাতু বা প্লাস্টিকের উপরিতলের সংস্পর্শে এলে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

করোনাভাইরাস নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে পরীক্ষা চলছে। আগের ফল বলে, ব্যাংক নোট ও কাচে দুই থেকে তিন দিন এবং প্লাস্টিক ও স্টেইনলেস স্টিলে ছয় দিন পর্যন্ত করোনাভাইরাস থাকতে পারে।

এ ছাড়া ভাইরাসটি মেরে ফেলতে সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি কার্যকর, তাও আগের পরীক্ষায় উঠে আসে।

সূত্র: বিবিসি

শেয়ার করুন