বলিউডের রানীর সঙ্গে টালিউডের অনির্বাণ

রানী মুখার্জি ও অনির্বাণ ভট্টাচার্য। ছবি: সংগৃহীত

বলিউডের রানীর সঙ্গে টালিউডের অনির্বাণ

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, রানী মুখার্জির নতুন সিনেমা ‘মিসেস চ্যাটার্জি ভার্সেস নরওয়ে’তে অভিনয় করবেন অনির্বাণ। সিনেমার পরিচালক অশিমা ছিব্বর। এর আগে টিভি প্রোডাকশন নির্মাণ করেছেন তিনি।

বাঙালি অভিনেত্রী হয়েও বলিউডে নিজের রাজ্য গড়ে নিয়েছেন রানী মুখার্জি। বলিউডে ব্যস্ত থাকলেও নজর সরেনি অভিনেত্রী হিসেবে রানীর অভিষেক হওয়া ইন্ডাস্ট্রি থেকে। কলকাতায় কারা ভালো অভিনয় করছেন তার খবর ঠিকই রাখেন রানী।

বলিউডের মর্দানি এবং মর্দানি ২ সিনেমায় রানির স্বামীর ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন টালিউডের যিশু সেনগুপ্ত। এবার নাকি আরেক বাঙালি জুটি বাঁধতে যাচ্ছেন অভিনেত্রীর সঙ্গে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, শনিবার সকাল থেকেই গুঞ্জন উঠেছে রানীর বিপরীতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন ‘খোকা’ খ্যাত অনির্বাণ ভট্টাচার্য।

তবে বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেননি তিনি। অনির্বাণ জানিয়েছেন, এখনই তার পক্ষে এ নিয়ে কিছু বলা সম্ভব নয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, রানী মুখার্জির নতুন সিনেমা ‘মিসেস চ্যাটার্জি ভার্সেস নরওয়ে’তে অভিনয় করবেন অনির্বাণ। সিনেমার পরিচালক অশিমা ছিব্বর। এর আগে টিভি প্রোডাকশন নির্মাণ করেছেন তিনি।

সিনেমার অধিকাংশ দৃশ্যধারণ হবে ভারতের বাইরে। সিনেমার বাকি অভিনেতাদের নামও জানায়নি যৌথ প্রযোজক জি স্টুডিয়ো ও এনমে এন্টারটেনমেন্ট প্রাইভেট লিমিটেড।

বলিউডের রানীর সঙ্গে টালিউডের অনির্বাণ
বলিউড অভিনেত্রী রানী মুখার্জি। ছবি: সংগৃহীত

গত ২১ মার্চ নিজের ৪৩তম জন্মদিনে নতুন সিনেমার ঘোষণা দিয়েছিলেন রানী। সেসময়ে তিনি জানিয়েছিলেন, বিয়ে বা সন্তানের মা হয়ে গেলেই নায়িকার জনপ্রিয়তা কমে যায়- এই ধারণা ভেঙে দেবে রানীর নতুন সিনেমা।

সিনেমায় একজন মায়ের পুরো দেশের বিরুদ্ধে লড়াই দেখানো হবে। পাশাপাশি এ সিনেমা দিয়েই রানী তার অভিনয় জীবনের ২৫ বছর পূর্ণ করবেন।

আরও পড়ুন:
মামলা করে ২০ লাখ রুপি জরিমানার মুখে জুহি
বজরঙ্গি ভাইজানের সেই ছোট্ট ‘মুন্নি’ পা দিলেন কৈশোরে
আসছে ‘ওহ মাই গড টু’, নতুন চমক পঙ্কজ ত্রিপাঠি
সোনমের জন্য মার খেয়েছিলেন অর্জুন
হৃত্বিকের সিরিজ থেকে সরে গেলেন মনোজ বাজপেয়ী

শেয়ার করুন

মন্তব্য

মিঠুনকে ফের জেরা করবে পুলিশ

মিঠুনকে ফের জেরা করবে পুলিশ

নির্বাচনী প্রচারে 'মারব এখানে লাশ পড়বে শ্মশানে' সংলাপ আওড়ে বিপাকে পড়েছেন মিঠুন চক্রোবর্তী। ছবি: সংগৃহীত

মিঠুনের বিরুদ্ধে অভিযোগ, “ভোটের আগে মিঠুন চক্রবর্তী তার সিনেমার সংলাপ, ‘আমি জল ঢোড়া নই, বেলে বোড়াও নই, আমি জাত গোখরো, এক ছোবলেই ছবি’, ‘মারবো এখানে, লাশ পড়বে শ্মশানে’ বলে অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টিতে মদত জুগিয়েছেন।”

উস্কানিমূলক সংলাপ বলার মামলায় অভিনেতা ও বিজেপি নেতা মিঠুন চক্রবর্তীকে আবার জেরা করবে কলকাতা পুলিশ।

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ব্রিগেডের জনসভায় উস্কানিমূলক সিনেমার সংলাপ বলার অভিযোগে মিঠুন চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে চলা কলকাতা হাইকোর্টের মামলায় এফআইআর খারিজের আবেদন জানিয়ে ছিলেন মিঠুন। হাইকোর্ট মিঠুনের সেই আবেদন খারিজ করে দিয়ে তদন্তে সহযোগিতার নির্দেশ দিয়েছে। মিঠুনকে আবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নোটিশ পাঠিয়েছে কলকাতা পুলিশ।

এর আগে কলকাতা মানিকতলা থানার পুলিশ মিঠুনের কাছে জানতে চায়, ব্রিগেডের জনসভায় তিনি কী বলেছিলেন, কেন বলেছিলেন ইত্যাদি। এ জিজ্ঞাসাবাদ ভার্চুয়ালি সম্পন্ন হয়।

মিঠুনের বিরূদ্ধে উস্কানিমূলক সংলাপ বলার অভিযোগে মানিকতলা থানায় তৃণমূলের তরফে একটি এফআইআর করা হয়েছিল।

শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি কৌশিক চন্দ অভিনেতার বিরুদ্ধে মামলা কতটা যুক্তিসঙ্গত তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেন। সরকারি আইনজীবী শাশ্বতগোপাল মুখোপাধ্যায়ের কাছে মিঠুনের বিরুদ্ধে কী অভিযোগ আছে তা জানতে চাইলে তিনি বলেন, “ভোটের আগে মিঠুন চক্রবর্তী তার সিনেমার সংলাপ, ‘আমি জল ঢোড়া নই, বেলে বোড়াও নই, আমি জাত গোখরো, এক ছোবলেই ছবি’, ‘মারবো এখানে, লাশ পড়বে শ্মশানে’ বলে অশান্তির পরিবেশ সৃষ্টিতে মদত জুগিয়েছেন।”

বিচারপতি সরকারি উকিলের মুখে মিঠুনের সিনেমার সংলাপ শুনে হেসে ফেলে বলেন, ‘এসব তো সিনেমার সংলাপ। খারাপ হলে সেন্সর বোর্ড ছাড়পত্র দিল কিভাবে? নির্বাচন কমিশনই বা নীরব থাকল কেন?’ নির্বাচনী প্রচারে কোনো সিনেমার সংলাপ বলার জন্য কী করে হিংসা ছড়ালো সরকারি আইনজীবীর কাছে জানতে চান বিচারপতি কৌশিক চন্দ।

জবাবে সরকারি আইনজীবী বলেন, ‘বিশদ তথ্য হাতে আসেনি। সেই কারণে মিঠুনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ফের নোটিশ পাঠানো হয়েছে। আগামী সোমবার তাকে জবাব দিতে বলা হয়েছে।’

তাই সোমবারের পরে পরবর্তী শুনানি করার জন্য বিচারপতির কাছে সরকারি আইনজীবী আর্জি জানালে তাতে সম্মতি জানিয়ে আগামী ২ জুলাই বুধবার পরবর্তী শুনানি হবে বলে জানিয়েছে আদালত।

আরও পড়ুন:
মামলা করে ২০ লাখ রুপি জরিমানার মুখে জুহি
বজরঙ্গি ভাইজানের সেই ছোট্ট ‘মুন্নি’ পা দিলেন কৈশোরে
আসছে ‘ওহ মাই গড টু’, নতুন চমক পঙ্কজ ত্রিপাঠি
সোনমের জন্য মার খেয়েছিলেন অর্জুন
হৃত্বিকের সিরিজ থেকে সরে গেলেন মনোজ বাজপেয়ী

শেয়ার করুন

ফার্স্টলুকে বিরহে বিষণ্ন চরিত্রগুলো

ফার্স্টলুকে বিরহে বিষণ্ন চরিত্রগুলো

যাও পাখি বলো তারে সিনেমার পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত

মোস্তাফিজুর রহমান মানিক ছবির গল্প প্রসঙ্গে বলেন, ‘এটা অফ ট্র্যাকের সিনেমা। আমি কখনও এমন সিনেমা নির্মাণ করিনি। গ্রাম্য পটভূমির গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে সিনেমা। প্রেম, বিরহ ও বিচ্ছেদ থাকছে মূল বিষয়।

আবার পর্দায় হাজির হচ্ছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। ক্লিওপেট্রা ফিল্মস প্রযোজিত সিনেমাটির নাম যাও পাখি বলো তারে

এতে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন এই সময়ের মডেল-অভিনেতা আদর আজাদ, জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি ও শিপন মিত্র। বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) সিনেমাটির ফার্স্টলুক প্রকাশ করেছেন নির্মাতা।

ছবির নামের মতো এর প্রথম পোস্টারে রয়েছে বিরহের আভাস। সাদা শুভ্র জমিনের উপর কালোর ছায়া। এর মাঝেই ছবির প্রধান চার চরিত্র মাহিয়া মাহি, আদর আজাদ, রাশেদ মামুন অপু ও শিপন মিত্রের ছবি।

তাদের প্রত্যেকের চেহারায় বেদনার ছাপ। হয়তো তারা বলতে চাইছেন, এমন তো হওয়ার কথা ছিল না! নানন্দিক এ পোস্টারটি ডিজাইন করেছেন সাজ্জাদুল ইসলাম সায়েম।

মোস্তাফিজুর রহমান মানিক ছবির গল্প প্রসঙ্গে বলেন, ‘এটা অফ ট্র্যাকের সিনেমা। আমি কখনও এমন সিনেমা নির্মাণ করিনি। গ্রাম্য পটভূমির গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে সিনেমা। প্রেম, বিরহ ও বিচ্ছেদ থাকছে মূল বিষয়। অনেক দিন নিখুঁত গ্রামের সিনেমা হয় না। চেষ্টা করছি সেটি করার।’

ফার্স্টলুকে বিরহে বিষণ্ন চরিত্রগুলো
শুটিংয়ের ফাঁকে সিনেমার অভিনয়শিল্পীরা। ছবি: সংগৃহীত

পরিচালক জানান, ২০০৯ সালে মনপুরা মুক্তি পেয়েছিল। গ্রামীণ পটভূমির সে ছবির ‘যাও পাখি বলো তারে’ গানটি খুবই জনপ্রিয় হয়। সেই গান থেকেই মোস্তাফিজুর রহমান মানিক তার নতুন ছবির নাম রেখেছেন।

ঈদুল আযহার পর সিনেমাটি মুক্তির পরিকল্পনা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

ফার্স্টলুকে বিরহে বিষণ্ন চরিত্রগুলো
যাও পাখি বলো তারে সিনেমার মহরত অনুষ্ঠান। ছবি: সংগৃহীত

যাও পাখি বলো তারে সিনেমার কাহিনি ও সংলাপ লিখেছেন আসাদ জামান। ছবির শুটিং হয়েছে বগুড়ায়। এর গান লিখেছেন জনপ্রিয় গীতিকার সুদীপ কুমার দীপ, ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক করেছেন ইমন সাহা। সিনেমার নির্বাহী প্রযোজক তমালিকা আকরাম।

আরও পড়ুন:
মামলা করে ২০ লাখ রুপি জরিমানার মুখে জুহি
বজরঙ্গি ভাইজানের সেই ছোট্ট ‘মুন্নি’ পা দিলেন কৈশোরে
আসছে ‘ওহ মাই গড টু’, নতুন চমক পঙ্কজ ত্রিপাঠি
সোনমের জন্য মার খেয়েছিলেন অর্জুন
হৃত্বিকের সিরিজ থেকে সরে গেলেন মনোজ বাজপেয়ী

শেয়ার করুন

আসছে ‘কৃষ ফোর’

আসছে ‘কৃষ ফোর’

কৃষ সিনেমার পোস্টারে হৃতিক রোশন। ছবি: সংগৃহীত

২০০৩ সালে মুক্তি পায় কৃষ ফ্রাঞ্চাইজির প্রথম সিনেমা ‘কোয়ি মিল গ্যায়া।’ এই সিনেমার হাত ধরেই ২০০৬ সালে মুক্তি পায় ‘কৃষ’। এরপর ২০১৩ সালে মুক্তি পায় ‘কৃষ থ্রি’।

গত ২৩ জুন পূর্ণ হলো বলিউডের অন্যতম সফল ও দর্শক নন্দিত সিনেমা ‘কৃষ’ এর ১৫ বছর।

এর একদিন পরেই কৃষ ফোর নিয়ে আসার ঘোষণা দিলেন এই সিনেমার সুপারহিরো হৃতিক রোশন।

নিজের ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও পোস্ট করে হৃতিক লেখেন, ‘অতীতের ঘটনা শেষ। দেখা যাক ভবিষ্যতে কী আসছে। কৃষ ফোর।’

এরপর আলাদা আলাদা হ্যাশট্যাগ দিয়ে লিখেন, ‘কৃষের ১৫ বছর’ ও ‘কৃষ ফোর’।

২০০৩ সালে মুক্তি পায় কৃষ ফ্রাঞ্চাইজির প্রথম সিনেমা কোয়ি মিল গ্যায়া। এই সিনেমার হাত ধরেই ২০০৬ সালে মুক্তি পায় কৃষ। এরপর ২০১৩ সালে মুক্তি পায় কৃষ থ্রি

এরপর গত দুই তিন বছর ধরেই জল্পনা চলছিল কৃষ সিরিজের পরবর্তী সিনেমা নিয়ে।

সবশেষ ২০১৮ সালে পরিচালক রাকেশ রোশন ঘোষণা করেছিলেন ২০২০ সালে মুক্তি পাবে কৃষ ফোর

এরপর ২০১৯ সালে একটি ইন্টারভিউতে হৃতিক জানিয়েছিলেন শিগগিরই শুরু হবে কৃষ ফোর এর শুটিং।

কিন্তু মাঝে রাকেশ রোশনের অসুস্থতাসহ নানা কারণে পিছিয়ে যায় সিনেমার কাজ।

ফলে কিছুটা হতাশও হয়েছিলেন এই সুপারহিরোর ভক্তরা। তবে হৃতিকের পোস্টের পর ফের খুশির হাওয়া বইছে ভক্তদের মাঝে।

আরও পড়ুন:
মামলা করে ২০ লাখ রুপি জরিমানার মুখে জুহি
বজরঙ্গি ভাইজানের সেই ছোট্ট ‘মুন্নি’ পা দিলেন কৈশোরে
আসছে ‘ওহ মাই গড টু’, নতুন চমক পঙ্কজ ত্রিপাঠি
সোনমের জন্য মার খেয়েছিলেন অর্জুন
হৃত্বিকের সিরিজ থেকে সরে গেলেন মনোজ বাজপেয়ী

শেয়ার করুন

শুক্রবার ফারিয়ার পোলাও চাই-ই চাই

শুক্রবার ফারিয়ার পোলাও চাই-ই চাই

অভিনেত্রী নুসরাত ফারিয়া। ছবি: সংগৃহীত

পোলাওয়ের সঙ্গে কোন খাবারটি ফারিয়ার বেশি পছন্দ, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘পোলাওয়ের সঙ্গে আমার সবচেয়ে পছন্দ বাদাম রোস্ট এবং গরুর মাংস ভুনা।’

দুই বাংলাতেই জনপ্রিয় নুসরাত ফারিয়া। আশিকি খ্যাত এ অভিনেত্রীর আরও অনেকের মতোই আছে নানা রকম শখ। এই তো কিছুদিন আগে জানিয়েছিলেন তার সংগ্রহে রয়েছে ১২০০ জোড়া জুতা। এটা তার শখগুলোর একটি।

শুক্রবার আরেকটি শখের কথা জানালেন ঢাকাই সিনেমার এই অভিনেত্রী। আর সেটি হলো, শুক্রবার আসলেই দুপুরের খাবার টেবিলে তার পোলাও চাই-ই চাই। কাজের জন্য বাইরে থাকলে অন্য বিষয়। কিন্তু ঘরে থাকলে যদি শুক্রবারে পোলাও না পান, তাহলেই মন খারাপ হয়ে যায় তার।

শুক্রবার দুপুরে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেছেন ফারিয়া। ছবিতে ফারিয়াকে বিষণ্ন চেহারায় দেখা যাচ্ছে। এই বিষণ্নতাকে ইঙ্গিত করে তিনি ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘যখন শুনি, শুক্রবারে পোলাও রান্না হয় নাই।’

বিষয়টি নিয়ে নুসরাত ফারিয়ার সঙ্গে কথা হয়ে নিউজবাংলার। নুসরাত ফারিয়া বলেন, ‘শুক্রবার দিন বাসায় পোলাও-মাংস রান্না হয়। ছোটবেলা থেকেই এমনটা দেখে আসছি। তাই অভ্যাস হয়ে গেছে। যখন শুনি শুক্রবার পোলাও হয়নি, তখন মনটা খারাপ হয়ে যায়।’

পোলাওয়ের সঙ্গে কোন খাবারটি ফারিয়ার বেশি পছন্দ, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘পোলাওয়ের সঙ্গে আমার সবচেয়ে পছন্দ বাদাম রোস্ট এবং গরুর মাংস ভুনা।’

শুক্রবার ফারিয়ার পোলাও চাই-ই চাই
বিভিন্ন লুকে নুসরাত ফারিয়া। ছবি: সংগৃহীত

সিনেমায় অভিনয়ের জন্য নুসরাত ফারিয়াকে শরীর ঠিক রাখতে হয়। এই ধরনের খাবার তার শরীরের জন্য ভালো না খারাপ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এক দিন, এক বেলা এগুলো খেলে অসুবিধা নেই। তা ছাড়া এক দিন, এক বেলা তো একটু চিট করাই যায়।’

নুসরাত ফারিয়া সম্প্রতি একটি কাজ করেছেন। তার ভিডিও ও ছবি প্রকাশ করেছেন ফেসবুকে। কিন্তু সেটা কী কাজ, তা বলেননি।

এ ছাড়া ফারিয়া অপারেশন সুন্দরবন, ঢাকা ২০৪০ সিনেমাগুলোর কাজ শেষ করেছেন। কলকাতায় বিবাহ অভিযান সিনেমার দ্বিতীয় কিস্তিতে অভিনয় করার কথা রয়েছে তার। কিন্তু কোভিডের কারণে শুরু হচ্ছে না সিনেমার শুটিং।

আরও পড়ুন:
মামলা করে ২০ লাখ রুপি জরিমানার মুখে জুহি
বজরঙ্গি ভাইজানের সেই ছোট্ট ‘মুন্নি’ পা দিলেন কৈশোরে
আসছে ‘ওহ মাই গড টু’, নতুন চমক পঙ্কজ ত্রিপাঠি
সোনমের জন্য মার খেয়েছিলেন অর্জুন
হৃত্বিকের সিরিজ থেকে সরে গেলেন মনোজ বাজপেয়ী

শেয়ার করুন

অনুপম খেরকে চেনেন না তার এলাকারই মানুষ!

অনুপম খেরকে চেনেন না তার এলাকারই মানুষ!

বলিউড অভিনেতা অনুপম খের। ছবি: সংগৃহীত

রূপালি পর্দা ও বিভিন্ন টিভি শো এর বদৌলতে সুপরিচিত মুখ তিনি। শুধু ভারতই নয় বিশ্বের অনেক দেশেই রয়েছে তার অসংখ্য ভক্ত-অনুরাগী। কিন্তু তাকেই চিনলেন না তার এলাকারই মানুষ!

বলিউডের খ্যাতিমান অভিনেতা অনুপম খের। নিজের ক্যারিয়ারে পাঁচ শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন জাঁদরেল এই অভিনেতা।

রূপালি পর্দা ও বিভিন্ন টিভি শো এর বদৌলতে সুপরিচিত মুখ তিনি। শুধু ভারতই নয় বিশ্বের অনেক দেশেই রয়েছে তার অসংখ্য ভক্ত-অনুরাগী।

কিন্তু তাকেই চিনলেন না তার দেশেরই মানুষ! শুধু দেশের বললে ভুল হবে, তার জন্মস্থান হিমাচল প্রদেশের বাসিন্দাই চিনলেন না তাকে!

এমন এক বাস্তব পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছেন এ অভিনেতা। তাই মজা করে বলেছেন, ‘এক বালতি পানিতে ডুবে মরতে ইচ্ছে করছে আমার!’

এই ঘটনার একটি ভিডিও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন অনুপম।

গত কয়েকদিন ধরে হিমাচল প্রদেশে নিজের গ্রামে রয়েছেন এই অভিনেতা। সেখানে থাকাকালীন একদিন সকালে হাঁটতে বেরিয়েছিলেন তিনি। হাঁটার সময় পথের মধ্যে এক ব্যক্তির সঙ্গে দেখা হয় তার।

ভিডিওতে দেখা যায়, একথা সেকথার পর জ্ঞানচাঁদ ঠাকুর নামের ওই ব্যক্তিকে অনুপম জিজ্ঞেস করেন উনি তাকে চেনেন কি না। সরল ভাবে সেই ব্যক্তি সেই প্রশ্নের জবাবে না বলেন।

এরপর অভিনেতা নিজের মাস্ক খুলে তাকে জিজ্ঞেস করেন যে এবার চেনা লাগছে কি না। এবারও লোকটি হাসির সঙ্গে জবাব দেন ‘না’।

অনুপম জিজ্ঞেস করেন, ‘দাদা কি সিনেমা দেখেন?’ ওপাশ থেকে জবাব আসে, ‘দেখি, তবে কম।’

এসব শুনে যারপরনাই অবাক হয়েছেন খ্যাতিমান এই অভিনেতা।

তারপর মজা করেই চোখে মুখে বিষন্ন ভাব নিয়ে বলেন, ‘এই লজ্জা আমি লুকাই কোথায়? এক বালতি জলে ডুবে মরতে ইচ্ছে করছে আমার!’

এই ভিডিওটি পোস্ট করে অনুপম লিখেছেন, ‘আমি সব সময় গর্বের সঙ্গে বিশ্বের কাছে ঘোষণা করি যে, আমি ৫১৮ টি সিনেমা করেছি। আমার ধারণা যে প্রত্যেকে (অন্তত ভারতে) আমাকে চেনে।’

এরপর ওই ব্যাক্তির নাম উল্লেখ করে তিনি লেখেন, ‘তবে জ্ঞানচাঁদ জি খুব নিরীহভাবে আমার আত্মবিশ্বাসকে ছিন্নভিন্ন করে দিয়েছে। আমার পরিচয় নিয়ে তার কোনো ধারণা ছিল না। এটি মজাদারভাবে হৃদয় বিদারক এবং তবুও সুন্দরভাবে সতেজ! আমাকে আমার পা মাটিতে রাখতে সাহায্য করার জন্য আমার বন্ধুকে ধন্যবাদ!’

আরও পড়ুন:
মামলা করে ২০ লাখ রুপি জরিমানার মুখে জুহি
বজরঙ্গি ভাইজানের সেই ছোট্ট ‘মুন্নি’ পা দিলেন কৈশোরে
আসছে ‘ওহ মাই গড টু’, নতুন চমক পঙ্কজ ত্রিপাঠি
সোনমের জন্য মার খেয়েছিলেন অর্জুন
হৃত্বিকের সিরিজ থেকে সরে গেলেন মনোজ বাজপেয়ী

শেয়ার করুন

শুটিং নেই, মাছ বিক্রি করছেন অভিনেতা

শুটিং নেই, মাছ বিক্রি করছেন অভিনেতা

প্রসেনজিতের সঙ্গে শ্রীকান্ত মান্না (বাঁয়ে) ও মাছ বিক্রির মুহূর্তে অভিনেতা। ছবি: সংগৃহীত

শ্রীকান্ত মান্না বলেন, ‘অভিনয়ে এখন রোজগার বন্ধ। তাই মাছ বিক্রি করে পেটের খিদে মেটাতে হচ্ছে। সৎ কাজ, তাই লজ্জা নেই, আফসোস নেই। তাছাড়া আমি তো একা নই। কত মানুষ অসহায়। লড়ছে। আমিও লড়ছি।’

কলকাতার মঞ্চ, নাটক, সিনেমার অভিনেতা শ্রীকান্ত মান্না। ‘সংস্তব’ নাট্যদলে অভিনয় করছেন ২৫ বছর ধরে। এই পৃথিবী তোমার আমার, বেগ ফর লাইফ, রাজকাহিনী, গ্ল্যামার সিনেমায় তাকে দেখা গেছে পার্শ্ব চরিত্রে। শ্রীকান্ত অভিনীত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ছিপি জিতেছে একাধিক পুরস্কার।

এই অভিনেতা এখন মাছের বাজারে মাছ বিক্রি করছেন। এমন তো হতেই পারে যে তিনি মাছ বিক্রেতার চরিত্রে অভিনয় করছেন! কিন্তু না, এটা তার কোনো নাটক বা সিনেমার চরিত্র না। পরিস্থিতি তাকে মাছ বিক্রি করতে বাধ্য করেছে।

কোভিড পরিস্থিতির কারণে অনেক কিছুই তছনছ হয়ে গেছে। সিনেমা, টেলিভিশনের অনেক মানুষই এখন কর্মহীন। শ্রীকান্ত মান্নাও তাদের একজন, যিনি কাজ হারিয়েছেন।

তাই জীবন চালাতে বাজারে মাছ বিক্রি করতে শুরু করেছেন এ অভিনেতা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘অভিনয়ে এখন রোজগার বন্ধ। তাই মাছ বিক্রি করে পেটের খিদে মেটাতে হচ্ছে। সৎ কাজ। তাই লজ্জা নেই, আফসোস নেই। তাছাড়া আমি তো একা নই। কত মানুষ অসহায়। লড়ছে। আমিও লড়ছি।’

মিঠুন চক্রবর্তী, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, সব্যসাচী চক্রবর্তী, আবীর চট্টোপাধ্যায়, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়দের মতো খ্যাতিমান অভিনেতাদের সঙ্গে কাজ করা শ্রীকান্ত আজ অনেকের কাছেই উজ্জ্বল উদাহরণ।

অভিনেত্রী শ্রীলেখা ফেসবুকে লিখেছেন, ‘কোনো কাজ ছোট নয়, তবু প্রশ্ন থেকেই যায়। পরিশ্রম করে নিজের সংসার চালাচ্ছেন এই শিল্পী। আপনাকে শ্রদ্ধা জানাই।’

সংসারে কারা আছেন জানতে চাইলে শ্রীকান্ত জানান, ঘরে দাদা, বৌদি আছেন। আর তিনি অবিবাহিত।

শ্রীকান্ত তার নাট্যগুরু দ্বিজেন বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘আমার গুরু বলেছিলেন, অভিনয়কে বাঁচিয়ে রাখতে জীবনে যে পরিস্থিতিই আসুক, তার মোকাবিলা করতে হবে। অভিনয়ের প্রতি এতটাই ভালোবাসা প্রয়োজন। অভিনয়কে বাঁচাতেই এই লড়াই।’

শ্রীকান্ত আরও বলেন, ‘আবার সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে। আবার চরিত্র আসবে। আবার শুরু হবে মঞ্চ ও ক্যামেরার সামনে অভিনয়।’

আরও পড়ুন:
মামলা করে ২০ লাখ রুপি জরিমানার মুখে জুহি
বজরঙ্গি ভাইজানের সেই ছোট্ট ‘মুন্নি’ পা দিলেন কৈশোরে
আসছে ‘ওহ মাই গড টু’, নতুন চমক পঙ্কজ ত্রিপাঠি
সোনমের জন্য মার খেয়েছিলেন অর্জুন
হৃত্বিকের সিরিজ থেকে সরে গেলেন মনোজ বাজপেয়ী

শেয়ার করুন

ডাবিং নিয়ে ভয়ে থাকেন পূজা

ডাবিং নিয়ে ভয়ে থাকেন পূজা

হৃদিতা সিনেমার ডাবিংয়ে পূজা। ছবি: সংগৃহীত

পূজা লেখেন, ‘একটি সিনেমার সবচেয়ে কঠিন কাজ হলো ডাবিং। কোনো ভালো কাজ শুরু করার আগে আমি প্রার্থনা করে নেই, যাতে কাজটি আমি ভালো করতে পারি। কারণ দিনশেষে কাজটি আমার, ভালো হলে দর্শক আমাকে বলবে খারাপ হলে আমাকেই বলবে। তাই ভালোই করতে চাই।’

ঢাকাই সিনেমার হালের নামকরা অভিনেত্রী পূজা চেরী অভিনীত সিনেমা হৃদিতা। সিনেমাটির শুটিং শেষ হয়েছে। এখন চলছে ডাবিং।

ফেসবুক স্ট্যাটাসে বৃহস্পতিবার রাতে এসব তথ্য জানিয়েছেন অভিনেত্রী পূজা।

পূজা লেখেন, ‘একটি সিনেমা যখন ফাইনাল হয় তখন আমার শুটিং করা সবচেয়ে সহজ মনে হয়; যদিও সহজ না। কিন্তু একটি সিনেমার সবচেয়ে কঠিন কাজ হলো ডাবিং। যেটা কিনা আমি সবচেয়ে ভয়ে থাকি। কারণ আমার মনে হয় স্পটে যতুটুকু অভিনয় করি তার থেকে অনেক গুণ ভালো করতে হয় ডাবিং এ, যাতে অভিনয় আরো ভালো লাগে।’

তিনি আরও লেখেন, ‘সবকিছু ভালোভাবে শেষ করে শুরু হলো সিনেমাটির ডাবিং। কোনো ভালো কাজ শুরু করার আগে আমি প্রার্থনা করে নেই, যাতে কাজটি আমি ভালো করতে পারি। কারণ দিনশেষে কাজটি আমার, ভালো হলে দর্শক আমাকে বলবে খারাপ হলে আমাকেই বলবে। তাই ভালোই করতে চাই ।’

হৃদিতা সিনেমার পরিচালক ইস্পাহানী আরিফ জাহান। তার সঙ্গে হওয়া পূজার কিছু কথা উল্লেখ করে লেখেন, ‘ডাবিং শুরু করার আগে আমাদের পরিচালক ইস্পাহানী আরিফ জাহান স্যার বললেন গানটি দেখবে? আমি অনেক খুশি হয়ে বললাম অবশ্যই। দেখেই মনটা ভালো হয়ে গেলো। তারপর কঠিন কাজটি করতে গেলাম।’

ডাবিং নিয়ে ভয়ে থাকেন পূজা
ডাবিং রুমের বাইরে পূজা চেরী। ছবি: সংগৃহীত

ডাবিংয়ের বর্ণনা দিয়ে পূজা লেখেন, ‘গেলাম মাইক্রোফোনের সামনে। হেডফোনটি কানে পরলাম। মনে মনে বললাম হে ঈশ্বর ডাবিংটা যেনো ভালো হয়। আস্তে আস্তে দেখলাম প্রায় অর্ধেকটা শেষ করে ফেলেছি। ইস্পাহানী আরিফ জাহান স্যারকে জিজ্ঞাস করলাম কেমন হচ্ছে? তারা বললেন খুব ভালো। শুনে খুব খুশি লাগলো। নিজের কোনো কাজ কেউ ভালো বললে আসলেই খুব শান্তি লাগে।’

সবশেষে পূজা জানান, ভালোভাবে সবকিছু শেষ করতে পারলে শিগগিরই প্রেক্ষাগৃহে হৃদিতা সিনেমাটি দেখতে পারবেন দর্শকরা।

কথাসাহিত্যিক আনিসুল হকের উপন্যাস ‘হৃদিতা’ অবলম্বনে নির্মিত হচ্ছে সিনেমাটি। গত বছরের ৯ নভেম্বর সন্ধ্যায় বিএফডিসিতে কেক কেটে ঘরোয়াভাবে অনুষ্ঠিত হয় সিনেমাটির মহরত। এরপর ১১ নভেম্বর রাজধানীর উত্তরার শুরু হয় সিনেমার শুটিং।

আরও পড়ুন:
মামলা করে ২০ লাখ রুপি জরিমানার মুখে জুহি
বজরঙ্গি ভাইজানের সেই ছোট্ট ‘মুন্নি’ পা দিলেন কৈশোরে
আসছে ‘ওহ মাই গড টু’, নতুন চমক পঙ্কজ ত্রিপাঠি
সোনমের জন্য মার খেয়েছিলেন অর্জুন
হৃত্বিকের সিরিজ থেকে সরে গেলেন মনোজ বাজপেয়ী

শেয়ার করুন