20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
লা পাস চ্যালেঞ্জ জিতল আর্জেন্টিনা

লা পাস চ্যালেঞ্জ জিতল আর্জেন্টিনা

বলিভিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়েছে লিওনেল মেসির দল। ১৫ বছর পর বলিভিয়ার মাটিতে জয় পেয়েছে আলবিসেলেস্তেরা।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে জয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছে আর্জেন্টিনা। বলিভিয়াকে তাদের মাঠেই ২-১ গোলে হারিয়েছে লিওনেল মেসির দল। ১৫ বছর পর বলিভিয়ার মাটিতে জয় পেয়েছে আলবিসেলেস্তেরা।

ম্যাচের আগে বলিভিয়া কোচ সেসার ফারিয়াস বলেছিলেন লা পাসের উচ্চতা তাদের জন্য অ্যাডভান্টেজ এবং এখান থেকে জয় নিয়ে ফেরাটা আর্জেন্টিনার জন্য কঠিন হবে। তার কথার প্রতিফলন পাওয়া গেল ম্যাচের প্রথমার্ধে।

সমুদ্রপৃষ্ঠের প্রায় সাড়ে তিন হাজার মিটার উঁচুতে অবস্থিত লা পাসের এর্নানদেস সিলেস স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরুতে ছন্দ পেতে সমস্যা হয় আর্জেন্টিনার। সেই সুযোগে লিড নেয় ঘরের দল। ২৪ মিনিটে আলেহান্দ্রো চুমাসেরোর অ্যাসিস্টে বলিভিয়াকে এগিয়ে দেন মার্সেলো মরেনো।

বলিভিয়া ফুটবল দল

পিছিয়ে পড়ার পরই নিজেদের ফিরে পায় আর্জেন্টিনা। মেসি বরাবরের মত নেমে এসে মাঝমাঠকে সহায়তা করা শুরু করেন। তাতেই আক্রমণের উৎস খুঁজে পায় দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

আর্জেন্টিনা সমতা ফেরায় প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে। লাউতারো মার্তিনেস বক্সের বাঁ প্রান্ত দিয়ে আক্রমণে উঠে পরাস্ত করেন ডিফেন্ডার হোসে কারাসকো ও গোলকিপার কার্লোস লামপেকে।

মার্তিনেসের গোল

বিরতির পরও স্বাগতিক দলের উপর চাপ বজায় রাখে আর্জেন্টিনা। উচ্চতার সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে দুই দিন আগে লা পাসে পৌছানো আর্জেন্টিনিয়ানরা প্রায় পুরো সময়ই নিয়ন্ত্রণ করেন ম্যাচের গতি। বলিভিয়াও চেষ্টা করে কাউন্টার অ্যাটাকের।

৬১ মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে দলকে লিড এনে দিতে ব্যর্থ হন মেসি। তবে আর্জেন্টিনার জয়সূচক গোলের উৎস ছিলেন এই সুপারস্টার।

৭৯ মিনিটে মেসির বাড়ানো বল নিয়ে বক্সে প্রবেশ করেন মার্তিনেস। তার অ্যাসিস্ট থেকে বাঁ প্রান্ত থেকে দারুন শটে গোলকিপারকে পরাস্ত করেন হোয়াকিন কোরেয়া।

কোরেয়ার গোল

এরপর ম্যাচে আর কোন গোল না হলে, ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা। এতে করে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা নয় ম্যাচে অপরাজিত থাকল দক্ষিণ আমেরিকার দলটি।

শেয়ার করুন

মন্তব্য