20201002104319.jpg
নেইমারের হ্যাটট্রিকে পেরুকে হারাল ব্রাজিল

নেইমারের হ্যাটট্রিকে পেরুকে হারাল ব্রাজিল

পেরুকে ৪-২ গোলে হারিয়েছে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। এই ম্যাচে তিন গোল করে গোল সংখ্যায় নেইমার ছাড়িয়ে গেছেন ব্রাজিলের কিংবদন্তি রোনালদোকে।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে ব্রাজিল। পেরুকে ৪-২ গোলে হারিয়েছে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। পেরুর মাঠে হ্যাটট্রিক করেছেন তারকা ফরোয়ার্ড নেইমার। ব্রাজিলের পক্ষে আরেকটি গোল করেন রিচার্লিসন।

পেরুর ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে শুরুতে গিয়ে যায় ঘরের দল। ছয় মিনিটে ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মার্কিনিয়োসের ভুলে বল পেয়ে যান আন্দ্রেয়া কারিয়ো। বক্সের বাইরে থেকে দারূন এক ভলিতে পেরুকে লিড এনে দেন তিনি।

২২ মিনিট পর ভুল করে বসে পেরুর ডিফেন্স। নেইমারকে নিজেদের বক্সে ফাউল করেন জোশিমার জোতুন। রেফারি পেনাল্টির নির্দেশ দিলে, স্পট থেকে কোনো ভুল করেননি ব্রাজিলের ১০ নম্বর।নেইমার আর রিচার্লিসন

দুই মিনিট পর নেইমারের আরেকটি গোল অফসাইডের কারণে বাতিল করে দেন রেফারি। স্কোরলাইনে ১-১ গোলের সমতা রেখেই বিরতিতে যায় দুই দল।

দ্বিতীয়ার্ধে আবারও এগিয়ে যায় পেরু। ৫৯ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে রেনাতো তাপিয়ার শট ফাঁকি দেয় ব্রাজিল গোলকিপার ওয়েবারটনকে।

ম্যাচে দ্বিতীয়বার সমতা ফেরায় ব্রাজিল এর পাঁচ মিনিট পর। নেইমারের কর্নার থেকে স্কোরলাইন ২-২ বানিয়ে দেন রিচার্লিসন।

ম্যাচের শেষ ১০ মিনিটে আরও দুই গোল করে ব্রাজিল। ৮৩ মিনিটে পেরুর কার্লোস সামব্রানো নেইমারকে দ্বিতীয়বার বক্সে ফাউল করায় পেনাল্টি পায় ব্রাজিল। স্পট থেকে দলের তৃতীয় গোল করেন এই পিএসজি ফরোয়ার্ড।ব্রাজিল দল

ম্যাচের শেষ মুহূর্তে রিচার্লিসনের মুখে আঘাত করে লাল কার্ড পান পেরুর সামব্রানো। এর আগে তাদের বেঞ্চের গোলকিপারকে লাল কার্ড দেখান রেফারি।

ইনজুরি টাইমে হ্যাটট্রিক পূর্ন করেন নেইমার। এভারটনের শট বারে লেগে ফিরে আসলে, ফিরতি বলে দলের চার নম্বর গোল করেন বিশ্বের সবচেয়ে দামী ফুটবলার।

এই ম্যাচে তিন গোল করে গোল সংখ্যায় নেইমার ছাড়িয়ে গেছেন ব্রাজিলের কিংবদন্তি রোনালদোকে (৬২)। ব্রাজিলের হয়ে নেইমারের গোল এখন ৬৪টি। তার সামনে আছেন শুধুমাত্র পেলে (৭৭)। 

শেয়ার করুন

মন্তব্য