গ্রামে জীবিকা: বিশ্বব্যাংক দিচ্ছে ২৫০০ কোটি টাকা

গ্রামে জীবিকা: বিশ্বব্যাংক দিচ্ছে ২৫০০ কোটি টাকা

এই ঋণ পাঁচ বছর গ্রেস পিরিয়ডসহ ৩০ বছরে শোধ করতে হবে। ঋণের উপর বার্ষিক সুদের হার হবে ১.২৫ শতাংশ, সার্ভিস চার্জ হবে ০.৭৫ শতাংশ। পাশাপাশি অনুত্তোলিত টাকার উপর ০.৫ শতাংশ কমিটমেন্ট চার্জ দিতে হবে।

করোনা মহামারি এবং জলবায়ুর পরিবর্তনজনিত দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর জীবন ও জীবিকা উন্নয়নে নেয়া প্রকল্পের বিপরীতে বাংলাদেশকে ৩০ কোটি ডলার বা প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা বিশ্বব্যাংক।

রোববার সংস্থাটির সঙ্গে ঋণচুক্তি করেছে বলে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে।

সোমবারের এই বিজ্ঞপ্তিতে ইআরডি জানায়, ইআরডি সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন এবং বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেম্বন চুক্তিতে সই করেন।

গত ২০ মে বিশ্বব্যাংকের বোর্ডসভায় এই ঋণ অনুমোদন পায়। এর প্রায় এক মাস পর হলো চুক্তি।

বিশ্বব্যাংকের আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থা (আইডএ) দেয়া সহজ শর্তের এ ঋণ ‘রেসিলিয়েন্স, এন্টারপ্রেনারশিপ অ্যান্ড লাইভলিভ ইমপ্রুভমেন্ট (আরইএলআই)’ প্রকল্পে ব্যয় হবে।

অর্থমন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (এসডিএফ) এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। চলমান ‘নতুন জীবন লাইভলিহুড ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্ট’ এর ধারাবাহিকতায় এ প্রকল্প নেয়া হচ্ছে।

ইআরডি বলেছে, ‘নতুন জীবন’ প্রকল্প শেষে উপকারভোগীদের উপর কোভিড-১৯ এর বিরূপ প্রভাব প্রশমণ, জলবায় পরিবর্তন জনিত দুর্যোগ মোকাবেলার সক্ষমতা তৈরি এবং করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে গ্রামাঞ্চলে উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে এ প্রকল্প নেয়া হয়েছে।

এর মাধ্যমে ২০টি জেলার ৩ হাজার ২০০ গ্রামের ৭ লাখ ৫০ হাজার দরিদ্র ও দুর্বল গ্রামীণ মানুষের জীবন-জীবিকা উন্নয়নে সহায়তা করা হবে।

প্রকল্পে মোট অর্থায়নের পরিমাণ ৩৪ কোটি ১০ লাখ ডলার। এর মধ্যে ৪ কোটি টাকা সরকারি তহবিল থেকে ব্যয় করা হবে। ১০ লাখ ডলার নেয়া হবে স্থানীয় সুবিধাভোগীদের কাছ থেকে।

এই ঋণ পাঁচ বছর গ্রেস পিরিয়ডসহ ৩০ বছরে শোধ করতে হবে। ঋণের উপর বার্ষিক সুদের হার হবে ১.২৫ শতাংশ, সার্ভিস চার্জ হবে ০.৭৫ শতাংশ। পাশাপাশি অনুত্তোলিত টাকার উপর ০.৫ শতাংশ কমিটমেন্ট চার্জ দিতে হবে।

আরও পড়ুন:
ব্যবসায় দরকার উন্নত ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহার
জীবিকার জন্য বিশ্বব্যাংক দিচ্ছে ৫ হাজার কোটি টাকা
কর্মজীবীদের বেতন দিতে বিশ্বব্যাংকের ২ হাজার কোটি টাকা
টিকার কারণে অর্থনীতি পুনরুদ্ধার হচ্ছে: বিশ্বব্যাংক
প্রবৃদ্ধি: বাংলাদেশকে এগিয়ে রাখল বিশ্বব্যাংক

শেয়ার করুন

মন্তব্য