20201002104319.jpg
স্কুল-কলেজে ছুটি বাড়ছে

স্কুল-কলেজে ছুটি বাড়ছে

করোনাভাইরাসের কারণে  ছয় মাসের বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আরও বাড়ছে। বেশ কয়েকদিন ধরে গুঞ্জনের পর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। 

বুধবার দুপুরে করোনাকালীন শিক্ষার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে অনলাইনে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় কালে এ কথা জানান তিনি। মন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে ছুটি বাড়ছে, ছুটি বাড়তে তো হবেই। শিগগিরই তারিখটা জানিয়ে দেবো।’

টানা লম্বা ছুটি না দিয়ে সরকার আবার একটি সময় ঠিক করে দিতে পারে বলেও ইঙ্গিত দিয়েছেন মন্ত্রী।  বলেন, ‘করোনার সময়ে ধাপে ধাপে আমরা ছুটি বাড়িয়েছি। এটি ছাড়া তো সম্ভব ছিল না। ধাপে ধাপে বাড়ানো ছাড়া একসঙ্গে অনেক ছুটি বাড়ানোর যুক্তি নেই। শিক্ষার্থীরাতো অনলাইনে পড়াশুনা করছেন, তাদের শিক্ষকদের সাথে যোগাযোগ আছে। আমরা চাই দ্রুত সব ঠিক হোক, দ্রুত আমরা স্বাভাবিক কার্যক্রমে ফিরতে চাই।’

দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে সরকার গত মার্চের শেষের দিকে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে। পরে একাধিকবার বাড়িয়ে ছুটি করা হয় ৩ অক্টোবর পর্যন্ত। যদিও অভিভাবকদের মধ্যে সন্তানদের স্কুলে পাঠানো নিয়ে উৎকণ্ঠা আছে। আর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তাও সম্প্রতি ছুটি বাড়ানোর ইঙ্গিত দেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় খোলার ক্ষেত্রে আমরা শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সবার স্বাস্থ্যবিধির দিকে নজর রেখে সব করছি। একইসাথে শিক্ষা কার্যক্রম যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেদিকেও নজর রাখছি। সব দিক বিবেচনায় নিয়েই সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’

‘আমাদের ঠিক করাই আছে যখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলব, তখন কীভাবে খুলব স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দিক নির্দেশনা রয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পর কেউ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এসে আক্রান্ত না হয়ে বাইরে হলেও কিন্তু বলা হবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার কারণেই হচ্ছে।’

‘তাই শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করে তাদের শিক্ষার বিষয়ে নিশ্চিত করার ক্ষেত্রেই আমরা নজর দিচ্ছি। সকল অভিভাবক শিক্ষার্থী সবাই এটি নিয়ে ভাবছে,’ বলেন তিনি।

স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকলেও কওমি মাদরাসা খুলে দেওয়ার একটি ব্যাখ্যাও দিয়েছেন মন্ত্রী। বলেন, ‘তারা অনেকটাই আবাসিক। তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনেই শিক্ষা কার্যক্রম চালানোর কথা জানিয়েছে। সেজন্যই তারা আমাদের কাছ থেকে অনুমতি পেয়েছেন। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার শর্তে তাদের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।’

খবর ইউএনবির।

শেয়ার করুন