20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
মেসির গোলে জয় দিয়ে শুরু আর্জেন্টিনার

মেসির গোলে জয় দিয়ে শুরু আর্জেন্টিনার

লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের প্রথম রাউন্ডে তারা ১-০ গোলে হারিয়েছে ইকুয়েডরকে। ম্যাচের একমাত্র গোল এসেছে লিওনেল মেসির পা থেকে।

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা। লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের প্রথম রাউন্ডে তারা ১-০ গোলে হারিয়েছে ইকুয়েডরকে। ম্যাচের একমাত্র গোল এসেছে লিওনেল মেসির পা থেকে।

১১ মাস পর খেলতে নেমে ম্যাচের আগে দুঃসংবাদ পায় আর্জেন্টিনা। শুক্রবার সকালে পেটের সমস্যায় ম্যাচ থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেন ফরোয়ার্ড পাওলো দিবালা। মেসির সঙ্গে আক্রমণভাগে ছিলেন লুকাস ওকামপোস এবং লাউতুরো মার্তিনেস।

বুয়েনোস আইরেসের ঐতিহাসিক ভেন্যু লা বোমবোনেরায়, শুরুতেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায় স্বাগতিক দল। ১৩ মিনিটে ইকুয়েডরের ডিফেন্ডার পার্ভিস এসতুপিয়ান নিজেদের বক্সে ফাউল করেন ওকামপোসকে।

রেফারি পেনাল্টির নির্দেশ দেন। স্পট থেকে কোনো ভুল করেননি মেসি। আন্তর্জাতিক ফুটবলে নিজের ৭১তম গোলটি করেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক।
Messi celebrating his 71st international goal

ইকুয়েডরের সামনে সমতা ফেরানোর সুযোগ আসে প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমে। তবে সেট পিস থেকে বল পেয়ে অফসাইড পজিশনে চলে যাওয়ায় কোনো বিপদ ঘটাতে পারেননি এরিক ফেরিগ্রা।

বিরতির পর ঢিমেতালে চলে ম্যাচ। আর্জেন্টিনার লিড দ্বিগুণ করার সুযোগ পান ওকামপোস। কিন্তু তার শট ঠেকিয়ে দলকে নিরাপদে রাখেন ইকুয়েডরের গোলকিপার আলেক্সান্দার দমিঙ্গেস।

বাকি সময়ে তেমন কোন সুযোগ তৈরি করতে পারেননি দুই দলের ফরোয়ার্ডরা। এক গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা।

আর্জেন্টিনার হয়ে আবারও খেলতে পেরে আনন্দিত, ম্যাচ শেষে গণমাধ্যমকে তেমনটাই জানিয়েছেন মেসি। বলেছেন,'আমরা খুব কঠিন একটা বছর পার করছি। আর্জেন্টিনার হয়ে আবারও খেলতে পারাটা এবং সমর্থকদের জয়ের আনন্দ উপহার দেওয়াটা এই কঠিন সময়কে কিছুটা হলেও সহজ করে তুলবে।'

২০১৯ সালের কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান প্লে-অফে চিলির বিপক্ষে জয়ের পর টানা সাত ম্যাচে জয় পেল দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। মঙ্গলবার রাতে তাদের পরবর্তী ম্যাচ বলিভিয়ার মাঠে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য