আমি প্রেগনেন্ট নই: নোবেলের স্ত্রী

আমি প্রেগনেন্ট নই: নোবেলের স্ত্রী

নোবেল ও তার স্ত্রী সালসাবিল মাহমুদ। ছবি: সংগৃহীত

বিষয়টি নিশ্চিত করতে ফেসবুক লাইভে আসেন নোবেলের স্ত্রী সালসাবিল। তিনি বলেন, ‘নোবেলের স্ট্যাটাস থেকেই আমি জানতে পারি, আমি নাকি মা হতে যাচ্ছি! কিন্তু আমি প্রেগনেন্ট নই।’

আবারও সমালোচনায় নোবেল। এবারের সমালোচনার কারণ তার বক্তব্য। ২৮ জুন নোবেল তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লেখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ। হয়তো আমরা মা-বাবা হতে চলেছি। আমি এবং আমার সহধর্মিণীর জন্য দোয়া করবেন।’

এমন স্ট্যাটাস দেয়ার পর অনেকেই তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

কিন্তু স্ট্যাটাস দেয়ার দুই দিন পর অর্থাৎ ৩০ জুন নোবেলের স্ত্রী সালসাবিল মাহমুদ জানিয়েছেন, তিনি প্রেগনেন্ট নন।

বিষয়টি নিশ্চিত করতে ফেসবুক লাইভে আসেন তিনি। ১৫ মিনিটের সেই ভিডিওতে সালসাবিল পুরো ঘটনাটা বর্ণনা করেন।

সালসাবিল বলেন, ‘নোবেলের স্ট্যাটাস থেকেই আমি জানতে পারি, আমি নাকি মা হতে যাচ্ছি! কিন্তু আমি প্রেগনেন্ট নই।’

এরপর ঘটনার বর্ণনা দিয়ে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি জানার পর আমি নোবেলের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হই। এরপর আমি নোবেলের এক ছোট ভাইকে ফোন করি এবং তাকে বলি নোবেল যেন আমাকে ফোন করে। কিন্তু নোবেলের কোনো ফোন আমি পাইনি।’

নোবেলের স্ট্যাটাসটি প্রসঙ্গে এখন পর্যন্ত সালসাবিলের কোনো কথা হয়নি বলে জানান তিনি। সালসাবিল নিজেও জানেন না নোবেল কেন এই স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

গান প্রমোশনের জন্য এটা কোনো স্টান্ট কি না, এমন সম্ভাবনা প্রসঙ্গে নোবেলের স্ত্রী সালসাবিল বলেন, ‘আমি নিজেও জানি না যে এটা কোনো স্টান্ট কি না। সে যেহেতু আমার কাছের মানুষ, সে যদি গানের প্রমোশনের জন্য মাতৃত্বের মতো এমন সেনসেটিভ বিষয়ে স্টান্ট করে, তাহলে আমি লজ্জিত।’

শিগগিরই নতুন গান মেহেরবান অনলাইনে আসবে বলে জানিয়েছেন নোবেলে।

ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই বিতর্কিত মন্তব্য করে আলোচিত ও সমালোচিত হয়েছেন নোবেল। ২০১৯ সালে ভারতের জি-বাংলা টেলিভিশনের রিয়েলিটি শো ‘সা রে গা মা পা’ তে অংশ নিয়ে আলোচনায় আসেন নোবেল।

২০১৯ সালের ১৫ নভেম্বর মেহরুবা সালসাবিলের সঙ্গে বিয়ে হয়ে নোবেলের।

আরও পড়ুন:
নোবেলের মামলার তদন্ত করবে সিআইডি
নোবেলের বিরুদ্ধে ইথুন বাবুর মামলার আবেদন
নোবেলের বিরুদ্ধে মামলা বিচারকের অপেক্ষায়
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে নোবেলের বিরুদ্ধে মামলা
জবা বৌদিকে বিয়ে করে ফেললেন নোবেল!

শেয়ার করুন

মন্তব্য