20201002104319.jpg
ধর্ষণের প্রতিবাদের গান গাইলেন রাবি শিক্ষক

ধর্ষণের প্রতিবাদের গান গাইলেন রাবি শিক্ষক

‘দোজখের গান’ গানটি ‘এপিসেন্টার থ্রি’ ব্যান্ডের প্রথম গান

‘দোজখের গান’ নামে ‘এপিসেন্টার থ্রি’ ব্যান্ডের প্রথম গান প্রকাশিত হলো শুক্রবার। গানের নাম শুনে ধারণা করা যায় গানটির বিষয়বস্তু সুন্দর কোনো মুহূর্ত নিয়ে লেখা নয়।

গানটির কথা, সুর ও কণ্ঠ সেলিম রেজা নিউটনের। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক। 

নিউজবাংলাকে সেলিম রেজা নিউটন বলেন, ‘২০১৬ সালের মার্চে কুমিল্লার ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী সোহাগী জাহান তনু সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর খুন হয়। এ ঘটনা থেকে প্রভাবিত হয়ে ২০১৬ সালেই গানটি লেখা ও সুর ও রেকর্ড করা হয়।‘

ব্যান্ডের সদস্যদের ইচ্ছা ছিল সবকটি গান অ্যালবাম আকারে মুক্তি দেওয়ার।        

বর্তমানে সারা দেশে ধর্ষণের এত এত ঘটনা ঘটছে। এর বিরুদ্ধে জনগণের প্রতিবাদের সময়ে এ গানটি এখন এককভাবে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।  

‘এপিসেন্টার থ্রি’ ব্যান্ডের প্রথম অ্যালবাম মুক্তির কাজও প্রায় শেষের দিকে। খুব শিগগিরই পুরো  অ্যালবামটি মুক্তি দিবে ব্যান্ডটি।

গানটির সঙ্গীতায়োজন করেন ব্যান্ডের অন্য দুই সদস্য তোয়াসীন ও শুভ সুলতান।

গানটির ভিডিওতে ব্যবহার করা হয়েছে ভারতীয় চিত্রশিল্পী অপর্ণা করের আঁকা ছবি। এ ছবিগুলো গানটিতে এক অন্য মাত্রা যোগ করেছে।  

মিউজিক ভিডিওটি প্রকাশ করেছে স্টুডিও লেজি ট্রি।

 

নিউজবাংলার পাঠকদের জন্য গানটির কথা তুলে দেয়া হলো-

‘রাত্রি আন্ধার, বন্দুকের ঝোপে

টর্চলাইটে জ্বলা ত্রস্ত চোখ

দেখছে মেয়েটার, একলা মেয়েটার,

ওড়না-ছেঁড়া-থ্যাতা দেহে দোজখ

 

রাস্তাটার ধারে নিহত চোখ জুড়ে

অত্যাচার, ধর্ষণের দাগ;

রাষ্ট্র-রাক্ষস বলাৎকার করে

চলেছে সবকিছু— সর্বভাগ।

 

সময় দিঠিহীনা, অবশ মনোবীণা

বাজছে দিশাহারা সব তারে

“বিচার”, “ফাঁসি চাই” শুনব আর কত?

কী চাই, কার কাছে, করজোড়ে?

 

বরং ঠিক করো, তুমি কী করবে

ঠেকাতে ধর্ষণ, খুন-তৃষা।

নাকি এখনও বসে, অপেক্ষার বশে

থাকবে বড়ো হুজুরের আশায়?

 

ততক্ষণ ধরে অন্ধকার জুড়ে

হত ও বিক্ষত তনুর চোখ

দেখবে আমাদের ভীত ও বিব্রত

ভবিষ্যতহীন দেশে দোজখ।

শেয়ার করুন

মন্তব্য