20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
জাহালমকে টাকা দিতে চায় না ব্র্যাক ব্যাংক

জাহালমকে টাকা দিতে চায় না ব্র্যাক ব্যাংক

১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে ব্র্যাক ব্যাংকের পক্ষে আবেদন করা হয়।

ভুল আসামি হিসেবে বিনা দোষে তিন বছর জেল খাটা জাহালমকে ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করা হয়েছে।

সোমবার আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় ব্র্যাক ব্যাংকের পক্ষে আইনজীবী মো. আসাদুজ্জামান এ আবেদন করেন।

এর আগে ৩০ সেপ্টেম্বর বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ ১৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ দেয়। রায়ের কপি হাতে পাওয়ার এক মাসের মধ্যে এ টাকা পরিশোধ করতে বলা হয়।

এ আদেশ স্থগিত চেয়ে সোমবার আপিল বিভাগে আবেদন করা হলো।

হাইকোর্ট আদেশে এক মাসের মধ্যে ব্রাক ব্যাংকের দুই কর্মকর্তা ফয়সাল কায়েস ও সাবিনা শারমীনকে টাকা পরিশোধ করে এক সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলে।

আদালতে জাহালমের পক্ষে ‍ছিলেন আইনজীবী সুভাষ চন্দ্র দাস ও শাহিনুর রহমান। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সাইফুল আলম।

‘ভুল আসামি’ হিসেবে দুই ডজনের বেশি মামলায় প্রায় ৩ বছর কারাগারে থাকা পাটকল শ্রমিক জাহালমকে গত বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি সব মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়ে মুক্তির নির্দেশ দেয় আদালত। এরপর জাহালমের জন্য ক্ষতিপূরণ চেয়ে আবেদনের শুনানি হয়।

এর আগে ওই বছরের ২৮ জানুয়ারি ‘স্যার, আমি জাহালম, সালেক না…’ শিরোনামে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

ওই প্রতিবেদন আমলে নিয়ে ৩ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট জাহালমকে মুক্তির নির্দেশ দেয়। পাশাপাশি রুল জারি করে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য