খেলোয়াড়দের কাছে ট্রফি চান সালাউদ্দিন

খেলোয়াড়দের কাছে ট্রফি চান সালাউদ্দিন

শীর্ষ পর্যায়ের ফুটবলারদের সঙ্গে আলোচনায় তাদের কাছে ট্রফি চেয়েছেন বাফুফে সভাপতি। ফুটবলারদের সঙ্গে সভায় সালাউদ্দিন জানিয়েছেন, যে কোনো মূল্যে আন্তর্জাতিক শিরোপা জিততে চান তিনি।

সবশেষ ২০১০ সালে দক্ষিণ এশিয়ান গেমসে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। ট্রফি খরা চলছে ১০ বছর। এক দশকে দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের বিশ্বকাপ খ্যাত সাফ ফুটবলের ফাইনালেই খেলতে পারেনি লাল-সবুজরা। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপেও রানার্সআপ হয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে। এই অবস্থার পরিবর্তন চান বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন।

মঙ্গলবার বিকালে জাতীয় দল ও লিগের শীর্ষ পর্যায়ের ফুটবলারদের সঙ্গে আলোচনায় তাদের কাছে ট্রফি চেয়েছেন বাফুফের টানা চতুর্থবারের সভাপতি। ফুটবলারদের সঙ্গে সভায় সালাউদ্দিন জানিয়েছেন, যে কোনো মূল্যে আন্তর্জাতিক শিরোপা জিততে চান তিনি।

বৈঠক শেষে জাতীয় দলের গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা সাংবাদিকদের বলেন, ‘সালাউদ্দিন সাহেব সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পরদিনই আমাদের এ কথা বলেছিলেন। আজকে আবারও বললেন, আমাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানোর কিছু নেই। তোমাদের কাছে শিরোপা দিয়ে শুভেচ্ছা পেতে চাই।’
ফুটবলারদের সভায় সালাউদ্দিন

আবারও মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় আছে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের বাকি অংশ। তার আগেই অবশ্য শুরু হবে বাংলাদেশ ফুটবলের নতুন মৌসুম। সেজন্য আলাদা ক্যাম্প চান সালাউদ্দিন।

রানা বলেন, ‘জাতীয় দলের খেলোয়াড়দেরকে নতুন মৌসুম শুরুর আগে একটা অনুশীলন ক্যাম্প করানোর কথা বলেছেন সালাউদ্দিন ভাই। কোচিং স্টাফদের সঙ্গে আলোচনা ও প্রাথমিক প্রস্তুতি নেয়ার পরে সেটা নভেম্বরের ২০ তারিখের দিকে হওয়ার সম্ভাবনা আছে।’

এ নিয়ে জাতীয় দলের প্রধান কোচ জেমি ডের সঙ্গে আলোচনায় বসবে ন্যাশনাল টিমস কমিটি। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা গেলে জাতীয় দলের আত্মবিশ্বাসে বাড়বে বলে মনে করে জেমি।

বলেন, 'এটা হলে খুব ভাল হবে। ফুটবলারদের একসঙ্গে পাওয়া যাবে। করোনা বিরতির পর সবাইকে একসঙ্গে নিয়ে ফিটনেসে কাজ করা যাবে। পরে ফুটবল মৌসুম শুরু হলে যে যার ক্লাবে চলে যাবে।'

শেয়ার করুন

মন্তব্য