মোবাইল ফোনে আর্থিক সেবায় করপোরেট কর বাড়ছে না

মোবাইল ফোনে আর্থিক সেবায় করপোরেট কর বাড়ছে না

৩ জুন জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের প্রস্তাবিত বাজেটে পাবলিকলি ট্রেডেড মোবাইল ফ্যাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস (এমএফএস) প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের কর্পোরেট করহার ৩২ দশমিক ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৩৭ দশমিক ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়।

নতুন অর্থবছরের বাজেটে মোবাইলে আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর (এমএফএস) ওপর বাড়তি যে কর আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছিল, তা বাদ দেয়া হয়েছে।

অর্থাৎ, এমএফএস কোম্পানিগুলো আগের মতই সাড়ে ৩২ শতাংশ হারে কর্পোরেট কর দেবে।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এই সংশোধনী এনে অর্থবিল ২০২১ জাতীয় সংসদে পাস হয়েছে।

গত ৩ জুন জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের প্রস্তাবিত বাজেটে পাবলিকলি ট্রেডেড মোবাইল ফ্যাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস (এমএফএস) প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের কর্পোরেট করহার ৩২ দশমিক ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৩৭ দশমিক ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়।

আর পাবলিকলি ট্রেডেড নয়, এমন এমএফএস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের কর্পোরেট করহার ৩২ দশমিক ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৪০ শতাংশ করার প্রস্তাব করেছিলেন।

এতদিন তালিকাভুক্ত ও অতালিকাভূক্ত সব ধরনের এমএফএস কোম্পানি সাড়ে ৩২ শতাংশ হারে করপোরেট কর দিত।

বাজেট প্রস্তাবের কর দেশের সবচেয়ে বড় এমএফএস প্রতিষ্ঠান বিকাশ, নগদ, রকেটসহ অন্য প্রতিষ্ঠানগুলো বাড়তি করহার প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছিল।

তাদের সে প্রস্তাব আমলে নিয়েই মঙ্গলবার অর্থবিল পাস হয়েছে। অর্থাৎ এমএফএস কোম্পানিগুলো আগের মতই সাড়ে ৩২ শতাংশ হারে কর্পোরেট কর দেবে।

২০১২ সালে বিকাশ সেবা চালু করার পর দেশে এখন নগদ, রকেট, ইউক্যাশ, এমক্যাশ, শিওরক্যাশ এবং উপায়সহ ১৬টির মতো কোম্পানি এমএফএস সেবা দিচ্ছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য