20201002104319.jpg
20201003015625.jpg
‘একমাত্র’ সাদা জিরাফটি রক্ষার চেষ্টা

ছবি: ইশাকবিনি-হিরোলা কমিউনিটি কনভারজেন্সি

‘একমাত্র’ সাদা জিরাফটি রক্ষার চেষ্টা

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ২০১৬ সালের মার্চ মাসে কেনিয়ায় প্রথমবারের মতো সাদা জিরাফ দেখা যায়। লিউকিজম নামের জীনগত কারণে এ জিরাফ সাদা রঙের।

চোরা শিকারীদের হাত থেকে পৃথিবীর ‘একমাত্র’ সাদা জিরাফটি রক্ষায় এর শিংয়ে জিপিএস ট্র্যাকিং ডিভাইস স্থাপন করেছে কেনিয়ার প্রাণি সংরক্ষণকর্মীরা।

এর সাহায্যে তারা দূর থেকেই জিরাফটির গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করতে পারবেন।

বুধবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বিরল এই সাদা জিরাফটি রয়েছে কেনিয়ার গারিসা কাউন্টির এক অভয়ারণ্যে।

চামড়া সংগ্রহের জন্য এর আগে মার্চ মাসে শিকারীরা তার পরিবারের আরও দুই সদস্যকে হত্যা করেছিল।

সাদা-জিরাফ-NB

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ২০১৬ সালের মার্চ মাসে কেনিয়ায় প্রথমবারের মতো সাদা জিরাফ দেখা যায়। লিউকিজম নামের জীনগত কারণে এ জিরাফ সাদা রঙের।

আফ্রিকার ১৫টি দেশে জিরাফের আদি বাসস্থান। চোরা শিকারীরা চামড়া, মাংস ও অঙ্গপ্রত্যঙ্গের জন্য সেখানকার জিরাফ হত্যা করে।

আফ্রিকা ওয়াইল্ড লাইফ ফাউন্ডেশনের হিসাবে, গত ৩০ বছরে জিরাফের সংখ্যা শতকরা ৪০ ভাগ কমেছে।

জিরাফকে বিলুপ্ত হওয়ার ঝুঁকিতে থাকা প্রাণি হিসেবে লাল তালিকাভুক্ত করেছে দি ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন ফর কনজারভেশন অফ নেচারস (আইইউসিএন)।

শেয়ার করুন

মন্তব্য