মেসির আশা ছাড়েনি পিএসজি

মেসির আশা ছাড়েনি পিএসজি

বিশ্বের সর্বকালের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়কে দলে টানাটা সহজ হবে না জানে পিএসজি। তারপরও তাদের স্পোর্টিং ডিরেক্টর লিওনার্দো মেসিকে নেয়ার ইচ্ছাটা ধরে রেখেছেন।

মৌসুম শেষে কোথায় যাবেন লিওনেল মেসি সেটা এখনও নিশ্চিত নয়। আর্জেন্টাইন মহাতারকা নিজে সম্প্রত্তি জানিয়েছেন ক্লাব ছাড়ার আগ্রহ নেই তার এখন। তারপরও মেসির পরবর্তী গন্তব্য নিয়ে জল্পনা-কল্পনা থামছে না।

মেসির সম্ভাব্য গন্তব্য হিসেবে যে কয়েকটি ক্লাবের নাম ঘুরে ফিরে আসছে সেগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বার উচ্চারিত হচ্ছে ম্যানচেস্টার সিটি ও প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি) এর কথা। মেসির গুরু পেপ গার্দিওলা এখন সিটির ম্যানেজার। আর মেসির অন্যতম কাছের বন্ধু নেইমার খেলেন পিএসজিতে।

মেসির বিশাল অঙ্কের বেতন (সপ্তাহে প্রায় ১০ লাখ ইউরো) দেয়ার সামর্থ্যও এই দুই ক্লাবের আছে। গ্রীষ্মে ক্লাব ছাড়ার ঘোষণা দিলেও ডিসেম্বরের এক সাক্ষাৎকারে ক্লাবে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান মেসি। তারপরও হাল ছাড়ছে না সিটি ও পিএসজি।

বিশ্বের সর্বকালের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়কে দলে টানাটা সহজ হবে না জানে পিএসজি। তারপরও তাদের স্পোর্টিং ডিরেক্টর লিওনার্দো মেসিকে নেয়ার ইচ্ছাটা ধরে রেখেছেন।

‘মেসির মতো গ্রেট খেলোয়াড় সবসময়ই পিএসজির তালিকায় থাকবেন। তবে, সে বিষয়ে কথা বলা বা স্বপ্ন দেখার জন্য সঠিক সময় নয় এটি,’ ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিনকে বলেন লিওনার্দো।

ট্র্যানসফার মৌসুম শুরু হতে আরও মাস চারেকের মতো সময় বাকি। ফুটবলের জন্য এটি দীর্ঘ সময়। যেকোনো কিছু এই চারমাসে ঘটনে পারে উল্লেখ করে লিওনার্দো বলেন, ‘যারা মেসিকে নজরে রাখছে আমরা তাদের মধ্যে অন্যতম। আলোচনার টেবিলে অবশ্যই আমরা আছি। তবে বর্তমান প্রেক্ষাপটে চার মাস অনেক লম্বা সময়।’

আপাতত মেসি দলবদলের চেয়ে বার্সেলোনার ম্যাচ হাতছাড়া হওয়ার শঙ্কায় আছেন। স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে লাল কার্ড দেখায় চার ম্যাচ নিষেধাজ্ঞায় পড়তে পারেন ক্লাব অধিনায়ক।

আরও পড়ুন:
৭৫৩ ম্যাচে প্রথম লাল কার্ড মেসির
ঘটনাবহুল ম্যাচে বার্সেলোনাকে হারিয়ে সুপারকাপ বিলবাওয়ের
মেসির জন্য শেষ মুহূর্তের অপেক্ষায় কুমান

শেয়ার করুন

মন্তব্য

১১ বছর পর বার্সেলোনার সভাপতি লাপোর্তা

১১ বছর পর বার্সেলোনার সভাপতি লাপোর্তা

নতুন দায়িত্ব নিয়ে মেসিকে ক্লাবে রাখাই হবে লাপোর্তার সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। মৌসুম শেষে সর্বকালের সেরা ফুটবলারের সঙ্গে চুক্তি শেষ হচ্ছে বার্সেলোনার। এরই মধ্যে তাকে সই করানোর আগ্রহ প্রকাশ করেছে ম্যানচেস্টার সিটি ও পিএসজি। তাদের হাত থেকে ক্লাবের আইকন খেলোয়াড়কে রক্ষা করবেন এমনটাই বিশ্বাস লাপোর্তার।

বার্সেলোনায় দ্বিতীয় মেয়াদে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছে হোয়ান লাপোর্তা। মোট ভোটের ৫৪ শতাংশ পেয়ে বাকি দুই প্রতিদ্বন্দ্বী ভিক্তর ফন্ত ও টনি ফ্রেইশাকে পেছনে ফেলেন পেশায় আইনজীবী এই সংগঠক।

বার্সেলোনা ক্লাবের পক্ষ থেকে জানানো হয় ১০৯,৫৩১ জন সদস্যের মধ্যে ভোট দেন ৫৫,৬১১ জন। জানুয়ারিতে ক্লাবের নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও করোনাভাইরাসের প্রকোপে দুই মাস পেছানো হয়।

৫৮ বছর বয়সী লাপোর্তা এর আগে ২০০৩ থেকে ২০১০ পর্যন্ত ক্লাবের দায়িত্বে ছিলেন। তার আমলেই পেপ গার্দিওলা অধীনে ইতিহাসে সেরা সাফল্য পায় বার্সেলোনা।

গার্দিওলাকে ক্লাবের দায়িত্ব দেয়া ছাড়াও তৎকালীণ সুপারস্টার রোনালদিনিয়োকে পিএসজি থেকে কাম্প ন্যুয়ে এনেছিলেন লাপোর্তা। লা মাসিয়া থেকে মূল একাদশে লিওনেল মেসি নিয়মিত হয়ে ওঠেন তার সময়েই।

নতুন দায়িত্ব নিয়ে মেসিকে ক্লাবে রাখাই হবে লাপোর্তার সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। মৌসুম শেষে সর্বকালের সেরা ফুটবলারের সঙ্গে চুক্তি শেষ হচ্ছে বার্সেলোনার। এরই মধ্যে তাকে সই করানোর আগ্রহ প্রকাশ করেছে ম্যানচেস্টার সিটি ও পিএসজি। তাদের হাত থেকে ক্লাবের আইকন খেলোয়াড়কে রক্ষা করবেন এমনটাই বিশ্বাস লাপোর্তার।
জেতার পরপরই নিজের লক্ষ্য পরিস্কার করেছেন লাপোর্তা।

‘বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় লিও তার ছেলেকে নিয়ে আমাকে ভোট দিতে এসেছে। এ থেকে এটাই প্রমাণ করে যে লিও বার্সাকে ভালোবাসে। সবসময়ই বলে এসেছি আমরা একটা পরিবারের মতো। আশা করি এ কারণেই সে থেকে যাবে। আমরা সবাই সেটা চাই।’

লাপোর্তার সামনে মেসিকে রাখার চেয়েও বড় চ্যালেঞ্জ ক্লাবের ভঙ্গুর আর্থিক অবস্থাকে শক্তিশালী করা। জানুয়ারিতে স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক এল মুনদো দেপোর্তিভোর এক প্রতিবেদনে প্রকাশিত হয় যে বার্সেলোনা প্রায় ১০০ কোটি ইউরো দেনায় আছে।

যার কারণে মেসির পাশাপাশি আঁতোয়া গ্রিজমান, ফিলিপে কোতিনিয়ো, উসমান ডেম্বেলে ও আনসু ফাতির মতো তারকাদের ছেড়ে দিতে হতে পারে ক্লাবটির।

আরও পড়ুন:
৭৫৩ ম্যাচে প্রথম লাল কার্ড মেসির
ঘটনাবহুল ম্যাচে বার্সেলোনাকে হারিয়ে সুপারকাপ বিলবাওয়ের
মেসির জন্য শেষ মুহূর্তের অপেক্ষায় কুমান

শেয়ার করুন

ডার্বি জিতেও শিরোপা স্বপ্ন নেই ইউনাইটেডের

ডার্বি জিতেও শিরোপা স্বপ্ন নেই ইউনাইটেডের

সিটিকে ২-০ গোলে হারিয়ে লিগ টেবিলের দুই নম্বরে আছে ইউনাইটেড। সিটির মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটে ব্রুনো ফার্নানদেসের পেনাল্টি থেকে এগিয়ে যাওয়া ইউনাইটেড ম্যাচ নিজেদের করে নেয় ৫০ মিনিটে। লুক শর গোলে নিশ্চিত হয় টানা দুই ম্যাচ ড্রয়ের পর ইউনাইটেডের জয়।

টানা দ্বিতীয় ডার্বি জিতেছেন। পেপ গার্দিওলার সর্বজয়ী ম্যানচেস্টার সিটিকে ২১ ম্যাচ পর হারের স্বাদ দিয়েছেন। দলকে নিয়ে উঠে এসেছেন টেবিলের দুইয়ে। তারপরও শিরোপার স্বপ্ন নেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ম্যানেজার ওলে-গানার শোলস্কায়ারের।

রাতে সিটিকে ২-০ গোলে হারিয়ে লিগ টেবিলের দুই নম্বরে আছে ইউনাইটেড। সিটির মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটে ব্রুনো ফার্নানদেসের পেনাল্টি থেকে এগিয়ে যাওয়া ইউনাইটেড ম্যাচ নিজেদের করে নেয় ৫০ মিনিটে। লুক শর গোলে নিশ্চিত হয় টানা দুই ম্যাচ ড্রয়ের পর ইউনাইটেডের জয়।

এমন জয়ের পরও শিরোপা নিয়ে খুব একটা আশাবাদী মনে হচ্ছে না শোলস্কায়ারকে। শীর্ষে থাকা সিটির চেয়ে ১১ পয়েন্ট পিছিয়ে তার দল, এটা খুব ভালো করেই জানেন তিনি।

‘ওরা (সিটি) আসলে এতটাই এগিয়ে যে কোনো কিছু চিন্তা করার সুযোগ নেই। আমরা বাকি ম্যাচগুলো জিততে চাই ও গত মৌসুমের চেয়ে ভালো অবস্থানে থেকে শেষ করতে চাই।’

গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল ও রানার্সআপ সিটির পেছনে থেকে তৃতীয় হয়ে লিগ শেষ করে ইউনাইটেড। এই বছর দ্বিতীয় স্থান নিয়ে তাদের সঙ্গে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে লেস্টার সিটি, চেলসি ও এভারটনের।

২৮ ম্যাচে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে ইউনাইটেড আছে দুই নম্বরে। সমান ম্যাচে তিনে থাকা লেস্টারে ঝুলিতে ৫৩ পয়েন্ট। চার নম্বরে আছে চেলসি। তাদের সংগ্রহে ৪৭ পয়েন্ট তবে তারা ম্যাচ খেলেছে ২৭টি। ৪৬ পয়েন্ট পাওয়া এভারটনে পাঁচে থাকলেও তারা ম্যাচ খেলেছে ২৬টি।

রাতে বড় দলগুলোর মধ্যে আবারও অঘটনের শিকার হয়েছে লিভারপুল। ফুলহ্যামের কাছে নিজ মাঠে তারা হেরেছে ১-০ গোলে। এই নিয়ে নিজ মাঠ অ্যানফিল্ডে টানা ছয় ম্যাচ হারল চ্যাম্পিয়নরা। এই হারে ২৮ ম্যাচে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে আট নম্বরে আছে ইয়ুর্গেন ক্লপের লিভারপুল।

আরও পড়ুন:
৭৫৩ ম্যাচে প্রথম লাল কার্ড মেসির
ঘটনাবহুল ম্যাচে বার্সেলোনাকে হারিয়ে সুপারকাপ বিলবাওয়ের
মেসির জন্য শেষ মুহূর্তের অপেক্ষায় কুমান

শেয়ার করুন

মাদ্রিদ ডার্বি ড্রয়ে জমে উঠল লা লিগা

মাদ্রিদ ডার্বি ড্রয়ে জমে উঠল লা লিগা

বল পায়ে কাসেমিরো। ছবি: টুইটার

১৫ মিনিটে লুইস সুয়ারেস আতলেতিকোকে এগিয়ে নেওয়ার পর কারিম বেনজেমার শেষ মুহূর্তের গোলে ড্র করেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

মাদ্রিদ ডার্বি শুরুর আগে দুই দলের লক্ষ্য ছিল দুই রকম। আতলেতিকো মাদ্রিদের লক্ষ্য ছিল জয় নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকা বার্সেলোনার চেয়ে পাঁচ পয়েন্টে এগিয়ে যাওয়া। রিয়াল মাদ্রিদের লক্ষ্য ছিল জয় নিয়ে আতলেতিকোর সাথে ব্যবধান কমানো।

শেষ পর্যন্ত কোনোটিই হয়নি। ১৫ মিনিটে লুইস সুয়ারেস আতলেতিকোকে এগিয়ে নেওয়ার পর কারিম বেনজেমার শেষ মুহূর্তের গোলে ড্র করেছে রিয়াল মাদ্রিদ।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ সাজাতে থাকে লা লিগার শীর্ষে থাকা আতলেতিকো। ফলও পায় তারা। তবে সেটি কাউন্টার অ্যাটাকে। রিয়াল ডিফেন্ডার নাচো ফার্নান্দেসের ভুলে ফাঁকা জায়গায় বল পেয়ে যান মার্কোস ইয়োরেন্তে। সুয়ারেসকে পাস বাড়াতে ভুল করেননি তিনি।

সেই পাস থেকে নিখুঁত এক ফিনিশে থিবো কোঁতোয়াকে পরাস্ত করেন সাবেক বার্সা স্ট্রাইকার। আতলেতিকোকে এগিয়ে নেন।

প্রথমার্ধের শেষদিকে সমতায় ফিরতে পারত রিয়াল। টনি ক্রুসের কর্নার ক্লিয়ার করতে গেলে হাতে লাগে আতলেতিকো ডিফেন্ডার ফেলিপের। ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির সঙ্গে আলোচনার পর পেনাল্টির বাঁশি বাজাননি রেফারি।

দ্বিতীয়ার্ধে আতলেতিকো বেশ কিছু সুযোগ পায় ব্যবধান বাড়ানোর। কঁতোয়ার দৃঢ়তায় সেটি পারেনি তারা। বরং দ্বিতীয়ার্ধে ফেদেরিকো ভালভার্দে ও ভিনিসিয়াস জুনিয়র মাঠে নামার পর খেলার গতি বাড়ে রিয়ালের।

তারই ফলস্বরূপ ৮৮ মিনিটে গোলের দেখা পায় তারা। আতলেতিকো বক্সের মধ্যে দারুণ এক পাস দিয়ে বেনজেমাকে খুঁজে নেন কাসেমিরো। সেই পাস থেকে বল জালে জড়াতে ভুল করেননি এই ম্যাচেই চোট থেকে ফেরা ফরাসি স্ট্রাইকার।

এই ড্রয়ে ২৫ ম্যাচ শেষে ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে লা লিগা টেবিলের শীর্ষস্থান ধরে রাখল আতলেতিকো। ২৬ ম্যাচে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রিয়াল। সমান ম্যাচে ৫৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে বার্সেলোনা।

আরও পড়ুন:
৭৫৩ ম্যাচে প্রথম লাল কার্ড মেসির
ঘটনাবহুল ম্যাচে বার্সেলোনাকে হারিয়ে সুপারকাপ বিলবাওয়ের
মেসির জন্য শেষ মুহূর্তের অপেক্ষায় কুমান

শেয়ার করুন

১০ বছর পর স্কটিশ চ্যাম্পিয়ন জেরার্ডের রেঞ্জার্স

১০ বছর পর স্কটিশ চ্যাম্পিয়ন জেরার্ডের রেঞ্জার্স

উদযাপনে রেঞ্জার্স। ছবি: টুইটার

৩২ ম্যাচ শেষে রেঞ্জার্সের পয়েন্ট ৮৮। সমান ম্যাচে সেল্টিক পেয়েছে ৬৮ পয়েন্ট। বাকি ছয় ম্যাচে কোনোভাবেই সেল্টিকের পক্ষে রেঞ্জার্সকে টপকানো সম্ভব নয়।

শেষবার ২০১১ সালে স্কটল্যান্ডের প্রিমিয়ারশিপ জিতেছিল রেঞ্জার্স। এরপর টানা নয় মৌসুম তারা দেখেছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী সেল্টিককে শিরোপা জিততে।

অবশেষে সেই ধারা ভাঙল তারা। রোববার ডান্ডি ইউনাইটেডের বিপক্ষে সেল্টিক ড্র করায় স্কটিশ প্রিমিয়ারশিপ নিশ্চিত হয় রেঞ্জার্সের।

৩২ ম্যাচ শেষে রেঞ্জার্সের পয়েন্ট ৮৮। সমান ম্যাচে সেল্টিক পেয়েছে ৬৮ পয়েন্ট। বাকি ছয় ম্যাচে কোনোভাবেই সেল্টিকের পক্ষে রেঞ্জার্সকে টপকানো সম্ভব নয়।

সাবেক লিভারপুল অধিনায়ক স্টিভেন জেরার্ডের অধীনে এই মৌসুমে অবিশ্বাস্য ফর্ম খুঁজে পেয়েছে তারা। ২০১৮ সালে রেঞ্জার্সের দায়িত্ব নেওয়ার পর দুই মৌসুমেই রেঞ্জার্সকে স্কটিশ লিগের দ্বিতীয় স্থানে রেখে লিগ শেষ করেছিলেন জেরার্ড। কিন্তু লিগ জেতা হয়নি।

এবারের মৌসুমে এখন পর্যন্ত লিগে একটি ম্যাচও হারেনি জেরার্ডের শিষ্যরা। ৩২ ম্যাচের মধ্যে জিতেছে ২৮টিই, বাকি চারটি ড্র। গোল করেছে ৭৭টি, খেয়েছে মাত্র নয়টি। ২৪টি ম্যাচে গোল হজম করেনি তারা।

১৯০২/০৩ মৌসুমের পর এবারই দ্রুততম সময়ে লিগ জিতল রেঞ্জার্স। তবে সেবার হাইবারনিয়ান লিগ জিতেছিল দুই ম্যাচ হাতে রেখে, রেঞ্জার্স জিতেছে ছয় ম্যাচ হাতে রেখে।

রেঞ্জার্সকে লিগ জেতানোয় প্রশংসায় ভাসছেন স্টিভেন জেরার্ড। সাবেক ইংলিশ স্ট্রাইকার গ্যারি লিনেকার তার টুইটারে লিখেছেন, ‘লিগ জেতার জন্য রেঞ্জার্সকে অভিনন্দন। স্টিভেন জেরার্ডকেও এই অসাধারণ অর্জনের জন্য অভিনন্দন।’

আরও পড়ুন:
৭৫৩ ম্যাচে প্রথম লাল কার্ড মেসির
ঘটনাবহুল ম্যাচে বার্সেলোনাকে হারিয়ে সুপারকাপ বিলবাওয়ের
মেসির জন্য শেষ মুহূর্তের অপেক্ষায় কুমান

শেয়ার করুন

নারী লিগ শুরু ২৭ মার্চ, অংশ নিচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৭

নারী লিগ শুরু ২৭ মার্চ, অংশ নিচ্ছে অনূর্ধ্ব-১৭

সংবাদ সম্মেলন করে লিগের অগ্রগতি জানিয়েছে নারী লিগ। কমিটি ছবি: বাফুফে

ফার্স্ট ইন্সটেন্স বডি (এফআইবি) বাছাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ১৭ দলের মধ্যে ৯ দলকে চূড়ান্ত করেছে ফেডারেশন। তাদের মধ্যে গত লিগে অংশ নেয়নি এমন চারটি দল খেলছে। বসুন্ধরা গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় লিগে অংশ নিচ্ছে শেখ রাসেল।

ক্লাব লাইসেন্সিং প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে দল বাছাই করা শেষ। ১০ দল নিয়ে ২৭ মার্চ শুরু হচ্ছে নারী ফুটবল লিগের ২০২০-২১ মৌসুম। এবার লিগে দলের সংখ্যা বাড়ানোর পাশাপাশি একটি বয়সভিত্তিক দলকেও লিগে খেলানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।

ফার্স্ট ইন্সটেন্স বডি (এফআইবি) বাছাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ১৭ দলের মধ্যে ৯ দলকে চূড়ান্ত করেছে ফেডারেশন। তাদের মধ্যে গত লিগে অংশ নেয়নি এমন নতুন চারটি দল খেলছে। বসুন্ধরা গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় লিগে অংশ নিচ্ছে শেখ রাসেল।

আর প্রথমবারের মতো বয়সভিত্তিক কোনো দলকে টুর্নামেন্টে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাফুফে। অনূর্ধ্ব-১৭ জাতীয় দলের ফুটবলাররা অংশ নেবে এই টুর্নামেন্টে। খেলার মধ্যে রাখার পরিকল্পনা থেকে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফুটবল ফেডারেশন। লিগে জাতীয় দলের খেলোয়াড়রাও অংশ নিচ্ছেন বিভিন্ন দলের হয়ে।

২৭ মার্চ লিগ শুরুর অংশ হিসেবে ১০ থেকে ২০ মার্চ ১১ দিন চলবে দলবদল। ভেন্যু হিসেবে কমলাপুরের শহীদ বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামের সঙ্গে বিকল্প রাখা হয়েছে বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামকে।

বাফুফের কার্যনির্বাহী কমিটির সঙ্গে আলোচনা করে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান নারী লিগ কমিটির চেয়ারম্যান মাহফুজা আক্তার কিরণ।

বলেন, ‘বাছাই প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে ১৭ দল থেকে ৯ দলকে বাছাই করা হয়েছে। সঙ্গে আমাদের অনূর্ধ্ব-১৭ জাতীয় খেলবে অংশ নেবে। তারা চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য খেলবে না। তারা যেন প্রস্তুতির মধ্যে থাকে তাই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বাফুফের সভাপতিসহ কমিটির সবার সঙ্গে আলোচনা করে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।’

সাত বছর পর গতবছর ফেব্রুয়ারিতে লিগ মাঠে নামায় বাফুফে। করোনাভাইরাসের কারণে লিগে ছেদ পড়ে। পরে নভেম্বরে থমকে থাকা লিগ ফের চালু করে। ডিসেম্বরে লিগ শেষ হলে ২০২০-২১ মৌসুমের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল ফেডারেশন।

লিগে অংশ নেয়া ১০ দল

বসুন্ধরা কিংস, শেখ রাসেল, নাসরিন স্পোর্টস অ্যাকাডেমি, কাচারী পাড়া একাদশ উন্নয়ন সংস্থা, কুমিল্লা ইউনাইটেড, আতাউর রহমান ভূঁইয়া কলেজ স্পোর্টিং ক্লাব, সদ্যপুস্করিণী যুব স্পোর্টিং ক্লাব, এফসি ব্রাহ্মণবাড়িয়া, কাঁচিঝুলি স্পোর্টিং ক্লাব ও বাফুফে অনূর্ধ্ব-১৭।

আরও পড়ুন:
৭৫৩ ম্যাচে প্রথম লাল কার্ড মেসির
ঘটনাবহুল ম্যাচে বার্সেলোনাকে হারিয়ে সুপারকাপ বিলবাওয়ের
মেসির জন্য শেষ মুহূর্তের অপেক্ষায় কুমান

শেয়ার করুন

‘অপরাজিত’ মোহামেডানকে হারিয়ে দিল শেখ জামাল

‘অপরাজিত’ মোহামেডানকে হারিয়ে দিল শেখ জামাল

এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলে কিংসের থেকে আট পয়েন্ট কম নিয়ে দুইয়ে থেকে প্রথম পর্বের খেলা শেষ করল শেখ জামাল। ছবি: বাফুফে

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে লেনের গতিময় দলটাকে ২-০ গোলে হারিয়ে দিলেন মানিক। আর এই জয়টা মানিককে হাতে তুলে দিলেন দলের দুই প্রাণভোমরা ওটাবেক ভালিদজানোভ ও সলোমন কানফর্ম।

ছয় ম্যাচে অপরাজিত থাকা মোহামেডানকে হারানো সহজ কাজ ছিল না শেখ জামালের। রেড কার্ড দেখে দলের অন্যতম ভরসা সুলায়মান সিল্লাহকে ছাড়াই শন লেনের সেই চ্যালেঞ্জটাকে সাদরে গ্রহণ দারুণ হার উপহার দিলেন জামালের কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে লেনের গতিময় দলটাকে ২-০ গোলে হারিয়ে দিলেন মানিক। আর এই জয়টা মানিককে হাতে তুলে দিলেন দলের দুই প্রাণভোমরা ওটাবেক ভালিদজানোভ ও সলোমন কানফর্ম।

এবার লিগে শুরুটা শেখ জামালের সেই রকম দাপট দেখা গেলেও প্রথম লেগের মাঝপথে এসে খেই হারিয়ে ফেলে। তবে না হেরেও গতিপথ ঠিক রাখে হলুদবাসীরা।

মোহামেডানের দেয়া বড় পরীক্ষায় পার হয়ে গেল শেখ জামাল। জয়ের যাত্রায় ম্যাচের ২৫ মিনিটে লিড। সমান সমান খেলতে থাকা পরিস্থিতি থেকে পা ওমর জবের কাছ থেকে বল পেয়ে ডি-বক্সের একটু বাইরে থেকে বাঁকানো শটে দৃষ্টিনন্দন গোল করেছেন জামালের মাঝমাঠের প্রাণ ওটাবেক ভালিদজানোভ।

প্রথমার্ধে তার গোলে লিড নিয়ে দ্বিতীয়ার্ধেও অনেক সুযোগ তৈরি করেছে জামাল। আর পিছিয়ে পড়ে কিছু ভালো সুযোগ হাতছাড়া করেছে মোহামেডান। ফাঁকা জায়গা থেকে সিক্স ইয়ার্ডের একটু পেছন থেকে হেড বারের বাইরে পাঠিয়ে দেয়ার মতো ভুলও তারা করেছে।

তার খেসারত কড়ায় গণ্ডায় তুলেছে শেখ জামাল। পা ওমর জবের দ্বিতীয় অ্যাসিস্ট থেকে ডি-বক্সের ভেতর থেকে মাটি কামড়ানো শটে বারে লাগিয়ে বল জালে পৌঁছে দেন সলমন কানফর্ম।

আর তাতেই ফেরার সব পথ বন্ধ হয়ে যায় মোহামেডানের। জয় সিল করেই মাঠ ছাড়ে শেখ জামাল।

এ জয়ে পয়েন্ট টেবিলে কিংসের থেকে আট পয়েন্ট কম নিয়ে দুইয়ে থেকে প্রথম পর্বের খেলা শেষ করল শেখ জামাল। তাদের পয়েন্ট এখন ২৬। আর হারের ফলে ১৯ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষ চার থেকে নেমে ছয়ে চলে গেল মোহামেডান।

আরও পড়ুন:
৭৫৩ ম্যাচে প্রথম লাল কার্ড মেসির
ঘটনাবহুল ম্যাচে বার্সেলোনাকে হারিয়ে সুপারকাপ বিলবাওয়ের
মেসির জন্য শেষ মুহূর্তের অপেক্ষায় কুমান

শেয়ার করুন

নেপালে ত্রিদেশীয় সিরিজে যাচ্ছে বাংলাদেশ

নেপালে ত্রিদেশীয় সিরিজে যাচ্ছে বাংলাদেশ

২০-৩০ মার্চ নেপালের দশরথ স্টেডিয়ামে চলবে ত্রিদেশীয় সিরিজ ছবি: ফাইল ছবি

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচ বাতিল হওয়ার পর নেপালও চাচ্ছিল জাতীয় দলের খেলা অব্যাহত রাখতে। তাই ত্রিদেশীয় সিরিজের পরিকল্পনা থেকে বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচ খেলতে ঢাকায় আসতে চাচ্ছে না আফগানিস্তান। তাই জুনের আগে জাতীয় দলের খেলা নিয়ে অশ্চিয়তা দূর করতে বিকল্প পন্থা বেছে নিচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে নেপালের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়েছে দেশের সর্বোচ্চ ফুটবল সংস্থা।

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচ বাতিল হওয়ার পর নেপালও চাচ্ছিল জাতীয় দলের খেলা অব্যাহত রাখতে। তাই ত্রিদেশীয় সিরিজের পরিকল্পনা থেকে বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল।

বলে-ব্যাটে মিলে যাওয়ায় ২২-৩০ মার্চ তিন দেশের নয়দিনের টুর্নামেন্টে অংশ নিতে যাচ্ছে বাফুফে।

টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ ছাড়াও ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ের ৯৬তম দেশ কিরগিজস্তানও অংশ নিচ্ছে এই সিরিজে।

এ নিয়ে সোমবার বৈঠক করে জাতীয় দল নিয়ে পরিকল্পনার চূড়ান্ত সবকিছু জানাবে জাতীয় দল ব্যবস্থপনা কমিটি।

বাফুফে চাচ্ছে চলতি মাসের ১১-১২ মার্চ থেকে জাতীয় দলের ক্যাম্প শুরু করতে। ২২ মার্চ ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু হবে।

আরও পড়ুন:
৭৫৩ ম্যাচে প্রথম লাল কার্ড মেসির
ঘটনাবহুল ম্যাচে বার্সেলোনাকে হারিয়ে সুপারকাপ বিলবাওয়ের
মেসির জন্য শেষ মুহূর্তের অপেক্ষায় কুমান

শেয়ার করুন

ad-close 103.jpg