রিয়ালকে জেতালেন অ্যাজার-বেনজেমা

রিয়ালকে জেতালেন অ্যাজার-বেনজেমা

কারিম বেনজেমা ও ইডেন অ্যাজারের নৈপুণ্যে শনিবার রাতে দেপোর্তিভো আলাভেসকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দেয় চ্যাম্পিয়নরা। জোড়া গোল করেন বেনজেমা। গোলের পাশাপাশি একটি অ্যাসিস্ট ছিল অ্যাজারের।

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা তিন ম্যাচ পর জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। কারিম বেনজেমা ও ইডেন অ্যাজারের নৈপুণ্যে শনিবার রাতে দেপোর্তিভো আলাভেসকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দেয় চ্যাম্পিয়নরা। জোড়া গোল করেন বেনজেমা। গোলের পাশাপাশি একটি অ্যাসিস্ট ছিল অ্যাজারের।

২০১৯ সালে চেলসি ছেড়ে রিয়ালে যোগ দেয়ার পর থেকেই নিজের নাম ও দামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি অ্যাজার। দেড় বছরে মাত্র ২৩টি ম্যাচ খেলেছেন ১০০ মিলিয়ন ইউরোতে মাদ্রিদে আশা এই বেলজিয়ান। যার ফলে ছিটকে যান মূল একাদশ থেকে।

আলাভেসের মাঠে তাকে শুরুর একাদশে রাখেন জিদানে। কোচের আস্থার প্রতিদান দারুণ দিয়েছেন এই ফরোয়ার্ড। পুরো ম্যাচে তিনি-ই ছিলেন রিয়ালের আক্রমনভাগের চালিকা শক্তি।

বেনজেমা-অ্যাজারের আক্রমণে শুরুতেই এলোমেলো হয়ে পড়ে আলাভেস। কর্নার থেকে নিখুঁত হেডে কাসেমিরো অতিথিদের এগিয়ে দেন ১৫ মিনিটে।

শুরুতে গোল পেয়ে নিজেদের আত্মবিশ্বাস ফিরে পায় লিগে ওসাসুনার সঙ্গে ড্রয়ের পর সুপার কাপ ও কোপা দেল রেতে ম্যাচ হেরে যাওয়া রিয়াল।

লস ব্লাঙ্কোস নিজেদের লিড দ্বিগুণ করে ৪১ মিনিটে। বক্সে অ্যাজারের ব্যাকহিল থেকে জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেন বেনজেমা।

বিরতির ঠিক আগে স্কোরশিটে নাম ওঠান অ্যাজার। আলাভেসের অফসাইডের ফাঁদকে ফাঁকি দিয়ে অ্যাজারকে বল বাড়ান টনি ক্রুস। স্কোরলাইন ৩-০ বানাতে ভুল করেননি বেলজিয়ান তারকা।

Eden-HAzard

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ম্যাচে ফেরার চেষ্টা চালায় ঘরের দল। ফ্রি-কিক থেকে হোসেলুর হেডার আলাভেসকে এনে দেয় সান্ত্বনার গোল। ম্যাচে অবশ্য কোনো প্রভাব ফেলেনি সেটি।

উল্টো ৭০ মিনিটে চতুর্থ গোল হজম করে তারা। লুকা মডরিচের অ্যাসিস্ট থেকে দলের ৪-১ গোলের জয় নিশ্চিত করেন বেনজেমা।

জয়ের পাশাপাশি রিয়াল ক্যাম্পে স্বস্তি ছিল অ্যাজারের ফর্মে ফেরা। ম্যাচ শেষে তাকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন জোড়া গোল করা বেনজেমা। চেলসির অ্যাজারকে ভুলে সমর্থকদের রিয়ালের অ্যাজারকে মনে রাখার পরামর্শ তার।

‘চেলসির সঙ্গে ইডেন অ্যাজারের গল্প ছিল আলাদা। এখানে সে ভিন্ন ইতিহাস তৈরি করছে। তার জন্য একটা ভালো দিন ছিল। আমরা সবসময়ই তার কাছ থেকে সেরাটা চাই,’ ম্যাচ শেষে লা লিগা টিভিকে বলেন বেনজেমা।

এই জয়ে শিরোপা লড়াইয়ে টিকে থাকল রিয়াল মাদ্রিদ। ১৯ ম্যাচে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে তারা আছে দুই নম্বরে। ৪৪ পয়েন্ট পাওয়া আতলেতিকো মাদ্রিদ আছে শীর্ষে। তারা ম্যাচ খেলেছে ১৭টি।

আরও পড়ুন:
জিদানের করোনা
তৃতীয় ডিভিশনের দল বিদায় করল রিয়ালকে
বিলবাও এর কাছে হেরে বিদায় রিয়ালের

শেয়ার করুন

মন্তব্য

নিজের কৌশলে ভুল দেখছেন জিদান

নিজের কৌশলে ভুল দেখছেন জিদান

ভিনিসিয়াস জুনিয়রের শেষ মুহূর্তের স্ট্রাইকে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ১-১ গোলের ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় রিয়াল মাদ্রিদকে।

রিয়াল সোসিয়েদাদের কাছে পয়েন্ট খুইয়ে লিগের শীর্ষ দলের সঙ্গে ব্যবধান কমানোর সুযোগ হাতছাড়া করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। ভিনিসিয়াস জুনিয়রের শেষ মুহূর্তের গোলে ১-১ ফল নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় চ্যাম্পিয়নদের।

নিজেদের মাঠে ৫৫ মিনিটে পর্তুর গোলে পিছিয়ে পড়ার পর, ৮৯ মিনিটে ভিনিসিয়াসের গোলে পরাজয় এড়ায় রিয়াল।

টানা চার ম্যাচ জেতার পর পয়েন্ট হারাল তারা। আর এতে নিজের দোষ দেখছেন দলের কোচ জিদান। দ্বিতীয়ার্ধে মাঝমাঠ ও ফাইনাল থার্ডের শক্তি বাড়াতে রক্ষণে খেলোয়াড় কমিয়ে দেন তিনি। ম্যাচ শেষে ক্রীড়া দৈনিক মারকাকে বলে এটা ট্যাকটিকাল ভুল হয়ে থাকতে পারে তার।

‘যেভাবে প্রেসিং খেলছিলাম সেটাতে সন্তুষ্ট হতে পারছিলাম না। যে কারণে ফরমেশন বদলাই। এই নিয়ে তিনবার হলো, হ্যাঁ হয়তো (ভুল হয়েছে)।’

কৌশল বদলানোর পাশাপাশি ম্যাচে নিজের শিষ্যদের কিছুটা ক্লান্ত লাগছিল দেখে বদলটা জরুরি ছিল মনে করেন এই ফরাসি ট্যাকটিশিয়ান।

‘এক ঘণ্টা পর সবাই ক্লান্ত হয়ে পড়েছিল। এ কারণেই বদল করতে হয়েছে। মাঝেমধ্যে খেলোয়াড় বা কৌশল বদলে দেখতে হয় পরিস্থিতিতে বদল আসে কি না।’

সামনের সপ্তাহে মাদ্রিদ ডার্বি খেলতে আতলেতিকো মাদ্রিদের মাঠে নামতে যাচ্ছে রিয়াল। বড় ম্যাচের আগে সোসিয়েদাদের বিপক্ষে হোঁচট খুব একটা প্রভাব ফেলবে না ধারণা জিদানের।

‘ভালোই খেলেছি আমরা। সুযোগ পেয়েছিলাম তিনি-চারটা। ধৈর্য ধরতে হবে, শান্ত থাকতে হবে ও বিশ্রাম নিতে হবে। আজকে যেমনটা খেলেছি, সেটার জন্যে ডার্বিতে কিছু বদলাচ্ছে না। ওখানে গিয়ে আমাদের দারুণ খেলতে হবে।’

ড্রয়ের পর লিগ টেবিলের তিনে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। ২৫ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ৫৩। দুইয়ে থাকা বার্সেলোনার সংগ্রহ সমান ম্যাচে ৫৫। আর সবার ওপরে থাকা আতলেতিকো মাদ্রিদ এক ম্যাচ কম খেলে সংগ্রহ করেছে ৫৮ পয়েন্ট।

আরও পড়ুন:
জিদানের করোনা
তৃতীয় ডিভিশনের দল বিদায় করল রিয়ালকে
বিলবাও এর কাছে হেরে বিদায় রিয়ালের

শেয়ার করুন

সাবেক বার্সেলোনা সভাপতি বার্তোমিউ গ্রেফতার

সাবেক বার্সেলোনা সভাপতি বার্তোমিউ গ্রেফতার

ছবি: এফসি বার্সেলোনা

স্প্যানিশ রেডিও ‘কাদেনা এসইআর’ এর মতে, বার্তোমিউ, গ্রাউ এবং অন্যান্যরা গ্রেফতার হয়েছেন ‘অসৎ ব্যবস্থাপনা, দুর্নীতি ও মানি লন্ডারিং’ এর দায়ে।

গত এক বছর ধরে যেন স্বস্তির নিঃশ্বাসই ফেলতে পারছে না বার্সেলোনা। অধিনায়ক লিওনেল মেসি ক্লাব ছাড়তে চেয়েছেন। এরপর পদত্যাগ করেছিলেন সভাপতি হোসেপ মারিয়া বার্তোমিউ ও তার পরিচালকবৃন্দ। এবার সেই বার্তোমিউকে নিয়েই নতুন ঝামেলায় পড়েছে কাতালান ক্লাবটি।

সোমবার কাতালোনিয়ার পুলিশ সাবেক বার্সা সভাপতি বার্তোমিউ, প্রধান নির্বাহী অস্কার গ্রাউসহ আরও কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে।

সোমবার কাতালান ক্লাবটিতে প্রবেশ করে কাতালান পুলিশের অর্থনৈতিক তদন্ত বিভাগের কয়েকজন সদস্য। পরবর্তীতে বার্সেলোনা একটি আনুষ্ঠানিক বিবৃতির মাধ্যমে জানায়, সব ধরণের তদন্তে সহায়তা করবে তারা।

২০২০ সালের শুরুতে স্প্যানিশ সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ পায়, বার্তোমিউ এবং তৎকালীন বার্সেলোনা বোর্ড তাদের সমালোচনাকারী সাবেক ও বর্তমান খেলোয়াড়দের অবমাননা করার জন্য একটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবস্থাপনা সংস্থার সাহায্য নেয়। যদিও বার্তোমিউর অধীনে থাকা তৎকালীন বার্সা বোর্ড সেটি অস্বীকার করে।

স্প্যানিশ রেডিও ‘কাদেনা এসইআর’ এর মতে, বার্তোমিউ, গ্রাউ এবং অন্যান্যরা গ্রেফতার হয়েছেন ‘অসৎ ব্যবস্থাপনা, দুর্নীতি ও মানি লন্ডারিং’ এর দায়ে।

কাতালান পুলিশ পরবর্তীতে নিশ্চিত করেছে, তারা বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে। যদিও গ্রেফতারকৃতদের নাম তারা প্রকাশ করেনি।

গত অক্টোবরে বার্সেলোনা সভাপতির দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেন বার্তোমিউ। এখনও তার স্থলাভিষিক্ত বাছাইয়ের জন্য নির্বাচন হয়নি। সেই নির্বাচন হবে ৭ মার্চ।

আরও পড়ুন:
জিদানের করোনা
তৃতীয় ডিভিশনের দল বিদায় করল রিয়ালকে
বিলবাও এর কাছে হেরে বিদায় রিয়ালের

শেয়ার করুন

টিকা নিলেন ডে ও তার দুই সহকর্মী

টিকা নিলেন ডে ও তার দুই সহকর্মী

অ্যাসিস্টেন্ট কোচ স্টুয়ার্ট ওয়াটকিস ও টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলিও টিকা নেন ডের পর। টিকা নেয়ার পর তিনজনই জানান ভালো বোধ করছেন।

করোনা ভাইরাসের টিকা নিয়েছেন জাতীয় ফুটবল দলের হেড কোচ জেমি ডে। সোমবার বিকেলে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে টিকা নেন।

তার দুই সহকর্মী অ্যাসিস্টেন্ট কোচ স্টুয়ার্ট ওয়াটকিস ও টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলিও টিকা নেন ডের পর। টিকা নেয়ার পর তিনজনই জানান ভালো বোধ করছেন।

গত নভেম্বরে নেপালের বিপক্ষে ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচের আগে ডে করোনা পজিটিভ হন। ৫ ডিসেম্বর কাতারের বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের আগে সুস্থ হয়ে ওঠেন তিনি।

এর আগে বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন টিকা নেন ৮ ফেব্রুয়ারি। ফুটবলারদের করোনা টিকা নেয়ার বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি ফেডারেশন। সালাউদ্দিনও বলেছেন টিকাদানের অগ্রাধিকারের তালিকায় থাকছেন দেশের ফুটবলাররা।

বিশেষ করে জাতীয় ফুটবল দলের খেলোয়াড়দের প্রাধান্য দেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের প্রথম পর্ব শেষে সবাইকে টিকা দেয়ার পরিকল্পনা বাফুফের।

আরও পড়ুন:
জিদানের করোনা
তৃতীয় ডিভিশনের দল বিদায় করল রিয়ালকে
বিলবাও এর কাছে হেরে বিদায় রিয়ালের

শেয়ার করুন

মুলার, হামেলস ও বোয়েটাং এর সুযোগ এখনও আছে: লোভ

মুলার, হামেলস ও বোয়েটাং এর সুযোগ এখনও আছে: লোভ

২০১৯ সালে তিন তারকাকে বাদ দেবার পর এই প্রথম মত বিতর্কিত সিদ্ধান্তের বিপক্ষে কথা বললেন লোভ। একইসঙ্গে তরুনদের সুযোগ দেয়ার চাপও তার উপর রয়েছে।

বিশ্বকাপ জয়ী তিন অভিজ্ঞ তারকা থমাস মুলার, জেরোম বোয়াটেং ও ম্যাটস হামেলসের জন্য জাতীয় দলের দরজা এখনও খোলা আছে বলে ঘোষনা দিয়েছেন জার্মানি জাতীয় দলের কোচ ওয়াকিম লোভ। দুই বছর আগে লোভের একক সিদ্ধান্তে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়েন এই ত্রয়ী।

সামনের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে এই তিনজনের ফেরার ইঙ্গিত দিয়ে জার্মান মিডিয়া এআরডিতে লোভ বলেন, ‘দল পুনর্গঠনের প্রক্রিয়া হিসেবে বিপরীত স্রোতে চলতেই হবে, এর কোন বিকল্প নেই। করোনা মহামারি প্রায় এক বছর কেড়ে নিয়েছে। সে কারনেই প্রয়োজনের তাগিদেই পুনর্গঠনের বিষয়টি আপতত বাদ দিতে বাধ্য হয়েছি।’

লোভ আরও বলেন, ‘এই মুহূর্তে যে কেউই দলে আসতে পারে। এক্ষেত্রে মুলার, হামেলস ও বোয়াটেং যে কারোরই পুনরায় জাতীয় দলে ফিরে আসার সম্ভাবনা রয়েছে।’

২০১৯ সালে তিন তারকাকে বাদ দেবার পর এই প্রথম মত বিতর্কিত সিদ্ধান্তের বিপক্ষে কথা বললেন লোভ। একইসঙ্গে তরুনদের সুযোগ দেয়ার চাপও তার উপর রয়েছে। দুই বছর ধরেই জাতীয় দলের পারফরমেন্স নিয়ে বেশ সমালোচনার মধ্যে রয়েছেন জার্মান কোচ।

তার অধীনে জার্মানী অন্যতম বাজে পারফরমেন্স দেখায় গত নভেম্বরে। নেশনস লিগের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে জার্মানি ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত হয় স্পেনের কাছে।

এরপর থেকে পরিকল্পনা অনুযায়ী দল পুনর্গঠনের প্রক্রিয়া কার্যকর হয়নি। তিনি বলেন, ‘জাতীয় দল ম্যানেজমেন্ট জেনে গেছে আসলে দলটির উন্নয়নে কি করতে হবে। যে কারনে স্বল্প সময়ের জন্য এই পরিকল্পনা করা যেতেই পারে।’

মার্চে আইসল্যান্ড, রোমানিয়া ও নর্থ মেসিডোনিয়ার বিপক্ষে ২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব খেলতে মাঠে নামবে জার্মানি। ১৫ জুন গ্রুপ পর্বে ফ্রান্সের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ইউরো ২০২০ মিশন শুরু করবে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

আরও পড়ুন:
জিদানের করোনা
তৃতীয় ডিভিশনের দল বিদায় করল রিয়ালকে
বিলবাও এর কাছে হেরে বিদায় রিয়ালের

শেয়ার করুন

শিরোপা এখনও অনেক দূরে বললেন লুকাকু

শিরোপা এখনও অনেক দূরে বললেন লুকাকু

ইতালিয়ান সেরি আয় জেনোয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে শীর্ষস্থান পোক্ত করেছে ইন্টারনাৎসিওনাল। এই জয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকা নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এসি মিলানের চেয়ে চার পয়েন্টের ব্যবধান ধরে রাখল ইন্টার।

ইতালিয়ান সেরি আয় জেনোয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে শীর্ষস্থান পোক্ত করেছে ইন্টারনাৎসিওনাল। এই জয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকা নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এসি মিলানের চেয়ে চার পয়েন্টের ব্যবধান ধরে রাখল ইন্টার।

সান সিরোতে রোমেলি লুকাকু প্রথম সুযোগেই গোল করেছেন। মাত্র ৩৩ সেকেন্ডে গোল আসে এই বেলজিয়ানের পা থেকে। এরপর ৬৯ মিনিটে মাত্তেও দারমিয়ান ব্যবধান দ্বিগুন করেন। বেঞ্চ থেকে উঠে এসে ম্যাচ শেষ হওয়ার ১৩ মিনিট আগে আলেক্সিস সানচেস দলের হয়ে তৃতীয় গোল করেন।

আন্তোনিও কন্তের দল ২০১০ সালের পর প্রথম লিগ শিরোপা জেতার পথে রয়েছে। তবে কন্তে মানতে রাজি নন যে তার দলই শিরোপা জেতায় ফেভারিট। টানা পাঁচ জয়ের পর তার কণ্ঠে ছিল ধারাবাহিকতা ধরে রাখার প্রত্যয়।

‘আমরা দারুন খুশী। কারণ কঠোর পরিশ্রমের ফল ইতিমধ্যে পেতে শুরু করেছি। এখনও ১৪ ম্যাচ বাকি রয়েছে। শেষ পর্যন্ত নিজেদের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাই।’

ম্যাচের সেরা তারকা লুকাকুও কথা বলেছেন একই সুরে।

‘আমরা এখন টেবিলের শীর্ষে রয়েছি। এই অনুভূতি দুর্দান্ত। ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা মুহূর্ত পার করছি। কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ইন্টারের জয়ে ভূমিকা রাখছি। এই ম্যাচগুলোতে একক ভাবে নিজেদের প্রমানের সুযোগ হিসেবে আসে। শিরোপা নিশ্চিতের বিষয়টি এখনও অনেকদুর।’

নিজেদের পরবর্তী ম্যাচে বৃহস্পতিবার পারমার মাঠে খেলতে যাবে ইন্টার মিলান।

আরও পড়ুন:
জিদানের করোনা
তৃতীয় ডিভিশনের দল বিদায় করল রিয়ালকে
বিলবাও এর কাছে হেরে বিদায় রিয়ালের

শেয়ার করুন

‘আমরা এখনও টিকে আছি’

‘আমরা এখনও টিকে আছি’

২-০ গোলে শেফিল্ড ইউনাইটেডকে হারানোর পর কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিরেছে অল রেডস শিবিরে। লিভারপুল ম্যানেজার ইয়ুর্গেন ক্লপ ম্যাচ শেষে জানালেন তার দল এখনও শীর্ষ চারের লড়াইয়ে টিকে আছে।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চার ম্যাচ পর জয়ের মুখ দেখেছে লিভারপুল। ২-০ গোলে শেফিল্ড ইউনাইটেডকে হারানোর পর কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিরেছে অল রেডস শিবিরে। লিভারপুল ম্যানেজার ইয়ুর্গেন ক্লপ ম্যাচ শেষে জানালেন তার দল এখনও শীর্ষ চারের লড়াইয়ে টিকে আছে।

লিগ চ্যাম্পিয়নদের পক্ষে শিরোপা ধরে রাখাটা এই মৌসুমে মুশকিল হবে এমনটা গত সপ্তাহে বলেছিলেন ক্লপ। শেফিল্ডের বিপক্ষে জয়ের পরও শীর্ষে থাকা ম্যানচেস্টার সিটির চেয়ে ১৯ পয়েন্ট পিছিয়ে আছে সিটি। স্বাভাবিকভাবেই তার নজর এখন শীর্ষ চারে থেকে চ্যাম্পিয়নস লিগে কোয়ালিফাই করা।

সেটিও প্রায় দুরূহ হয়ে পড়ে তাদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সে। টানা চার ম্যাচে হার তাদের ছিটকে দেয় শীর্ষ চারের বাইরে। এখনও পয়েন্ট তালিকায় পাঁচের বাইরে থাকলেও শেফিল্ডের বিপক্ষে দলের পারফরম্যান্সের পর আশাবাদী ক্লপ। এখনও উজ্জীবিত হওয়ার মতো অবস্থানের আশপাশে আছে তার দল, এমনটাই ম্যাচ শেষে বিবিসি স্পোর্টকে বলেন এই জার্মান কোচ।

‘অনেকেই আমাদের শেষ দেখে ফেলেছিলেন। আমরা যে এখনও টিকে আছি এই ম্যাচ ছিল তার প্রমাণ। বৃহস্পতিবার চেলসির বিপক্ষে খেলব। তখনও এটাই প্রমাণ করতে হবে। আমরা জানি যে ম্যাচ জিততে হবে। জয় ছাড়া চ্যাম্পিয়নস লিগে সুযোগ পাব না।’

শেফিল্ডের মাঠে প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচের দুটো গোলই আসে বিরতির পর। ৪৮ মিনিটে কার্টিস জোনসের গোল দিয়ে খাতা খোলে লিভারপুল। আর ৬৫ মিনিটে কিন ব্রায়ানের আত্মঘাতী গোলে নিশ্চিত হয় লিভারপুলের ম্যাচ জয়।

ম্যাচ শেষে নিজের গোল ও দলের জয়কে আলিসনের প্রতি উৎসর্গ করেন জোনস। বৃহস্পতিবার ব্রাজিলে পানিতে ডুবে মারা যান লিভারপুল গোলকিপার আলিসনের বাবা।

এই জয়ে ২৬ ম্যাচ শেষে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ৬ নম্বরে আছে লিভারপুল। শীর্ষে থাকা ম্যানচেস্টার সিটির সংগ্রহ ৬২ পয়েন্ট।
আর গত রাতে চেলসির সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড সমান ম্যাচে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে আছে দুইয়ে।

আরও পড়ুন:
জিদানের করোনা
তৃতীয় ডিভিশনের দল বিদায় করল রিয়ালকে
বিলবাও এর কাছে হেরে বিদায় রিয়ালের

শেয়ার করুন

আবাহনীকে উড়িয়ে শীর্ষস্থান আরও পাকাপোক্ত করল কিংস

আবাহনীকে উড়িয়ে শীর্ষস্থান আরও পাকাপোক্ত করল কিংস

ফাইল ছবি

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে রোববার আবাহনীকে রীতিমত ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিল কিংস। আর্জেন্টাইন রাউল বেসেরার জোড়া গোলের ঝলকের সঙ্গে ব্রাজিলিয়ান জোনাথন ও রবসন রবিনহোর দুর্দান্ত ফুটবল নৈপুণ্য বড় জয় এনে দিয়েছে অস্কার ব্রুজনকে। এ জয়ে শিরোপা দৌড়ে অনেকটা এগিয়ে গেল কিংস।

চলতি প্রিমিয়ার লিগের দুই অপরাজিত হেভিওয়েট দলের ম্যাচ। শিরোপার দৌড়ে এগিয়ে থাকা দুই দলের ম্যাচ। অপ্রতিরোধ্য বসুন্ধরা কিংসের সামনে অপরাজিত ঢাকা আবাহনীর হাইভোল্টেজ ম্যাচটা যে এমন একতরফা হবে তা ভুলেও হয়তো মাথায় আনবে না কেউ। বলতে গেলে আবাহনীকে দাঁড়াতেই দিল না কিংস।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে রোববার আবাহনীকে রীতিমত ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিল কিংস। এ ম্যাচেও অনুমেয় লাতিন আমেরিকার জাদু দেখেছে ফুটবল সমর্থকরা।

আর্জেন্টাইন রাউল বেসেরার জোড়া গোলের ঝলকের সঙ্গে ব্রাজিলিয়ান জোনাথন ও রবসন রবিনহোর দুর্দান্ত ফুটবল নৈপুণ্য বড় জয় এনে দিয়েছে অস্কার ব্রুজনকে। এ জয়ে শিরোপা দৌড়ে অনেকটা এগিয়ে গেল কিংস।

ম্যাচের ১৮ মিনিটে লাতিন জাদুতে এগিয়ে যায় কিংস। ডি-বক্সের ভেতরে ডান প্রান্ত থেকে বাঁ পায়ে দারুণ শট নেন রবসন রবিনিয়ো। শটটা বারে লেগে ফিরে আসার সময় আলতো টোকায় বল জালে জড়ান রাউল বেসেরা।

সাত মিনিট পরে ব্যবধান দ্বিগুণ করে কিংস। এবার কর্নার থেকে রবসনের কিকটা দারুণভাবে ব্যাকহিল করেন ডিফেন্ডার খালেদ শাফিহ। গোলকিপার শহীদুল আলম সোহেলকে ফাঁকি দিয়ে শটটা গোললাইন ক্রস করে। অবশ্য বলটাকে ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে ব্যর্থ হন সোহেল। ফলে ২-০ ব্যবধান করে ফেলে লিগ টপাররা।

দুই গোলের লিডের স্বস্তি নিয়ে বিরতিতে যায় কিংস।

দ্বিতীয়ার্ধেও যেন আরও ক্ষীপ্র হয়ে ওঠে কিংস। আবাহনীর রক্ষণে আক্রমণের পসরা সাজিয়ে ব্যবধান মুহূর্তেই ৪-০ করে ফেলে অস্কার ব্রুজনের শিষ্যরা।

ম্যাচের ৫১ মিনিটে বেসেরার বুদ্ধিদীপ্ত পাস থেকে বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডি-বক্সের ভেতরে ঢুকে পড়েন জোনাথন ফার্নান্দেজ। সামনে একমাত্র গোলকিপার সোহেল ছাড়া কেউ না থাকায় ঠান্ডা মাথায় বামে বল ঠেলে জালে জড়ান এই ব্রাজিলিয়ান।

তিন গোলের লিডকেও যথেষ্ট মনে করেনি কিংস। প্রতিপক্ষ আবাহনী বলেই কি না বল দখলের লড়াইটা নিজেদের দখলে রেখে হালি গোল পূর্ণ করে তারা। এবার ম্যাচের ৭৬ মিনিটে জোনাথনের পাস থেকে গোল করে ব্যবধান ৪-০ করে ফেলেন রাউল বেসেরা। তার জোড়া গোলেই আবাহনীর বড় হার প্রায় নিশ্চিত হয়ে যায়।

ম্যাচে ফিরতে একটু বেশি বিলম্বই করে ফেলে মারিও লেমসের আবাহনী। ৮১ মিনিটে পেনাল্টি থেকে আকাশী-হলুদদের সান্ত্বনাসূচক গোলটি করেন কারভেন্স বেলফোর্ট।

এ জয়ে লিগে অপরাজিত থাকার ধারাটাও অব্যাহত রাখল কিংস। টানা চার ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছে ব্রুজনের শিষ্যরা। অন্যদিকে লিগে অপরাজিত থাকা হলো না আবাহনীর। কিংসের কাছে লিগে প্রথম হারের স্বাদ পেতে হয় জায়ান্টদের।

এ জয়ে লিগের পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষস্থান আরো পাকাপোক্ত করে ফেলল বসুন্ধরা কিংস। ১২ ম্যাচে ১১ জয় ও এক ড্রয়ে কিংসের পয়েন্ট ৩৪। এক ম্যাচ কম খেলা আবাহনীর পয়েন্ট ২২। লিগ টাইটেলের দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে গেল কিংস।

আরও পড়ুন:
জিদানের করোনা
তৃতীয় ডিভিশনের দল বিদায় করল রিয়ালকে
বিলবাও এর কাছে হেরে বিদায় রিয়ালের

শেয়ার করুন

ad-close 103.jpg