আর্জেন্টিনার কোপা আমেরিকা হবে ব্রাজিলে

আর্জেন্টিনার কোপা আমেরিকা হবে ব্রাজিলে

কোপা আমেরিকা শিরোপা। ছবি: এএফপি

১৩ জুন থেকেই শুরু হতে যাচ্ছে কোপা আমেরিকা। কোপা আমেরিকা আয়োজনের জন্য তাই ১৩ দিন সময় পাচ্ছে ব্রাজিল।

দুই বছরের ব্যবধানে দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের ফুটবলের সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ টুর্নামেন্ট কোপা আমেরিকা আয়োজন করতে যাচ্ছে ব্রাজিল।

২০২০ সালের আসর যৌথভাবে আয়োজনের কথা ছিল আর্জেন্টিনা ও কলম্বিয়ার। করোনার কারণে আসরটি পিছিয়ে চলতি বছরে নিয়ে আসা হয়েছে।

কলম্বিয়ায় সরকার বিরোধী বিক্ষোভের কারণে দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল ফেডারেশন (কনমেবোল) সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কেবল আর্জেন্টিনায় এবারের কোপা আমেরিকা আয়োজনের।

সেটিও বদলে যায় সোমবার। কনমেবোল জানায়, আর্জেন্টিনায় হচ্ছে না এবারের কোপা আমেরিকা। যদিও তারা তখন নিশ্চিত করেনি, কোথায় হবে এবারের আসর।

কয়েক ঘণ্টা পরই প্রকাশ করা হলো কোপা আমেরিকা আসন্ন আসরের স্বাগতিক দেশের নাম। কনমেবোল জানিয়েছে, এবারের কোপা আমেরিকাও হতে যাচ্ছে ব্রাজিলে। সবশেষ ২০১৯ সালে কোপা আমেরিকার ৪৬তম আসর আয়োজন করে দক্ষিণ আমেরিকার বৃহত্তম দেশটি। চ্যাম্পিয়নও হয় তারা।

টুইটারে কনমেবোল জানায়, ‘কোপা আমেরিকা ২০২১ ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত হবে। টুর্নামেন্ট শুরু ও শেষ হওয়ার তারিখ অপরিবর্তিত থাকবে। আগামী কয়েক ঘণ্টায় কনমেবোল টুর্নামেন্টের ভেন্যু ও সূচি জানাবে।’

অর্থাৎ, ১৩ জুন থেকেই শুরু হতে যাচ্ছে কোপা আমেরিকা। কোপা আমেরিকা আয়োজনের জন্য তাই ১৩ দিন সময় পাচ্ছে ব্রাজিল।

আর্জেন্টিনায় ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাস মহামারি। প্রতিদিন ৩৫ হাজারেরও বেশি লোক আক্রান্ত হচ্ছেন। মারা যাচ্ছে প্রায় ৫০০। এমন অবস্থায় খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা ভেবে কনমেবোল দক্ষিণ আমেরিকার সবচেয়ে বড় ফুটবল টুর্নামেন্টটি আর্জেন্টিনা থেকে সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

টুইট বার্তায় কনমেবোল জানায়, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে আর্জেন্টিনায় কোপা আমেরিকা আয়োজন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কনমেবোল। মহাদেশীয় টুর্নামেন্টটির আয়োজক হতে আগ্রহ প্রকাশ করা অন্য দেশগুলোর প্রস্তাব আমরা পর্যালোচনা করব। দ্রুতই নতুন আয়োজক সম্পর্কে আমরা সবাইকে জানাব।’

আরও পড়ুন:
আর্জেন্টিনায় হচ্ছে না কোপা আমেরিকা
কোপা আমেরিকায় খেলছে না অস্ট্রেলিয়া ও কাতার

শেয়ার করুন

মন্তব্য