20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
করোনার মধ্যেও ইংরেজি মাধ্যমে পরীক্ষা

করোনার মধ্যেও ইংরেজি মাধ্যমে পরীক্ষা

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিওএইচও) ও স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশনা মেনে এ পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ কাউন্সিল।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যেই আগামী সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে ‘ও’ লেভেল পরীক্ষা।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিওএইচও) ও স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশনা মেনে এ পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ কাউন্সিল।

করোনার সংক্রমণ রোধে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ছুটি ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। তবে ইংরেজি মাধ্যমে ১ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে ‘এ’ লেভেলের পরীক্ষা।

গত মাসের শেষে ছুটি বাড়ানোর ঘোষণার সময় শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছিলেন, ‘আমাদের ঠিক করাই আছে। যখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলব, তখন কীভাবে খুলব (সে বিষয়ে) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দিক নির্দেশনা রয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পর কেউ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এসে আক্রান্ত না হয়ে বাইরে হলেও কিন্তু বলা হবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার কারণেই হচ্ছে।’

‘তাই শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করে তাদের শিক্ষার বিষয় নিশ্চিত করার ক্ষেত্রেই আমরা নজর দিচ্ছি। সকল অভিভাবক, শিক্ষার্থী, সবাই এটি নিয়ে ভাবছে।’

গত ২৩ সেপ্টেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় এক নোটিশে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ‘এ’ ও ‘ও’ লেভেল পরীক্ষা নেয়ার অনুমতি দেয় ব্রিটিশ কাউন্সিলকে।

নোটিশে বলা হয়, প্রতিদিন ৩৫টি কেন্দ্রে এক হাজার ৮০০ শিক্ষার্থীর পরীক্ষা নেয়া হবে। প্রতিটি শিক্ষার্থীকে ছয় ফুট দূরত্বে বসাতে হবে।

কোনো শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত হলে ব্রিটিশ কাউন্সিলকে দায় নিতে হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর ‘এ’ ও ‘ও’ লেভেল পরীক্ষায় স্থগিতাদেশ চাওয়া একটি রিট খারিজ করে দেয় হাই কোর্ট।

এর আগে ২৭ সেপ্টেম্বর ‘এ’ লেভেলের শিক্ষার্থী তামান্না তাবাসসুম কবির পরীক্ষা স্থগিতাদেশ চেয়ে রিট করেন। ছয় মাস ক্লাস বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা প্রস্তুতি ও অনেকে প্রবেশপত্র নিতে পারেনি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ব্রিটিশ কাউন্সিল ২৩ সেপ্টেম্বর এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, এ বছর অক্টোবর-নভেম্বর সেশনের জেনারেল সার্টিফিকেট অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন (জিসিএসই), ইন্টারন্যাশনাল জেনারেল সার্টিফিকেট অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন (আইজিসিএসই), ‘এ’ ও ‘ও’ লেভেল পরীক্ষা যথাসময়ে নেয়া হবে।

সূত্র: ইউএনবি

শেয়ার করুন