× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

ফুটবল
মেসিকে হারিয়ে শতাব্দীর সেরা রোনালডো
google_news print-icon

মেসিকে হারিয়ে শতাব্দীর সেরা রোনালডো

মেসিকে-হারিয়ে-শতাব্দীর-সেরা-রোনালডো
চির প্রতিদ্বন্দ্বি লিওনেল মেসিকে হারিয়ে নতুন শতাব্দীর সেরা ফুটবলারের এই ট্রফি পেয়েছেন পর্তুগিজ মেগাস্টার।

দুবাই স্পোর্টস কাউন্সিলের আয়োজিত গ্লোব সকার অ্যাওয়ার্ডসে শতাব্দীর সেরা ফুটবলারের পুরস্কার জিতেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালডো। রোববার রাতে দুবাইয়ে তার হাতে এই পুরস্কার তুলে দেয়া হয়।

চির প্রতিদ্বন্দ্বি লিওনেল মেসিকে হারিয়ে নতুন শতাব্দীর সেরা ফুটবলারের এই ট্রফি পেয়েছেন পর্তুগিজ মেগাস্টার।

গ্লোব সকারের পুরস্কার পেয়ে উচ্ছ্বসিত রোনালডো। পাঁচবারের ব্যালন ডর জয়ী ধন্যবাদ জানিয়েছেন তার সতীর্থদের।

‘যে কোনো পুরস্কার পাওয়াই আনন্দের। এত দিন ধরে সেরা খেলা উপহার দেয়া সহজ কাজ না। আমি অত্যন্ত গর্বিত। কিন্তু দল, দারুণ কোচ এবং ক্লাব ছাড়া এই অর্জন সম্ভব ছিল না।’

অনুষ্ঠানে শতাব্দীর সেরা ক্লাবের পুরস্কার পেয়েছে রোনালডোর সাবেক দল রিয়াল মাদ্রিদ। আর বর্ষসেরা ফুটবলারের ট্রফি পেয়েছেন কিছুদিন আগেই ফিফা বেস্ট অ্যাওয়ার্ড জেতা রবার্ট লেওয়ানডোভস্কি।

গ্লোব সকার অ্যাওয়ার্ডসের জাঁকজমক পূর্ণ এই গালা নাইটে বিশেষ সম্মান জানানো হয় বার্সেলোনার জেরার্দ পিকেকে। স্পেশাল ক্যারিয়ার অ্যাওয়ার্ড পান এই স্প্যানিশ ডিফেন্ডার।

আর শতাব্দী সেরা কোচের পুরষ্কার পেয়েছেন ম্যানচেস্টার সিটির ম্যানেজার পেপ গার্দিওলা। আর বর্ষসেরা কোচের সম্মান পেয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে ইউরোপিয়ান ট্রেবল জেতা হান্সি ফ্লিক।

২০১০ সাল থেকে দুবাই স্পোর্টস কাউন্সিল এই পুরস্কার দিয়ে আসছে।

আরও পড়ুন:
মাঠের বাইরে তারকাদের বড়দিন
হার দিয়ে বছর শেষ করল রোনালডোর ইউভেন্তাস
গোল্ডেন ফুট রোনালডোর

মন্তব্য

আরও পড়ুন

ফুটবল
Governments support for football development will continue PM

ফুটবলের উন্নয়নে সরকারের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে: প্রধানমন্ত্রী

ফুটবলের উন্নয়নে সরকারের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে: প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামে শেখ হাসিনা আন্তঃব্যাংক ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ উপভোগ শেষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। ছবি: সংগৃহীত
শেখ হাসিনা বলেন, ‘যখন সরকারে এসেছি তখন থেকেই আমার প্রচেষ্টা, বাংলাদেশ যেন খেলাধুলায় আরও এগিয়ে যায়। দেশের প্রতিটি উপজেলায় আমরা খেলার মাঠ করে দিচ্ছি, সেটা হলো শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম। চেষ্টা করে যাচ্ছি সবাই যেন খেলাধুলার প্রতি আরও মনোযোগী হয়।’

দেশে ফুটবলের উন্নয়নে সরকারের সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামে শেখ হাসিনা আন্তঃব্যাংক ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল ম্যাচ উপভোগ শেষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘খেলাধুলার মাধ্যমে নিজেকে দেশের জন্য প্রস্তুত করে তোলা যায়। এজন্য প্রত্যেক উপজেলায় মিনি স্টেডিয়াম গড়ে তোলা হচ্ছে। সময় পেলে আমি নিজেও ফুটবল খেলা উপভোগ করি।

‘আমার বাবা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ফুটবল খেলতেন। আমার ভাই শেখ কামাল এবং শেখ জামালও ফুটবল খেলতেন। এখন আমাদের নাতি-নাতনীরাও ফুটবল খেলছে।’

তিনি বলেন, ‘খেলাধুলা, সংস্কৃতি চর্চা এগুলোর পৃষ্ঠপোষকতা না করলে হয় না। এমন আয়োজনের মাধ্যমে ভালো খেলোয়াড় তৈরি হবে, যাতে করে দেশের ভাবমূর্তিও উজ্জ্বল হতে পারে বিশ্ব-পরিমণ্ডলে। একদিন আমাদের খেলোয়াড়রাও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পারদর্শিতা দেখাবে।’

খেলাধুলার প্রসারে সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, ‘যখন সরকারে এসেছি তখন থেকে আমার প্রচেষ্টা, বাংলাদেশ যেন খেলাধুলায় আরও এগিয়ে যায়; ছেলেমেয়েরা আরও বেশি মনোযোগী হয়। বাংলাদেশের প্রতিটি উপজেলায় আমরা খেলার মাঠ করে দিচ্ছি, সেটা হলো শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম। চেষ্টা করে যাচ্ছি সবাই যেন খেলাধুলার প্রতি আরও মনোযোগী হয়।’

প্রশিক্ষণের ওপর গুরুত্বারোপ করে সরকারপ্রধান বলেন, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে খেলোয়াড়দের উপযুক্ত করে গড়ে তোলা, এটা সবচেয়ে বেশি দরকার। সেজন্য আমরা প্রত্যেক বিভাগে একটি করে বিকেএসপি করে দিচ্ছি।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা আমাদের অর্থনীতিকে উন্নত করেছি। দারিদ্র্যের হার অর্ধেকের বেশি কমিয়ে এনেছি, এখন ১৮ দশমিক ৭ ভাগ। অতিদারিদ্র্যের হার ২৫ ভাগের উপরে ছিল, তা ৫ দশমিক ৬ ভাগে নামিয়ে এনেছি। ইনশাল্লাহ, এটুকুও থাকবে না। বাংলাদেশে কোনো মানুষ অতিদরিদ্র থাকবে না। প্রত্যেককে বিনা পয়সায় ঘর করে দিচ্ছি, লেখাপড়ার বই দিচ্ছি, বৃত্তি দিচ্ছি- সব ধরনের সহযোগিতা করে যাচ্ছি।’

শেখ হাসিনা আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘আন্তর্জাতিক পর্যায়েও বাংলাদেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে, এই ধারা অব্যাহত রেখে আমরা এগিয়ে যাব। বাংলাদেশ অপ্রতিরোধ্য গতিতে বিশ্ব দরবারে এগিয়ে যাবে উন্নত-সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ হিসেবে।’

খেলাধুলায় বাংলাদেশ ভালো করছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সারা বাংলাদেশে মেয়েদের বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট এবং ছেলেদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ফুটবল টুর্নামেন্ট প্রতিযোগিতা আছে। সেখান থেকে ধীরে ধীরে ভালো খেলোয়াড় উঠে আসছে। তারা শুধু দেশে না, দেশের মাটি পার হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশের জন্য মর্যাদা বয়ে নিয়ে আসছে। বাংলাদেশকে খেলাধুলার মাধ্যমে বিশ্বের কাছে তুলে ধরা, এটা তারা করছে।’

ফুটবল টুর্নামেন্টটি আয়োজনের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনকে ধন্যবাদ জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘এই খেলাধুলার মধ্য দিয়ে এক সময় উপযুক্ত খেলোয়াড় গড়ে উঠবে। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলাধুলা করে কোনোদিন হয়ত বিশ্ব ফুটবলে আমরা চ্যাম্পিয়নও হয়ে যেতে পারি। সেটাই আমাদের প্রচেষ্টা থাকবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান ও বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ ব্যাংকসের (বিএবি) চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মজুমদার।

টুর্নামেন্টের ফাইনালে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানিকে ২-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় ইসলামী ব্যাংক প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর আগে ফাইনাল ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

আরও পড়ুন:
২১ সহযোগিতা নথিতে সই ঢাকা-বেইজিংয়ের
বাংলাদেশ-চীন প্রতিনিধি পর্যায়ের বৈঠক শুরু
ঋণের সুদ হার কমাতে এআইআইবির প্রতি শেখ হাসিনার আহ্বান
সময় এখন বাংলাদেশে বিনিয়োগের: চীনা ব্যবসায়ীদের প্রধানমন্ত্রী
বেইজিংয়ে পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

মন্তব্য

ফুটবল
Argentinas opponent in the Copa final is Colombia

কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া

কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে বুধবার উরুগুয়ের বিপক্ষে গোল উদযাপন করেন কলম্বিয়ার মিডফিল্ডার জেফারসন লেরমা। ছবি: এএফপি
যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনার শার্লটে স্থানীয় সময় বুধবার অনুষ্ঠিত ম্যাচে দ্বিতীয়ার্ধে ১০ জনের দল নিয়েও জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়ে কলম্বিয়া।

কোপা আমেরিকার দ্বিতীয় সেমিফাইনালে উরুগুয়েকে ১-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছেছে কলম্বিয়া।

এর ফলে কোপার এবারের আসরের ফাইনালে প্রতিপক্ষ হিসেবে কলম্বিয়াকে পাচ্ছে আর্জেন্টিনা।

যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনার শার্লটে স্থানীয় সময় বুধবার অনুষ্ঠিত ম্যাচে দ্বিতীয়ার্ধে ১০ জনের দল নিয়েও জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়ে কলম্বিয়া।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়, কোপার ফাইনালের আগে অনুষ্ঠিত ম্যাচটি শেষ হয় কলম্বিয়ার সমর্থকদের সঙ্গে উরুগুয়ের ফুটবলারদের মুখোমুখি হওয়ার মধ্য দিয়ে। ওই সময় শৃঙ্খলা ফেরাতে হিমশিম খেতে হয় নিরাপত্তাকর্মীদের।

এ ঘটনার তদন্তে চলছে বলে জানিয়েছে দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবল।

ম্যাচটি দেখতে স্টেডিয়ামে আসা ৭০ হাজারের বেশি দর্শকের বড় অংশ ছিল কলম্বিয়ার। তারা শুরু থেকেই মাঠ গরম রাখেন।

গোটা ম্যাচে ব্যবধান গড়া গোলটি করেন কলম্বিয়ার মিডফিল্ডার জেফারসন লেরমা। অন্যদিকে দলকে এগিয়ে নেয়ার তিনটি দারুণ সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি উরুগুয়ের ফরোয়ার্ড ডারউইন নুনেজ।

সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে না পারার খেসারত হারের মধ্য দিয়ে দিতে হয়েছে দক্ষিণ আমেরিকার দলটিকে।

আরও পড়ুন:
ভিনিসিয়ুসের জোড়া গোলে প্যারাগুয়ের সঙ্গে দাপুটে জয় ব্রাজিলের
লাউতারোর শেষ মুহূর্তের গোলে কোয়ার্টারে আর্জেন্টিনা
কোপায় চালু হচ্ছে ‘গোলাপি কার্ড’
কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার প্রাথমিক দল ঘোষণা
কলম্বিয়ায় ভূমিধসে ৩৩ প্রাণহানি

মন্তব্য

ফুটবল
Messi Álvarez double goals Argentina in Copa final

মেসি আলভারেজের জোড়া গোলে কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনা

মেসি আলভারেজের জোড়া গোলে কোপার ফাইনালে আর্জেন্টিনা সতীর্থদের সঙ্গে গোল উদযাপন লিওনেল মেসির। ছবি: রয়টার্স
ফাইনালে যাওয়ার পর মেসি টিওয়াইসি স্পোর্টসকে বলেন, ‘জাতীয় দল, গ্রুপ হিসেবে আমরা যে অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যাচ্ছি, আসুন তা উপভোগ করি। ফের ফাইনালে যাওয়া, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য ফের লড়াই করা সহজ বিষয় ছিল না।’

জুলিয়ান আলভারেজ ও লিওনেল মেসির জোড়া গোলে কোপা আমেরিকার ফাইনালে গেছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত সেমিফাইনালে কানাডাকে বিদায় করে দক্ষিণ আমেরিকার দলটি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়, এ জয়ের মধ্য দিয়ে ফ্লোরিডায় আগামী রোববার শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে উরুগুয়ে অথবা কলম্বিয়ার মুখোমুখি হবে আলবিসেলেস্তেরা।

কোপার ফাইনাল ম্যাচটিই হতে পারে মেসি, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া ও নিকোলাস ওতামেন্ডির মতো জ্যেষ্ঠ ফুটবলারদের আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে শেষ টুর্নামেন্ট।

ফাইনালে যাওয়ার পর মেসি টিওয়াইসি স্পোর্টসকে বলেন, ‘জাতীয় দল, গ্রুপ হিসেবে আমরা যে অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যাচ্ছি, আসুন তা উপভোগ করি। ফের ফাইনালে যাওয়া, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য ফের লড়াই করা সহজ বিষয় ছিল না।’

কোপা আমেরিকায় রেকর্ড ১৫ বার শিরোপা জিতেছে আর্জেন্টিনা। এ ছাড়া গত আট আসরে ছয়বার ফাইনালে গেছে দলটি।

অভিজ্ঞ সেই দলটিকেই সেমিফাইনাল ম্যাচের শুরুর ২০ মিনিটে বেকায়দায় ফেলে দিয়েছিল কানাডা। এ সময়ে দুইবার গোলের চেষ্টা করেন জ্যাকব শ্যাফেলবার্গ, তবে শুরুর ধাক্কা সামলে আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে দেন আলভারেজ, যিনি ম্যাচের ২২তম মিনিটে দুই ডিফেন্ডারকে পরাস্ত করে আদায় করে নেন গোল।

এক গোলে এগিয়ে থাকার পর ২০২২ সালের বিশ্বকাপজয়ী ও ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে এক নম্বর‌ দল আর্জেন্টিনা ধীরে ধীরে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নেয়।

ম্যাচের ৪৪তম মিনিটে গোলের সুযোগ পেয়েও শেষ পর্যন্ত তা আদায় করতে পারেননি মেসি, তবে ৫১তম মিনিটে তার গোলে ব্যবধান ২-০ করে আর্জেন্টিনা। ম্যাচের বাকি সময়ে কোনো গোল না হওয়ায় দাপুটে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আকাশি-সাদারা।

আরও পড়ুন:
ভিনিসিয়ুসের জোড়া গোলে প্যারাগুয়ের সঙ্গে দাপুটে জয় ব্রাজিলের
লাউতারোর শেষ মুহূর্তের গোলে কোয়ার্টারে আর্জেন্টিনা
কোপায় চালু হচ্ছে ‘গোলাপি কার্ড’
কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার প্রাথমিক দল ঘোষণা
নিলামে বিক্রি হলো মেসি-বার্সা চুক্তির সেই বিখ্যাত টিস্যু

মন্তব্য

ফুটবল
Uruguay defeated Brazil in the semi finals of the Copa

ব্রাজিলকে হারিয়ে কোপার সেমিফাইনালে উরুগুয়ে

ব্রাজিলকে হারিয়ে কোপার সেমিফাইনালে উরুগুয়ে সেমিতে যাওয়া উরুগুয়ে দলের উচ্ছ্বাস। ছবি: গেটি ইমেজেস
শ্বাসরুদ্ধকর এ ম্যাচে পেনাল্টি শুটআউটে সেলেসাওদের ৪-২ গোলে হারায় দক্ষিণ আমেরিকার দলটি।

কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলকে হারিয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছেছে উরুগুয়ে।

শ্বাসরুদ্ধকর এ ম্যাচে পেনাল্টি শুটআউটে সেলেসাওদের ৪-২ গোলে হারায় দক্ষিণ আমেরিকার দলটি।

এর আগে নির্ধারিত সময়ে গোল করতে পারেনি কোনো দলই। ফলে ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে।

কোয়ার্টার ফাইনালে দক্ষিণ আমেরিকার দুই দলের মুখোমুখি হওয়া মানে ছন্দময় ফুটবলের বিষয়ে দর্শকদের প্রত্যাশার পারদ বাড়া, কিন্তু ডু অর ডাই ম্যাচটিতে হয়েছে তার উল্টোটা। ম্যাচজুড়ে দুই দলের ফুটবলারদের কুৎসিত রূপ দেখেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নেভাডার এলেজায়ান্ট স্টেডিয়ামের দর্শকরা।

কোপার এবারের আসরের সর্বোচ্চ ৪১টি ফাউল হয়েছে ব্রাজিল-উরুগুয়ে ম্যাচে। এর আগে চিলির সঙ্গে পেরুর ম্যাচে ফাউল হয়েছিল ৩৭টি।

ফাউলের বন্যা বয়ে যাওয়া ম্যাচের ৯০ মিনিটে গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। অতিরিক্ত সময়েও ব্যবধান গড়তে পারেনি কেউই। ফলে ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণ হয় পেনাল্টি শুটআউটে।

এতে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এক লাল কার্ডে ১০ জনের দলে পরিণত হওয়া উরুগুয়ে।

আরও পড়ুন:
কোপায় চালু হচ্ছে ‘গোলাপি কার্ড’
কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার প্রাথমিক দল ঘোষণা
ব্রাজিলে ভয়াবহ বন্যায় প্রাণহানি বেড়ে ১২৬
ব্রাজিলে বন্যায় ৭৫ প্রাণহানি, নিখোঁজ শতাধিক
দেশের জন্য কঠোর পরিশ্রমের স্বীকৃতি হিসেবেই শেখ হাসিনা পুনর্নির্বাচিত: ভিয়েরা

মন্তব্য

ফুটবল
Ladaku Martinez in semi Argentina
কোপা আমেরিকা

লড়াকু মার্তিনেজে সেমিতে আর্জেন্টিনা

লড়াকু মার্তিনেজে সেমিতে আর্জেন্টিনা এমি মার্তিনেজের (বামে) বীরত্বে কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে পৌঁছায় আর্জেন্টিনা। ছবি: গোল ডটকম
প্রতিযোগিতাজুড়ে ধুঁকতে থাকা লিওনেল মেসি তার পদচিহ্ন রাখতে পারেননি ম্যাচে। তিনি মিস করেন স্পট কিক, তবে দায়িত্ব নিজ কাঁধে তুলে নিয়ে আর্জেন্টিনাকে কোয়ার্টার ফাইনাল জেতান গোলরক্ষক।

এমি মার্তিনেজের দুই সেভে কোপা আমেরিকার পেনাল্টি শুটআউটে ইকুয়েডরকে ৪-২-এ হারিয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছেছে আর্জেন্টিনা।

শ্বাসরুদ্ধকর এ ম্যাচে দুই দল একটি করে গোল করায় খেলা গড়ায় টাইব্রেকারে। এতে আরেকবারের মতো আর্জেন্টিনার ত্রাণকর্তা হিসেবে আবির্ভূত হন মার্তিনেজ।

ফুটবলবিষয়ক পোর্টাল গোল ডটকমের প্রতিবেদনে জানানো হয়, টুর্নামেন্টজুড়ে ধুঁকতে থাকা লিওনেল মেসি তার পদচিহ্ন রাখতে পারেননি ম্যাচে। তিনি মিস করেন স্পট কিক, তবে দায়িত্ব নিজ কাঁধে তুলে নিয়ে আর্জেন্টিনাকে কোয়ার্টার ফাইনাল জেতান গোলরক্ষক।

ডু অর ডাই ম্যাচের ৩৫ মিনিট পর আকাশি-সাদারা ব্রেকথ্রু পান। গোল করেন লিসান্দ্রো মার্তিনেজ, তবে প্রথমার্ধের আগে দ্বিতীয় গোলের সুযোগ পেয়েও তা কাজে লাগাতে পারেননি এনজো ফার্নান্দেজ।

প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধ শুরু করা আর্জেন্টিনা সহজেই জয় পাবেন বলে অনেকে ধারণা করেছিলেন, তবে তাদের সেই ধারণাকে ভুল প্রমাণ করে ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে এসে কেভিন রদ্রিগেজের গোলে ১-১-এ সমতা ফেরায় ইকুয়েডর। এর ফলে ম্যাচ গড়ায় পেনাল্টিতে।

টাইব্রেকারে এসে গোল মিস করেন আর্জেন্টিনার প্রাণভোমরা লিওনেল মেসি, তবে মার্তিনেজের দৃঢ়তায় জয় নিয়ে সেমিফাইনালে যায় আলবিসেলেস্তেরা।

আরও পড়ুন:
কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার প্রাথমিক দল ঘোষণা
ইনজুরিতে কোপা শেষ নেইমারের
সে রাতে স্বর্গে হাত রেখেছিলেন মেসি
হাঙ্গামার ম্যাচে ব্রাজিলকে হারাল আর্জন্টিনা
আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী কট্টর ডানপন্থি হাভিয়ের

মন্তব্য

ফুটবল
What Scaloni said about Messis game
কোপার কোয়ার্টার ফাইনাল

মেসির খেলা নিয়ে যা বললেন স্কালোনি

মেসির খেলা নিয়ে যা বললেন স্কালোনি লিওনেল মেসি। ছবি: সংগৃহীত
গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে পেরুর বিপক্ষে বিশ্রামে ছিলেন মেসি। শঙ্কা আছে শুক্রবারের ম্যাচে মাঠে নামা নিয়েও। বিষয়টি খোলাসা করেননি আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি। বলেছেন, মেসির ব্যাপারে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে শুক্রবার মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা। এই ম্যাচে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের প্রতিপক্ষ ইকুয়েডর। ম্যাচের আগে অধিনায়ক লিওনেল মেসির খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে।

গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে পেরুর বিপক্ষে বিশ্রামে ছিলেন মেসি। শঙ্কা আছে শুক্রবারের ম্যাচে মাঠে নামা নিয়েও। বিষয়টি খোলাসা করেননি আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি। তিনি বলেছেন, মেসির ব্যাপারে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

টিওয়াইসি স্পোর্টসকে স্কালোনি বলেন, ‘আমি এখনও তার অবস্থা নিয়ে কথা বলিনি। আমার মনে হয় শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করাই ভালো। অবশ্যই আজ (গতকাল) কথা বলব; কারণ ম্যাচের এক দিন আগে এবং (সুস্থ হয়ে উঠতে) তার পুরো সময়টাই পাওয়া উচিত। যতটা সম্ভব অনুশীলনও করে নিতে পারছে। অনুশীলনের আগে কথা বলে তারপর সিদ্ধান্ত নেব।’

আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টস অবশ্য বুধবার জানিয়েছে, মেসি সম্ভবত এই ম্যাচে শুরু থেকে খেলবেন। সোমবারই ভালো বোধ করায় মঙ্গলবার মেসি দলের সঙ্গে অনুশীলন করেছেন।

হুলিয়ান আলভারেজ আর লাওতারো মার্টিনেজকে একসঙ্গে খেলানোর সুযোগ আছে কি না- এ প্রশ্নের জবাবে কোচ স্কালোনি বলেছেন, ‘দুজনকে খেলানো হতেই পারে। আজ ট্রেনিং সেশন শেষে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেব। একসঙ্গে খেলানোর সম্ভাবনা আমি উড়িয়ে দিচ্ছি না।’

আরও পড়ুন:
নিলামে বিক্রি হলো মেসি-বার্সা চুক্তির সেই বিখ্যাত টিস্যু
হংকংয়ে না খেলার বিষয়ে মেসির ভিডিও বার্তা
ইনজুরিতে কোপা শেষ নেইমারের
সে রাতে স্বর্গে হাত রেখেছিলেন মেসি
মেসির সামনে আরেকবার ফিফা বর্ষসেরার সুযোগ

মন্তব্য

ফুটবল
Looking forward to the euro quarter

ইউরো কোয়ার্টারে মহারণের অপেক্ষা

ইউরো কোয়ার্টারে মহারণের অপেক্ষা কোয়ার্টার ফাইনালে প্রতিটি দল দারুণ পারফরম্যান্স দেখাবে- এমনটাই প্রত্যাশা ফুটবলামোদীদের। ছবি: গোল ডটকম
সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় স্বাগতিক জার্মানির সঙ্গে লড়বে স্পেন। আর রাত ১টায় মুখোমুখি হবে পর্তুগাল ও ফ্রান্স। পরদিন শনিবার তৃতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে ইংল্যান্ড ও সুইজারল্যান্ড। এরপর রাত ১টায় মুখোমুখি হবে নেদারল্যান্ডস ও তুরস্ক।

ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে কোয়ার্টার ফাইনালে মহারণ দেখার অপেক্ষায় সারা বিশ্বের ফুটবলামোদীরা। শুক্র ও শনিবার (৫ ও ৬ জুলাই) দুটি করে ম্যাচের মাধ্যমে সেমিফাইনালের জন্য সেরা চার দল চূড়ান্ত হবে।

অস্ট্রিয়াকে হারিয়ে সবশেষ দল হিসেবে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে তুরস্ক। এর ফলে চূড়ান্ত হয়ে গেছে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের চলতি আসরের সেরা আট দল।

কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নেয়া দলগুলো হচ্ছে- সুইজারল্যান্ড, জার্মানি, ইংল্যান্ড, স্পেন, ফ্রান্স, পর্তুগাল, নেদারল্যান্ডস ও তুরস্ক।

সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় স্বাগতিক জার্মানির মুখোমুখি হবে স্পেন। এরপর ওইদিন রাত ১টায় দ্বিতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হবে পর্তুগাল ও ফ্রান্স।

পরদিন শনিবার বাকি দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। সেদিন কোয়ার্টার ফাইনালের তৃতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে গত আসরের রানার্স-আপ ইংল্যান্ড ও কোয়ার্টার ফাইনাল খেলা সুইজারল্যান্ড।

এরপর রাত ১টায় সেমিফাইনালের শেষ টিকিট কাটতে মুখোমুখি হবে নেদারল্যান্ডস ও তুরস্ক।

সেমিফাইনালে ওঠার লড়াই শুরু হওয়ার আগে দলগুলোর অবস্থা, শক্তি ও সম্ভাব্য লড়াই কেমন হবে- তার তুলনামূলক বিশ্লেষণে চোখ রাখা যাক।

জার্মানি-স্পেন

সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত দশটায় স্বাগতিক জার্মানির মুখোমুখি হবে স্পেন। ইউরোর চলতি আসরে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখিয়েছে দুই দলই।

চলতি আসরে চার ম্যাচ খেলে মাত্র দুটি গোল খেয়ে প্রতিপক্ষের জালে ১০ বার বল পাঠিয়েছে জার্মানি। জামাল মুসিয়ালা, ফ্লোরিয়ান ভিয়ার্টসের মতো তরুণদের সঙ্গে দলটিতে রয়েছে মানুয়েল নয়ার, আন্টনিও রুয়েডিগার ও টনি ক্রুসদের মতো অভিজ্ঞ ফুটবলার। ফলে একপ্রকার দুর্জয় দল হিসেবে এবারের আসরে আবির্ভূত হয়েছে স্বাগতিকরা।

অন্যদিকে, গ্রুপ পর্বে একমাত্র দল ছিল স্পেন, যারা তিনটি ম্যাচই জিতে শেষ ষোলো খেলতে আসে। প্রথম তিন ম্যাচে প্রতিপক্ষের জালে ৫ বার বল পাঠালেও স্পেনের রক্ষণ ভাঙতে পারেনি কেউ। এরপর শেষ ষোলোয় জর্জিয়াকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে জার্মানিকে একপ্রকার হুঙ্কার দিয়েই রেখেছে লুইস দে লা ফুয়েন্তের শিষ্যরা।

চলতি আসরে স্পেনের জার্সি গায়ে আগুন ঝরিয়ে চলেছেন লামিন ইয়ামাল ও নিকো উইলিয়ামস। পাশাপাশি মাঝমাঠে পেদ্রি ও রক্ষণে রবিন লে নরমান্দ আলো ছড়াচ্ছেন প্রতিটি ম্যাচে। তার সঙ্গে রয়েছেন স্পেনের অধিনায়ক রদ্রি, রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক দানি কারভাহাল ও আতলেতিকো মাদ্রিদ অধিনায়ক আলভারো মোরাতা। ফাবিয়ান রুইস-মার্ক কুকুরেইয়াদের সঙ্গে নিয়ে ভারসাম্য বজায় রেখে প্রতিটি ম্যাচে ক্ষুরধার ফুটবলের ডালি মেলে স্পেন।

ফলে প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালেই ফাইনালের আমেজ পেয়ে যেতে পারে দর্শক।

ফ্রান্স-পর্তুগাল

শুক্রবার রাত একটায় দ্বিতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হবে পর্তুগাল ও ফ্রান্স।

এই দুই দলের পারফরম্যান্স এক কথায় বলতে গেলে জার্মানি-স্পেনের ঠিক উল্টো। প্রতিযোগিতায় এখন পর্যন্ত ওপেন প্লে থেকে গোল পায়নি ফ্রান্স। অস্ট্রিয়ার বিপক্ষে গ্রুপের প্রথম ম্যাচে আত্মঘাতী গোলে ১-০ ব্যবধানের জয়, পরের ম্যাচে ডাচদের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র এবং শেষ ম্যাচে পোল্যান্ডের বিপক্ষে পেনাল্টি থেকে প্রথম গোল পেলেও ১-১ সমতায় টেবিলের দ্বিতীয় অবস্থানে থেকে শেষ ষোলোয় ওঠে গত বিশ্বকাপের রানার্স-আপরা। এরপর বেলজিয়ামের বিপক্ষে ফের আত্মঘাতী গোলের কল্যাণে ১-০ ব্যবধানে জিতে কোয়ার্টারে উঠেছে দিদিয়ের দেশমের শিষ্যরা।

অন্যদিকে, গ্রুপ পর্বে চেক রিাপবলিক ও তুরস্কের বিপক্ষে ২-১ ও ৩-০ ব্যবধানে জিতলেও শেষ ম্যাচে ২-০ গোলে পর্তুগালকে হারায় পুচকে জর্জিয়া। শেষ ষোলোতে তুলনামূলক সহজ প্রতিপক্ষ পেলেও প্রায় হেরেই বসেছিল রবের্তো মার্তিনেসের শিষ্যরা।

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো তো কেঁদেই ফেলেছিলেন মাঠের মধ্যে। তবে ১-১ গোলের সমতায় অতিরিক্ত ৩০ মিনিটের খেলা শেষ হওয়ার পর ম্যাচ পেনাল্টিতে গড়ালে দারুণ নৈপুণ্য দেখান পর্তুগিজ গোলরক্ষক দিয়োগো কস্তা। স্লোভেনিয়ার প্রথম তিনটি স্পট কিক ঠেকিয়ে দিয়ে একাই তারকায় ভরা পর্তুগালকে কোয়ার্টার ফাইনালে তুলেছেন তিনি।

তাই এই ম্যাচটিতেও শক্তির বিচারে সমানে সমানে লড়াই হবে বলে আশা করা যায়।

ইংল্যান্ড-সুইজারল্যান্ড

শনিবার রাত দশটায় কোয়ার্টার ফাইনালের তৃতীয় ম্যাচে মাঠে নামবে গত আসরের রানার্স-আপ ইংল্যান্ড ও কোয়ার্টার ফাইনাল খেলা সুইজারল্যান্ড।

চলতি আসরে ইংল্যান্ডের অবস্থা এক কথায় হযবরল। গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচে সার্বিয়ার বিপক্ষে কোনোমতে ১-০ গোলের ব্যবধানে জেতে হ্যারি কেইনের দল। এরপর ডেনমার্কের বিপক্ষে ১-১ গোলের ড্র হলেও শেষ ম্যাচে স্লোভেনিয়ার জালে বলই জড়াতে পারেনি তারা। শেষ ষোলোয় স্লোভাকিয়ার বিপক্ষে তো হেরেই বসেছিল ইংল্যান্ড। নেহাত বেলিংহ্যাম শেষ মুহূর্তে বাঁচিয়ে দেয় তাদের।

অপরদিকে, নিজেদের যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েই কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে সুইজারল্যান্ড। এ পর্যন্ত আসতে তাদের পথটাই সবচেয়ে কঠিন ছিল।

গ্রুপ পর্বে স্বাগতিক জার্মানি, এবারের আসরের ‘ডার্ক হর্স’ খ্যাত হাঙ্গেরি ও দুর্দান্ত টিম ওয়ার্কে প্রতিশ্রুতিশীল স্কটল্যান্ডের সামনে পড়ে মুরাত ইয়াকিনের শিষ্যরা। তবে প্রথম ম্যাচেই ডার্ক হর্সদের ৩-১ গোলে হারানোর পর স্কটল্যান্ডের সঙ্গে ১-১ গোলের ড্র করে সুইজারল্যান্ড। এরপর শেষ ম্যাচে শক্তিশালী জার্মানিকেও ১-১ গোলে রুখে দেন গ্রানিট জাকা-ব্রিল এম্বলোরা।

শেষ ষোলোয় ইতালিকে ২-০ ব্যবধানে কাঁদিয়ে নিজেদের আরও উচ্চতায় নিয়ে যায় সুইজারল্যান্ড। তাই আত্মবিশ্বাসে এখন উড়ছে তারা।

তবে টুর্নামেন্টজুড়ে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে কৌশলী দল সুইসরাই। নিজেদের শক্তি সম্পর্কে তারা যেমন জানে, তেমনি শক্তিশালী প্রতিপক্ষের সামনে নিজেদের দুর্বলতার দিকগুলোও মাথায় রাখে তারা। আর এভাবেই ‘অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা’ নিয়ে প্রতিটি শক্ত চ্যালেঞ্জ উতরে গেছে তারা।

এবার তাদের সামনে ইংল্যান্ড। গত ম্যাচগুলোতে নিজেদের মেলে ধরতে না পারলেও যেকোনো সময় জ্বলে ওঠার মতো প্রতিভা যে দলটির আছে- তা মাথায় নিয়েই মাঠে নামবে সুইজারল্যান্ড। ফলে ডাগআউটে গ্যারেথ সাউথগেট ও মুরাত ইয়াকিনের ‘স্নায়ুযুদ্ধ’ দেখার অপেক্ষায় থাকবে ফুটবল বিশ্ব।

নেদারল্যান্ডস-তুরস্ক

শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত একটায় সেমিফাইনালে ওঠার শেষ লড়াইয়ে মাঠে নামবে নেদারল্যান্ডস ও তুরস্ক।

১৯৮৮ সালের ইউরো চ্যাম্পিয়ন নেদারল্যান্ডস সর্বশেষ সেমিফাইনাল খেলে ২০০৪ সালে। এবার তুর্কিজয় করতে পারলে ২০ বছরের সেমির আক্ষেপ ঘুচবে তাদের।

অন্যদিকে, ২০০৮ সালে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে পেনাল্টিতে জিতে ইউরোর ইতিহাসে মাত্র একবার সেমিফাইনালে ওঠে তুরস্ক। এবার ডাচ বাধা পেরোতে পারলে ১৬ বছর পর ফের সেমিফাইনালে উঠবে তারা।

এই ম্যাচটির আগে বিশ্লেষকরা থাকবেন সবচেয়ে অনিশ্চয়তায়। কেননা, গ্রুপ পর্ব থেকে কোনোমতে শেষ ষোলোয় উঠলেও, রোমানিয়াকে রীতিমতো শাসন করে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ডাচরা।

এই ম্যাচের আগে মেম্ফিস ডিপাই বলেছিলেন, তাদের ইউরো প্রতিযোগিতা কেবল শুরু। মাঠের খেলায় তার কথার প্রমাণ মেলে। ফলে আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাওয়ায় দলটির প্রতিভাবান ফুটবলারদের ফর্মও যে ফিরবে, তা খানিকটা নিশ্চিত।

অপরদিকে, জর্জিয়াকে গ্রুপের প্রথম ম্যাচে ৩-১ গোলে হারানোর পর পর্তুগালের কাছে ৩-০ ব্যবধানে বিধ্বস্ত হয় তুরস্ক। এরপর চেক প্রজাতন্ত্রকে ২-১ ব্যবধানে হারানোর পর সমশক্তির অস্ট্রিয়াকেও ২-১ ব্যবধানে কাবু করেছে ভিনসেন্সো মনতেল্লার শিষ্যরা। ফলে একপ্রকার মিশ্র অভিজ্ঞতার ভেতর দিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে দলটি।

শেষ দুই ম্যাচে স্পষ্ট ফেবারিট প্রতিপক্ষের সামনে পরিস্কারভাবে ভুগতে দেখা গেছে তুরস্ককে। তবে মাঠে অসাধারণ ধৈর্য্যের স্বাক্ষর রেখে শেষ পর্যন্ত জয় ছিনিয়ে নিয়েছে তারা।

সেমির লড়াইয়ে এবার তাদের সামনে রোনাল্ড কুমানের নেদারল্যান্ডস। ক্ষিপ্র ফুটবলের চেয়ে কৌশলী ফুটবল খেলতেই বেশি দেখা গেছে দলটিকে। ধৈর্য্য ধরে বিভিন্ন প্রচেষ্টায় ম্যাচজয়ের দিকে তাদের মনোযোগ দেখা গেছে। ফলে ধৈর্য্য আর কৌশলে দুই কোচের কে কাকে হারাবে, তার ওপরই ম্যাচটির ভাগ্য নির্ভর করবে।

আরও পড়ুন:
ধর্ষণের মামলায় সাজা পাওয়া সাবেক ফুটবলার রবিনহো গ্রেপ্তার
ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের মেয়েরা
ভুটানকে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশের মেয়েরা
জয় দিয়ে সাফ শুরু বাংলাদেশের
এশিয়ান গ্রুপের ঘরেই গেল করপোরেট ফুটসাল কাপ

মন্তব্য

p
উপরে