× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
Aamir in the FIFA World Cup with his children
google_news print-icon

সন্তান-সাবেককে নিয়ে ফিফা বিশ্বকাপে আমির

সন্তান-সাবেককে-নিয়ে-ফিফা-বিশ্বকাপে-আমির
লুসাইল স্টেডিয়ামের বাইরে কিরণ ও আজাদের সঙ্গে আমির খান। ছবি: সংগৃহীত
আমির দেশে ফেরার পর কাতারে তোলা বেশ কিছু ছবি ও ভিডিও এখন ঘুরে বেড়াচ্ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, আমির লুসাইল স্টেডিয়ামের বাইরে কিরণ ও আজাদের ছবি তুলছেন।

বলিউডের মিস্টার পারফেকশনিস্ট আমির খান সম্প্রতি কাতারে চলমান ফিফা বিশ্বকাপের খেলা দেখতে গিয়েছিলেন। সঙ্গে ছিলেন তার সাবেক স্ত্রী কিরণ রাও এবং তাদের ছেলে আজাদ রাও খান।

কিছুদিন আগেই মুম্বাই বিমানবন্দরে দেখা গিয়েছিল তাদের। সংক্ষিপ্ত সফর শেষ করে এখন ভারতে অবস্থান করছেন তারা।

আমির দেশে ফেরার পর কাতারে তোলা বেশ কিছু ছবি ও ভিডিও এখন ঘুরে বেড়াচ্ছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, আমির লুসাইল স্টেডিয়ামের বাইরে কিরণ ও আজাদের ছবি তুলছেন। পরে সে তার ফোন কারও হাতে তুলে দিয়ে ফ্রেমে যুক্ত হন।

এ সময় আমিরকে কালো কোয়ার্টার প্যান্টের সঙ্গে একটি বেইজ টি-শার্ট পরা অবস্থায় দেখা যায়। আজাদের গলায় ছিল আর্জেন্টিনার পতাকা, আর কিরণ ছিলেন সম্পূর্ণ কালো পোশাকে।

ভিডিও ছাড়াও আমিরের আরও কিছু স্থিরচিত্র পাওয়া যাচ্ছে ইন্টারনেটে।

আমিরকে শেষবার লাল সিং চাড্ডা সিনেমায় দেখা গেছে। সিনেমাটি বক্স অফিসে ব্যবসা করতে পারেনি। এ ব্যর্থতার পর আমির অভিনয় থেকে কিছুদিনের বিরতি নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

আরও পড়ুন:
মা হলেন বিপাশা বসু
সালমানকে মাদকাসক্ত বললেন রামদেব
বক্স অফিসে বলিউডকে হটিয়ে দিচ্ছে দক্ষিণী সিনেমা
সারোগেসির তদন্তে বেরিয়ে এলো বিয়ের নতুন তথ্য
বিয়ের পর ক্যাটরিনার প্রথম ট্রেইলার

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
Actor Dabney Coleman has passed away

চলে গেলেন অভিনেতা ড্যাবনি কোলম্যান

চলে গেলেন অভিনেতা ড্যাবনি কোলম্যান প্রখ্যাত অভিনেতা ড্যাবনি কোলম্যান। ছবি: সংগৃহীত
কোলম্যান ‘দ্য স্ল্যাপ ম্যাক্সওয়েল স্টোরি’ সিনেমায় অভিনয় করে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার এবং ‘সর্ন টু সাইলেন্স’ সিনেমায় অভিনয় করে সেরা পার্শ্ব অভিনেতা হিসেবে এমি পুরস্কার অর্জন করেন। দুটি স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড অ্যাওয়ার্ডস জেতেন এই অভিনেতা।

‘নাইন টু ফাইভ’-এর উগ্র জাতীয়তাবাদী বস এবং ‘টুটসি’র টিভি পরিচালকের মতো ভিলেন চরিত্রে অভিনয় করা বিখ্যাত অভিনেতা ড্যাবনি কোলম্যান ৯২ বছর বয়সে মারা গেছেন।

কোলম্যানের মেয়ে কুইন্সি কোলম্যান বার্তা সংস্থা এপিকে দেয়া এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার স্যান্টা মনিকায় নিজ বাড়িতে মারা যান কোলম্যান। তিনি ‘শান্তিপূর্ণভাবে’ তার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন।

বেন স্টিলার কোলম্যানের মৃত্যুতে সোশ্যাল মিডিয়া এক্সে লিখেছেন, ‘গ্রেট ড্যাবনি কোলম্যান আক্ষরিক অর্থেই অনন্য। যে কোনো চরিত্রে অভিনেতা হিসেবে তিনি একটি আর্কিটাইপ তৈরি করেছিলেন। তার কাজে তিনি এতটাই ভাল ছিলেন যে, তাকে ছাড়া গত ৪০ বছরের সিনেমা এবং টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিকে কল্পনা করা যায় না।’

ড্যাবনি কোলম্যান ১৯৩২ সালে টেক্সাসের অস্টিনে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ভার্জিনিয়া মিলিটারি অ্যাকাডেমিতে দুই বছর, ইউনিভার্সিটি অফ টেক্সাসে দুই বছর এবং সেনাবাহিনীতে দুই বছর কাটান। ২৬ বছর বয়সে আইনের ছাত্র থাকা অবস্থায় ‘মিলড্রেড পিয়ার্স’ সহ অন্যান্য ছবিতে অভিনয় করা জ্যাকারি স্কটের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। জ্যাকারি তাকে অভিনেতা হওয়ার জন্য রাজি করান।

প্রথম দুই দশকে কোলম্যান সিনেমায় এবং টিভি শোতে একজন প্রতিভাবান অভিনেতা হিসেবে কাজ করলেও অভিনয়শিল্পী হিসেবে তিনি খুব বেশি একটা লাইমলাইটে আসতে পারেননি।

১৯৭৬ সালে একটি ব্যঙ্গাত্মক সোপ অপেরা ‘ম্যারি হার্টম্যান, ম্যারি হার্টম্যান’-এ ফার্নউডের হ্যামলেটের দুর্নীতিগ্রস্ত মেয়রের চরিত্রে অভিনয় করে সবার নজরে আসেন ড্যাবরি কোলম্যান।

এ ছাড়া ‘ওয়ার গেমস’-এ কম্পিউটার বিজ্ঞানী, ‘ইউ হ্যাভ গট মেইল’-এ টম হ্যাঙ্কসের বাবা এবং ‘দ্য টাওয়ারিং ইনফার্নো’ ছবিতে অগ্নিনির্বাপক কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করেছেন তিনি।

কোলম্যান ‘দ্য স্ল্যাপ ম্যাক্সওয়েল স্টোরি’ সিনেমায় অভিনয় করে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার এবং পিটার লেভিন পরিচালিত ১৯৮৭ সালের ছোট পর্দার নাট্যধর্মী সিনেমা ‘সর্ন টু সাইলেন্স’ সিনেমায় অভিনয় করে সেরা পার্শ্ব অভিনেতা হিসেবে এমি পুরস্কার অর্জন করেন। তিনি ‘রে ডোনভান’ এবং ‘বোর্ডওয়াক এম্পায়ার’ যার জন্য দুটি স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড অ্যাওয়ার্ডস জিতেছিলেন।

কোলম্যানের অন্যান্য সিনেমার মধ্যে ‘নর্থ ডালাস ফোর্টি,’ ‘ক্লোক অ্যান্ড ড্যাগার,’ ‘ড্রাগনেট,’ ‘মিট দ্য অ্যাপলগেটস,’ ‘ইন্সপেক্টর গ্যাজেট’ এবং ‘স্টুয়ার্ট লিটল’ বেশ জনপ্রিয়।

‘দ্য গার্ডিয়ান (২০০১-২০০৪)’ সিনেমায় একজন কূটিল আইনজীবীর বাবার ভূমিকায় অভিনয় করেন তিনি।

মৃত্যুর সময় কোলম্যান চার সন্তান মেগান, কেলি, র‍্যান্ডি ও কুইন্সি এবং নাতি-নাতনিদের রেখে গেছেন।

মন্তব্য

বিনোদন
Alias marriage is coming soon

আলিয়ার বিয়ে শিগগিরই

আলিয়ার বিয়ে শিগগিরই
রাজকীয় কায়দায় বিয়ে করতে চলেছেন আলিয়া কাশ্যপ। আর তার বিয়ের পুরো খরচ বহন করতে চলেছেন অনুরাগ। বিয়ের জন্য কত খরচ হলে চলেছে, সেই ইঙ্গিতও দিয়েছেন পরিচালক।

দীর্ঘ দিনের প্রেমিকের সঙ্গে বাগদান-পর্ব সেরেছেন পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপের কন্যা আলিয়া কাশ্যপ। ২০২৩-এই প্রেমিক শেন গ্রেগয়ের সঙ্গে আংটিবদল-পর্ব সম্পন্ন করেছেন অনুরাগ-কন্যা। ২০২৫-এ গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছেন তারা।

জানা যাচ্ছে, রাজকীয় কায়দায় বিয়ে করতে চলেছেন আলিয়া কাশ্যপ। আর তার বিয়ের পুরো খরচ বহন করতে চলেছেন অনুরাগ। বিয়ের জন্য কত খরচ হলে চলেছে, সেই ইঙ্গিতও দিয়েছেন পরিচালক।

সম্প্রতি আলিয়ার পডকাস্টে অনুরাগ মজা করে বলেন, তার একটি ছবিতে যা খরচ হয়, সেই পরিমাণ খরচ হচ্ছে আলিয়ার বিয়েতে।

পডকাস্টে অনুরাগ জানান, খুব শিগগিরই পরবর্তী ছবির শুটিং শুরু করতে চলেছেন তিনি। তখনই আলিয়া মজার ছলে জিজ্ঞাসা করেন, ‘মেয়ের থেকেও কি ছবির কাজ বেশি গুরুত্বপূর্ণ?’

উত্তরে অনুরাগ বলেন, ‘সামনে একটা বিয়ের অনুষ্ঠান আছে। একজনের বিয়ে হতে চলেছে। তার বিয়েতে যে পরিমাণ খরচ হচ্ছে, তা সাধারণত আমার কম বাজেটের ছবিগুলিতে হয়ে থাকে।’

বাজেটের কথা বলতেই আলিয়া বলেন, ‘সে ঠিক আছে! আমি তোমার এক মাত্র কন্যা। তুমি ভাগ্যবান যে তোমার আর কোনও সন্তান নেই। তাই আর এত খরচ করতে হবে না।’’তখন অনুরাগ বলেন, ‘তুমি খুশি হলেই আমি খুশি। আমায় একটু কষ্ট করতে হবে।’

এই পডকাস্টেই আলিয়া জিজ্ঞাসা করেন, অনুরাগ আরও সন্তান জন্ম দেয়ার জন্য বিয়ে করার কথা ভেবেছেন কি না। অনুরাগ জানান, তিনি আর বিয়ে করতে চান না এবং আবার সন্তান লালনপালন করার মতো বয়সও আর তার নেই। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

মন্তব্য

বিনোদন
Saini sick in summer

গরমে অসুস্থ সায়নী

গরমে অসুস্থ সায়নী
বৃহস্পতিবার দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ভাঙড়ে হুডখোলা গাড়িতে করে প্রচারণা চালানোর সময় অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি।

নির্বাচনে প্রচারে বেরিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লেন ভারতীয় অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ।

বৃহস্পতিবার দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার ভাঙড়ে হুডখোলা গাড়িতে করে প্রচারণা চালানোর সময় পশ্চিমবঙ্গের যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রের এই তৃণমূল প্রার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে আনন্দবাজার পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ জানিয়েছে।

শেষমেশ কর্মসূচিই বাতিল করে দিতে হয়। তৃণমূল সূত্রে খবর, প্রচার বন্ধ করে বাড়ি ফিরে যেতে হয় প্রার্থীকে।

এদিন ভাঙড়ের শানপুকুর, ভোগালি-১ ও ভোগালি-২ এলাকায় নির্বাচনি প্রচার করছিলেন সায়নী। রোদের মধ্যেই হুডখোলা গাড়িতে তার প্রচার চলছিল। দলীয় সূত্রে খবর, সেই সময় দলীয় নেতা-কর্মীদের সায়নী জানান যে, তিনি অসুস্থ বোধ করছেন। এর পরেই তাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে আনা হয়।

কিছুক্ষণ বিশ্রামের পর হুডখোলা গাড়ি ছেড়ে নিজের গাড়িতে করেও প্রচার করেন সায়নী। কিন্তু নিজের গাড়িতেও অসুস্থ বোধ করায় শেষমেশ তার কর্মসূচি বাতিল করা হয়। প্রার্থীকে বাড়ি ফেরানোর ব্যবস্থা করা হয়।

স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের বক্তব্য, গরমে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন সায়নী।

ভাঙড়-২ ব্লকে তৃণমূলের সহ-সভাপতি আদুদ মোল্লা বলেন, আজ বাইরে প্রায় ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল তাপমাত্রা। সকাল ৯টা থেকে সায়নী ঘোষ প্রচার করছিলেন। দুপুর ২টা পর্যন্ত প্রচারও করেছেন। তার পরেই উনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।

তিনি বলেন, এত গরমের মধ্যেও উনি যেভাবে আমাদের এলাকায় এসেছেন, তাতে আমরা কৃতজ্ঞ। হুডখোলা গাড়িতে প্রচারের শেষে একটা পথসভার কর্মসূচি ছিল আমাদের। সায়নী ঘোষ অসুস্থ হয়ে পড়ায় সেটা বাতিল করা হয়েছে।

মন্তব্য

বিনোদন
Kazi Nazruls biopic is coming

আসছে কাজী নজরুলের বায়োপিক

আসছে কাজী নজরুলের বায়োপিক বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম
কিঞ্জল বলেন, এই প্রথম নজরুলের জীবন নিয়ে বায়োপিক হচ্ছে। নজরুলের গোটা জীবনকেই তুলে ধরা হবে ছবিটিতে। আমি সত্যিই উত্তেজিত এই সুযোগ পেয়ে। প্রথমে ছবির চিত্রনাট্য পড়ে দেখি আমি। চরিত্রটাই খুব চ্যালেঞ্জিং।

প্রথম বার হতে চলেছে বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের বায়োপিক।

আব্দুল আলিমের পরিচালনায় এই সিনেমায় এতে নজরুলের চরিত্রে অভিনয় করছেন ভারতীয় অভিনেতা কিঞ্জল নন্দ।

আনন্দবাজার অনলাইনকে কিঞ্জল বলেন, ‘এই প্রথম নজরুলের জীবন নিয়ে বায়োপিক হচ্ছে। নজরুলের গোটা জীবনকেই তুলে ধরা হবে ছবিটিতে। আমি সত্যিই উত্তেজিত এই সুযোগ পেয়ে। প্রথমে ছবির চিত্রনাট্য পড়ে দেখি আমি। চরিত্রটাই খুব চ্যালেঞ্জিং।

‘যার নাম শুনে বড় হয়েছি, তাকে নিয়ে এমন একটা ছবি হচ্ছে, যার কেন্দ্রীয় চরিত্রে আমি, ভাবতেই কেমন লাগছে! এটুকু বলতে পারি, আমরা নজরুল সম্পর্কে যেটুকু জানি, তার থেকে অনেক বেশি কিছু আছে এই ছবিতে।’

কিঞ্জল জানালেন, নজরুলের শৈশব থেকে শেষ জীবন পর্যন্ত এই সিনেমায় তুলে ধরা হবে। অভিনেতা বললেন, ‘শীতকালে শুটিং শুরু হবে। অনেক ‘প্রস্থেটিক’ মেকআপের বিষয় রয়েছে। বহু ঐতিহাসিক চরিত্র এই ছবিতে জীবন্ত হয়ে উঠবে।’

কিঞ্জলের সঙ্গে নজরুলের চেহারার পার্থক্য রয়েছে। তাই প্রয়োজন ‘প্রস্থেটিক্সের’। ছবিতে কিঞ্জলের রূপটানের দায়িত্বে থাকছেন সোমনাথ কুণ্ডু।

চরিত্রটি পর্দায় ফুটিয়ে তোলার জন্য বর্তমানে নজরুল সম্পর্কে পড়াশোনা করছেন কিঞ্জল। তিনি বললেন, ‘পরিচালকের সঙ্গে কথা হয়েছে। কিছু বই পড়ছি। চিত্রনাট্য চূড়ান্ত হলে সৌগতদার (চিত্রনাট্যকার- সৌগত বসু) সঙ্গেও আলোচনা করব। কারণ নজরুল সম্পর্কে আমরা সবাই কম বেশি জানি, তাই চরিত্রটিকে ফুটিয়ে তোলা বেশ কঠিন কাজ।’

নজরুলের এই বায়োপিকে বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করছেন খরাজ মুখোপাধ্যায় (ফজলুল হক), কাঞ্চনা মৈত্র (বিরজাসুন্দরী দেবী)-সহ আরও অনেকে। এ ছাড়াও বাংলাদেশের কয়েকজন অভিনেতাও এই সিনেমায় অভিনয় করতে পারেন বলে কিঞ্জল জানিয়েছেন।

মন্তব্য

বিনোদন
At a difficult time in his life his lover left Mithun

জীবনের কঠিন সময়ে মিঠুনকে ছেড়ে যান প্রেমিকা

জীবনের কঠিন সময়ে মিঠুনকে ছেড়ে যান প্রেমিকা মিঠুন চক্রবর্তী
বিখ্যাত হওয়ার আগে সিনেমায় জায়গা করে নিতে বেশ লড়াই করতে হয়েছিল অভিনেতাকে। আর সেই সময়েই মন ভেঙেছিল তার।

ভারতের বিনোদন জগতের অন্যতম উজ্জ্বল নক্ষত্র মিঠুন চক্রবর্তীরও মন ভেঙেছিল। জীবনের কঠিন সময়ে হঠাৎই ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন প্রেমিকা। এরপর?

সম্প্রতি রিয়্যালিটি শোতে সারেগামাপাতে এসে অতীতের সেই কথা প্রকাশ্যে আনলেন তিনি। ব্যক্তিগত জীবনের এক গল্প শোনালেন বর্ষীয়ান অভিনেতা।

আনন্দবাজার লিখেছে, বিখ্যাত হওয়ার আগে সিনেমায় জায়গা করে নিতে বেশ লড়াই করতে হয়েছিল অভিনেতাকে। আর সেই সময়েই মন ভেঙেছিল তার।

রিয়্যালিটি শোতে প্রেম ভাঙায় এক প্রতিযোগীর মন খারাপ ছিল। অভিনেতা সেই প্রসঙ্গেই বললেন, ‘‘এ রকমই হয়েছিল আমার। প্রেমে পড়ে গিয়েছিলাম। পাগল হয়ে গিয়েছিলাম রীতিমতো। তার পরে সেটাই হলো। মেয়েটি ছেড়ে চলে গেল। তার পর সময় বদলাল। আমি তারকা হলাম। তার পর আরও বড় তারকা হলাম।’’

মিঠুন আরও বললেন, ‘‘একদিন আমি বিমানযাত্রা করছি। সেই মেয়েটিও ছিল ওই বিমানে। কিন্তু ও আমার চোখের দিকে তাকাচ্ছিল না। আমি উঠে ওর দিকে গেলাম। জিজ্ঞাসা করলাম, ‘আমার দিকে তাকাচ্ছ না কেন’। ও তখন তাকাল। মনে হল, ওর অনুতাপ হচ্ছে। আমি ওকে সহজ করার জন্য বললাম, ‘তখন তুমি যা করেছিলে, ঠিক করেছিলে’।’’

এটা শুনে মেয়েটি কিছুটা আস্বস্ত হয়েছিলেন বলে জানান মিঠুন। মেয়েটি বলেছিলেন, ‘‘আমার মনে হয়, আমি ভুল করেছি। আমার ওটা তখন করা উচিত হয়নি।’’ উত্তরে মিঠুন বলেছিলেন, ‘‘তুমি এ সব না করলে হয়তো এত বড় তারকাও তৈরি হত না।’’

এ বছর মিঠুন চক্রবর্তী পদ্ম ভূষণ পুরস্কার পেয়েছেন। তাকে শেষবার কাবুলিওয়ালা সিনেমায় দেখা গিয়েছে। আগামীতে শাস্ত্রী এবং রাজ চক্রবর্তীর নতুন একটি সিনেমায় তাকে দেখা যাবে।

মন্তব্য

বিনোদন
The hanging body of the film producer was recovered in the capital

রাজধানীতে চলচ্চিত্র প্রযোজকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

রাজধানীতে চলচ্চিত্র প্রযোজকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার চলচ্চিত্র প্রযোজক মাসুদুল মাহমুদ রুহান। ছবি: সংগৃহীত
রুহানের খালাতো ভাই মনজুরুল হাসান অলি জানান, দুই থেকে আড়াই বছর আগে বিয়ে করেন রুহান। স্ত্রী নিয়ে রায়েরবাজার শেরেবাংলা রোডে থাকতেন তিনি। তবে মাসখানেক আগে তাদের বিচ্ছেদ হয়। এরপর থেকেই হতাশাগ্রস্ত ছিলেন রুহান।

রাজধানীর হাজারীবাগের পূর্ব রায়েরবাজারের একটি মেস থেকে চলচ্চিত্র প্রযোজক মাসুদুল মাহমুদ রুহানের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

চলচ্চিত্র ‘রেডরাম’, ওয়েব সিরিজ ‘দ্য সাইলেন্স’, ‘আমি কি তুমি’সহ আরও বহু নির্মাণে প্রযোজনা করেছেন তিনি।

বুধবার রাত ১টার দিকে হাজারীবাগ থানা পুলিশ পূর্ব রায়েরবাজার হাই স্কুলের ঢালের একটি বাসার ষষ্ঠ তলার মেস থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে। পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

হাজারীবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাওন কুমার বিশ্বাস জানান, এক মাস আগে স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় রূহানের। তবে তার আগে থেকেই পূর্ব রায়েরবাজারের ওই মেসে থাকতে শুরু করেন তিনি। চলচ্চিত্রের বিভিন্ন শুটিংয়ের কারণে দেশের বিভিন্ন জায়গায় থাকতে হতো ২৭ বছর বয়সী এ প্রযোজককে। যখন ঢাকায় আসেতেন, তখন ওই মেসে গিয়ে থাকতেন তিনি।

তিনি জানান, বুধবার রাত ১১টার দিকে তার রুমমেট মেসে ফিরে দেখেন ফ্যানের সঙ্গে বিছানার চাদর পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছেন তিনি। সঙ্গে সঙ্গে তিনি আশপাশের লোকজনকে ডেকে আনেন। খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

এসআই শাওন বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে জানতে পারি, স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ এবং পারিবারিক বিভিন্ন কারণে হতাশাগ্রস্ত হয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। তবুও বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে। এছাড়া ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।’

রুহানের খালাতো ভাই মনজুরুল হাসান অলি জানান, দুই থেকে আড়াই বছর আগে বিয়ে করেন রুহান। স্ত্রী নিয়ে রায়েরবাজার শেরেবাংলা রোডে থাকতেন তিনি। তবে মাসখানেক আগে তাদের বিচ্ছেদ হয়। এরপর থেকেই হতাশাগ্রস্ত ছিলেন রুহান।

আরও পড়ুন:
অবন্তিকার আত্মহনন: জামিন পেলেন সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম
মাথায় গুলি করে ইউএনও’র দেহরক্ষীর ‘আত্মহত্যা’
ঈদে বাড়ি যেতে দেরি হওয়ায় স্বামীর সঙ্গে অভিমানে গৃহবধূর আত্মহত্যা

মন্তব্য

বিনোদন
Where did Anupam go on his honeymoon?

মধুচন্দ্রিমায় কোথায় গেলেন অনুপম

মধুচন্দ্রিমায় কোথায় গেলেন অনুপম ইনস্টাগ্রাম থেকে নেয়া
অনুপম ও প্রস্মিতার আলাপ-পরিচয় বহু বছরের। যদিও এত দিন ছিল কেবলই পেশাগত আলাপ। তার পর বন্ধুত্ব এবং সেখান থেকেই প্রেম। অবশেষে গত মার্চ মাসে সাত পাকে বাঁধা পড়েন তারা।

মার্চ মাসে বিয়ে হয় গায়ক অনুপম রায় ও গায়িকা প্রস্মিতা পালের। যদিও বিয়ের পর মধুচন্দ্রিমায় যাওয়ার সময় পাননি তারা । কারণ দুজনেই ব্যস্ত। অনুপম মাঝে একটা সময় ঢাকায় ছিলেন। প্রস্মিতার চাকরি স্টেজ শো সব কিছুই চলছিল সমানতালে। এবার খানিক অবসর মিলতেই বেরিয়ে পড়লেন তারা। দেশের মধ্যে কোথাও না গিয়ে বরং মধ্য এশিয়ার একটি ঐতিহাসিক দেশে গেলেন তারা।

অনুপম তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের পাতায় স্ত্রী প্রস্মিতার সঙ্গে তুরস্ক থেকে ছবি দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘‘তারকিশ হলিডে।’’

রংমিলান্তি করে পোশাক পরেন দুজনে। হলুদ স্কার্ট, কালো টপ, চোখে রোদচশমা প্রস্মিতার। অন্যদিকে হলুদ টি-শার্ট ও জিন্স পরেছিলেন গায়ক।

অনুপম ও প্রস্মিতার আলাপ-পরিচয় বহু বছরের। যদিও এত দিন ছিল কেবলই পেশাগত আলাপ। তার পর বন্ধুত্ব এবং সেখান থেকেই প্রেম। অবশেষে গত মার্চ মাসে সাত পাকে বাঁধা পড়েন তারা।

২০২১ সালে অনুপমের দ্বিতীয় স্ত্রী পিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ হয়। তার পর গত বছর ২৭ নভেম্বর পিয়াকে বিয়ে করেন অভিনেতা, পরিচালক পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। তার পর থেকে সমাজমাধ্যমে শুরু হয় ট্রলিং। যদিও সেই সময় গায়ককে সমবেদনা জানিয়েছেন নেটাপাড়ার একটা বড় অংশ।

তবে অনুপমের তৃতীয় বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসার পর তাকে নিয়ে শুরু হয় একই ঘটনা। যদিও গায়ক কিংবা তার স্ত্রী প্রস্মিতা কোনো ধরনের নেতিবাচক মন্তব্যে কান দেননি। বরং নিজেদের মতো জীবনকে গুছিয়ে নিতে ব্যস্ত তারা। আনন্দবাজার পত্রিকা

মন্তব্য

p
উপরে