আট ঘণ্টা পর মুক্ত বেরোবি প্রো-ভিসি

আট ঘণ্টা পর মুক্ত বেরোবি প্রো-ভিসি

প্রো-ভিসি নিউজবাংলাকে বলেন, 'তারা আন্দোলন স্থগিত করেছে। ঢাকায় আগামীকাল দুটো বোর্ড মিটিং-এ আমরা যাবো না সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ ছাড়া তাদের দাবিগুলো উপাচার্য স্যারকে বলেছি। উপাচার্য স্যার যেন ক্যাম্পাসে আসেন এটি স্যারকে বলব এবং বার বার বলব।'

সহকর্মীদের হাতে অবরুদ্ধ থাকার প্রায় আট ঘণ্টা পর মুক্ত হলেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. সরিফা সালোয়া ডিনা এবং অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক ড. আর এম হাফিজুর রহমান সেলিম।

দাবি পুরণের আশ্বাসে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় কর্মসূচি স্থগিত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও কর্মচারিরা।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহকে ক্যাম্পাসে আসতে হবে, বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ঢাকায় লিঁয়াজো অফিস থাকবে না এবং ঢাকার সিন্ডিকেট অফিসে কোনো মিটিং হবে না এমন দাবি নিয়ে বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট কক্ষে আন্দোলনকারীরা প্রো-ভিসি ও অর্থ পরিচালককে অবরুদ্ধ করে রাখেন।

বিশ্ববিদ্যালয় অধিকার সুরক্ষা পরিষদের আহবায়ক অধ্যাপক ড. মতিউর রহমান নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমরা যে দাবি নিয়ে কর্মসূচি পালন শুরু করেছিলাম তারা তা পূরণের আশ্বাস দিয়েছেন। প্রো-ভিসি শুক্রবার ঢাকার লিঁয়াজো অফিসে যে নিয়োগ বোর্ড আছে তাতে প্রো-ভিসি এবং অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক আর এম হাফিজুর রহমান সেলিম যাবেন না বলে আমাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এ ছাড়া উপাচার্যকেও ক্যাম্পাসে আনার ব্যাপারে আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। এ কারণে আমরা কর্মসূচি স্থগিত করেছি।

প্রো-ভিসি ড. সরিফা সালোয়া ডিনা নিউজবাংলাকে বলেন, তারা আন্দোলন স্থগিত করেছে। ঢাকায় আগামীকাল দুটো বোর্ড মিটিং-এ আমরা যাবো না সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ ছাড়া তাদের দাবিগুলো উপাচার্য স্যারকে বলেছি। উপাচার্য স্যার যেন ক্যাম্পাসে আসেন এটি স্যারকে বলব এবং বার বার বলব।

শেয়ার করুন

মন্তব্য