ফার্গুসন যুগের পর প্রথমবার শীর্ষে ইউনাইটেড

ফার্গুসন যুগের পর প্রথমবার শীর্ষে ইউনাইটেড

বার্নলিকে ১-০ গোলে হারিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষস্থান দখল করেছে ওলে গানার শোলস্কায়ারের দল। ২০১৩ সালে কিংবদন্তি ম্যানেজার স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের অবসরের পর এই প্রথম লিগের শীর্ষ পৌঁছালো তারা। ইউনাইটেডের টানা তৃতীয় জয়ে ম্যাচজয়ী গোল আসে পল পগবার পা থেকে।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে জিতেই চলেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। রাতে অ্যাওয়ে ম্যাচে বার্নলিকে ১-০ গোলে হারিয়ে লিগ টেবিলের শীর্ষস্থান দখল করেছে ওলে গানার শোলস্কায়ারের দল। ২০১৩ সালে কিংবদন্তি ম্যানেজার স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের অবসরের পর এই প্রথম লিগের শীর্ষ পৌঁছাল তারা। ইউনাইটেডের টানা তৃতীয় জয়ে একমাত্র গোল আসে পল পগবার পা থেকে।

নিজেদের মাঠে বার্নলি শুরুতে স্বস্তি দেয়নি ইউনাইটেডকে। বলের দখল পেতে বেগ পেতে হয় রেড ডেভিলদের। ১৭ মিনিটে লুক শর ক্রসে বক্সে বল পেয়ে যান ব্রুনো ফার্নান্দেস। কিন্তু লক্ষ্যভেদ করতে ব্যর্থ হন ইউনাইটেডের এই পর্তুগিজ মিডফিল্ডার।

ইউনাইটেডের সামনে বিরতির আগে নিশ্চিত সুযোগ আসে ৩৬ মিনিটে। কর্নার থেকে পাওয়া বলে বক্সে ক্রস করেন শ। বক্সে থাকা হ্যারি ম্যাগুয়ার হেডারে বল জালে জড়ালেও রেফারি ফাউলের কারণে সাহায্য নেন ভিডিও অ্যাসিস্টেন্টের।

ভিএআরে নিশ্চিত হয় ম্যাগুয়ার হেড করার সময় ফাউল করেছেন বার্নলির এরিক পিটার্সকে। গোল বাতিল করে দেন রেফারি। প্রথমার্ধের শেষ মুহূর্তে মার্কাস র‍্যাশফোর্ড সুযোগ পেয়েছিলেন ইউনাইটেডকে এগিয়ে নেয়ার। কিন্তু তার শট থেকে দারুণ দক্ষতায় নিরাপদে রাখেন বার্নলি গোলকিপার নিক পোপ।

ম্যাচের ডেড লক ভাঙ্গে ৭০ মিনিটে। র‍্যাশফোর্ডের কাছ থেকে বক্সের বাইরে বল পান পগবা। দর্শণীয় ভলিতে সেখান থেকে পোপকে পরাস্ত করেন এই ফ্রেঞ্চম্যান।

ম্যাচে এটিই হয়ে দাঁড়ায় ইউনাইটেডের জন্য জয়সূচক গোল। বাকি মিনিট বিশেক বার্নলি চাপ সৃষ্টি করেও গোলের দেখা পায়নি। নিজেদের রক্ষণ দৃঢ় রাখেন এরিক বেইলি ও ম্যাগুয়ার। টানা তিন জয়ে লিগে টেবিলে সবাইকে ছাড়িয়ে যায় ইউনাইটেড।

দলের শীর্ষে ওঠার রাতে স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত ছিলেন শোলস্কায়ার। ম্যাচ শেষে গণমাধ্যামকে বলেন, ‘দ্বিতীয়ার্ধে আমরা দারুণ খেলেছি। শেষ পর্যন্ত সেটা বজায় রাখতে পেরেছি।’

গত মাসেই পল পগবার এজেন্ট মিনো রেইওলা বলেছিলেন যে পগবা ইউনাইটেডে ভালো নেই এবং দল ছাড়তে চান। তবে, বার্নলির বিপক্ষে ম্যাচ জয়ী পারফরম্যান্সের পর ম্যানেজারের কাছ থেকে পূর্ণ সমর্থন পাচ্ছেন এই ফিডফিল্ডার।

‘আমি সবসময়ই বলেছি যে পল আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। ড্রেসিং রুমের জন্যও সে উপযুক্ত একজন। তাকে দেখে অন্যরা উৎসাহিত হয়। সে একজন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন’, বলেন ইউনাইটেড বস।

পগবা, র‍্যাশফোর্ডরা সেরা ফর্ম ধরে রাখুন সেটাই চাইবেন শোলস্কায়ার। পরের ম্যাচেই চ্যাম্পিয়ন লিভারপুলের মাঠে নামতে যাচ্ছে তারা। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দুই শীর্ষ দল মুখোমুখি হচ্ছে রোববার।

আরও পড়ুন:
ভিলাকে হারিয়ে যৌথভাবে শীর্ষে ইউনাইটেড
শেষ মুহূর্তের গোলে দুইয়ে ইউনাইটেড
লেস্টারের মাঠে ২-২ গোলের ড্র ইউনাইটেডের

শেয়ার করুন

মন্তব্য