× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
Will remain in peoples hearts Mimi
google_news print-icon

মানুষের হৃদয়ে থেকে যাব: মিমি

মানুষের-হৃদয়ে-থেকে-যাব-মিমি
বৃহস্পতিবার বিধানসভা থেকে বেরিয়ে যাদবপুরের তৃণমূল সাংসদ জানান, তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘরে ইস্তফার চিঠি পাঠিয়েছেন। মমতা অনুমতি দিলে সেই চিঠি তিনি সংসদের স্পিকারকেও পাঠাবেন।

২৪ ঘণ্টাও কাটেনি সংসদ সদস্য পদ থেকে ইস্তফা দেয়ার কথা ঘোষণা করেছেন ভারতীয় অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। এবার জানালেন, রাজনীতিতে আর থাকছেন কি না, সে প্রশ্নের সংশয়মূলক উত্তর।

শুক্রবার বিকেলে সামাজিক যোগাযোগামধ্যমে পোস্টে মিমি লিখলেন, ‘আগামী দিনে আমি সক্রিয় রাজনীতিতে থাকি বা না থাকি, আমার কাজের মাধ্যমে নিশ্চিতরূপে মানুষের হৃদয়ে থেকে যাব।’

বৃহস্পতিবার বিধানসভা থেকে বেরিয়ে যাদবপুরের তৃণমূল সাংসদ জানান, তিনি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘরে ইস্তফার চিঠি পাঠিয়েছেন। মমতা অনুমতি দিলে সেই চিঠি তিনি সংসদের স্পিকারকেও পাঠাবেন।

আনন্দবাজার পত্রিকা লিখেছে, পোস্টে মিমি নিজের সাংসদ খাতের টাকা কোথায় কতটা খরচ করেছেন, কীভাবে কাজ করেছেন তার খতিয়ান প্রকাশ করেছেন। দেখিয়েছেন, সাংসদ হিসাবে ২০১৯ সাল থেকে তিনি ১৭ কোটি রুপির বেশি কাজ করেছেন। কোন এলাকায় কত টাকা খরচ হয়েছে, দিয়েছেন তার তালিকা।

বৃহস্পতিবার মিমি যখন বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রীর ঘর থেকে বেরিয়ে নিজের ইস্তফার কথা জানান, তখনও তিনি এই খরচের কথা উল্লেখ করেছিলেন। বলেছিলেন, ‘সাংসদদের ফান্ড কতটা ব্যবহার করা হয়েছে, তা দিয়ে কতটা কাজ করা হয়েছে, নির্দিষ্ট পোর্টালে গিয়ে সেই তথ্য দেখুন। এক নম্বরে কার নাম রয়েছে, এক বার দেখে নিন। এটা আমার গর্ব।’ সেই পরিসংখ্যানই এবার প্রকাশ করেছেন যাদবপুরের সাংসদ।

মিমি পোস্টে লিখেছেন, ‘বিগত পাঁচ বছর আমি বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্রের সাংসদ হিসাবে সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করেছি। মানুষের করের অর্থ সঠিকভাবে ব্যবহার করে উন্নয়নমূলক কাজ করেছি। সৎপথে মাথা উঁচু করে এগিয়েছি। সেই সফরের কথা মনে করে আমার মারাত্মক আত্মতুষ্টি হয়। তাই বিগত পাঁচ বছরের সাংসদ রূপে আমার যাবতীয় কাজের খতিয়ান জনসমক্ষে তুলে ধরলাম।’

বৃহস্পতিবার মিমি জানিয়েছিলেন, তিনি রাজনীতির সঙ্গে আর যুক্ত থাকতে চান না। কারণ, তিনি রাজনীতি বোঝেন না। রাজনীতি এবং সাংসদ পদ ছাড়ার একাধিক কারণ দেখিয়েছিলেন মিমি। বলেছিলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, রাজনীতি আমার জন্য নয়। কারণ, রাজনীতি করলে আমার মতো মানুষকে গালাগালি দেওয়ার লাইসেন্স পেয়ে যায় লোকে। আমি লোকসভায় কত দিন উপস্থিত থেকেছি, কিছু লোকের তাই নিয়ে মাথাব্যথা।

‘যদি এক মাস দিল্লিতে থাকি, লোকে বলবে সাংসদ দিল্লিতে থাকেন, এখানে কাজ করেন না। আবার এখানে থাকলে বলা হবে, সংসদে আমার উপস্থিতি কম। মানুষকে অনেক পরিষেবা দিয়েছি। নিজের কাজের প্রচার করতে পারিনি। আমি প্রচার করতে পারি না। এটাও রাজনীতি ছাড়ার অন্যতম কারণ। যত বার সংসদে গিয়েছি, আমার এলাকার কাজের কথা বলেছি। রাজ্যের কথা ওরা শোনেন না। তাই কাজও হয়নি। মানুষ ভেবেছে সাংসদ কাজ করেন না।’

সম্প্রতি তৃণমূলের আর এক তারকা সাংসদ দেবও রাজনীতি থেকে সরে যাওয়ার কথা বলেছিলেন। একাধিক প্রশাসনিক পদ থেকে ইস্তফা দেয়ার পর তার রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনা তৈরি হয়েছিল। জল্পনা বাড়িয়েও দেব অবশ্য রাজনীতি শেষ পর্যন্ত ছাড়েননি।

মিমির ক্ষেত্রেও তেমন কোনো ঘটনা দেখা যায় কি না, সে দিকে নজর রয়েছে রাজনৈতিক মহলের। কারণ, মিমি প্রাথমিকভাবে ইস্তফাপত্র দলনেত্রীর কাছে দিয়েছেন। এখনও সংসদে তার পদত্যাগের চিঠি যায়নি। তৃণমূল তাঁকও আটকে দেয় কি না, তা অবশ্য ভবিষ্যৎ বলবে।

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
Pattu and Deadbody are not releasing on Eid

ঈদে মুক্তি পাচ্ছে না ‘পটু’ ও ‘ডেডবডি’

ঈদে মুক্তি পাচ্ছে না ‘পটু’ ও ‘ডেডবডি’ ছবি: সংগৃহীত
দুই সিনেমার পক্ষ থেকে সরে দাঁড়ানোর বিষয়ে দুটি ভিন্ন কারণ দেখানো হয়েছে।

শেষ মুহূর্তে এসে ঈদে মুক্তি থেকে সরে দাঁড়ালো আহমেদ হুমায়ুন নির্মিত ‘পটু’ ও মোহাম্মদ ইকবাল পরিচালিত ‘ডেডবডি’ সিনেমা দুটি। দুই সিনেমার পক্ষ থেকে সরে দাঁড়ানোর বিষয়ে দুটি ভিন্ন কারণ দেখানো হয়েছে।

‘পটু’ প্রযোজনা করেছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার আব্দুল আজিজ জানিয়েছেন, তাদের ছবিটির পোস্ট-প্রোডাকশনের কাজ এখনও শেষ হয়নি। তাই ঘোষণা দিয়েও সরে দাঁড়িয়েছেন তারা।

তবে এই ঈদে প্রতিষ্ঠানটির ‘মোনা: জ্বীন ২’ প্রেক্ষাগৃহে চলবে বলে জানানো হয়েছে।

অন্যদিকে ‘ডেডবডি’ নিয়ে সরে দাঁড়ানোর ব্যাপারে অনন্ত জলিলের পরামর্শ শুনেছেন পরিচালক-প্রযোজক ইকবাল।

জলিলকে উদ্দেশ করে ইকবাল বলেছেন, ‘ব্রাদার (অনন্ত জলিল) আপনাকে আমি ভালোবাসি। আপনি বলার সঙ্গে সঙ্গে (সিনেমাটি) আমি ঈদে রিলিজ না করে দুই সপ্তাহ পিছিয়েছি এবং হল মালিকদের চিঠি দিয়ে দুই সপ্তাহ পর প্রদর্শনের জন্য অনুরোধ করেছি।’

ইকবাল জানান, ঈদের পরিবর্তে ৩ মে দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে তার ছবিটি। ভৌতিক ধাঁচের গল্পে নির্মিত এই ছবিতে অভিনয় করেছেন ওমর সানী, রোশান, শ্যামল মাওলা, অন্বেষা রায় প্রমুখ।

মন্তব্য

বিনোদন
Is Payal single?

পায়েল কি সিঙ্গেল?

পায়েল কি সিঙ্গেল? পায়েল সরকার
পায়েলের কথায়, ‘‘সিঙ্গল থাকলে জীবনটা নিজের সুবিধা মতো কাটানো যায়।’’

২০২৩ সালের শেষ থেকে টলিপাড়া একের পর এক তারকা-বিয়ের সাক্ষী থেকেছে। কিন্তু তারকাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন, যাদের সম্পর্ক বা বিয়ে নিয়ে অনুরাগীদের কৌতূহলের শেষ নেই। যেমন অভিনেত্রী পায়েল সরকার।

এখনও তিনি কেন সাত পাকে বাঁধা পড়েননি? সম্প্রতি টেলিভিশনের এক অনুষ্ঠানে তার কারণ জানিয়েছেন অভিনেত্রী। এ নিয়ে মঙ্গলবার প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে আনন্দবাজর পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ।

পায়েল বলেন, ‘‘অনেকেই জিজ্ঞাসা করেন, আমি সিঙ্গল কেন? যে কেনো বাঙালি পরিবারে মেয়ের বাবারা আসলে এতটাই পজেসিভ...।’’

অভিনেত্রীকে থামিয়ে দিয়ে প্রশ্ন করা হয়, ‘‘তা হলে আপনি বাবা-মায়ের জন্য সিঙ্গেল?’’ পায়েল বলেন, ‘‘একদমই তাই। আমার নিজের জন্য যোগ্য সঙ্গী ছেড়েই দাও, ওদের জন্যও সঠিক ব্যক্তি খুঁজে পাচ্ছি না।’’

বাবা-মায়ের চাপেই কি জীবনসঙ্গী খুঁজে পাচ্ছেন না পায়েল? অভিনেত্রীর কাছে প্রশ্ন রাখা হলে তিনি বলেন, ‘‘আগেই বলে রাখি, পুরো বিষয়টাই মজার ছলে বলেছি। কথা প্রসঙ্গে এসেছে।’’

তবে তিনি সম্পর্কে রয়েছেন কি না, তা তার অভিভাবকের ভাবনা ছাড়া অন্য কারও চিন্তার বিষয় নয় বলেই তিনি মনে করেন।

সম্পর্কে না থাকা এবং থাকার মধ্যে কী কী সুবিধা-অসুবিধা রয়েছে? পায়েলের কথায়, ‘‘সিঙ্গেল থাকলে জীবনটা নিজের সুবিধা মতো কাটানো যায়।’’

একই সঙ্গে পায়েল বিশ্বাস করেন, কারও সঙ্গে থাকতে শুরু করলে তখন মানুষ উপলব্ধি করতে পারে একা থাকার সুবিধা বা অসুবিধা। পুরো বিষয়টাই ব্যক্তির মানসিকতার ওপর নির্ভর করে।

পায়েল বললেন, ‘‘অন্যদিকে, সম্পর্কে থাকলে তখন দায়িত্বটা দুজনের মধ্যে ভাগ হয়ে যায়। কিন্তু তা তখন আবার সবার পছন্দ হবে কি না, সেটাও দেখতে হবে।’’

পায়েল কি এখন সম্পর্কে রয়েছেন, নাকি তিনি একা? হেসে বললেন, ‘‘আমি কেন বলব? সম্পর্কে আছি কি নেই, তা আবার আমাকেই বলতে হবে কেন, সেটাই বুঝতে পারি না!’’

সম্প্রতি ‘আবার অরণ্যে দিন রাত্রি’ সিনেমায় পায়েলকে দেখেছেন দর্শক। তার অভিনীত বাংলাদেশি ‘দরদ’ সিনেমাও মুক্তির অপেক্ষায়। এ ছাড়াও, খুব দ্রুত নতুন ছবির কাজ শুরু করবেন পায়েল।

মন্তব্য

বিনোদন
Maya and the person Eva are completely different

‘মায়া আর ব্যক্তি ইভা একেবারেই আলাদা’

‘মায়া আর ব্যক্তি ইভা একেবারেই আলাদা’ অভিনেত্রী ফাতেমা তুজ জোহরা ইভা। কোলাজ: নিউজবাংলা
সিনেমা নিয়ে আলাদা আবেগের কথা জানিয়ে ইভা বলেন, “আমার ক্যারিয়ারে ‘নির্বাণ’ একটা আলাদা জায়গায় থাকবে সবসময়। আসলে প্রত্যেকটা চরিত্রেরই আলাদা আলাদা জায়গা থেকে যায় আমাদের মধ্যে, তবে মায়া, তার মায়া আমি কাটাতে পারব না।”

৪৬তম মস্কো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে জায়গা করে নিয়েছে বাংলাদশি সিনেমা ‘নির্বাণ’। গত মঙ্গলবার উৎসবের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তালিকায় মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে সিনেমাটির অন্তর্ভুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

নির্বাণের নির্মাতা আসিফ ইসলাম। সিনেমাটির গল্প নিয়ে তিনি জানান, মানবিক আবেগের একটি কাব্যিক অন্বেষণ ‘নির্বাণ’। শান্তির খোঁজে বের হওয়া তিন ব্যক্তির একটি অসাধারণ যাত্রা। এতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেন ফাতেমা তুজ জোহরা ইভা, প্রিয়ম অর্চি, ইমরান মাহাথিসহ অনেকে।

বড় বড় একাধিক বিজ্ঞাপনচিত্রে প্রধান মুখ হিসেবে কাজ করলেও নিজের অভিনীত প্রথম সিনেমা আন্তর্জাতিক উৎসবে জায়গা করে নেয়ায় ভীষণ উচ্ছ্বসিত ইভা।

সিনেমাটিতে নিজের যাত্রা নিয়ে উদীয়মান এ অভিনেত্রী বলেন, ‘নির্বাণে আমার চরিত্রের নাম মায়া। এই মায়া আর ব্যক্তি ইভা একদমই আলাদা দুই চরিত্র।’

‘“নির্বাণ’-এর মায়ার বয়স আমার চেয়েও বেশি। বয়সের ভারিক্কি আনতে বেগ পেতে হয়েছে আমাকে। কারণ মায়া আর আমি ব্যক্তি ইভা একেবারেই আলাদা”, বলেন ইভা।

‘আমরা এক মাস গাজীপুরে ট্রান্সফর্মার ফ্যাক্টরিতে কাজ করেছি। আমি বেসিক্যালি ট্রান্সফর্মারের কোর জিনিসপত্র বানানো শিখছি, বানিয়েছি। টাইম মেইনটেইন করেই অন্যান্য শ্রমিকদের সঙ্গে কাজ করেছি, যাতে আমাদের আলাদা না লাগে। এই দীর্ঘ সময়ে আমার কো অ্যাক্টরদের সঙ্গে ভীষণ ভালো বন্ডিং হয়েছে, যা কাজেও হেল্প করেছে’, যোগ করেন অভিনেত্রী।

সিনেমার শুটিংয়ের সময়ের কিছু ঘটনার বর্ণনা দিয়ে নবীন এ অভিনেত্রী বলেন, ‘নির্বাণের একটা মজার ব্যাপার হচ্ছে এ সিনেমায় আমাদের কোনো স্ক্রিপ্ট ছিল না। আমাদের সিচুয়েশচন বলে দেয়া হতো। সেই অনুযায়ী আমরা অভিনয় করতাম, তবে ক্যারেকটারের বায়োগ্রাফি ছিল প্রত্যেকেরই শক্তপোক্ত।

‘আসিফ ভাই (নির্মাতা) অধিকাংশ দৃশ্যই এক টেকে (একবারে) ওকে করেছেন। এই ব্যাপারটা আমার কাছে ভীষণ ভালো লেগেছে। কেননা আমরা যখন বারবার একই সিন করতে থাকি, একটা সময়ে গিয়ে সেটা মেকি হয়ে যায়।’

এরই মধ্যে আরও তিনটি সিনেমার কাজ শেষ করেছেন ইভা, তবে সেসব নিয়ে এখনই সংবাদমাধ্যমে মুখ খোলা বারণ নির্মাতাদের। যেমনটি ছিল তার প্রথম সিনেমা নির্বাণের ক্ষেত্রেও।

সিনেমা নিয়ে আলাদা আবেগের কথা জানিয়ে ইভা বলেন, “আমার ক্যারিয়ারে ‘নির্বাণ’ একটা আলাদা জায়গায় থাকবে সবসময়। আসলে প্রত্যেকটা চরিত্রেরই আলাদা আলাদা জায়গা থেকে যায় আমাদের মধ্যে, তবে মায়া, তার মায়া আমি কাটাতে পারব না।

“মায়ার যন্ত্রণা, মায়ার কষ্ট এসবই আমার কাছে গচ্ছিত থেকে যাবে। আশা করি এই সিনেমা মস্কো অভিযানের পরও নানান দেশ জয় করবে। আমি অধীর আগ্রহে আছি কবে আমাদের দেশে সবাই মিলে সিনেমাটা দেখব।”

মস্কো উৎসবের ৪৬তম আয়োজন শুরু হবে ১৯ এপ্রিল, যা চলবে ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত। উৎসবে যোগ দিতে ১৮ এপ্রিল মস্কোর উদ্দেশে রওনা দেবেন নির্মাতা আসিফ ইসলাম। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার পাশাপাশি পুরো আয়োজনে উপস্থিত থাকবেন তিনি।

আরও পড়ুন:
৩ দিনে কত আয় করল রণবীরের ‘অ্যানিমেল’
জয়ার প্রথম হিন্দি সিনেমা আসছে ওটিটির পর্দায়
‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’: দর্শকের মনে আরও গেঁথে গেছেন বঙ্গবন্ধু
ইতিহাসের অনেক অজানা ঘটনা তুলে ধরবে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিক: প্রধানমন্ত্রী
‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে শুক্রবার

মন্তব্য

বিনোদন
If something obscene is posted on Facebook you will know I didnt give it Swastika

ফেসবুকে অশ্লীল কিছু পোস্ট হলে জানবেন আমি দিইনি: স্বস্তিকা

ফেসবুকে অশ্লীল কিছু পোস্ট হলে জানবেন আমি দিইনি: স্বস্তিকা ফাইল ছবি
এমনিতেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বেশ সক্রিয় স্বস্তিকা। নিজের ব্যক্তিগত জীবন থেকে সমাজেসবার খুঁটিনাটি তুলে ধরেন সেখানে।

বেশ দুশ্চিন্তায় পড়েছে ভারতী অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। অবশ্য তাই-ই তো হওয়ার কথা! ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে তার।

বুধবার সকালে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে অভিনেত্রী এ খবর দিয়েছেন বলে আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এমনিতেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম বেশ সক্রিয় স্বস্তিকা। নিজের ব্যক্তিগত জীবন থেকে সমাজেসবার খুঁটিনাটি তুলে ধরেন সেখানে।

স্বস্তিকা লিখেছেন, ‘আমার ফেসবুক পেজ হ্যাক হয়েছে। আমার টিম এই সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চালাচ্ছে। যদি কোনো অপমানজনক বা অশ্লীল পোস্ট নজরে পড়ে তা হলে দয়া করে এড়িয়ে যান এবং জানবেন সেটি আমি করিনি।’

টলিপাড়ার যে অভিনেত্রীদের বলিউডে অবাধ যাতায়াত, তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন স্বস্তিকা। সম্প্রতি তার নতুন হিন্দি সিনেমা ‘লাভ সেক্স অউর ধোঁকা ২’-এর টিজারে এক ঝলক দেখা গেছে অভিনেত্রীকে।

দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায় পরিচালিত এ সিনেমার প্রথম পর্ব এসেছিল প্রায় ১৪ বছর আগে। এবার এর দ্বিতীয় পর্বে রয়েছেন স্বস্তিকা। ১৯ এপ্রিল মুক্তি পাবে এই সিনেমা।

আরও পড়ুন:
কার প্রেমে মজেছেন শাহরুখপুত্র
আসিফের পুম্বার খোঁজ দিলে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার
রাজ মরে গেলেও দেখতে যাব না: পরীমনি

মন্তব্য

বিনোদন
Who is Shahrukhputra in love with?

কার প্রেমে মজেছেন শাহরুখপুত্র

কার প্রেমে মজেছেন শাহরুখপুত্র আরিয়ান খান ও ল্যারিসা বনেসি
ব্রাজিলিয়ান সুন্দরীর প্রেমে মজেছেন শাহরুখপুত্র। ব্রাজিলিয়ান অভিনেত্রী ল্যারিসা বনেসির সঙ্গে আরিয়ানের ভালোবাসার গুঞ্জন এখন পেজ ৩- এর হট কেক।

বলিউড তারকা শাহরুখ খানের বড় ছেলে আরিয়ান নতুন ব্র্যান্ড, প্রমোশন এসব কিছু নিয়েই ব্যস্ত এখন। তবে এর মাঝেও বিটাউনের অন্দরে গুঞ্জন, তার জীবনে এসেছে নতুন প্রেমের বসন্ত।

কে সেই তরুণী, এ নিয়ে নানা মহলেই চলছে আলোচনা। তার পরিচয়ও প্রকাশ্যে এনেছে গণমাধ্যম।

এই সময় বলছে, ব্রাজিলিয়ান সুন্দরীর প্রেমে মজেছেন শাহরুখপুত্র। ব্রাজিলিয়ান অভিনেত্রী ল্যারিসা বনেসির সঙ্গে আরিয়ানের ভালোবাসার গুঞ্জন এখন পেজ ৩- এর হট কেক।

আরিয়ান-ল্যারিসার প্রেমচর্চা উসকে দিয়েছেন এক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী। ইনস্টাগ্রামে আরিয়ান ল্যারিসার ফ্যামিলির সদস্যদের ফলো করেছেন। ব্রাজিলিয়ান অভিনেত্রীর মাকে গিফটও দিয়েছেন বলে দাবি উঠেছে।

ল্যারিসার ইনস্টা স্টোরিতে তার মায়েক দেওয়া আরিয়ানের উপহারের সেই ছবিও রেডিট ব্যবহারকারীরা দেখেছেন বলে জানান।

আরিয়ান খান এবং ল্যারিসা বনেসির মধ্যে প্রেমচর্চা উসকে বেশ কিছু ইন্টারেস্টিং পয়েন্ট শেয়ার করেছে রেডিট ব্যবহারকারী। খান পরিবারের ছেলের ইনস্টা প্রোফাইলে রীতিমতো গোয়েন্দাগিরি চালানো হচ্ছে। সেখান থেকেই জানা গেছে, আরিয়ান ল্যারিসার পরিবারকে ইন্সটায় ফলো করছেন। চর্চিত প্রেমিকার মাকে জন্মদিনে উপহার পাঠাচ্ছেন।

ল্যারিসা পেশায় অভিনেত্রী। গুরু রন্ধাওয়ার ‘সুরমা সুরমা’ মিউজিক ভিডিও, স্টেবিন বেনের মিউজিক ভিডিও এবং এমনকি বিশাল মিশ্রের সঙ্গে একটি অ্যালবামেও কাজ করেছেন আরিয়ানের চর্চিত প্রেমিকা। বলিউডের সুপারস্টার অক্ষয় কুমার এবং জন আব্রাহমের সঙ্গে ব্লকবাস্টার গান ‘সুভা হোনে না দে’-তে ছিলেন ল্যারিসা।

টাইগার শ্রফ, সুরাজ পাঞ্চোলির মতো অভিনেতার সঙ্গেও স্ক্রিন শেয়ার করেছেন ল্যারিসা বনেসি। সাইফ আলি খানের ‘গো গোয়া গন’-এ পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেন।

আরিয়ানর সঙ্গে এর আগে নাম জড়ায় পাক সুন্দরী সাদিয়া খানের। নিউ ইয়ার সেলিব্রেশনের ছবি সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করতেই আরিয়ান-সাদিয়ার মধ্যে সম্পর্কের নতুন কেনো সমীকরণ তৈরি হল কি না তা হয়ে উঠেছিল বিনোদনের চর্চিত টপিক।

আরও পড়ুন:
আসিফের পুম্বার খোঁজ দিলে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার
রাজ মরে গেলেও দেখতে যাব না: পরীমনি
হাতে ব্যথা পেয়েছেন কোয়েল

মন্তব্য

বিনোদন
50 thousand rupees reward for finding Asif Pumba

আসিফের পুম্বার খোঁজ দিলে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার

আসিফের পুম্বার খোঁজ দিলে ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার বিড়ালের এই ছবি ফেসবুকে শেয়ার করেছেন আসিফ আকবর
এই শিল্পী লিখেছেন, বিড়ালটা বেঁচে আছে, কারো বাসায় আছে। তিনি হয়তো মালিক খুঁজে পাচ্ছেন না। অথবা কেউ নিজের মনে করে লুকিয়ে রেখেছে- এই সম্ভাবনাও নাকচ করছিনা । পুম্বা খুব সুন্দর দেশি ক্যাট, স্বাভাবিকের চেয়েও ওর দেহের গড়ন ও সৌন্দর্য নজর কাড়ার মত। আমি জানি সে ভালো যত্ন আত্তিতেই আছে। ওকে ইনজেকশন দেয়ার সময়ও হয়ে গেছে।

পোষা বিড়াল হারিয়ে গেছে সংগীতশিল্পী আসিফ আকবরের। বেশ কদিন ধরে খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে এবার তার তার ‘পুম্ব ‘র সন্ধান চেয়ে পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে কদিন আগে পোষা বিড়ালটির হারানোর খবর দিয়েছিলেন আসিফ, থানায় করেছিলেন সাধারণ ডায়েরিও। মঙ্গলবার আরেকটি পোস্টে ওই আর্থিক পুরস্কারের কাথা ঘোষণা করেন এই শিল্পী।

তিনি লিখেছেন, সুবিশাল কম্পাউন্ডে প্রতিদিনই পুম্বাকে খুঁজি। ওর নাম ধরেও ডাকাডাকি করি যদি সাড়া দেয়! পুম্বা নেই ১৩ দিন হয়েছে, অনেক ক্যাট লাভার চেষ্টা করে যাচ্ছে তাকে খুঁজে বের করতে। পুম্বার মত দেখতে একটা বিড়াল ইতিমধ্যে তার মালিকও খুঁজে পেয়েছে।

আসিফ লিখেছেন, আমার সন্তানদের ধারণা, তাদের বাবা মহাপরাক্রমশালী হারকিউলিস, যে সব কিছু করতে পারে। কোনো ক্রাইসিস তৈরি হলে সন্তানদের শান্ত করার জন্য বলি চিন্তা করোনা বাবা- টাইগার আভি জিন্দা হ্যায়! পুম্বা হারিয়ে যাওয়ার পর বাচ্চাদের কাছে কিছুটা অসহায় হয়ে গেছি। তেইশ মাস বয়সী আইদাহও পুম্বাকে খুঁজে বেড়ায়।

এই শিল্পী লিখেছেন, বিড়ালটা বেঁচে আছে, কারো বাসায় আছে। তিনি হয়তো মালিক খুঁজে পাচ্ছেন না। অথবা কেউ নিজের মনে করে লুকিয়ে রেখেছে- এই সম্ভাবনাও নাকচ করছিনা । পুম্বা খুব সুন্দর দেশি ক্যাট, স্বাভাবিকের চেয়েও ওর দেহের গড়ন ও সৌন্দর্য নজর কাড়ার মত। আমি জানি সে ভালো যত্ন আত্তিতেই আছে। ওকে ইনজেকশন দেয়ার সময়ও হয়ে গেছে।

আসিফ লিখেছেন, প্লিজ পুম্বার শুধু সন্ধান দিন, ৫০,০০০/ টাকা গিফট পৌঁছে যাবে। উদ্ধার করার দায়িত্ব আমার, কমেন্টবক্সে নজর রাখছি। সবাই ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন সুন্দর থাকুন।

মন্তব্য

বিনোদন
Even if Raj dies I wont go to visit Parimony

রাজ মরে গেলেও দেখতে যাব না: পরীমনি

রাজ মরে গেলেও দেখতে যাব না: পরীমনি শরিফুল রাজ ও পরীমনি
প্রেমে বিশ্বাসী কি না কিংবা আর কখনও বিয়ে করবেন কি না, এ বিষয়ে পরীমনি বলেন, ‘নাহ। আর প্রেমে বিশ্বাস নেই। জীবন থেকে উড়ে গিয়েছে। আমার ছেলেই আমার জীবনের একমাত্র প্রেম। ওর হাসি, কান্না সব কিছুতেই ভালবাসা আছে। ওর আর আমার মাঝে কোনও সংশয় নেই। ও শুধু আমার।’

ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন চিত্রনায়িকা পরীমনি ও নায়ক শরিফুল রাজ। তবে নানা দ্বন্দ্বে বিয়েটা আর শেষ পর্যন্ত টেকেনি। রাজের প্রতি পরীর এতটাই অনাগ্রহ, রাজের মৃত্যুর পরও নাকি তাকে আর দেখতে যাবেন না তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার অনলাইন সংস্করণে মঙ্গলবার প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে এ কথা জানিয়েছেন পরীমনি। কলকাতায় ‘ফেলু বক্সী’ শিরোনামে একটি সিনেমার শুটিং করছেন নায়িকা

কখনও মনে হয়, ছেলের জন্য শরিফুলকে আরও একটা সুযোগ দেবেন- এ প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘নামই মুখে আনতে চাই না। এত ঘৃণা ওর প্রতি। কোনোদিন মরে গেলেও দেখতে যাব না।

‘যে মানুষটা বেঁচে আছে সে অন্য মানুষ, যে আমার কাছে ছিল, সে আরও আগে মরে গিয়েছিল। সেই মৃতদেহটা দেখেছি। আসলে মানুষটা আমার কাছে ‘ডেড’।’

প্রেমে বিশ্বাসী কি না কিংবা আর কখনও বিয়ে করবেন কি না, এ বিষয়ে পরীমনি বলেন, ‘নাহ। আর প্রেমে বিশ্বাস নেই। জীবন থেকে উড়ে গিয়েছে। আমার ছেলেই আমার জীবনের একমাত্র প্রেম। ওর হাসি, কান্না সব কিছুতেই ভালবাসা আছে। ওর আর আমার মাঝে কোনও সংশয় নেই। ও শুধু আমার।’

পরীমনির মনখারাপ কখন হয়? উত্তরে তিনি বলেন, ছেলে যখন অসুস্থ হয়, তখন মনে হয়, জোরে একটা যদি চিৎকার দিতে পারতাম, যাতে হাসপাতালটা ফেটে যেত। ছেলে দুবার হাসপাতালে ভর্তি ছিল। তখন ওইটুকু বাচ্চার হাতে স্যালাইন লাগানো।

পরীমনি বলেন, ওকে নিয়ে একা একা হাঁটছি। তখন মনে হয়েছিল, এই কষ্টটা আমার একার করার কথা ছিল না। তখন ওই মানুষটার ওপর আরও রাগ হয়। মানছি, বাবারা সব পারে না, কিন্তু দায় কি একা মায়ের?

নায়িকা বলেন, আমাকে যে রকম দেখতে লাগে, আমি সে রকমই। বাইরে ও ভিতরে। আমার মধ্যে কোনও ‘ফিল্টার’ নেই। আমার রাগটাও দেখা যায়। মনখারাপ দেখা যায়, কিছু পুষে রাখি না। এটা অনেকের সঙ্গে চলার জন্য হয়তো ভাল নয়। তবে আমার জীবনটা সিনেমা নয়, অত ‘ফিল্টার’ দিতে পারব না। আমাকে পোষালে ভালো, না পোষালে আরও ভালো।

পরীমনি সাক্ষাৎকারে বলেন, সবাই কারও না কারও কথা শুনে কাজ করে। কিন্তু আমার মনে হয়, ব্যক্তিস্বাধীনতা বলে তো একটা বস্তু আছে। তাই বলে কারও ক্ষতি করে কিছু করতে আমি চাই না। আমাকে ঘোমটা দিয়ে চলতে হবে কিংবা মেয়ে বলে কোনো কাজ করতে পারব না, এ ধরনের চাপিয়ে দেয়া জিনিস ছোটবেলা থেকে মেনে নিতে পারি না।

তিনি বলেন, আমি যখন এগুলো নিয়ে কথা বলি, লোকে ‘বেয়াদব’ বলে দাগিয়ে দেয়। আমি আসলে এ রকম বেয়াদপ হতে চাই, এ রকমই বেয়াদব থাকতে চাই। যদি নিজের মতো করে বাঁচতে চাইলে বেয়াদব হতে হয়, আমার অসুবিধে নেই।

পরীমনি বলেন, আমি কর্মজগতের কথাটা বলতে পারি। আমাকে নিয়ে যে ভুল ধারণা আছে, সেটা হল, আমি নাকি শুটিং ফাঁসাই (বলেই হাসি)। ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে লোকে বলে, পরীমনির অনেক প্রেমিক, অনেকগুলো বর। কিন্তু আমি জানতে চাই, তারা কোথায়? আমি নিজেও কথা বলতে গেলে বিব্রত বোধ করি। আগে একটা ধারণা ছিল, বিতর্কিত কিছু নিয়ে কথা বলা যাবে না। কিন্তু আমার মনে হয়, বিতর্কিত বিষয় নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ালে, সে ব্যাপারে বেশি কথা বলা প্রয়োজন। আমি আমার আইনজীবীর সঙ্গে কথা বলেছি, যারা আমাকে নিয়ে ভুল তথ্য দিচ্ছেন, তাদের চিহ্নিত করে আইনি পদক্ষেপ নেব।

সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আসলে লোকে আমাকে প্রচণ্ড ভুল বোঝে। আমাকে নিয়ে যা কিছু লেখা হয়, সে সব দেখে নিজেই বিভ্রান্ত হয়ে যাই— এটা কোন পরীমনি! আমার সম্পর্কে আমি এত উদ্ভট তথ্য পাই, নিজেকে নিয়ে ভাবি, ওটা কি আমাকে নিয়ে বলছে ওরা?

আরও পড়ুন:
হাতে ব্যথা পেয়েছেন কোয়েল
স্বস্তিকা নিজেকে ছোট করল: মমতা
রাজিতের সুর-কন্ঠে আসছে এমি জান্নাতের ‘মনের বারণ’

মন্তব্য

p
উপরে