রানার ফেরার দিনে রাসেলকে রুখে দিল মুক্তিযোদ্ধা

রানার ফেরার দিনে রাসেলকে রুখে দিল মুক্তিযোদ্ধা

ছবি: বাফুফে

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দিনের একমাত্র ম্যাচে শেখ রাসেলকে গোলশূন্য ড্রতে রুখে দেয় মুক্তিযোদ্ধা।

লকডাউন বিরতির পর মাঠে ফিরেছে প্রিমিয়ার লিগ ফুটবল। ইনজুরি কাটিয়ে ফিরেছেন জাতীয় দল ও শেখ রাসেলের গোলকিপার আশরাফুল রানা।

তার ফেরার দিনে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে মুক্তিযোদ্ধা এসকেসির বিপক্ষে হোঁচট খেয়েছে শেখ রাসেল।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দিনের একমাত্র ম্যাচে শেখ রাসেলকে গোলশূন্য ড্রতে রুখে দেয় মুক্তিযোদ্ধা।

এর আগের লিগের প্রথম পর্বে মুক্তিযোদ্ধাকে এক গোলে হারিয়েছিল শেখ রাসেল। এবার দ্বিতীয় লেগে এসে হোঁচট খেল সাইফুল বারী টিটুর দল।

এই ম্যাচে অগোছালো ফুটবল খেলে শেখ রাসেল। তবে আধিপত্য বজায় রেখে মুক্তিযোদ্ধার রক্ষণে চাপ অব্যাহত রাখে অল ব্লুস। প্রথমার্ধ ও দ্বিতীয়ার্ধের নির্ধারিত সময় পর্যন্ত কোনো গোলের দেখা পায়নি দুই দল।

ম্যাচের ইনজুরি টাইমে কিছুটা রোমাঞ্চ দেখা যায়। ৯২ মিনিটে কাউন্টার অ্যাটাকে দুর্দান্ত একটি আক্রমণ বানচাল হয় মুক্তিযোদ্ধার। সারওয়ার জামান নিপুর ক্রসে সিক্স ইয়ার্ডের সামনে থেকে নেয়া ইব্রাহিম ডিকোর শট রুখে দেন আশরাফুল রানা।

মিনিট তিনেক পর ম্যাচের শেষ মিনিটে লিড নেয়ার সুযোগ পায় শেখ রাসেল। বখতিয়ারের কর্নার কিক থেকে ভেসে আসা বলটা হেড করেন মোনেকে। তার হেড গোলবার লাইন পার হওয়ার আগে শঙ্কামুক্ত করে মুক্তিযোদ্ধার ডিফেন্স।

পরে সময় অপচয়ের অভিযোগে রেফারি জসীমের সঙ্গে শেখ রাসেলের ফুটবলারদের বাকবিতণ্ডা হলে কোচ টিটু এসে শান্ত করেন ফুটবলারদের।

এই অবস্থার মধ্য দিয়ে ম্যাচ সমাপ্তির বাঁশি বাজলে গোলশূন্য স্কোর নিয়ে মাঠ ছাড়ে দুই দল।

ড্র করে পয়েন্ট টেবিলের ছয়ে উঠে আসল শেখ রাসেল। ১৭ ম্যাচে তাদের ঝুলিতে পয়েন্ট ২৭।

আর এক পয়েন্ট যোগ করে অবনমন শঙ্কা থেকে আরেকটু নিরাপদ জোনে ১১তম অবস্থানে দাঁড়িয়ে আছে মুক্তিযোদ্ধা।

ছয় ও পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে অবনমনের শঙ্কায় আছে দুই দল আরামবাগ ও ব্রাদার্স ইউনিয়ন।

আরও পড়ুন:
মুক্তিযোদ্ধা-রাসেল ম্যাচ দিয়ে মাঠে ফিরছে লিগ
‘বুড়ো’ মামুন ও সানডে ম্যাজিকে আবাহনীর জয়
অতিরিক্ত সময়ে বেসেরার গোলে মোহামেডান বধ কিংসের
জায়ান্ট কিলারদের হারিয়ে টানা দ্বিতীয় জয় বারিধারার
আবাহনী-মোহামেডান সেয়ানে সেয়ানে লড়াইয়ে জেতেনি কেউ

শেয়ার করুন

মন্তব্য