বারিধারাকে হারিয়ে লিগে শুভ সূচনা কিংসের

উত্তর বারিধারার বিপক্ষে গোলের পর বসুন্ধরা কিংস খেলোয়াড়দের উল্লাস। ছবি: বাফুফে

বারিধারাকে হারিয়ে লিগে শুভ সূচনা কিংসের

প্রিমিয়ার লিগে শুভ সূচনা করেছে সদ্য ফেডারেশন কাপ জেতা বসুন্ধরা কিংস। দলকে প্রথমার্ধে এগিয়ে নেন বেসেরা। দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ইব্রাহিম।

ফেডারেশন কাপ জেতার মাত্র দুই দিনের মাথায় প্রিমিয়ার লিগের প্রথম ম্যাচ খেলেছে বসুন্ধরা কিংস। ক্লান্তির ছাপ নেই ফুটবলারদের চোখেমুখে। উত্তর বারিধারাকে হারিয়ে লিগে শুভ সূচনা করেছে তারা।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম বুধবার উত্তর বারিধারাকে ২-০ ব্যবধানে হারিয়েছে কিংস। গোল দুটি করেন আর্জেন্টাইন রাউল বেসেরা ও মোহাম্মদ ইব্রাহিম।

কিছুটা ধীর গতিতে খেলতে থাকে অস্কার ব্রুজন বাহিনী। কাগজে-কলমে হেভিওয়েট কিংসকে রুখে দিতে পাঁচ ডিফেন্ডার নিয়ে মাঠে নামে শেখ জাহিদুর রহমান মিলনের উত্তর বারিধারা।

পাল্টা আক্রমণের কৌশলে রক্ষণে গ্যাপ খুঁজে আক্রমণ সাজানো চ্যালেঞ্জিং ছিল কিংসের।

বারিধারার জমাটবদ্ধ রক্ষণ ভেদ করে প্রথম সুযোগ তৈরি করে নিতে বেশ সময় লেগে যায় রবসন-বেসেরাদের। ১৯তম মিনিটে লিড নিতে পারত তারা। ডান প্রান্ত থেকে ডিফেন্ডার বিশ্বনাথ ঘোষের বাড়ানো ক্রস ধরে হেড করেন রাউল বেসেরা।

তবে আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকারের হেড পোস্টের একটু বাইরে দিয়ে চলে গেলে হতাশ হতে হয় কিংস সমর্থকদের।

ম্যাচের ৩৫ মিনিটে অপেক্ষার অবসান ঘটে কিংসের। ডান দিক থেকে বিশ্বনাথের বাড়ানো ক্রসটা ক্লিয়ার করার চেষ্টা করেন বারিধারা ডিফেন্ডার সাইদস্তন ফজিলভ। ফিরতি বলে হেড করে সহজে বল পাঠিয়ে দেন বেসেরা। এই গোলে কিংসের জার্সিতে লিগে নিজের প্রথম গোল ও সব মিলিয়ে ষষ্ঠ গোল আদায় করে নেন এই আর্জেন্টাইন।

প্রথমার্ধেই সমতায় ফিরতে পারত বারিধারা। অতিরিক্ত মিনিটে ডান প্রান্ত থেকে মোস্তফা মাহমুদ আবদেলের বাড়ানো বল ডি-বক্সের ভেতর থেকে দুর্বল শট নেন অধিনায়ক সুমন রেজা। সেটি তালুবন্দি করতে খুব একটা বেগ পেতে হয়নি কিংসের গোলকিপার আনিসুর রহমান জিকোর।

এক গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় কিংস।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই দারুণ সুযোগ তৈরি করে বারিধারা। মিনিট দুয়েকের মধ্যে মাথায় বল নিয়ে আবারও বসুন্ধরার ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন সুমন রেজা। তবে এবারও দুর্বল শটে আক্রমণ পণ্ড হলে হতাশ হতে হয় বারিধারা সমর্থকদের।

তবে সুযোগ নষ্ট করেনি কিংস। ৫৩ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে তারা। এবার বেসেরার পাস থেকে ডি-বক্সের ভেতর থেকে একা বল নিয়ে গোলপোস্টের বাম বরাবর গোল করেন মোহাম্মদ ইব্রাহিম। মৌসুমে নিজের প্রথম গোল আদায় করে নেন এই উইঙ্গার।

এরপরে একাধিক সুযোগ পেয়েও ব্যবধান কমাতে ব্যর্থ হয় মিলনের শিষ্যরা। ২-০ ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে কিংস। আর হোম ম্যাচে পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠে যায় অস্কার ব্রুজনের শিষ্যরা।

বসুন্ধরা কিংস ও উত্তর বারিধারা খেলোয়াড়দের মধ্যে বল দখলের লড়াই। ছবি: বাফুফে

এ হারে অবশ্য হতাশ হননি বারিধারার কোচ জাহিদুর রহমান মিলন। ভালো খেলেই ভাগ্যের কাছে হেরেছেন বলে মনে করেন এই স্থানীয় কোচ।

মিলন বলেন, কিংস বড় দল। আমার আশা ছিল ভাল খেলা। তারা ভালো খেলেছে। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত গোল খেয়েছি। দুই দলের মধ্যে অনেক পার্থক্য আছে। সেটা দেখা গেল ম্যাচে। খেলোয়াড়রা হয়তো সাইকোলজি একটা ডাউন ছিল। পঞ্চম-ষষ্ঠ পজিশনে নিতে চাই দলকে।’

এদিকে কাঙ্ক্ষিত জয় পেয়ে খুশি কিংসের কোচ অস্কার ব্রুজন। তিনি বলেন, ‘ওরা পাঁচ ডিফেন্ডার নিয়ে আমাদের জন্য ম্যাচ কঠিন করে ফেলেছিল। প্রথম গোলের আগে আমাদের চ্যালেঞ্জ কঠিন ছিল। গোল পাওয়ার পর সব সহজ হয়ে গেছে। প্রথম জয় পেয়ে খুশি। এবারের দলটা অনেক স্ট্রং আমাদের। টাইটেলের জন্য খেলছি।’

লিগের দ্বিতীয় ম্যাচে একই ভেন্যুতে বৃহস্পতিবার ঢাকা আবাহনীর মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ পুলিশ এফসি।

শেয়ার করুন

মন্তব্য