20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
ছেলের নির্দেশনায় সোফিয়া লরেনের ‘দ্য লাইফ অ্যাহেড’

ছেলের নির্দেশনায় সোফিয়া লরেনের ‘দ্য লাইফ অ্যাহেড’

কিংবদন্তি এ নায়িকা এমন এক চরিত্রে আগেও অভিনয় করেছিলেন। তার স্বামী কার্লো পন্টির প্রযোজনায় ১৯৬১ সালের সেই সিনেমার নাম ‘টু উইমেন’। শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে অস্কারও পান ‘টু উইমেন’-এর জন্য।

চার বছর পর পর্দায় আসছেন সোফিয়া লরেন। নেটফ্লিক্সের এ সিনেমাটির নাম ‘দ্য লাইফ অ্যাহেড’। ইতালি ভাষার এ সিনেমাটি নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাবে আগামী ১৩ নভেম্বর।

‘দ্য লাইফ অ্যাহেড’ সিনেমায় লরেন হোলোকাস্টের ঘটনায় বেঁচে যাওয়া এক নারীর চরিত্রে অভিনয় করবেন, যিনি সেনেগাল থেকে আসা এক ছেলেকে তার ঘরে আশ্রয় দেন। তার চরিত্রের নাম ম্যাডাম রোজা।

কিংবদন্তি এ নায়িকা এমন এক চরিত্রে আগেও অভিনয় করেছিলেন। তার স্বামী কার্লো পন্টির প্রযোজনায় ১৯৬১ সালের সেই সিনেমার নাম ‘টু উইমেন’। শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে অস্কারও পান ‘টু উইমেন’-এর জন্য।

‘টু উইমেন’-এর সঙ্গে তার পরবর্তী সিনেমা ‘দ্য লাইফ অ্যাহেড’ এর আরও একটি যোগসূত্র আছে। তা হলো, ‘টু উইমেন’ সোফিয়া তার স্বামীর প্রযোজনায় কাজ করেছিলেন। দ্য লাইফ অ্যাহেডে তিনি তাদেরই ছেলে এডোরাডো পন্টির পরিচালনায় অভিনয় করেছেন।

এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাগাজিন এন্টারটেইনমেন্ট উইকলির এক সাক্ষাৎকারে ৮৬ বছর বয়সী সোফিয়া লরেন বলেন, ‘আমি আমার ছেলের সঙ্গে কাজ করতে খুব ভালোবাসি। কারণ আমরা একে অপরকে খুব ভালোভাবে চিনি।’

লরেন বর্তমানে সুইজারল্যান্ডের জেনেভাতে আছেন।

সূত্র: এন্টারটেইনমেন্ট উইকলি

শেয়ার করুন