বিসিএলে চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিপিএলে স্বাধীনতা সংঘ

বিসিএলে চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিপিএলে স্বাধীনতা সংঘ

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘের উল্লাস। ছবি: বাফুফে

রোববার বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে নিজেদের শেষ ম্যাচে অগ্রণী ব্যাংকের সঙ্গে ড্র করে শিরোপা নিশ্চিত করে দলটি।

শেষ ম্যাচ ড্র করলেই চ্যাম্পিয়ন এমন সমীকরণ সামনে রেখে লক্ষ্য পূরণ করেছে স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘ। বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে (বিসিএল) চ্যাম্পিয়ন হয়েছে দলটি।

রোববার বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে নিজেদের শেষ ম্যাচে অগ্রণী ব্যাংকের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে শিরোপা নিশ্চিত করে দলটি।

এ জয়ে চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ থেকে প্রথমবার ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ লিগ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন করল স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘ।

এবার ২২ ম্যাচে তাদের অর্জন সর্বোচ্চ ৪৫ পয়েন্ট।

ম্যাচ শেষে চ্যাম্পিয়ন দল স্বাধীনতা সংঘকে পুরস্কার তুলে দেয় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। বাফুফে ও পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদী উপস্থিত থেকে চ্যাম্পিয়ন দলের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

এসময় উপস্থিত চিলেন, বাফুফের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য জাকির হোসেন চৌধুরী, মহিদুর রহমান মিরাজ ও সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ।

দিনের শেষ ম্যাচে ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবকে ৮-২ ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছে ফোর্টিজ ফুটবল ক্লাব। ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দুইয়ে থেকে লিগ শেষ করেছে দলটি।

আরও পড়ুন:
জয়ে ফিরল ওয়ারী, টানা দ্বিতীয় জয় অগ্রণীর
জয়রথে ছুঁটছে প্রগতি সংঘ ও জয়ে ফিরল নোফেল
টানা দ্বিতীয় জয় ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ও স্বাধীনতা কেসির
বিএসএলে স্বাধীনতা সংঘের জয়, ফর্টিজের ড্র
বিসিএলের উদ্বোধনের দিনে নোফেলকে হারাল উত্তরা

শেয়ার করুন

মন্তব্য

বার্সেলোনা ছেড়ে মেসি যাচ্ছেন কোথায়

বার্সেলোনা ছেড়ে মেসি যাচ্ছেন কোথায়

নিজের জয় করা ৬টি ব্যালন ডর ট্রফির সঙ্গে লিওনেল মেসি। ফাইল ছবি

মেসির বয়স ৩৪ হলেও বিশ্বের অন্যতম সেরা 'স্পোর্টস কমোডিটি' বা পণ্য তিনি। যে কোনো ক্লাব তাকে নিশ্চিন্তে ৩-৪ বছরের জন্য ব্ল্যাংক চেক দিতে রাজি। তবে হিসেবে আছে ৬টি ক্লাব। 

ফুটবল বিশ্বকে হতবাক করার মতো খবর আসলো অবশেষে - বার্সেলোনা ছাড়ছেন লিওনেল মেসি। ক্লাবের আর্থিক দুরাবস্থার সঙ্গে লা লিগার নিয়মের প্যাঁচের কারণে চুক্তি নবায়ন সম্ভব হয়নি এই আর্জেন্টাইন মহাতারকার। বার্সা-মেসির সম্পর্ক ভাঙল ১৭ বছর পর।।

পরের মৌসুমে কাতালানদের হয়ে খেলা হচ্ছে না মেসির। বার্সা সমর্থকদের দুঃখভরা আকাশে মেসি ভক্তদের একটাই প্রশ্ন, তাহলে কোথায় ভিড়ছে মেসির নৌকা?

মেসির বয়স ৩৪ হলেও বিশ্বের অন্যতম সেরা 'স্পোর্টস কমোডিটি' বা পণ্য তিনি। যে কোনো ক্লাব তাকে নিশ্চিন্তে ৩-৪ বছরের জন্য ব্ল্যাংক চেক দিতে রাজি। তবে হিসেবে আছে ৬টি ক্লাব।

প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)

ছয়বারের ব্যালন ডর জেতা ফুটবলারকে বেতন দিয়ে পুষতে পারবে এমন ক্লাব হাতে গোনা ৫-৬টি আছে ইউরোপে। সেই তালিকায় উপরের দিকে থাকবে ফ্রান্সের দল প্যারিস সেন্ট জার্মেই।

মেসিকে প্রস্তাব দিতে পারে পিএসজি। গত ৩০ জুন ফ্রি-এজেন্ট হওয়ার পর থেকে আর্জেন্টাইন অধিনায়ককে দলে নিতে যারপরনাই চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে ফ্রেঞ্চ ক্লাবটি।

বার্সা ছাড়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণায় মেসিকে দলে নেওয়ার দৌঁড়ে এগিয়ে থাকার কথা তাদেরই। ভক্তরা এরই মধ্যে টুইটারে হ্যাশট্যাগ ট্রেন্ড শুরু করেছেন #MessiAuParis (প্যারিসে মেসি) দিয়ে।

নেইমার-ডি মারিয়া-এমবাপেদের মতো তারকায় ভরপুর দলটি ইতোমধ্যে সার্হিও রামোস, জর্জিনিয়ো ওয়াইনালডাম, জানলুইজি ডোনারুম্মার মতো বিশ্বসেরা ফুটবলারদের দলে ভিড়িয়েছে।

দলের অধরা ইউয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার স্বপ্নটা পূরণ করতে মেসিকে আনার চেষ্টায় কমতি রাখবে না মরিসিও পচেত্তিনোর দল।

ম্যানচেস্টার সিটি

পিএসজির পরে ফেভারিট ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি। মেসির গুরু পেপ গার্দিওলা শুরু থেকেই শিষ্যকে নেয়ার ব্যাপারে উৎসাহী। মেসি-পেপ বিস্ফোরণে বার্সেলোনায় ১৪টি শিরোপার উল্লাস দেখেছে বিশ্ব।

আবারও সেই জুটি দেখা যেতে পারে। মেসির বার্সা ছাড়ার দিনই অ্যাস্টন ভিলা থেকে ১০০ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে জ্যাক গ্রিলিশকে দলে ভিড়িয়েছেন পেপ। পিএসজির মতো ইউয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার স্বপ্নটা পূরণ করতে মেসিকে দলে আনার চেষ্টা করবে সিটি।

তবে গ্রিলিশকে ১০ নম্বর জার্সি দেওয়ায় মেসি সিটিতে যোগ দিলে গার্দিওলা কিছুটা চিন্তাতেই পড়বেন বটে।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

সিটির নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও চেষ্টা চালাতে পারে মেসিকে নিতে। তাদের সেই আর্থিক শক্তি আছে।

তবে ওলে গানার শোলস্কায়ারের দলের খেলার স্টাইলে পরিবর্তন আনতে হবে মেসিকে আনলে। সঙ্গে সিটির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এই আর্জেন্টাইনকে ঘরে টানতে হবে।

ইউনাইটেডের মাথা ব্যথা এখন ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার নিয়ে। তারপরও মেসিকে পেলে নিঃসন্দেহে দলের শক্তি বাড়বে ক্লাবের। ২০১৩ সাল থেকে লিগের শিরোপা জেতা হয়নি দলটির। সেই আক্ষেপ মেটানোর পরিকল্পনাতেও মেসি থাকবেন।

এই তিন দলের সঙ্গে মেসির সইয়ের দৌঁড়ে আছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল চেলসি, ইতালিয়ান সেরি আর দল ইউভেন্তাস ও ইন্টার মিলান।

২০০৪ সালে বার্সার মূল দলে সুযোগ পান মেসি। এরপর প্রায় ১৭ বছর এক ক্লাবেই ছিলেন মেসি। প্রায় দেড় যুগে বার্সার জার্সিতে ৭৭৮ ম্যাচে ৬৭২ গোল করেছেন। সাফল্যে মোড়ানো ক্লাব ক্যারিয়ারে মেসি জেতেন ৪টি ইউয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ১০টি লিগ শিরোপাসহ ৩৫টি শিরোপা।

আরও পড়ুন:
জয়ে ফিরল ওয়ারী, টানা দ্বিতীয় জয় অগ্রণীর
জয়রথে ছুঁটছে প্রগতি সংঘ ও জয়ে ফিরল নোফেল
টানা দ্বিতীয় জয় ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ও স্বাধীনতা কেসির
বিএসএলে স্বাধীনতা সংঘের জয়, ফর্টিজের ড্র
বিসিএলের উদ্বোধনের দিনে নোফেলকে হারাল উত্তরা

শেয়ার করুন

মেসিকে যে কারণে রাখতে পারল না বার্সেলোনা

মেসিকে যে কারণে রাখতে পারল না বার্সেলোনা

লিওনেল মেসি। ফাইল ছবি

লা লিগার নতুন ‘ফাইন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লে’ নিয়ম অনুযায়ী মেসিকে দলে নিতে হলে ৫০০ থেকে ৬০০ মিলিয়ন ইউরোর যে ঋণ আছে তা ব্যালান্স করতে হবে ক্লাবকে। সেজন্য খেলোয়াড়দের বেতন ক্লাবের আয়ের প্রায় ৭০ শতাংশের নিচে নামাতে হবে। যা প্রায় অসম্ভব।

ক্রীড়া বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় এখন লিওনেল মেসির বার্সেলোনা ছাড়ার খবর। আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়ে দিয়েছে বার্সা। কিন্তু কয়েক ঘণ্টা আগেও মেসির সঙ্গে চুক্তি নবায়ন প্রায় নিশ্চিত ছিল কাতালান জায়ান্টদের।

শেষ মুহূর্তে কী এমন ঘটে গেল যে মেসির সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করতে ব্যর্থ হলো বার্সেলোনা? ইতি ঘটল মেসি-বার্সার ১৭ বছরের সম্পর্কের?

সেজন্য ফিরে যেতে হবে খানিকটা আগে। ২০২০ সালে তৎকালীন বার্সেলোনা সভাপতি হোসেপ মারিয়া বার্তোমেউয়ের সময়ে।

২০১৯-২০ মৌসুম শেষে ক্লাব ছাড়ছেন এমন বার্তা দিয়ে বার্সা বরাবর ফ্যাক্স পাঠান মেসি। হতবাক হয়ে পড়ে বিশ্ব!

আদালতের ভয় দেখিয়ে মেসিকে ক্লাবে রাখেন বার্তোমেউ। কিন্তু ক্ষতি যা হওয়ার হয়ে গেছে।

উসমান ডেম্বেলে, ফিলিপে কোতিনিয়ো, মিরালেম পিয়ানিচের মতো একের পর এক খরুচে ও বেশি পারিশ্রমিকে ফ্লপ তারকার আমদানী বার্সেলোনাকে আর্থিকভাবে পঙ্গু করে দেয়।

ক্লাবের কাঁধে ঋণের বোঝা চাপানো বার্তোমেউয়ের স্ক্যানডালে হতবাক তখন পুরো বিশ্ব। ক্ষমতাচ্যুত হন বার্তোমেউ। দ্বিতীয়বার ক্লাবের হাল ধরলেন ভরসার মুখ হোয়ান লাপোর্তা।

ততদিনে ক্লাবের আর্থিক অবস্থার ১২টা বাজিয়ে সরে গেছেন বার্তেমেউ। ঋণে জর্জরিত ক্লাব। পরের মৌসুমে দলকে সাজাতে হিমশিম খায় নতুন ম্যানেজমেন্ট।

এর মধ্যে গত ৩০ জুন ফ্রি এজেন্টে পরিণত হন মেসি। তার পর থেকেই আলোচনা- মেসির সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করতে পারবে তো ঋণের পাহাড়ে চাপা পড়া বার্সা?

আশ্বস্ত করলেন মেসি। অন্য কোনো ক্লাবে যোগ না দিয়ে কাতালানদের সঙ্গে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন মেসি। প্রয়োজনে অর্ধেক বেতনে ক্লাবে খেলার ব্যাপারে তার রাজি হওয়ার খবর তখন বার্সা সমর্থকদের শান্ত করে।

আর্থিক সংকট দূর করতে যুক্তরাষ্ট্রের একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ১০ কোটি ইউরোর একটি তহবিল জোগাড় করেন লাপোর্তা।

চুক্তি শেষে ফ্রি-এজেন্ট হওয়ার পর গত এক মাসে নতুন সমস্যা সামনে আসে। লা লিগার নতুন ‘ফাইন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লে’ নিয়ম। মেসিকে দলে নিতে হলে ৫০০ থেকে ৬০০ মিলিয়ন ইউরোর যে ঋণ আছে তা ব্যালান্স করতে হবে ক্লাবকে। সেজন্য খেলোয়াড়দের বেতন ক্লাবের আয়ের প্রায় ৭০ শতাংশের নিচে নামাতে হবে। যা প্রায় অসম্ভব।

এই অসম্ভবকে সম্ভব করা সম্ভব হয়নি ক্লাবের।

ফলে মেসিকে নিয়ে ইদুর দৌঁড় চলেছে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত। বৃহস্পতিবার খবর এলো, চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। এখন শুধু আনুষ্ঠানিকতার ঘোষণা মাত্র। সবাইকে হতবাক করে ক্লাবের ঘোষণা, মেসি বার্সা ছাড়ছেন।

বার্সেলোনার ওয়েবসাইটে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘মেসি দলে থেকে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করার পর ও নতুন চুক্তি সই নিয়ে দুই পক্ষ নিশ্চিত হওয়ার পরও লা লিগার প্লেয়ার্স রেজিস্ট্রেশন আইনের কারণে সেটা সম্ভব হচ্ছে না। এমন অবস্থায় মেসি ক্লাবের সঙ্গে আর থাকছে না। দুই পক্ষই অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছে যে, মেসির ক্লাবে খেলার ইচ্ছা পূরণ করা সম্ভব হচ্ছে না।’

ফলে ১৭ বছর পর বার্সা ছাড়তে হচ্ছে ক্লাবের সবচেয়ে আইকনিক খেলোয়াড়কে।

অন্য খবরও রটছে ফুটবল বিশ্বে। লা লিগা কর্তৃপক্ষকে চাপে রাখতে বার্সেলোনা মেসিকে নিয়ে এমন ঘোষণা দিয়েছে এমনটাও অনুমান করছেন অনেকে। এটা খুব যৌক্তিক নয় এ কারণে যে মেসি স্পেন ছাড়লে আয় নিয়ে বড় একটা সংকটে পড়তে যাচ্ছে লা লিগা তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

গুঞ্জন পাশে রাখলে বার্সার সঙ্গে মেসির সম্পর্ক ভেঙেছে এটাই জরুরি খবর।

২০০৪ সালে বার্সার মূল দলে সুযোগ পান মেসি। এরপর প্রায় ১৭ বছর এক ক্লাবেই আছেন মেসি। প্রায় দেড় যুগে বার্সার জার্সিতে ৭৭৮ ম্যাচে ৬৭২ গোল করেছেন। সাফল্যে মোড়ানো ক্লাব ক্যারিয়ারে মেসি জেতেন ৪টি ইউয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ১০টি লিগ শিরোপাসহ ৩৫টি শিরোপা।

আরও পড়ুন:
জয়ে ফিরল ওয়ারী, টানা দ্বিতীয় জয় অগ্রণীর
জয়রথে ছুঁটছে প্রগতি সংঘ ও জয়ে ফিরল নোফেল
টানা দ্বিতীয় জয় ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ও স্বাধীনতা কেসির
বিএসএলে স্বাধীনতা সংঘের জয়, ফর্টিজের ড্র
বিসিএলের উদ্বোধনের দিনে নোফেলকে হারাল উত্তরা

শেয়ার করুন

বার্সেলোনায় থাকা হচ্ছে না মেসির

বার্সেলোনায় থাকা হচ্ছে না মেসির

আগামী মৌসুম থেকে বার্সার জার্সিতে আর দেখা যাবে না মেসিকে। ফাইল ছবি

লিওনেল মেসিকে নতুন মৌসুমের জন্য চুক্তি করাতে পারছে না স্প্যানিশ ক্লাবটি। ক্লাবের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে নিশ্চিত করা হয়েছে মেসির চলে যাওয়ার খবরটি।

শেষ মুহূর্তে বড় ধাক্কা খেয়েছে এফসি বার্সেলোনা। লিওনেল মেসিকে নতুন মৌসুমের জন্য চুক্তি করাতে পারছে না স্প্যানিশ ক্লাবটি। তাদের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে নিশ্চিত করা হয়েছে মেসির চলে যাওয়ার খবরটি।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম যখন মেসিকে বার্সেলোনায় আরও ৫ বছর দেখছে, তখনই বিস্ফোরক সংবাদ দিলো বার্সেলোনা। মেসির সঙ্গে চুক্তি করতে পারেনি স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

আনুষ্ঠানিকভাবে বিষয়টি বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে জানিয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা।

পরের মৌসুমে বার্সেলোনার সঙ্গে খেলা হচ্ছে না আর্জেন্টাইন জাদুকরের।

বার্সেলোনার ওয়েবসাইটে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘মেসি দলে থেকে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করার পর ও নতুন চুক্তি সই নিয়ে দুই পক্ষ নিশ্চিত হওয়ার পরও লা লিগার প্লেয়ার্স রেজিস্ট্রেশন আইনের কারণে সেটা সম্ভব হচ্ছে না। এমন অবস্থায় মেসি ক্লাবের সঙ্গে আর থাকছে না। দুই পক্ষই অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছে যে, মেসির ক্লাবে খেলার ইচ্ছা পূরণ করা সম্ভব হচ্ছে না। ’

গত ৩০ জুন মেসির সঙ্গে বার্সেলোনার চুক্তি শেষ হয়। অন্য কোনো ক্লাবে যোগ না দিয়ে কাতালানদের সঙ্গে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন মেসি। কিন্তু বাধ সাধল লা লিগার নতুন ‘ফাইন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লে’ নিয়ম। এর ফলে ১৭ বছর পর বার্সা ছাড়তে হচ্ছে ক্লাবের সবচেয়ে আইকনিক খেলোয়াড়কে।

কয়েক বছর ধরে মাঠে বার্সেলোনার খারাপ পারফর‌ম্যান্স ও মাঠের বাইরে ক্লাবের খারাপ ব্যবস্থাপনার ওপর বিরক্ত হয়ে ২০১৯-২০ মৌসুম শেষে ক্লাব ছাড়ার কথা জানিয়েছিলেন মেসি। তৎকালীন ক্লাব সভাপতি হোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ তাকে আদালতে নেয়ার হুমকি দেয়ায় সে সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন আর্জেন্টাইন সুপারস্টার।

সবশেষ মৌসুমও ভালো যায়নি বার্সেলোনার। কোপা দেল রে ছাড়া কোনো শিরোপা জিততে পারেনি মেসির দল। বরাবরের মতো ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স উজ্জ্বল থাকলেও দলীয় সাফল্যের স্বাদ পাননি মেসি।

নতুন মৌসুমে মেসি চেয়েছিলেন নতুন একটি ক্লাব প্রজেক্ট, যাতে করে ইউরোপে নিজেদের প্রাধান্য ফিরে পাবে বার্সেলোনা। ২০১৫ সালের পর জিতবে ইউয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ। তবে আর্থিক সংকটের কারণে তেমনটা হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ হওয়ায় নাখোশ হন তিনি।

বার্সার নতুন সভাপতি হোয়ান লাপোর্তা মার্চে নির্বাচিত হয়ে সমর্থকদের কথা দেন, যে করেই হোক ক্লাবে রাখবেন মেসিকে। আর্থিক সংকট দূর করতে যুক্তরাষ্ট্রের একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ১০ কোটি ইউরোর একটি তহবিলও জোগাড় করেন তিনি।

সেটা দিয়ে খেলোয়াড়দের বেতনসহ ক্লাবের অন্যান্য বকেয়া শোধ করেছে বার্সেলোনা।তবে বার্সাকে বিশ্বসেরা ক্লাবে পরিণত করার পাশাপাশি মেসিকে পূর্ণ পারিশ্রমিক দিয়ে নতুন চুক্তি প্রস্তাব করার মতো বাজেট ছিল না তাদের কাছে।

গত পাঁচ মৌসুমের চুক্তিতে বেতন-বোনাস মিলিয়ে প্রায় ৫৫ কোটি ইউরো বেতন পেয়েছেন মেসি, প্রতি মৌসুমে যা প্রায় ১০.৫ কোটি ইউরো। এর মধ্যে শুধু বেতন ছিল বছরে প্রায় ৫ কোটি ইউরো।

এবার অর্ধেক বেতনে বার্সায় থাকতে চেয়েছিলেন মেসি। তারপরও ক্লাবের আর্থিক দুরাবস্থা ও লা লিগার শর্তের বেড়াজলে আটকে গেল বার্সার জার্সিতে মেসির খেলা।

২০০০ সালে মাত্র ১৩ বছর বয়সে আর্জেন্টিনার রোসারিও থেকে বার্সেলোনার বিখ্যাত লা মাসিয়া অ্যাকাডেমিতে যোগ দেন মেসি। গ্রোথ হরমোনের সমস্যা নিয়ে জন্ম হওয়া মেসির চিকিৎসার সব খরচ বহনের শর্তে তাকে নিয়ে আসেন বার্সেলোনার তখনকার স্পোর্টিং ডিরেক্টর চার্লি রেক্সাচ।

মেসিকে যেন অন্য ক্লাব টেনে নিতে না পারে, সে জন্য একটি রেস্তোরাঁয় বসে ন্যাপকিনের ওপর সই নিয়ে রাখেন তিনি মেসির। তারপর থেকেই কাতালুনিয়ার বিখ্যাত ক্লাবটির সঙ্গে আছেন মেসি।

বার্সেলোনায় থাকা হচ্ছে না মেসির
১৬ মে লা লিগায় সেলতা ভিগোর বিপক্ষে বার্সেলোনার হয়ে শেষ ম্যাচ খেলে মাঠ ছাড়ছেন মেসি। ছবি: এএফপি

২০০৪ সালে ১৭ বছর বয়সে তার সিনিয়র দলে অভিষেক হয়। তারপর থেকে টানা ১৭ বছর খেলেছেন দলে।

৭৭৮ ম্যাচে মেসি করেছেন ৬৭২ গোল ও ৩০৫ অ্যাসিস্ট। এক ক্লাবের পক্ষে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড তার। জিতেছেন ছয়টি ব্যলন ডর।

চারটি চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ১০টি লিগ শিরোপাসহ ক্লাবের হয়ে ৩৫টি ট্রফি জিতেছেন এ কিংবদন্তি।

লা লিগার গত ১৬ মে সেলতা ভিগোর বিপক্ষে খেলা ম্যাচটিই বার্সেলোনার জার্সিতে খেলা মেসির শেষ ম্যাচ হয়ে রইল।

কোপা আমেরিকা জয় করে নতুন চুক্তি সইয়ের কথা বলেছিলেন মেসি। ফুটবলভক্তরা আশায় বুক বাঁধেন বার্সার হয়ে আবারও মেসির পায়ের ঝলক দেখার। তেমনটা হলো না।

বার্সেলোনা ছেড়ে মেসি কোথায় যাবেন সেটা নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই ঝড় চলবে আগামী দিনগুলোতে। ইংল্যান্ডের চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি ও ফ্রান্সের প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি) লিওনেল মেসিকে নিতে চাইছে দুই বছর ধরে। সুপারস্টারকে যেকোনো পারিশ্রমিকে নিয়ে আসতে রাজি তারা।

আরও পড়ুন:
জয়ে ফিরল ওয়ারী, টানা দ্বিতীয় জয় অগ্রণীর
জয়রথে ছুঁটছে প্রগতি সংঘ ও জয়ে ফিরল নোফেল
টানা দ্বিতীয় জয় ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ও স্বাধীনতা কেসির
বিএসএলে স্বাধীনতা সংঘের জয়, ফর্টিজের ড্র
বিসিএলের উদ্বোধনের দিনে নোফেলকে হারাল উত্তরা

শেয়ার করুন

পুলিশের কাছে আটকে গেল মোহামেডান

পুলিশের কাছে আটকে গেল মোহামেডান

মোহামেডানের জার্সিতে নিজের প্রথম গোল পান জাফর ইকবাল। ছবি: বাফুফে

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার দিনের একমাত্র ম্যাচে বাংলাদেশের পুলিশের সঙ্গে ১-১ ড্র করে হোঁচট খেয়েছে শন লেনের বাহিনী।

প্রিমিয়ার লিগে বিরতি শেষে ফিরেই হোঁচট খেল মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। বাংলাদেশ পুলিশের সঙ্গে ড্র করে পয়েন্ট হারিয়েছে ঐতিহ্যবাহী দলটি।

এ ড্রয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ চার থেকে বেরিয়ে গেল মোহামেডান। চারে উঠে গেল চট্টগ্রাম আবাহনী।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার দিনের একমাত্র ম্যাচে বাংলাদেশের পুলিশের সঙ্গে ১-১ গোলে হোঁচট খেয়েছে শন লেনের বাহিনী।

আর টানা তিন ম্যাচে এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ল পুলিশ।

লিগের প্রথম পর্বে পুলিশকে হারানোর আত্মবিশ্বাস নিয়ে নামে মোহামেডান। ম্যাচের শুরু থেকে আধিপত্য নিয়ে খেলা মোহামেডান ম্যাচের লিড নিয়ে নেয় শুরুতেই।

ম্যাচের বয়স যখন ১৭ মিনিট তখন জাফর ইকবালের গোলে উল্লাসে মাতে সাদা-কালোরা।

প্রায় মাঝমাঠ থেকে মিডফিল্ডার শাহেদ মিয়ার ডিফেন্সের ওপরে দিকে করা লুপ ক্রসে একাই বল পেয়ে যান জাফর। গোলকিপার হাবিবকে বোকা বানিয়ে মোহামেডানের জার্সিতে নিজের প্রথম গোলটা আদায় করতে ভুল করেননি এই স্থানীয় ফুটবলার।

এক গোলের স্বস্তি নিয়ে বিরতি থেকে ফিরে লিড ধরে রাখতে ব্যর্থ হয় মোহামেডান।

ক্রিস্টিয়ান ইয়াওয়ের গোলে ৮৬ মিনিটে মোহামেডানের জয়ের স্বপ্ন ধুলিস্যাৎ করে দেয় পুলিশ।

এ ড্রয়ে ক্ষতিটা হয়েছে মোহামেডানের। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ চার থেকে বেরিয়ে গেল তারা। ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে নেমে গেছে মোহামেডান। আর ১৯ পয়েন্ট নিয়ে আটে অবস্থান করছে পুলিশ।

আরও পড়ুন:
জয়ে ফিরল ওয়ারী, টানা দ্বিতীয় জয় অগ্রণীর
জয়রথে ছুঁটছে প্রগতি সংঘ ও জয়ে ফিরল নোফেল
টানা দ্বিতীয় জয় ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ও স্বাধীনতা কেসির
বিএসএলে স্বাধীনতা সংঘের জয়, ফর্টিজের ড্র
বিসিএলের উদ্বোধনের দিনে নোফেলকে হারাল উত্তরা

শেয়ার করুন

লিগে জয়ে ফিরল কিংস ও শেখ রাসেল

লিগে জয়ে ফিরল কিংস ও শেখ রাসেল

একই ৩-০ ব্যবধানে জয় পেয়েছে কিংস ও শেখ রাসেল ছবি: বাফুফে

এই জয়ে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষস্থান আরও পাকাপোক্ত করেছে অস্কার ব্রুজনের বাহিনী। এক ধাপ করে উপরে উঠে গেছে শেখ রাসেল ও চট্টগ্রাম আবাহনী।

প্রিমিয়ার লিগে চট্টগ্রাম আবাহনীর কাছে হারার পরের ম্যাচেই জয়ে ফিরেছে বসুন্ধরা কিংস। জয়ে ফিরল শেখ রাসেলও। শেখ জামালের কাছে সবশেষ ম্যাচটি হেরেছিল সাইফুল বারী টিটুর শিষ্যরা।

এই জয়ে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষস্থান আরও পাকাপোক্ত করেছে অস্কার ব্রুজনের বাহিনী। এক ধাপ করে উপরে উঠে গেছে শেখ রাসেল ও চট্টগ্রাম আবাহনী।

বুধবার বিকালে একই সময়ে দুটি ভিন্ন ভিন্ন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় ম্যাচ ‍দুটি।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মুক্তিযোদ্ধা এসকেসিকে ৩-০ ব্যবধানে হারায় কিংস। বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে একই ব্যবধানে আরামবাগকে হারায় শেখ রাসেল।

এই বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামেই নিজেদের সবশেষ ম্যাচে শেখ জামালের কাছে ২-১ ব্যবধানে হারে কিংস। এ ম্যাচে তাই জয়ে ফেরা ও শিরোপার আরও একধাপ কাছে আসার লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামে অস্কার ব্রুজনের শিষ্যরা।

আক্ষরিক অর্থে লাতিন আমেরিকান জাদুতে মুক্তিযোদ্ধা বধ করেছে কিংস। ম্যাচের ২০ মিনিটে লিড নেয় তারা। ফাহাদের পাস থেকে ব্রাজিলিয়ান রবসন রবিনিয়োর গোল। প্রথমার্ধে এই গোলের স্বস্তি নিয়ে বিরতি থেকে ফিরে আরও দুটি গোল আদায় করে কিংস।

এবার ম্যাচের ৫৫ মিনিটে আর্জেন্টাইন রাউল বেসেরার গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে কিংস। পরে ম্যাচের ৭৮ মিনিটে রবিনিয়োর পাস থেকে আরেক ব্রাজিলিয়ান জোনাথন ফার্নান্দেজের গোলে ৩-০ ব্যবধান করে ফেলে কিংস। এই ব্যবধানেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে দলটি।

অন্যদিকে আরামবাগকে একই ব্যবধানে হারায় শেখ রাসেল। কিংসের পর এ ম্যাচেও তিন বিদেশির গোল দেখে দেশের ফুটবল।

ম্যাচের ৩৪ মিনিটে উবি মোনেকের গোলে লিড নেয় টিটুর বাহিনী। দ্বিতীয়ার্ধে আরও দুটি গোলে ম্যাচ বগলদাবা করে অল ব্লুস।

ম্যাচের ৮০ মিনিটে ডিফেন্ডার আসররভের গোলে ব্যবধান দ্বিগুণের পর ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে দুশোবেকভের গোলে ৩-০ ব্যবধান নিয়ে জয়ের স্বাদ নিয়ে মাঠ ছাড়ে শেখ রাসেল।

এ জয়ে ১৯ ম্যাচে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ছয়ে উঠে গেল শেখ রাসেল। আর সমান ম্যাচ খেলে ৫২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষস্থান আরও পাকাপোক্ত করল কিংস।

আরও পড়ুন:
জয়ে ফিরল ওয়ারী, টানা দ্বিতীয় জয় অগ্রণীর
জয়রথে ছুঁটছে প্রগতি সংঘ ও জয়ে ফিরল নোফেল
টানা দ্বিতীয় জয় ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ও স্বাধীনতা কেসির
বিএসএলে স্বাধীনতা সংঘের জয়, ফর্টিজের ড্র
বিসিএলের উদ্বোধনের দিনে নোফেলকে হারাল উত্তরা

শেয়ার করুন

তিন মাসে দুইবার মুখোমুখি মেসি-নেইমার

তিন মাসে দুইবার মুখোমুখি মেসি-নেইমার

কোপা আমেরিকার ফাইনালে লিওনেল মেসি ও নেইমার। ছবি: এএফপি

কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা ও পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল আগামী তিন মাসে মুখোমুখি হচ্ছে দুইবার। সেপ্টেম্বর, অক্টোবর ও নভেম্বর মিলিয়ে আর্জেন্টিনাকে মোট ৮টি ম্যাচ খেলতে হবে এই বছর।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের তৃতীয় রাউন্ডের সূচি প্রকাশ করেছে অঞ্চলের ফুটবলের অভিভাবক সংস্থা কনমেবোল।

নতুন সূচিতে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা ও পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল আগামী তিন মাসে মুখোমুখি হচ্ছে দুইবার।

সেপ্টেম্বর, অক্টোবর ও নভেম্বর মিলিয়ে আর্জেন্টিনাকে মোট ৮টি ম্যাচ খেলতে হবে এই বছর।

লিওনেল মেসিদের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের তৃতীয় পর্ব শুরু করতে হচ্ছে ২ সেপ্টেম্বর। ওই দিন ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে তাদের মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা।

পাঁচ দিন পর অর্থাৎ ৭ সেপ্টেম্বর হবে দক্ষিণ আমেরিকার সুপারক্লাসিকো। ব্রাজিলের মাঠে খেলতে নামবে আর্জেন্টিনা।

১০ সেপ্টেম্বর ঘরের মাঠে নামবে লিওনেল স্কালোনির দল। ওইদিন বলিভিয়ার বিপক্ষে খেলবে আলবিসেলেস্তে।

এরপর বাছাইপর্বে প্রায় এক মাসের বিরতি। অক্টোবরেও ৩টি ম্যাচ খেলবে আর্জেন্টিনা।

৭ অক্টোবর আবারও অ্যাওয়ে ম্যাচ। এবারে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের প্রতিপক্ষ প্যারাগুয়ে।

পাঁচ দিন পর ১২ অক্টোবর নিজ মাঠে আর্জেন্টিনা লড়বে সুয়ারেস-কাভানির উরুগুয়ের বিপক্ষে।

আর অক্টোবরের শেষ ম্যাচে নিজ মাঠে কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালিস্ট পেরুর মোকাবিলা করবে আর্জেন্টিনা।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে বছরের শেষ রাউন্ডে নভেম্বর মাসে দুটি ম্যাচ খেলবে কোপা বিজয়ীরা।

১১ নভেম্বর উরুগুয়ের মাঠে যাচ্ছে মেসি-দি মারিয়ারা। আর ১৬ নভেম্বর ব্রাজিলের বিপক্ষে নিজেদের মাঠে ম্যাচ দিয়ে বছরের আন্তর্জাতিক সূচি শেষ করবে আর্জেন্টিনা।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে দুই নম্বরে আছে স্কালোনির দল। ৬ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট।

৬ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে ব্রাজিল। সমান ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছে ইকুয়েডর। আর ৮ পয়েন্ট নিয়ে চারে আছে উরুগুয়ে।

সবশেষ কোয়ালিফাইং অবস্থানে আছে কলম্বিয়া। উরুগুয়ের সমান ৮ পয়েন্ট হলেও গোল ব্যবধানে তারা আছে ৫ নম্বরে।

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে সরাসরি চারটি দল খেলবে বিশ্বকাপে। পঞ্চম দলকে ওশেনিয়া অঞ্চলের চ্যাম্পিয়নের সঙ্গে প্লে-অফ ম্যাচ খেলতে হয়।

আরও পড়ুন:
জয়ে ফিরল ওয়ারী, টানা দ্বিতীয় জয় অগ্রণীর
জয়রথে ছুঁটছে প্রগতি সংঘ ও জয়ে ফিরল নোফেল
টানা দ্বিতীয় জয় ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ও স্বাধীনতা কেসির
বিএসএলে স্বাধীনতা সংঘের জয়, ফর্টিজের ড্র
বিসিএলের উদ্বোধনের দিনে নোফেলকে হারাল উত্তরা

শেয়ার করুন

ব্রাদার্সকে হারিয়ে ছয় ম্যাচ পর জয় পেল রহমতগঞ্জ

ব্রাদার্সকে হারিয়ে ছয় ম্যাচ পর জয় পেল রহমতগঞ্জ

গোলের পর রহমতগঞ্জের উল্লাস। ছবি: বাফুফে

মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ব্রাদার্সকে ২-০ ব্যবধানে হারিয়ে লিগে নিজেদের চতুর্থ জয় তুলে নিয়েছে পুরান ঢাকার জায়ান্টরা। এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলে এক ধাপ উপরে উঠে গেল রহমতগঞ্জ।

প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের টালবাহানা শেষে মাঠে গড়াল দেশের ফুটবল। প্রথম দিনে ব্রাদার্স ইউনিয়নকে হারিয়ে ছয় ম্যাচ পর জয়ের দেখা পেয়েছে রহমতগঞ্জ এমএফসি।

মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ব্রাদার্সকে ২-০ ব্যবধানে হারিয়ে লিগে নিজেদের চতুর্থ জয় তুলে নিয়েছে পুরান ঢাকার জায়ান্টরা।

এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলে এক ধাপ উপরে উঠে গেল সৈয়দ জিলানীর বাহিনী রহমতগঞ্জ।

লিগে এবার অবনমন শঙ্কায় থাকা ব্রাদার্স প্রথমার্ধ পর্যন্ত রুখে দেয় রহমতগঞ্জকে। দ্বিতীয়ার্ধে দুটি গোল করে জয় নিশ্চিত করে দলটি।

ম্যাচের ৪৯ মিনিটে সানোয়ার হোসেনের পাস থেকে কোত দে ভোয়ার ক্রিস্ট রেমির গোলে লিড নেয় রহমতগঞ্জ।

রেফারির শেষ বাঁশি বাজার আগে আরেক গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে জায়ান্ট কিলাররা। এনামুল হোসেনের পাস থেকে জালের দেখা পান নাইজেরিয়ান ফেলিক্স চিডি।

দুই বিদেশির গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রহমতগঞ্জ। আর লিগে ১৪তম হারের স্বাদ পায় ব্রাদার্স।

এ জয়ে বারিধারাকে হটিয়ে নয় নম্বরে উঠে যায় রহমতগঞ্জ। তাদের ঝুলিতে পয়েন্ট জমা হলো ১৮।

আর মাত্র ৬ পয়েন্ট নিয়ে অবনমন শঙ্কায় আছে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। ১৩ দলের মধ্যে ১২তম অবস্থানে রয়েছে ব্রাদার্স।

আরও পড়ুন:
জয়ে ফিরল ওয়ারী, টানা দ্বিতীয় জয় অগ্রণীর
জয়রথে ছুঁটছে প্রগতি সংঘ ও জয়ে ফিরল নোফেল
টানা দ্বিতীয় জয় ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ও স্বাধীনতা কেসির
বিএসএলে স্বাধীনতা সংঘের জয়, ফর্টিজের ড্র
বিসিএলের উদ্বোধনের দিনে নোফেলকে হারাল উত্তরা

শেয়ার করুন