নিরানন্দ শিক্ষায় ফিরবে আনন্দ

নিরানন্দ শিক্ষায় ফিরবে আনন্দ

‘আগামী ১০ বছরে আমাদের ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড এর সুফল নিতে হবে। ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ট এবং চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সফল অংশীদার হতে হলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। তাই আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন জরুরি। এ লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার।’

সনদ সর্বস্ব, পরীক্ষা নির্ভর ও ‘নিরানন্দ’ শিক্ষা ব্যবস্থার পরিবর্তনে কাজ করার কথা জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি।

তিনি বলেন, ‘জিপিএ পাঁচ পাওয়া মেধা যাচাইয়ের একমাত্র পদ্ধতি হতে পারে না। তাই মূল্যায়ন পদ্ধতির পরিবর্তন জরুরি।’

সোমবার জাতীয় জীববিজ্ঞান উৎসবে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে এই কথা জানানো হয়।

এতে জানানো হয়, শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা অতীতের শিল্পবিপ্লবগুলো থেকে উল্লেখযোগ্য সুবিধা নিতে পারিনি। তাই চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের আমরা সফল অংশীদার হতে চাই। পাশাপাশি ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড এর যথাযথ সুফল আমরা নিতে পারিনি।

‘তাই আগামী ১০ বছরে আমাদের ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড এর সুফল নিতে হবে। ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ট এবং চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সফল অংশীদার হতে হলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। তাই আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন জরুরি। এ লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার।’

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জীববিজ্ঞান অলিম্পিয়াড এর সভাপতি মোহম্মদ শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া ও দৈনিক সমকালের সম্পাদক মুস্তাফিজ শফি প্রমূখ।

আরও পড়ুন:
জুনের মধ্যে শিক্ষাঙ্গন খুলতে চায় সরকার
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন
হাফিজুরের মৃত্যুতে ঢাবি উপাচার্যের শোক
সব শিক্ষার্থীর ‘ইউনিক আইডি’, ধর্মসহ তথ্যে অনেক ‘অপশন’
স্কুলের প্রধান শিক্ষক এখন চা বিক্রেতা

শেয়ার করুন

মন্তব্য