দর্শক প্রতিক্রিয়ায় আপ্লুত বাঁধন

দর্শক প্রতিক্রিয়ায় আপ্লুত বাঁধন

কান চলচ্চিত্র উৎসবে দর্শকদের অভিবাদনে আবেগে আপ্লুত অভিনেত্রী বাঁধন। ছবি: সংগৃহীত

বাঁধন বলেন, ‘এটা যে কী অসাধারণ মুহূর্ত ছিল, আমি তা বলে বোঝাতে পারব না। এখানে আমি কাউকে চিনি না। সবাই এসে আমাকে জড়িয়ে ধরছে। আমার অভিনয় তাদের ভালো লেগেছে সে কথা জানাচ্ছে। এটা আমাদের সবার অর্জন।’

কান চলচ্চিত্র উৎসবে রেহানা মরিয়ম নূর সিনেরমার ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার শেষে পালে দো ফেস্টিভ্যাল ভবনের সাল দুবুসি প্রেক্ষাগৃহের দর্শকরা দাঁড়িয়ে করতালির মাধ্যমে সম্মান জানিয়েছে সিনেমাটির প্রযোজক, পরিচালক, শিল্পী ও কলাকুশলীদের।

প্রিমিয়ার শেষে নিউজবাংলাকে এ কথা জানান সিনেমার অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন।

দর্শকদের অভিবাদন পেয়ে আবেগে আপ্লুত হন অভিনেত্রী।

বাঁধন বলেন, ‘এটা যে কী অসাধারণ মুহূর্ত ছিল, আমি তা বলে বোঝাতে পারব না। এখানে আমি কাউকে চিনি না। সবাই এসে আমাকে জড়িয়ে ধরছে। আমার অভিনয় তাদের ভালো লেগেছে সে কথা জানাচ্ছে। এটা আমাদের সবার অর্জন।’

প্রিমিয়ার শেষে ফেসবুক লাইভেও এসেছিলেন অভিনেত্রী।

লাইভে বাঁধন বলেন, ‘প্রিমিয়ার বেশ কিছুক্ষণ আগে শেষ হয়েছে। দুপুরের খাবারের বিরতি নিয়েছি এখন। এটা আমাদের জন্য অনেক বড় একটা দিন ছিল।

‘এ কয়েকটা দিন প্রচণ্ড প্রেসারে ছিলাম। অনেক কিছুই আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারিনি। ভয়ও ছিল কিছুটা। জানি না দূর থেকে এটা বোঝা গেছে কি না। এক্সাইটেডও ছিলাম।

’গতকাল পর্যন্ত টেনশনে ছিলাম। গতকালও আমাদের কোভিড টেস্ট করানো হয়েছে। যদি করোনা সনাক্ত হতো, তাহলে আমাদের অনেকেই এই আয়োজনে আসতে পারতাম না।’

দর্শক প্রতিক্রিয়ায় আপ্লুত বাঁধন
কান চলচ্চিত্র উৎসবে দর্শকদের অভিবাদনে আবেগে আপ্লুত অভিনেত্রী বাঁধন। ছবি: সংগৃহীত

সিনেমা দেখার পর দর্শকদের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বাঁধন বলেন, ‘দর্শকদের কেউ ভিডিও করেছেন কি না জানি না। দর্শকরা সবাই আমাদের দাঁড়িয়ে সম্মান জানিয়েছেন। এতটা সম্মানের যোগ্য আমি না। এই ক্রেডিট আমার ডিরেক্টর সাদের। এখানে আমরা আমাদের অন্যান্য সহকর্মীদের অনেক মিস করছি।’

বাঁধন আরও বলেন, ‘এটা আমাদের সবার কাজ, সবার কষ্টের ফল। সবাই দোয়া করবেন, ১৬ তারিখে পুরস্কার ঘোষণা হবে। আমার যেন বেটার কিছু নিয়ে আসতে পারি।’

লাইভের শেষ অংশে বাঁধন তার মেয়ে সায়রা এবং মাকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, ‘তোমাদের আমি সবচেয়ে বেশি মিস করছি।’

দর্শক প্রতিক্রিয়ায় আপ্লুত বাঁধন

প্রিমিয়ারের আগে লাল গালিচায় রেহানা মরিয়ম নূর সিনেমার প্রযোজক, পরিচালক, শিল্পী ও কলাকুশলীরা। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ সময় ৩ টা ১৫ মিনিটে শুরু হয় রেহানা মরিয়ম নূর সিনেমা প্রদর্শনী। ১ ঘণ্টা ৪৭ মিনেটের সিনেমা ছিল এটি।

প্রিমিয়ারের আগে সিনেমার সিঙ্গাপুরের প্রযোজক জেরেমি চুয়া, নির্বাহী প্রযোজক এহসানুল হক বাবু, পরিচালক আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ, অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন, সিনেমাটোগ্রাফার তুহিন তমিজুল, প্রোডাকশন ডিজাইনার আলী আফজাল উজ্জল, কালারিস্ট চিন্ময় ও সাউন্ড ডিজাইনার শৈব তালুকদার লাল গালিচায় দাঁড়িয়ে ছবি তোলেন।

আরও পড়ুন:
রেহানা মরিয়ম নূর: পুরো ট্রেলারে প্রতিবাদী বাঁধন
প্রথমবার কানের অফিশিয়াল সিলেকশনে দেশের সিনেমা
নজরুলের বাণীতে শামিল বাঁধন
‘মুসকানের মতো বাঁধনের প্রেমে পড়াও কঠিন’

শেয়ার করুন

মন্তব্য