শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন

শিক্ষার্থীদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এমরান কবির চৌধুরী বলেন, ‘যদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার অনুমতি দেয়া হয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সবার আগে পরীক্ষা নেবে। আমি কর্তৃপক্ষের কাছে তোমাদের মেসেজগুলো অবশ্যই পাঠাব।’

স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে বিভিন্ন জেলায় সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

সাভারে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অবিলম্বে হল ও ক্যাম্পাস খুলে শিক্ষা কার্যক্রম স্বাভাবিক করার দাবিতে সোমবার দুপুরে মানববন্ধন করেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারসংলগ্ন সড়কে মানববন্ধনে যোগ দিয়ে রসায়ন বিভাগের শিক্ষার্থী জাকিরুল ইসলাম বলেন, ‘অনলাইনে ক্লাস করে তেমন সুবিধা করতে পারছি না, আর যেসব শিক্ষার্থীর ল্যাব রয়েছে, তারা আজকে এক বছরের ওপরে ল্যাব ক্লাস করতে পারছে না। আমরা পিছিয়ে পড়ছি।’
চারুকলা বিভাগের নাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘২০১৯ সাল থেকে আজ অবধি তৃতীয় বর্ষেই আছি। শপিংমল থেকে শুরু করে সবকিছুই কমবেশি খোলা রয়েছে, বন্ধ রয়েছে শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। সরকারের উচিত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া।’

গোপালগঞ্জে শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেয়ার দাবিতে শিক্ষার্থীরা সকালে ফটকের সামনে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন।

শিক্ষার্থীরা জানান, দেড় বছর ধরে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় সেশনজট হয়ে যাচ্ছে। তারা ক্লাসে ফিরে যেতে চান।

টাঙ্গাইল শহীদ মিনারে সকালে মানববন্ধন করেছেন বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন
রংপুরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দাবিতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

রংপুর নগরীর প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধনে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাহবুবা আকতারী বলেন, ‘চাকরির ক্ষেত্রে বয়সের দিক থেকে পিছিয়ে পড়ছি। অর্থনৈতিক সংকট বাড়ছে আমাদের। এ ছাড়া আমাদের মধ্যে মানসিক চাপ ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই শিক্ষার্থীদের স্বার্থে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর হল ও ক্যাম্পাস খুলে দিতে হবে।’

পাবনাতেও শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেছেন প্রেস ক্লাবের সামনে।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা মানববন্ধনে বলেছেন, দীর্ঘ সময় বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় তারা অনেকেই ভুলে গেছেন, কে কোন সেমিস্টারে পড়েন।

‘আর এক দিনও দেরি নয়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা চাই’, ‘হাটবাজারে মানুষের ঢল, বন্ধ কেন পরীক্ষার হল’, ‘অনলাইন শিক্ষা মানি না, অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ মানি না’- এ ধরনের স্লোগান লেখা প্ল্যাকার্ড নিয়ে তারা মানববন্ধনে আসেন।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন
গোপালগঞ্জে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

তাদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এমরান কবির চৌধুরী বলেন, ‘যদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার অনুমতি দেয়া হয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সবার আগে পরীক্ষা নেবে। আমি কর্তৃপক্ষের কাছে তোমাদের মেসেজগুলো অবশ্যই পাঠাব।’

ব‌রিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকে মানববন্ধনে বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী মো. আলামিন অভিযোগ করেন, ‘প্রায় ১৪ মাস যাবৎ আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। এই দীর্ঘ সময়ে আমরা শুধু ক্যাম্পাস নয়, একাডেমিক পড়াশোনা থেকে অনেকটা দূরে। এর মধ্যে অনলাইন ক্লাসের নামে আমাদের সঙ্গে শুধুই প্রহসন করেছেন আমাদের শিক্ষকরা।’

আরও পড়ুন:
স্কুল খোলার নতুন তারিখ দিল সরকার
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা
ফেব্রুয়ারিতে খুলছে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হাইকোর্টে রিট
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি আরও এক মাস

শেয়ার করুন

মন্তব্য