× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
Zubin was seriously injured in the accident and was admitted to Natial Hospital
hear-news
player
google_news print-icon

দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত জুবিন নটিয়াল, হাসপাতালে ভর্তি

দুর্ঘটনায়-গুরুতর-আহত-জুবিন-নটিয়াল-হাসপাতালে-ভর্তি-
বলিউডের তুমুল জনপ্রিয় গায়ক জুবিন নটিয়াল। ছবি: সংগৃহীত
জুবিনকে মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আপাতত তাকে ডান হাত নড়াচড়া না করানোর পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলিউডের তুমুল জনপ্রিয় গায়ক জুবিন নটিয়াল।

একটি ভবনের সিড়ি থেকে পড়ে তার হাতের কনুই ভেঙে গেছে, পাঁজর ও মাথায় আঘাত পেয়েছেন তিনি।

সূত্রের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়া টিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোরে এই দুর্ঘটনার সম্মুখীন হন জুবিন। তাকে মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আপাতত তাকে ডান হাত নড়াচড়া না করানোর পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

এদিকে গত সপ্তাহে দুবাইয়ে একটি লাইভ কনসার্টে পারফর্ম করেছিলেন জুবিন।

আরও পড়ুন:
বিয়ে করছেন জুবিন, পাত্রী কে এই নিকিতা

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
The ship sails without the fairys sarong

পরীর ‘সারেং ছাড়া জাহাজ চলে’

পরীর ‘সারেং ছাড়া জাহাজ চলে’ ‘সারেং ছাড়া জাহাজ চলে’ গানের দৃশ্যে পরীমনি ও সিয়াম। ছবি: সংগৃহীত
চিত্রনায়িকা পরীমনির সংসার জীবনে মন্দ হাওয়া বইছে। এরই মাঝেই এমন ভাবদর্শনের গানটি দিয়েই কিছুটা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেন তিনি। কারণ, গানটি তার আসন্ন সিনেমা অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবনের।

‘দ্যাখো সারেং ছাড়া জাহাজ চলে, কার ইশারায় কিসের বলে/ মন্দ হাওয়ার খবর দিছে আগাম...’; লোককথার গাথা গভীরতম ভাবদর্শনের গানটির কথার মতোই মন্দ হাওয়া লেগেছে ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমনির সংসার জীবনে।

তবে সেসবের মাঝেই এমন ভাবদর্শনের গানটি দিয়েই কিছুটা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করলেন পরী। কারণ, গানটি তার আসন্ন সিনেমা অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন-এর।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিনেমাটির ফেসবুক পেজে প্রকাশ করা হয়েছে ‘সারেং ছাড়া জাহাজ চলে’ শিরোনামের গানটি। সেটি নিজের ফেসবুকে শেয়ার করে পরীমনি লেখেন, ‘এনজয়'।

প্রয়াত গীতিকার দেওয়ান লালন আহমেদের কথায় গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন স্বনামধন্য বাউলশিল্পী শফি মণ্ডল। গত বছরের শুরুর দিকে গানটি রেকর্ডিং করা হয়। এর সুর সংযোজন ও মিউজিক কম্পোজিশন করেছেন খ্যাতনামা সংগীত পরিচালক ইমন চৌধুরী।

গত বছর ১৪ জুলাই মারা গেছেন গীতিকার দেওয়ান লালন। ওই বছর ফেব্রুয়ারিতে গানটি নিয়ে নিউজবাংলার সঙ্গে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করেছিলেন তিনি।

সে সময় দেওয়ান লালন বলেন, ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন সিনেমার কাহিনির সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে এই গানটি লেখা। লোককথার দ্বারা সহজভাবে গভীরতম ভাব ও দর্শন তুলে ধরার চেষ্টা করেছি গানটিতে। আমি খুব আশাবাদী যে গানটি দর্শক-শ্রোতাদের ভালো লাগবে।’

মুহম্মদ জাফর ইকবালের উপন্যাস ‘রাতুলের রাত রাতুলের দিন’ অবলম্বনে সরকারি অনুদানে নির্মিত সিনেমাটি পরিচালনা করেন রায়হান জুয়েল।

সিনেমাটিতে পরীমনির বিপরীতে রয়েছেন চিত্রনায়ক সিয়াম আহমেদ। এ ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন শহীদুল আলম সাচ্চু, আজাদ আবুল কালাম, আশীষ খন্দকারসহ অনেকে। ২০ জানুয়ারি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে সিনেমাটি।

আরও পড়ুন:
শফির দরাজ কণ্ঠে দেওয়ানের ‘সারেং ছাড়া জাহাজ চলে’

মন্তব্য

বিনোদন
Prominent Rabindra music artist Sumitra Sen passes away

সংগীতশিল্পী সুমিত্রা সেনের প্রয়াণ

সংগীতশিল্পী সুমিত্রা সেনের প্রয়াণ ভারতের বিশিষ্ট রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী সুমিত্রা সেন। ছবি: সংগৃহীত
হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, বর্ষীয়ান সংগীতশিল্পী সুমিত্রা সেন বার্ধক্যজনিত একাধিক রোগে ভুগছিলেন। সম্প্রতি তার ব্রঙ্কোনিউমোনিয়া ধরা পড়ে। অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গেও এর প্রভাব পড়ে।

ভারতের বিশিষ্ট রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী সুমিত্রা সেন মারা গেছেন। দক্ষিণ কলকাতার বাড়িতে মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

প্রয়াত সংগীতশিল্পী সুমিত্রা সেনের কন্যা রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী শ্রাবণী সেন মায়ের মৃত্যুর খবর দিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে লেখেন, 'আজ ভোরে মা চলে গেলেন।'

গত ২১ ডিসেম্বর আশঙ্কাজনক অবস্থায় সুমিত্রা সেনকে দক্ষিণ কলকাতার একটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। সোমবার চিকিৎসকদের পরামর্শে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়েছিল বলে জানান শ্রাবণী।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, বর্ষীয়ান সংগীতশিল্পী সুমিত্রা সেন বার্ধক্যজনিত একাধিক রোগে ভুগছিলেন। সম্প্রতি তার ব্রঙ্কোনিউমোনিয়া ধরা পড়ে। অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গেও এর প্রভাব পড়ে।

সুমিত্রা সেনের প্রয়াণে সংগীতশিল্পী হৈমন্তী শুক্লা বলেন, 'দিদি খুব মিশুক ছিলেন। সব ধরনের গান গাইতেন। আমাকে খুব স্নেহ করতেন। আমার ভীষণ প্রিয় মানুষ ছিলেন। দিদির মৃত্যুতে সংগীতজগতে অপূরণীয় ক্ষতি হলো।'

সুমিত্রা সেনের প্রয়াণে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শোকবার্তায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'বিশিষ্ট সংগীতশিল্পী সুমিত্রা সেনের প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। সুমিত্রা সেনের সঙ্গে আমার দীর্ঘদিনের নিবিড় সম্পর্ক ছিল। তার প্রয়াণে সংগীতজগতের এক অপূরণীয় ক্ষতি হলো। আমি সুমিত্রাদির দুই কন্যা ইন্দ্রাণী ও শ্রাবণী এবং সুমিত্রাদির পরিবার-পরিজন ও অনুরাগীদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি।'

হেমন্ত মুখোপাধ্যায়, দেবব্রত বিশ্বাস, সুচিত্রা মিত্র ও কণিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমসাময়িক শিল্পী সুমিত্রা সেন। তার জন্ম ১৯৩৩ সালে।

১৯৫১ সালে দুটি নজরুলগীতি রেকর্ডিংয়ের মধ্য দিয়ে শিল্পী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন সুমিত্রা সেন। তার দুই মেয়ে ইন্দ্রাণী সেন ও শ্রাবণী সেনও বাংলার সংগীতজগতে অবদান রাখছেন।

আরও পড়ুন:
পশ্চিমবঙ্গে শীতের আমেজ
কর্ণাটকের পর পশ্চিমবঙ্গে হিজাব বিতর্ক
পশ্চিমবঙ্গের নতুন রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস
শিম্পাঞ্জির জন্মদিনে আলিপুর চিড়িয়াখানায় তারকারা
পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির কোর কমিটি নিয়ে গন্ডগোল

মন্তব্য

বিনোদন
Finished the song in one night Bobby

গানটি এক রাতেই শেষ করেছিলাম: ববি

গানটি এক রাতেই শেষ করেছিলাম: ববি চালাও গুলি গানের শুটিংয়ের সময় চিত্রনায়িকা ইয়ামিন হক ববি। ছবি: সংগৃহীত
গানটি নিয়ে নিজের প্রত্যাশা ও সন্তষ্টির কথা জানিয়ে চিত্রনায়িকা ইয়ামিন হক ববি বলেন, ‘কাজটি করে ও ফাইনালি গানটি দেখে ভালো লেগেছে, যারা দেখেছেন তারাও প্রশংসা করেছেন। এখন দেখা যাক দর্শকরা কীভাবে নেয়। আর নিজের সন্তষ্টির কথা বলতে গেলে আসলে আমি আমার কোনো কাজেই পুরোপুরি সন্তষ্ট থাকতে পারিনা, মনে হয় আরও বেটার কিছু করতে হবে।’    

প্রকাশ পেল ব্ল্যাক ওয়ার: মিশন এক্সট্রিম টু সিনেমার প্রথম গান ‘চালাও গুলি’। সিনেমাটির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান কপ করপোরেশনের ইউটিউব চ্যানেলে রোববার সন্ধ্যা ৬টার প্রকাশ করা হয় আইটেম গানটি।

আর এই গানটি দিয়েই প্রথমবারের মত নিজের অভিনীত সিনেমা বাদে অন্য কোনো সিনেমায় আইটেম গানে নাচলেন চিত্রনায়িকা ইয়ামিন হক ববি।

এ নিয়েই নিউজবাংলার সঙ্গে অনুভূতি প্রকাশ করলেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় এই চিত্রনায়িকা।

গানটি করবেন কি করবেন না, তা নিয়ে দ্বিধায় থাকলেও গানটি দেখে সন্তষ্ট ববি।

তিনি বলেন, ‘আমি নিজের অভিনীত সিনেমার বাইরে শুধু আইটেম গানে অন্য কোনো সিনেমায় নাচিনি আগে। এ নিয়ে কনফিউজড ছিলাম করব কি করব না। সানী সারোয়ার ভাই (সিনেমাটির পরিচালক) আমাকে বুঝালেন, পুষ্পা সিনেমায় সামান্থার আইটেম গানের উদাহরণ দিলেন। আর সত্যি বলতে সেই গানটি আমারও খুব পছন্দের। সব মিলিয়ে ভেবে করে ফেললাম।’

কাজটি করার অভিজ্ঞতা জানিয়ে ববি বলেন, ‘বেশ মজা করেই গানটি করেছি, একদিন বিকেল-সন্ধ্যার দিকে শুরু করে ভোর রাতে শেষ করলাম। একরাতেই গানটির শুটিং কমপ্লিট করেছিলাম।’

গানটি এক রাতেই শেষ করেছিলাম: ববি
চালাও গুলি গানের শুটিংয়ের সময় ববি। ছবি: সংগৃহীত

গানটি নিয়ে নিজের প্রত্যাশা ও সন্তষ্টির কথা জানিয়ে এই চিত্রনায়িকা বলেন, ‘কাজটি করে ও ফাইনালি গানটি দেখে ভালো লেগেছে, যারা দেখেছেন তারাও প্রশংসা করেছেন। এখন দেখা যাক দর্শকরা কীভাবে নেয়। আর নিজের সন্তষ্টির কথা বলতে গেলে; আসলে আমি আমার কোনো কাজেই পুরোপুরি সন্তষ্ট থাকতে পারিনা, মনে হয় আরও বেটার কিছু করতে হবে।’

‘চালাও গুলি’ গানটির নাচের কোরিওগ্রাফার মোফাসসাল আলিফ। মুক্তাদির মাওলার কথায় গানটি গেয়েছেন নাশা ও মীর মাসুম।

২০২৩ সালের ৬ জানুয়ারি মুক্তি পেতে যাচ্ছে ব্ল্যাক ওয়ার: মিশন এক্সট্রিম টু। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ।

সানী সানোয়ার ও ফয়সাল আহমেদ পরিচালিত সিনেমাটি বাংলাদেশের পাশাপাশি ১৫টি দেশে মুক্তির কথা রয়েছে।

আরও পড়ুন:
ব্ল্যাক ওয়ার: এবারের মিশন সহজ নয়
জানুয়ারিতে আসছে ‘ব্ল্যাক ওয়ার: মিশন এক্সট্রিম ২’
বায়োগ্রাফিতে অপ্রীতিকর ঘটনা জানাবেন ববি
নতুন বছরে অনেক সারপ্রাইজ থাকবে: ববি
ববি শুরু করছেন সত্য ঘটনার সিনেমা

মন্তব্য

বিনোদন
Today is Sanjeev festival

স্বপ্নবাজ সঞ্জীবের ৫৮

স্বপ্নবাজ সঞ্জীবের ৫৮ সঞ্জীব চৌধুরী। ছবি: সংগৃহীত
স্বপ্নবাজ শিল্পী সঞ্জীব চৌধুরীর জন্মদিন আজ। মাত্র ৪৩ বছর বয়সে চলে যাওয়া মানুষটি বেঁচে থাকলে আজ ৫৮ বছর পূর্ণ হতো।

তার গানে প্রেম, বিরহ যাপন করেছেন হাজারও তরুণ। আবার তারই গানে সমাজ, রাজনীতি, বিদ্রোহ, প্রতিবাদ-প্রতিরোধের আগুন খুঁজেছেন অনেক স্বপ্নবাজ।

বলছি কবি, গীতিকার, সুরকার, গায়ক, সাংবাদিক, নাট্যকার ও সংগঠক সঞ্জীব চৌধুরীর কথা।

সব্যসাচী প্রয়াত সেই মানুষটির জন্মদিন আজ। মাত্র ৪৩ বছর বয়সে চলে যাওয়া মানুষটি বেঁচে থাকলে আজ ৫৮ বছর পূর্ণ হতো।

সঞ্জীব চৌধুরীর জন্মদিনে তার স্মরণে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘একাদশ সঞ্জীব উৎসব ২০২২’। রোববার এ উৎসব হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির সঞ্জীব চত্বরে।

২০১০ সাল থেকে প্রতি বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘সঞ্জীব উৎসব উদ্‌যাপন পর্ষদ’ আয়োজন করে আসছে এ উৎসব।

বিকেল ৪টায় শুরু হয়ে আয়োজন চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত। এতে একাধিক ব্যান্ড ও শিল্পীর পরিবেশনা থাকবে।

শিল্পীদের মধ্যে রয়েছেন লিমন, লাবিক কামাল গৌরব, জয় শাহরিয়ার, আরমীন মুসা, বাংলা ফাইভ, সন্ধি, সালেকিন, শুভ্র, রিয়াদ হাসান, সাহস মোস্তাফিজ, সুহৃদ স্বাগত, দুর্গ, কোলস্লো, অর্ঘ্য, রাফসান, লিসান পলাশ ও পিজু।

সব্যসাচী সঞ্জীব বেশি সাধারণের হয়ে উঠেছিলেন তার গানের মাধ্যমে। সংগীতে নানাভাবে পাওয়া গেছে তাকে।

‘আমি ঘুরিয়া ফিরিয়া সন্ধান করিয়া, স্বপ্নের ওই পাখি ধরতে চাই’ গানটিতে পাওয়া যায় স্বপ্নবাজ এক সঞ্জীবকে।

আবার ভালোবাসার মধুর স্মৃতি মনে করে তিনি গেয়ে ওঠেন, ‘তোমার বাড়ির রঙের মেলায় দেখেছিলাম বায়োস্কোপ।’

‘সাদা ময়লা রঙ্গিলা পালে’, ‘হাতের ওপর হাতের পরশ’, ‘চোখটা এত পোড়ায় কেন’, ‘তোমার ভাঁজ খোলো আনন্দ দেখাও’, ‘হৃদয়ের দাবি’, ‘আমাকে অন্ধ করে দিয়েছিল চাঁদ’সহ অনেক জনপ্রিয় গান রয়েছে সঞ্জীবের। এসব গানেই তার স্বপ্ন ও কথা বয়ে বেড়ান এ প্রজন্মের তরুণেরা।

তাই তো এখনও কোনো তরুণ প্রাণের আড্ডায় বা মাঝরাতে ফাঁকা রাস্তায় শোনা যায়, ‘আমি তোমাকেই বলে দেবো/কী যে একা দীর্ঘ রাত, আমি হেঁটে গেছি বিরান পথে/ছুঁয়ে কান্নার রং, ছুঁয়ে জোছনার ছায়া।’

১৯৬৪ সালের ২৫ ডিসেম্বর হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার মাকালকান্দি গ্রামে জন্ম সঞ্জীব চৌধুরীর। ২০০৭ সালের ১৯ নভেম্বর বাই লেটারেল সেরিব্রাল স্কিমিক স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তার।

মন্তব্য

বিনোদন
Shahrukh Deepika storms in new song amid Beshram color controversy

‘বেশরম রং’ বিতর্কের মাঝেই নতুন গানে শাহরুখ-দীপিকার ঝড়

‘বেশরম রং’ বিতর্কের মাঝেই নতুন গানে শাহরুখ-দীপিকার ঝড় পাঠান সিনেমার দ্বিতীয় গান ‘ঝুমে জো পাঠান’-এর দৃশ্যে শাহরুখ-দীপিকা। ছবি: সংগৃহীত
প্রকাশের পর থেকেই নেট দুনিয়ায় ঝড় তুলেছে গানটি। ‘বেশরম রং’-এর মতোই এই গানের দৃশ্যে শাহরুখ-দীপিকার অ্যাপিয়ারেন্সে চোখ সরাতে পারছেন না নেটিজেনরা।

সম্প্রতি প্রকাশ পায় শাহরুখ খান ও দীপিকা পাডুকোনের আসন্ন সিনেমা পাঠান-এর প্রথম গান ‘বেশরম রং’। প্রকাশের পর থেকে নানা বিতর্ক তৈরি হয়েছে গানটি নিয়ে। দু-একটি মহল সিনেমাটি বয়কটের ডাকও দিয়েছে।

এরই মাঝেই নির্মাতা ঘোষণা করেন ২২ ডিসেম্বর প্রকাশ পাবে পাঠান-এর দ্বিতীয় গান ‘ঝুমে জো পাঠান’। ঘোষণা অনুয়ায়ী বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় ইউটিউবসহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্রকাশ পায় গানটি।

প্রকাশের পর থেকেই নেট দুনিয়ায় ঝড় তুলেছে গানটি। ‘বেশরম রং’-এর মতোই এই গানের দৃশ্যে শাহরুখ-দীপিকার অ্যাপিয়ারেন্সে চোখ সরাতে পারছেন না নেটিজেনরা। কমেন্ট বক্সে দেখা যাচ্ছে তাদের সেই প্রতিক্রিয়া।

মুগ্ধতা প্রকাশ এক নেটিজন লিখেছেন, ‘শাহরুখের মোহনীয় চেহারা, অরিজিতের শক্তিশালী কণ্ঠ এবং দীপিকার সৌন্দর্যের মধ্যে কী একটা সমন্বয়!’

একজন লিখেছেন, ‘শাহরুখ-দীপিকাকে অসাধারণ লাগছে।’

আরেকজন লিখেছেন, ‘এই গানের বিটস, কোরিওগ্রাফি এবং শাহরুখ-দীপিকার লুক অসাধারণ!’

‘বেশরম রং’ বিতর্কের মাঝেই নতুন গানে শাহরুখ-দীপিকার ঝড়
পাঠান সিনেমার দ্বিতীয় গান ‘ঝুমে জো পাঠান’-এর দৃশ্যে শাহরুখ-দীপিকা। ছবি: সংগৃহীত

মুগ্ধতা প্রকাশ করে এমন বহু মন্তব্য করেছেন নেটিজেনরা। একই সঙ্গে হিন্দি ভাষায় গানটির কণ্ঠশিল্পী অরিজিৎ সিং ও সুকৃতি কক্করকেও প্রশংসায় ভাসিয়েছেন তারা।

গানটি প্রকাশের কয়েক ঘণ্টার মধ্যে হু হু করে বেড়েছে ভিউ। ইতোমধ্যে ৫ ঘণ্টার ব্যবধানে প্রায় ৭০ লাখ ভিউ হয়েছে গানটির। এদিকে শুধু হিন্দি নয়, তেলেগু ভাষাতেও প্রকাশ পেয়েছে গানটি। সেটাতেও ব্যাপকহারে বাড়ছে ভিউ।

পাঠান -এ গুপ্তচরের ভূমিকায় দেখা যাবে শাহরুখকে। গুরুত্বপূর্ণ দুই ভূমিকায় রয়েছে দীপিকা ও জন আব্রাহাম। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সিদ্ধার্থ আনন্দ।

আগামী বছর ২৫ জানুয়ারি হিন্দি, তামিল, তেলেগু ভাষায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে পাঠান।

আরও পড়ুন:
শাহরুখ-দীপিকার ‘বেশরম রং’-এর বিটস নকল!
ফিরেই দীপিকার সঙ্গে ‘বেশরম রঙ’ ছড়ালেন শাহরুখ
এবার ‘লেডি সিংহাম’ হয়ে আসছেন দীপিকা
এখন শুধু অ্যাকশন বলার অপেক্ষায় শাহরুখপুত্র আরিয়ান
হঠাৎ শাহরুখকে দেখে বিস্মিত শ্যারন স্টোন

মন্তব্য

বিনোদন
Victory Day organized in the capital

রাজধানীতে বিজয় দিবসের আয়োজন

রাজধানীতে বিজয় দিবসের আয়োজন রাজধানীতে বিজয় দিবসের আয়োজন। ছবি: সংগৃহীত
করোনার কারণে দুই বছর বন্ধ থাকার পর আবারও আয়োজনটি হতে যাচ্ছে। মিলিত কণ্ঠে দেশের গান গাইতে আয়োজনটি সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত।

মহান বিজয় দিবস উদযাপনে প্রস্তুত পুরো দেশ। সারা দেশেই সরকারি, বেসরকারি, প্রাতিষ্ঠানিক ও ব্যক্তি পর্যায়ে আয়োজন রয়েছে।

শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন সময়ে রয়েছে আয়োজন। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হাজার কণ্ঠে দেশগান।

করোনাভাইরাস মহামারী কাটিয়ে আবারও বিজয় দিবসে ‘দেশগান’ গাইবার আয়োজন করতে যাচ্ছে ছায়ানট। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষাকেন্দ্রের মাঠে শুক্রবার বিকেল ৪টা ৪৫ মিনিটে শুরু হবে এ আয়োজন।

করোনার কারণে দুই বছর বন্ধ থাকার পর আবারও আয়োজনটি হতে যাচ্ছে। মিলিত কণ্ঠে দেশের গান গাইতে আয়োজনটি সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত।

আগ্রহীরা আয়োজনে অংশ নিতে চাইলে অনুষ্ঠানস্থলে ঢুকবেন দোয়েল চত্বর সংলগ্ন সুইমিং পুল গেট দিয়ে। সাংবাদিক, আয়োজক, শিল্পী ও তাদের সঙ্গী মাঠে প্রবেশ করবেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সংলগ্ন জিমনেশিয়াম গেট দিয়ে।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের বিজয় উৎসব চলছে। ‘স্পর্ধায় তাড়াব ধেয়ে আসা কালো’ স্লোগান নিয়ে উৎসব শুরু হয় ১৩ ডিসেম্বর।

বিজয় দিবসে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, ধানমণ্ডির রবীন্দ্র সরোবর, রায়ের বাজার বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ, মিরপুর ৬ নম্বর মুকুল ফৌজ মাঠ, দনিয়া মাসুদ মঞ্চ, পুরান ঢাকার ভিক্টোরিয়া পার্ক, মতিঝিল টিঅ্যান্ডটি কলোনি মাঠ, উত্তরা বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্চ এবং পূর্বাচল জয় বাংলা স্কয়ারে হবে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা।

মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর মিলনায়তনে শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে শুরু হবে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান। আর মিরপুরের জল্লাদখানা বধ্যভূমি স্মৃতিপীঠে বিকেলে হবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

শিল্পকলা একাডেমির নন্দন মঞ্চে সন্ধ্যা ৬টায় অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার স্টুডিও থিয়েটার মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হবে ম্যাড থেটারের তৃতীয় প্রযোজনা ‘অ্যানা ফ্রাঙ্ক’ নাটক। ‘পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়’ নাটকটি মঞ্চস্থ হবে রাজধানীর বেইলি রোডের মহিলা সমিতির মঞ্চে।

রাজধানীর হাতিরঝিল এমফিথিয়েটারে সন্ধ্যা ৭টায় অনুষ্ঠিত হবে বিজয় উৎসব। চ্যানেল আই ও গানবাংলার যৌথ উদ্যোগে আয়োজনটি হবে তারকাবহুল।

আরও পড়ুন:
সমৃদ্ধ দেশ গড়তে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছড়িয়ে দিতে হবে: ঢাবি উপাচার্য
স্বাধীনতার সংগ্রাম আর মুক্তির স্বপ্ন
১৭ ডিসেম্বর: বঙ্গবন্ধু পরিবার মুক্তি দিবস
তারাকান্দর: গণহত্যার এক নির্মম স্বাক্ষর
কলকাতায় বিজয় দিবসের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

মন্তব্য

বিনোদন
Bits of Shah Rukh Deepikas Beshram Rang are fake

শাহরুখ-দীপিকার ‘বেশরম রং’-এর বিটস নকল!

শাহরুখ-দীপিকার ‘বেশরম রং’-এর বিটস নকল! ‘বেশরম রঙ’-এর গানের দৃশ্যে শাহরুখ-দীপিকা। ছবি: সংগৃহীত
দুই গানের ভিডিও কোলাজ দিয়ে টুইট করেছেন নেটিজেনরা। এমন একটি ভিডিও পোস্ট করে একজন লিখেছেন, ‘যে মুহূর্তে বেশরম রঙ শুনলাম, আমি ভাবছিলাম এই বিটস আগে কোথায় শুনেছিলাম, বেশ কিছুক্ষণ পরে বুঝতে পারলাম এটি জেনের মেকবা।’

দীর্ঘ বিরতির পর পর্দায় ফিরছেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। সোমবার প্রকাশ পেয়েছে তার আসন্ন সিনেমা পাঠান-এর গান ‘বেশরম রং’।

গানটির সুর-বিট, শাহরুখ-দীপিকার লুক, লোকেশন সব মিলিয়ে স্প্যানিশ ও হিন্দি ভাষার ‘বেশরম রং’ ঝড় তুলেছে নেট দুনিয়াই।

একদিনের ব্যবধানে ইউটিউবে ২ কোটি ৪০ লাখের বেশি ভিউ হয়েছে গানটির। শুরু তাই নয়, সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভাইরাল গানটি। লুকের জন্য প্রশংসায় ভাসছেন শাহরুখ-দীপিকা।

তবে এরই মধ্যে নেটিজনদের একাংশ গানটির বিটস নকলের অভিযোগ তুলেছেন সোশ্যাল মিডিয়াই। তাদের দাবি, বেশরম রঙে ‘মেকেবা’ গানের বিটস নকল করা হয়েছে।

ফরাসি গায়ক-গীতিকার জেনের গাওয়া বিখ্যাত গান ‘মেকেবা’ প্রকাশ পায় ২০১৫ সালে। সেই গানটির বিটস-এর সঙ্গে বেশরম রঙের বিটস-এর মিল খুঁজছেন নেটিজেনরা।

দুই গানের ভিডিও কোলাজ দিয়ে টুইট করেছেন তারা। এক নেটিজেন এমন একটি ভিডিও পোস্ট করে লিখেছেন, ‘যে মুহূর্তে বেশরম রং শুনলাম, আমি ভাবছিলাম এই বিটস আগে কোথায় শুনেছিলাম, বেশ কিছুক্ষণ পরে বুঝতে পারলাম এটি জেনের মেকবা।’

এর সঙ্গে বিশাল-শেখরকে ট্যাগ করে ওই নেটিজেন লেখেন, ‘যাইহোক দুর্দান্ত একটি কাজ, মূল স্রষ্টা জেনের কথা না বললেই নয়।’

‘বেশরম রং’ গানের সংগীতায়োজন করেছেন বিশাল-শেখর। কুমারের কথায় গানে কণ্ঠ দিয়েছেন শিল্পা রাও, ক্যারালিসা মন্টিরো, বিশাল-শেখর। গানটির স্প্যানিশ লিরিক লিখেছেন বিশাল দাদলানি।

পাঠান সিনেমায় গুপ্তচরের ভূমিকায় দেখা যাবে শাহরুখকে। সঙ্গে রয়েছেন দীপিকা ও জন আব্রাহাম। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সিদ্ধার্থ আনন্দ।

ধর্ম-জাতহীন পাঠানের একমাত্র ধ্যান-জ্ঞান নিজের দেশকে রক্ষা করা। দেশের জন্য সবকিছু করতে প্রস্তুত তিনি। আগামী বছর ২৫ জানুয়ারি হিন্দি, তামিল, তেলেগু ভাষায় প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে সিনেমাটি।

আরও পড়ুন:
ডাঙ্কি’র শুটিং শেষে সৌদিকে শাহরুখের ধন্যবাদ
শাহরুখকে মুম্বাই বিমানবন্দরে থামিয়ে তল্লাশি
‘টাইগার থ্রি’তে দেখা দেবেন ‘পাঠান’
শাহরুখের ‘জওয়ান’-এর বিরুদ্ধে গল্প চুরির অভিযোগ
এবারও বুর্জ খলিফায় ভেসে উঠলেন শাহরুখ  

মন্তব্য

p
উপরে