× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

শিক্ষা
Jabir administration building blockade on five demands including exemption of proctor provost
google_news print-icon

প্রক্টর-প্রভোস্টের অব্যাহতিসহ পাঁচ দাবিতে জাবির প্রশাসনিক ভবন অবরোধ

প্রক্টর-প্রভোস্টের-অব্যাহতিসহ-পাঁচ-দাবিতে-জাবির-প্রশাসনিক-ভবন-অবরোধ
পাঁচ দফা দাবিতে সোমবার অনির্দিষ্টকালের জন্য জাবির নতুন প্রশাসনিক ভবন অবরোধ করে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের প্ল্যাটফর্ম ‘নিপীড়নবিরোধী মঞ্চ’। ছবি: নিউজবাংলা
প্ল্যাটফর্মটির দাবির মধ্যে রয়েছে জাবিতে ধর্ষণে জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তি, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এবং মীর মশাররফ হোসেন হলের প্রভোস্টের বিরুদ্ধের অপরাধে সহায়তার অভিযোগ তদন্ত এবং সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে তাদের প্রশাসনিক পদ থেকে অব্যাহতি।

পাঁচ দফা দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) নতুন প্রশাসনিক ভবন অবরোধ করেছে আন্দোলনকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের প্ল্যাটফর্ম ‘নিপীড়নবিরোধী মঞ্চ’।

প্ল্যাটফর্মটির দাবির মধ্যে রয়েছে জাবিতে ধর্ষণে জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তি, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এবং মীর মশাররফ হোসেন হলের প্রভোস্টের বিরুদ্ধের অপরাধে সহায়তার অভিযোগ তদন্ত এবং সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে তাদের প্রশাসনিক পদ থেকে অব্যাহতি।

প্রশাসনিক ভবনের ফটকে সোমবার সকাল ৯টার দিকে তালা ঝুলিয়ে অবরোধ শুরু করে নিপীড়নবিরোধী মঞ্চ। ওই সময় কোনো প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে ভবনে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি।

আন্দোলনকারীদের অন্য দাবিগুলো হলো মেয়াদ শেষ হওয়ার পর হলে থাকা শিক্ষার্থীদের বের করে এবং গণরুম বিলুপ্ত করে নিয়মিত শিক্ষার্থীদের আবাসন নিশ্চিত, নিপীড়নে অভিযুক্ত শিক্ষক মাহমুদুর রহমান জনির বহিষ্কারাদেশ নিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি ও অফিস আদেশ প্রণয়ন, ইতোপূর্বে যৌন নিপীড়ন সেলে উত্থাপিত সব অমীমাংসিত অভিযোগসহ ক্যাম্পাসে বিভিন্ন সময়ে নানাবিধ অপরাধে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিচারের আওতায় আনা এবং মাদকের সিন্ডিকেট চিহ্নিত করে জড়িত ব্যক্তিদের ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে প্রশাসনিক ভবনে গিয়ে দেখা যায়, জাবির নতুন প্রশাসনিক ভবনের সামনের দুটি গেটে তালা ঝুলিয়ে অবরোধ করছেন আন্দোলনকারীরা। প্রশাসনিক ভবনের কর্মকর্তারা দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের আরিফ সোহেল বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে সাম্প্রতিক ধর্ষণের যে অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত কমিটি করা হয়েছিল, গতকাল রোববার সেটি সিন্ডিকেটে উত্থাপন করা হয়েছে। আমাদের কাছে মনে হয়েছে, ওই তদন্ত প্রতিবেদনে যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণ থাকা সত্ত্বেও সিন্ডিকেট যথাযথভাবে পর্যালোচনা করেনি। উপরন্তু তারা বলেছেন প্রক্টর এবং প্রভোস্টের দায়িত্বে অবহেলার প্রমাণস্বরূপ কোনো কিছু পাননি। এটা হতেই পারে না। কারণ আমরা তথ্যপ্রমাণ দিয়েছি, উপস্থাপন করেছি, কিন্তু তারা যেহেতু বলেছেন, তথ্যপ্রমাণ পাননি, এটা দুরভিসন্ধিমূলক।

‘গতকাল (রোববার) সিন্ডিকেট সভা চলাকালে আমরা প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান করছিলাম; উপাচার্য স্যারের সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিলাম, কিন্তু তিনি আমাদের সঙ্গে দেখা করেননি। এসব কারণে আমরা আজ (সোমবার) সকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য অবরোধ করে রেখেছি। যতদিন দাবি পূরণ না হবে, ততদিন এই অবরোধ থাকবে।’

অবরোধকারী আরেক শিক্ষার্থী ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাসিব জামান বলেন, ‘মীর মশাররফ হোসেন হলের প্রভোস্ট এবং প্রক্টরের ব্যাপারে গত পরশু একটা অভিযোগপত্র দিয়েছি। যে নিপীড়নের কারণে একজন শিক্ষককে (মাহমুদুর রহমান) বরখাস্ত করা হয়েছে, সেই ঘটনায় ভুক্তভোগী ছাত্রীকে দায়মুক্তিপত্র লেখানোর অভিযোগ রয়েছে প্রক্টরের বিরুদ্ধে। তারপরও প্রক্টরের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না।’

এ বিষয়ে জানতে জাবির উপাচার্য নূরুল আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করেও পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন:
ব্যবসায়ীকে মারধরের ঘটনায় নাটোরে মহাসড়ক অবরোধ
জাবির দুই হলের মাঝের রাস্তা খোলার দাবিতে প্রশাসনিক ভবন অবরোধ
জাবিতে দেয়াল ভাঙাকে কেন্দ্র করে দুই হলের সংঘর্ষ
জাবিতে ছাত্রদলের মিছিলে ছাত্রলীগের হামলা
গাজীপুরে বেতন বৃদ্ধির দাবিতে মহাসড়ক অবরোধ করে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

মন্তব্য

আরও পড়ুন

শিক্ষা
Land office closed for 6 hours due to bomb threat in Kapasia

কাপাসিয়ায় বোমা আতঙ্কে ৬ ঘণ্টা অচল ভূমি অফিস

কাপাসিয়ায় বোমা আতঙ্কে ৬ ঘণ্টা অচল ভূমি অফিস গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার রায়েদ ইউনিয়ন ভূমি অফিসে বোমাসদৃশ বস্তু ঘিরে সতর্ক অবস্থান। ছবি: নিউজবাংলা
ডিএমপি’র কাউন্টার টেরোরিজম ও বোমা ডিসপোজাল ইউনিটের টিম লিডার মো. মাহমুদুজ্জামান বলেন, ‘আমাদের টিম প্রাথমিক তদন্তের পর এটিকে নিষ্ক্রিয় করার প্রক্রিয়া শুরু করে। পরে দেখা যায় এটি নকল বোমা। কেউ আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য হয়তো এই কাজ করেছে।’

বোমা আতঙ্কে গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার রায়েদ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের কার্যক্রম ৬ ঘণ্টা বন্ধ ছিল। ঢাকায় বোমা নিষ্ক্রিয়করণ টিমকে খবর দিলে তারা ঘটনাস্থলে আসে।

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, রায়েদ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের চারদিকে রশি দিয়ে বেষ্টনী দিয়ে রেখেছে থানা পুলিশ। বোমার আতঙ্কে ভূমি অফিসের সব কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।

ভূমি অফিসের সেবাপ্রত্যাশীরা এসে বোমাতঙ্কে ফিরে যাচ্ছেন। কেউবা নিরাপদ দূরত্বে দাঁড়িয়ে বিষয়টি দেখছেন।

কাপাসিয়ায় বোমা আতঙ্কে ৬ ঘণ্টা অচল ভূমি অফিস
উদ্ধার করা বোমাসদৃশ বস্তু। ছবি: নিউজবাংলা

রায়েদ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের পশ্চিম পাশে ৩০ ফুট দূরত্বে একটি মসজিদ রয়েছে। দক্ষিণ পাশে রয়েছে একটি সড়ক। তার পাশে রায়েদ বাজার। বোমা আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ার পর ভূমি অফিসকে ঘিরে স্থানীয় লোকজন ভিড় জমায়।

রোববার সকাল ৯টার সময় রায়েদ ইউনিয়ন ভূমি অফিসের পরিচ্ছন্নকর্মী রেজাউল করিম প্রথম একটি বস্তু দেখতে পাযন। তিনি জানান, ‘আমি খাকি কাগজে মোড়ানো একটি প্যাকেট দেখতে পাই। প্যাকেটটি ধরতেই হাত থেকে নিচে পড়ে যায়। পরে এটি তুলে দেখি এর মধ্যে মোবাইল ডিসপ্লের মতো কী যেন লেখা। তা থেকে এক ধরনের টিক টিক শব্দ বের হচ্ছে।

‘জিনিসটি অফিসের স্যারদের দেখালে তারা এটিকে টাইম বোমা বলে উল্লেখ করেন। পরে এটি পাশের মাটির ঘরে নিয়ে রেখে দেই।’

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম ও বোমা ডিসপোজাল ইউনিটের টিম লিডার মো. মাহমুদুজ্জামান বলেন, ‘আমরা সকাল ১১টায় সংবাদ পেয়ে ঢাকা থেকে কাপাসিয়ায় ঘটনাস্থলে আসি। আমাদের টিম প্রাথমিক তদন্তের পর এটিকে নিষ্ক্রিয় করার প্রক্রিয়া শুরু করে। নিষ্ক্রিয় করতে গিয়ে দেখা যায় এটি বোমার আদলের একটি বস্তু। এটি নকল বোমা। কেউ আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য হয়তো এই কাজটি করেছে।’

বোমা আতঙ্কের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন কাপাসিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম লুৎফর রহমান ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিফাত নূর মৌসুমী।

রিফাত নূর মৌসুমী বলেন, ‘মূলত আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য কেউ কাজটি করেছে। বিষয়টি থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে। তারা প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ নেবে।’

আরও পড়ুন:
মাদারীপুরে হাতবোমা বানানোর সময় বিস্ফোরণ, নিহত ১
নারায়ণগঞ্জে বাসে উদ্ধার হওয়া বস্তুটি টাইম বোমা: পুলিশ
মেহেরপুরে চারটি বোমাসাদৃশ্য বস্তু উদ্ধার
নারায়ণগঞ্জে ট্রেনে বোমা হামলার চেষ্টা, আটক ৩
ঈশ্বরদীতে ট্রেনের নিচ থেকে বোমা উদ্ধার

মন্তব্য

শিক্ষা
MP Anwarul Azim went missing while undergoing treatment in India

ভারতে চিকিৎসা করাতে গিয়ে এমপি আনোয়ারুল আজীম ‘নিখোঁজ’

ভারতে চিকিৎসা করাতে গিয়ে এমপি আনোয়ারুল আজীম ‘নিখোঁজ’ ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার। ছবি: সংগৃহীত
এমপি আনোয়ারুল আজীম আনারের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন বলেন, ‘গত কয়েকদিন ধরে বাবার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই। এজন্য আমরা দুশ্চিন্তায় আছি। আমরা সব উপায়ে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো খোঁজ পাইনি।’

চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়ে ‘নিখোঁজ’ হয়েছেন ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল আজীম আনার।

এমপি আনারের ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) আব্দুর রউফ রোববার গণমাধ্যমকে এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার চিকিৎসার জন্য ১১ মে ভারতে যান। এরপর দুদিন পরিবার ও দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে তার যোগাযোগ ছিল। ১৪ মে থেকে তার সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে আমাদের।

‘এমপি স্যারের ব্যবহৃত হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরটিও বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। কোথায় আছেন, কীভাবে আছেন সেটা জানতে না পেরে আমরা উদ্বিগ্ন। ইতোমধ্যে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীকে জানানো হয়েছে। এছাড়া সরকারের উচ্চপর্যায়ের বিভিন্ন দফতরকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে।’

এমপি আনারের ছোট মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন বলেন, ‘গত কয়েকদিন ধরে বাবার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই। এজন্য আমরা দুশ্চিন্তায় আছি। আমরা সব উপায়ে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো খোঁজ পাইনি।’

ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম অপু বলেন, ‘আমি এ বিষয়ে এখনও কিছু শুনিনি। ঘটনা যদি সত্য হয় তবে তা খুবই উদ্বেগের। দল ও সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানাবো।’

এদিকে ভারতে গিয়ে এমপি আনারের ছয় দিন ধরে কোনো যোগাযোগ না থাকার বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে নানা গুঞ্জন চলছে। ফেসবুকে নেতাকর্মী ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা তার সুস্থতা কামনা করে পোস্ট দিচ্ছেন।

এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ থানার ওসি আবু আজিফ বলেন, ‘বিষয়টি লোকমুখে শুনেছি। এ ব্যাপারে এখন পর্যন্ত এমপির স্বজনরা থানায় অভিযোগ দেননি।’

এদিকে বাবার খোঁজ পেতে সংসদ সদস্যের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন রোববার বিকেলে রাজধানীর মিণ্টো রোডে অবস্থিত ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) কার্যালয়ে আসেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ডিবির এক কর্মকর্তা বলেন, ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারের মেয়ে ডিবি কার্যালয়ে এসেছেন তার বাবা নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি অবহিত করতে।

প্রসঙ্গত, আনোয়ারুল আজীম আনার ঝিনাইদহ-৪ আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য। তিনি ২০১৪, ২০১৮ ও ২০২৪ সালে টানা তিনবার আওয়ামী লীগ থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

মন্তব্য

শিক্ষা
Autorickshaw drivers fire at police box in Kalshi

কালশীতে পুলিশ বক্সে অটোরিকশা চালকদের আগুন

কালশীতে পুলিশ বক্সে অটোরিকশা চালকদের আগুন রোববার বিকেলে মিরপুরের কালশী মোড়ে ট্রাফিক পুলিশ বক্সে আগুন ধরিয়ে দেয় আন্দোলনকারী অটোরিকশা চালকরা। ছবি: সংগৃহীত
পল্লবী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোখলেসুর রহমান বলেন, অটোরিকশা চালকরা সহিংস আন্দোলন করছে। তারা কালশী মোড়ে একটি পুলিশ বক্সে আগুন দিয়েছে। এ বিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল বন্ধের প্রতিবাদে রোববার সকাল থেকেই রাজধানীর আগারগাঁও ও মিরপুর ১০ নম্বরে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে চালকরা। দুপুর পর্যন্ত তারা ৩০টির বেশি বাস, ট্রাক ও মোটরসাইকেল ভাঙচুর করেছে।

সবশেষ বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মিরপুরের কালশীতে ট্রাফিক পুলিশ বক্সে আগুন ধরিয়ে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে।

পল্লবী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোখলেসুর রহমান বলেন, অটোরিকশার চালকরা কালশীতে সহিংস আন্দোলন করছে। তারা কালশী মোড়ে অবস্থিত একটি পুলিশ বক্সে আগুন দিয়েছে। এটি ট্রাফিক পুলিশের একটি বক্স। এ বিষয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

এর আগে কালশীতে সড়ক অবরোধ করে অটোরিকশা চালকরা রাস্তা অবরোধ করে। এতে সড়কের দুদিকে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

দুপুরে মিরপুর ১০ নম্বরে পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এ সময় তিন বিক্ষোভকারী আহত হয়।

বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মিরপুর-১০ নম্বর চত্বর থেকে অটোরিকশা চালকদের সরিয়ে দেয় পুলিশ। যানবাহন চলাচলও স্বাভাবিক হয়ে আসে।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আগারগাঁও ও মিরপুর ১০ নম্বরে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাচালকরা। পরে মিরপুর-১ নম্বরে সনি সিনেমা হলের সামনে অবস্থান নেয় তারা।

মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) জসিম উদ্দিন মোল্ল্যা গণমাধ্যমকে বলেন, হাইকোর্টের আদেশের পর মিরপুর এলাকায় অটোরিকশা চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। এর প্রতিবাদে অটোরিকশা চালকরা মিরপুর-১০ গোলচত্বরে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে এবং সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়।

তিনি বলেন, পুলিশ ধৈর্যের সঙ্গে প্রায় চার ঘণ্টা অপেক্ষার পর স্থানীয় সংসদ সদস্যের উপস্থিতিতে মিরপুর-১০ নম্বর চত্বরে থাকা চালকদের বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হয়। মিরপুর-১০ নম্বর থেকে সরে তারা হয়তো কালশীতে গিয়ে রাস্তায় আগুন দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ১৫ মে রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত রিকশা চলতে না দেয়ার নির্দেশনা দেন। বনানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) কার্যালয়ে সড়ক পরিবহন উপদেষ্টা পরিষদের সভায় তিনি এই নির্দেশ দেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ঢাকায় কোনো ব্যাটারিচালিত রিকশা চালানো যাবে না। এ বিষয়ে শুধু নিষেধাজ্ঞা আরোপ নয়; এগুলো যেন চলতে না পারে তা নিশ্চিত করতে হবে। এছাড়া ২২ মহাসড়কে রিকশা ও ইজিবাইক নিষিদ্ধ করা হয়েছে, তা বাস্তবায়ন করতে হবে।

আরও পড়ুন:
মিরপুরে ব্যাটারিচালিত রিকশাচালকদের সড়ক অবরোধ
ঢাকায় অটোরিকশা বন্ধে অভিযানে পুলিশ

মন্তব্য

শিক্ষা
Kubi students want permanent expulsion of Swapneel

স্বপ্নীলের স্থায়ী বহিষ্কার চান কুবি শিক্ষার্থীরা

স্বপ্নীলের স্থায়ী বহিষ্কার চান কুবি শিক্ষার্থীরা দাবি না মানা পর্যন্ত রোববার সকাল থেকে প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা করেন শিক্ষার্থীরা। ছবি: নিউজবাংলা
প্রক্টর কাজী ওমর সিদ্দিকী বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা দাবি নিয়ে আমাদের কাছে এসেছিল। দাবিগুলো উপাচার্য স্যারকে জানিয়ে আমরা সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেব।’

মহানবী হযরত মোহাম্মদ (স:) কে নিয়ে কটূক্তি ও ইসলাম ধর্মের অবমাননার দায়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) ২০২০-২১ সেশনে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী স্বপ্নীল মুখার্জিকে স্থায়ী বহিষ্কার ও প্রশাসন কর্তৃক মামলা দায়ের এবং দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা।

দাবি না মানা পর্যন্ত রোববার সকাল ১০টা থেকে প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা করেন তারা। কর্মসূচিতে বক্তারা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্বপ্নীল মুখার্জির বহিষ্কার ও মামলার দাবি জানান।

বিভাগের ১৪তম আবর্তনের শিক্ষার্থী মোজাম্মেল বলেন, ‘আমরা আমাদের পদার্থবিজ্ঞান পরিবার থেকে সিদ্ধান্ত নিয়েছি তাকে আমরা আর আমাদের বিভাগে দেখতে চাই না। হয়তো আমরা থাকব, নাহলে স্বপ্নীল থাকবে।

‘আমাদের দাবি হচ্ছে তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করতে হবে। যতক্ষণ পর্যন্ত তাকে স্থায়ী বহিষ্কার করা না হচ্ছে ততক্ষণ আমরা আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যাবে।’

ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের ১৭তম আবর্তনের শিক্ষার্থী নাইম বলেন, ‘স্বপ্নীল এতবড় একটা ঘৃণ্য কাজ করা সত্ত্বেও প্রশাসন তাকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে। স্বপ্নীলের বহিষ্কার এবং আইনি কোনো পদক্ষেপ না হওয়া পর্যন্ত আমরা আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যাব।’

অবস্থান কর্মসূচির এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীরা স্বপ্নীলের স্থায়ী বহিষ্কার, প্রশাসন বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ও দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি নিয়ে প্রক্টরের কাছে যান।

এ বিষয়ে প্রক্টর কাজী ওমর সিদ্দিকী বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা দাবি নিয়ে আমাদের কাছে এসেছিল। দাবিগুলো উপাচার্য স্যারকে জানিয়ে আমরা সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেব।’

গত ১৬ মে ধর্ম অবমাননার দায়ে অভিযুক্ত স্বপ্নীলকে এক অফিস আদেশের মাধ্যমে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।

আরও পড়ুন:
ধর্ম অবমাননার অভিযোগে কুবি শিক্ষার্থী সাময়িক বহিষ্কার
কুবি উপাচার্য ও কোষাধ্যক্ষের বিরুদ্ধে দায়িত্ব পালন না করে সম্মানী নেয়ার অভিযোগ
গুচ্ছের ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় কুবিতে উপস্থিত ৮৭%
উপাচার্য, কোষাধ্যক্ষের পদত্যাগ দাবিতে কুবি শিক্ষকদের অবস্থান দ্বিতীয় দিনে
পাহাড় কেটে কুবি প্রক্টরের রেস্তোরাঁ!

মন্তব্য

শিক্ষা
RAB to investigate death of female accused in Bhairab custody

ভৈরবে হেফাজতে নারী আসামির মৃত্যু তদন্ত করবে র‌্যাব

ভৈরবে হেফাজতে নারী আসামির মৃত্যু তদন্ত করবে র‌্যাব কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে সুরাইয়া খাতুনের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ছবি: সংগৃহীত
র‌্যাব-১৪ ময়মনসিংহের অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান নিউজবাংলাকে রোববার বলেন, ‘র‌্যাব হেডকোয়ার্টার্সের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সুরাইয়া খাতুনের মৃত্যুরহস্য উদঘাটনের জন্য তদন্ত কমিটি করা হবে এবং বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।’

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) হেফাজতে নারী আসামির মৃত্যুর ঘটনাটি তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছে বাহিনীটি।

র‌্যাব-১৪ ময়মনসিংহের অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান নিউজবাংলাকে রোববার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘র‌্যাব হেডকোয়ার্টার্সের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সুরাইয়া খাতুনের মৃত্যুরহস্য উদঘাটনের জন্য তদন্ত কমিটি করা হবে এবং বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।’

প্রাণ হারানো ৫২ বছর বয়সী সুরাইয়া খাতুন ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার বরুনাকান্দা গ্রামের আজিজুল ইসলামের স্ত্রী। শনিবার সকালে কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে তার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।

ময়নাতদন্ত করে মেডিক্যাল কলেজের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রভাষক ডা. ইমতিয়াজের নেতৃত্বাধীন একটি দল। ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের সদস্যদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়।

এর আগে শুক্রবার রাত আটটার দিকে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেন কিশোরগঞ্জ কালেক্টরেটের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইসরাত জাহান। সুরতহাল প্রতিবেদনে কী ধরনের আলামত পরিলক্ষিত হয়েছে, সে বিষয়ে সংবাদকর্মীদের কিছুই জানাননি তিনি।

পুত্রবধূ রেখা আক্তার হত্যা মামলার আসামি হিসেবে বৃহস্পতিবার রাতে নান্দাইল উপজেলার নতুন বাজার এলাকা থেকে সুরাইয়া খাতুন ও তার ছেলে তাইজুল ইসলাম লিমনকে (২৩) আটক করে র‌্যাব। রাতেই তাদের র‌্যাব-১৪ কিশোরগঞ্জের ভৈরব ক্যাম্পে নেওয়া হয়। শুক্রবার সকালে সুরাইয়া খাতুনকে ভৈরব উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় র‌্যাব। জরুরি বিভাগ থেকে জানানো হয় হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে র‌্যাব ভৈরব ক্যাম্পের পক্ষ থেকে সংবাদকর্মীদের তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করা হয়। ভৈরব ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক ফাহিম ফয়সাল বলেন, ‘ময়মনসিংহ থেকে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসে এ বিষয়ে ব্রিফ করবেন।’

যদিও র‌্যাবের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনো তথ্য দেয়া হয়নি।

ভৈরব থানার ওসি সফিকুল ইসলাম জানান, শনিবার ময়নাতদন্তের পর মরদেহ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

কিশোরগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘ম্যাজিস্ট্রেট ইসরাত জাহান যে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করেছেন, সেটা ডিসকাস (আলোচনা) করা যাবে না, ফরম্যাট অনুযায়ী সেটা বিজ্ঞ আদালতে যাবে।’

আরও পড়ুন:
নাটোরে হত্যা মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা
সেনাবাহিনীতে চাকরির ভুয়া নিয়োগপত্র, টাকা আত্মসাতের অভিযোগে একজন আটক 
মোটরসাইকেলে বাসের ধাক্কায় প্রাণ গেল মামা-ভাগ্নের 
দাদির কষ্ট মনে রেখে ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস জনির
বিনা পয়সায় পছন্দের জামা পেল শিশুরা

মন্তব্য

শিক্ষা
Chhatra League worker injured in Natore

নাটোরে ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম

নাটোরে ছাত্রলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম মাহফুজ হোসেন। ছবি: সংগৃহীত
মাহফুজ হোসেন বলেন, ‘বাড়ি ফেরার পথে মো. বাবু ও মেহেদীসহ ১০ থেকে ১৫ জন আমার পথরোধ করে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই বাবু চাপাতি দিয়ে কোপানো শুরু করে। পরে আমার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা চলে যায়।’

নাটোরে ছাত্রলীগের এক কর্মীকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে।

সদর উপজেলার তেবাড়িয়া ইউনিয়নের চন্দ্রকলা এস. আই উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে শনিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত মাহফুজ হোসেন সদর উপজেলার দোলেরভাগ গ্রামের বাসিন্দা। তিনি স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের সমর্থক।

সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, শনিবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার চন্দ্রকলা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কলেজ মাঠ থেকে খেলাধুলা করে বাড়ি ফেরার পথে মাহফুজের ওপর দেশীয় অস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায় কয়েকজন দুর্বৃত্ত। এ সময় মাহফুজের পায়ের বিভিন্ন অংশে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে ফেলে চলে যায় তারা।

পরে স্থানীয়রা মাহফুজকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

ওসি জানান, গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শরিফুল ইসলাম রমজানের সমর্থক মো. বাবুকে মারধরের মামলার আসামি ছিলেন মাহফুজ। ওই ঘটনার জেরেই মাহফুজের ওপরে হামলা হয়েছে বলে ধারণা পুলিশের।

আহত মাহফুজ হোসেন বলেন, ‘বাড়ি ফেরার পথে মো. বাবু ও মেহেদীসহ ১০ থেকে ১৫ জন আমার পথরোধ করে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই বাবু চাপাতি দিয়ে কোপানো শুরু করে। পরে আমার চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা চলে যায়।’

আহত মাহফুজের পরিবার এখনও লিখিত অভিযোগ দেয়নি, তবে হামলাকারীদের শনাক্তসহ আইনের আওতায় আনতে পুলিশ কাজ শুরু করেছে বলে জানান ওসি মিজানুর রহমান।

আরও পড়ুন:
কবে গাজার ঘটনাকে গণহত্যা বলবে, বিশ্ব মোড়লদের প্রতি প্রশ্ন ছাত্রলীগের
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সোমবার ফিলিস্তিনের পতাকা উত্তোলনের আহ্বান
স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে ছাত্রলীগের কর্মসূচি
জবির দুই ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে ছিনতাই ও মারধরের অভিযোগ
ছাত্রলীগ নেতা মোখলেছকে গলা কেটে হত্যা করেন ‘বন্ধু’ মিজান

মন্তব্য

শিক্ষা
Law and order forces are entering the field in 157 upazilas on Sunday
দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচন

১৫৭ উপজেলায় রোববার মাঠে নামছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী

১৫৭ উপজেলায় রোববার মাঠে নামছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ফাইল ছবি।
ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ২১ মে। রোববার মধ্যরাতে শেষ হচ্ছে এই ধাপের প্রচারণা। একই সময় থেকে নির্বাচনি এলাকায় সীমিত করা হবে যানবাহন চলাচল।

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ২১ মে। রোববার মধ্যরাতে শেষ হচ্ছে এই ধাপের প্রচারণা। আর সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠানে ১৫৭ উপজেলায় একই দিন মাঠে নামছে বিজিবি, র‌্যাবসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ভোটের আগে-পরে মোট পাঁচদিনের জন্য তারা দায়িত্ব পালন করবেন।

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার উপ-সচিব মো. আতিয়ার রহমান শনিবার জানিয়েছেন, বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যরা পাঁচদিনের জন্য মাঠে নিয়োজিত থাকবেন। এ নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে পরিপত্র জারি করেছে।

পরিপত্র অনুযায়ী, সমতলে সাধারণ ভোটকেন্দ্রের প্রতিটিতে পুলিশ, আনসার ও গ্রামপুলিশের ১৭ জন করে এবং ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৯ জনের ফোর্স মোতায়েন থাকবে। দুর্গম ও পার্বত্য এলাকায় সাধারণ কেন্দ্রে ১৯ জন ও ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ২১ জনের ফোর্স মোতায়েন থাকবে।

নির্বাচনী আচরণ বিধি প্রতিপালনে প্রতি ইউনিয়নে থাকবেন একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। এছাড়াও মোবাইল/স্ট্রাইকিং ফোর্সের সঙ্গে বিশেষ করে বিজিবির প্রতিটি মোবাইল টিমের সঙ্গে একজন করে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োজিত থাকবেন।

এদিকে নির্বাচনী অপরাধ আমলে নিয়ে বিচার করার জন্য উপজেলায় থাকবেন একজন করে বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেট।

সরকারি জরুরি সেবা ৯৯৯-এ থাকবে বিশেষ টিম। ওই টিম নির্বাচন সংক্রান্ত প্রাপ্ত অভিযোগ/তথ্যের বিষয়ে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরাসরি এলাকাভিত্তিক আইন-শৃঙ্খলা সমন্বয় সেলের সঙ্গে যোগাযোগ রাখবে।

রোববার রাতে ভোটের প্রচার বন্ধ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে নির্বাচনি এলাকায় সীমিত করা হবে যানবাহন চলাচল।

আরও পড়ুন:
সামনের নির্বাচনগুলো আরও স্বচ্ছ হবে: ইসি
৬১৫ কেন্দ্রে ব্যালট যাবে আগের দিন, বাকিগুলোতে ভোটের সকালে
দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা ভোটের মাঠে ১৫৭ ম্যাজিস্ট্রেট
প্রার্থিতা বাতিল বহাল, সেলিম প্রধানকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা
কুমিল্লা ও কুড়িগ্রামে বিএনপির ৮ নেতা বহিষ্কার

মন্তব্য

p
উপরে