মগবাজার বিস্ফোরণ: তদন্তে থাকছেন বোমা বিশেষজ্ঞও

মগবাজার বিস্ফোরণ: তদন্তে থাকছেন বোমা বিশেষজ্ঞও

রাজধানীর মগবাজারে বিস্ফোরণ নিয়ে সোমবার সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন আইজিপি বেনজীর আহমেদ। ছবি: নিউজবাংলা

আইজিপি বলেন, ‌‌‘এখন পর্যন্ত এই বিস্ফোরণ নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড বলে মনে হচ্ছে না। গ্যাস জমে বিস্ফোরণ হতে পারে। এখনও ভবনের ভেতরে মিথেন গ্যাসের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। সঠিক তদন্ত করে বিস্ফোরণের কারণ বের করা হবে।’

রাজধানীর মগবাজারে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় বোমা ও বিস্ফোরণ ইউনিট নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ।

ঘটনাস্থলে গিয়ে সোমবার সকালে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন তিনি।

মগবাজার ওয়্যারলেস এলাকার আড়ংয়ের শোরুম ও রাশমনো হাসপাতালের উল্টো দিকের মূল সড়ক লাগোয়া একটি ভবনে রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বিস্ফোরণ হয়। এতে মৃত্যু হয় ৬ জনের। বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে অনেকের।

আইজিপি বলেন, ‌‌‘আপনারা জানেন এখানে গতকাল সন্ধ্যায় মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটেছে। প্রাণহানি ঘটেছে এবং ৫০ জনের বেশি পথযাত্রী আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় শিশুসহ ৬ জনকে আমরা হারিয়েছি।

‘এ বছর এমন কয়েকটি দুর্ঘটনা ঘটেছে। ইতিমধ্যেই ঘটনাটির কারণ জানতে ফায়ার সার্ভিস একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। পুলিশের পক্ষ থেকেও আমরা একটি তদন্ত কমিটি করব। বম্ব ও এক্সপ্লোশান ইউনিট নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে ঘটনাটি তলিয়ে দেখা হবে।’

তিনি বলেন, ‘এটি একমুখী ধ্বংসযজ্ঞ। বোমা হলে চতুর্মাত্রিক ধ্বংসযজ্ঞ হতো। বড় ধরনের একটা শকওয়েভ তৈরি হয়েছিল। এখনও মনে হচ্ছে এটি কোনো নাশকতা নয়।

‘এখন পর্যন্ত এই বিস্ফোরণ নাশকতামূলক কর্মকাণ্ড বলে মনে হচ্ছে না। গ্যাস জমে বিস্ফোরণ হতে পারে। এখনও ভবনের ভেতরে মিথেন গ্যাসের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।’

সম্ভাব্য সব বিষয় মাথায় রেখে কাজ করা হচ্ছে জানিয়ে আইজিপি বলেন, ‘তবে আমরা সব বিষয় মাথায় রেখে তদন্ত করে দেখব। পুলিশের পক্ষ থেকে বম্ব এবং স্পেশাল ইউনিট নিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।’

ওই সময় করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে সবাইকে সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দেন আইজিপি। তিনি বলেন, ‘করোনা মহামারির দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। সরকারের নির্দেশনা সকলে মেনে চলুন। সারা বিশ্বের করোনা পরিস্থিতি সম্পর্কে সকলেই জানেন। কেউ ঘর থেকে বের হবেন না।

‘যদি খুব জরুরি কাজ থাকে তাহলে সেটা দ্রুত শেষ করে আপনারা ঘরে ফিরে যাবেন। সকলের প্রতি আমার অনুরোধ রইল মাস্ক অবশ্যই ব্যবহার করবেন, মাস্ক ছাড়া কেউ বের হবেন না। পুলিশের নিয়মিত টহল থাকবে, আপনারা পুলিশের কাজে সহযোগিতা করবেন।’

আরও পড়ুন:
বিস্ফোরণের চার ঘণ্টা পর খুলল ফ্লাইওভার
‘আমি এতিম হয়ে গেলাম’
‘মউতরে নিজের চক্ষে দেখছি’
‘যা আছিল, সব কাইপ্যা গেছে’
‘আগুনের একটা গোলা দেখছি, এরপর কিছু মনে নাই’

শেয়ার করুন

মন্তব্য