× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
Bublis baby bump is the reason Shakib is doubting the netizens
hear-news
player
google_news print-icon

বুবলীর ‘বেবি বাম্প’, নেটিজেনদের সন্দেহে শাকিব, যত যুক্তি

বুবলীর-বেবি-বাম্প-নেটিজেনদের-সন্দেহে-শাকিব-যত-যুক্তি
বুবলীর বেবি বাম্প এর ছবি (বাঁয়ে), সিনেমার দৃশ্যে শাকিব খান ও বুবলী (ডানে)। ছবি: নিউজবাংলা
এসব ছাড়াও একটি পোস্টের মন্তব্যের ঘরে একজন লিখেছেন, ‘আসল খবর হল, বুবলী ও শাকিবের একটা মেয়ে সন্তান হয়েছে আমেরিকাতে, বতর্মানে তার বয়স ১ বছর হতে চলছে।’

ঢাকাই সিনেমার অভিনেত্রী বুবলী মঙ্গলবার দুপুরে তার বেবি বাম্পের একটি ছবি পোস্ট করেন। তারপর থেকেই বিষয়টি তুমুল আলোচনায়।

পোস্টটির কারণে নানা প্রশ্ন ঘুরছে সবার মনে। বুবলী কবে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছিলেন, বুবলী মা হয়েছেন কি না, কবে মা হয়েছেন? সেই সন্তান কোথায়? পাশাপাশি সবচেয়ে বড় প্রশ্ন সন্তানের বাবা কে?

মঙ্গলবার বুবলী করছিলেন চাদর সিনেমার শুটিং। সন্ধ্যায় সেই শুটিং সেটে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন অভনেত্রী। তিনি স্বীকার করেছেন যে, ‘ডেফিনেটলি কিছু ব্যাপার তো আছেই। আমি এর আগেও বলেছি যে এগুলো নিয়ে পরে কথা বলব। কোনো ঘটনার পেছনে আরও অনেক ঘটনা থাকে।’

সন্তান, সন্তানের বাবা প্রসঙ্গে কোনো কথা বলেননি বুবলী। জানিয়েছেন শিগগিরই এ নিয়ে বিস্তারিত জানাবেন।

বুবলী সময় নিলেও নেটিজেনরা সময় নিচ্ছেন না। তারা বিভিন্ন যুক্তি, ধারণা ও মতামত লিখছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। আর তাদের লেখায় বুবলীর সন্তানের বাবা হিসেবে বার বার চলে আসছে শাকিব খানের নাম।

ফেসবুকে বুবলীর বেবি বাম্প এর ছবি পোস্ট করার ঘটনাকে নেটিজেনদের অনেকে মিলিয়ে দেখছেন সন্তানসহ অপু বিশ্বাসের আত্মপ্রকাশের ঘটনার সঙ্গে।

এ প্রসঙ্গে একজন লিখেছেন, ‘একদিন অপু বিশ্বাস টিভি লাইভে এসে সাকিব খানের সন্তান নিয়ে কান্না করছিল। শবনম বুবলী ছিল তার সংসার ভাঙার কারণ। গতকাল (মঙ্গলবার) ঠিক একই অবস্থায় দেখলাম বুবলিকে। সেও অপু বিশ্বাস এর মতো লাইভে, চোখে তার পানি। আর অপু বিশ্বাস শাকিব খানের বাসায় শাকিব খানকে সঙ্গে নিয়ে ছেলের জন্মদিন পালন করে।

বুবলীর ‘বেবি বাম্প’, নেটিজেনদের সন্দেহে শাকিব, যত যুক্তি
নেটিজেনের মন্তব্য। ছবি: ফেসবুক থেকে নেয়া স্ক্রিন শট

‘আজ থেকে মাএ সাড়ে পাঁচ বছর আগের কথা। অপু বিশ্বাস তখন কতটা অসহায় ছিল এই বুবলী ডাইনির জন্য। তখন বুবলী বোঝে নাই আল্লাহর বিচার বলে কিছু আছে। সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হলো আল্লাহ ঠিক একই রকম পরিস্থিতি তৈরি করে বুবলীর বিচার করছে। (সংক্ষিপ্ত)’

মঙ্গলবার ছিল সাবেক দম্পতি শাকিব-অপুর সন্তান আব্রাম খান জয়ের জন্মদিন। শাকিব ও অপু দুজনেই তাদের সন্তানকে নিয়ে ফেসবুকে দিয়েছেন আবেগঘন পোস্ট।

জয়কে নিয়ে শাকিব খানের এমন পোস্ট সহজে নিতে পারেননি বলে মনে করছেন নেটিজেনদের কেউ কেউ। তাদের মতে এক সন্তানের জন্মদিনে বাবা শাকিবের আবেগ উতলে উঠলেও আরেক সন্তানের স্বীকৃতি দিচ্ছে না জন্যই বুবলী বেবি বাম্পের ছবি পোস্ট করেছেন।

বুবলীর ‘বেবি বাম্প’, নেটিজেনদের সন্দেহে শাকিব, যত যুক্তি
নেটিজেনের মন্তব্য। ছবি: ফেসবুক থেকে নেয়া স্ক্রিন শট

এ প্রসঙ্গে ফেসুবকে একজন লিখেছেন, “ছেলের জন্মদিনে শাকিব নিজের ফেসবুকে লিখেছেন, ‘আমার ছোট্ট আব্রাম তার জীবনে নতুন বছরে পা রাখল। প্রতিনিয়ত খেয়াল করছি জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে তুমি মানুষের মতো মানুষ হতে এগিয়ে যাচ্ছ। হয়তো একটা সময় গিয়ে বুঝবে, তোমার বাবা আছে বলেই জীবন এত সুন্দর। বাবারা কখনও শো অফ করে না, তারা দেখিয়ে দেয়! তোমার প্রতি আমার স্নেহ, আদর, দোয়া ও মঙ্গলকর দায়িত্ব সারা জীবন থাকবে। শুভ জন্মদিন রাজকুমার।’ নেটিজেনরা বলছেন, এক সন্তানকে নিয়ে শাকিবের আহ্লাদ মানতে পারেননি বুবলী। যার ফলে বুবলী ইঙ্গিত দিলেন, আরেক সন্তানের বিষয়টি আড়াল করা উচিত হচ্ছে না।’

ছেলে আব্রাম খান জয়ের জন্মদিনে শাকিব খানের বাসায় কেক কাটার কিছু ছবি মা অপু বিশ্বাস মঙ্গলবার রাতে পোস্ট করেছেন তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে। সেখানে দেখা যাচ্ছে জয় ও শাকিব খান কেক কাটছেন। তাদের পাশেই আছেন শাকিব খানের বাবা-মা।

একই জায়গায় অপু বিশ্বাসকেও দেখা গেছে জয় ও শাকিবের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে কেক কাটতে। সেসব ছবিতে অবশ্য শাকিব খান ছিলেন না। অপু সেই ছবিগুলো দিয়ে ক্যাপশনের একজায়গায় হ্যাসট্যাগ দিয়ে লিখেছেন, ‘হ্যাপি ফ্যামিলি’।

বুবলীর ‘বেবি বাম্প’, নেটিজেনদের সন্দেহে শাকিব, যত যুক্তি
নেটিজেনের মন্তব্য। ছবি: ফেসবুক থেকে নেয়া স্ক্রিন শট

২০১৭ সালের ১৮ মার্চ বুবলী তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন। সেখানে বুবলী ও তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ছিলেন শাকিব খান। সেই ছবির ক্যাপশন ছিল, ‘ফ্যামিলি টাইম’।

নেটিজেনদের দাবি, বুবলীর পোস্ট করা ছবিটি দেখে অপু বিশ্বাস রেগে গিয়েছিলেন। জানিয়েছিলেন, শাকিব খানকে নিয়ে একটি ছবি তুলে তার ক্যাপশনে কেন ফ্যামিলি টাইম লিখতে হবে। শাকিব খান কি তার (বুবলীর) ফ্যামিলির অংশ?

বুবলী ও অপুর দুটি পোস্টকে তুলনা করছেন নেটিজেনরা। একজন লিখেছেন, ‘শাকিবের প্রাক্তন স্ত্রীর পোস্ট দেখে এতো চিল হওয়ার কিছু নাই। পুরোটাই রিভেঞ্জ Family time Vs family love’।

এসব ছাড়াও একটি পোস্টের মন্তব্যের ঘরে একজন লিখেছেন, ‘আসল খবর হল, বুবলী ও শাকিবের একটা মেয়ে সন্তান হয়েছে আমেরিকাতে, বতর্মানে তার বয়স ১ বছর হতে চলছে।’

বুবলীর ‘বেবি বাম্প’, নেটিজেনদের সন্দেহে শাকিব, যত যুক্তি
নেটিজেনের মন্তব্য। ছবি: ফেসবুক থেকে নেয়া স্ক্রিন শট

বলী বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বললেই নেটিজেনদের এ যুক্তি, ধারণা ও মতামত ঠিক না ভুল তা হয়তো জানা যাবে।

বেবি বাম্পের ছবি পোস্ট করার ঘটনাটিকে সেনসেটিভ ও ইমোশনাল ইস্যু বলে জানিয়েছেন বুবলী। তিনি এও বলেছেন, ‘আমরা যেহেতু মুসলিম, আমি একজন মুসলিম মানুষ, সবকিছুর পেছনে অবশ্যই ব্যাখ্যা আছে। সবকিছু সুন্দর, শালীনভাবেই হয়েছে।’

মঙ্গলবার দুপরে দেয়া পোস্টের ক্যাপশনে বুবলী লিখেছেন, ‘আমার জীবনের সঙ্গে আমি’। এর নিচে হ্যাসট্যাগ দিয়ে লিখেছেন ‘থ্রোব্যাক আমেরিকা’। এই ‘থ্রোব্যাক আমেরিকা’ শব্দ দুটির কারণে ধারণা করা হচ্ছে, ২০২০ সালে বুবলী যখন আমেরিকাতে ছিলেন, ছবিদুটি সেই সময়ের।

বুবলীর মা হওয়ার গুঞ্জন উঠেছিল ২০২০ সালে। বুবলী যখন শাকিব খান প্রযোজিত ও কাজী হায়াৎ পরিচালিত বীর সিনেমায় অভিনয় করছিলেন, তখন তার মা হওয়ার গুঞ্জন ওঠে।

সিনেমাটির শুটিং শেষ করেই বুবলী পাড়ি জমান আমেরিকা। করোনা মহামারির সময় যখন দেশে লকডাউন চলছিল, তখন তিনি আমেরিকাতে ছিলেন। গুঞ্জন আছে, আমেরিকাতে সন্তান প্রসব করেছেন এ অভিনেত্রী। সন্তানের বাবার পরিচয় হিসেবে শাকিব খানের নাম শোনা গিয়েছিল সেসময়।

তবে পরবর্তীতে দেশে ফিরে এসবকে গুঞ্জন বলেই জানিয়েছেন বুবলী। নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে তার সম্পর্কের গুঞ্জনটিও স্বীকার করেননি তিনি।

আরও পড়ুন:
‘বিট্রে’ সিনেমায় বুবলী-রোশান
২৭ জানুয়ারি আসছে সিয়াম-বুবলীর ‘টান’
এলো সিয়াম-বুবলীর ‘টান’-এর ঝলক
অবনী-রাশেদের প্রেম ও এক বীভৎস ঘটনা
জুটি বাঁধলেন সিয়াম-বুবলী

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
Shahrukh thanks Saudi after shooting Dunky

ডাঙ্কি’র শুটিং শেষে সৌদিকে শাহরুখের ধন্যবাদ

ডাঙ্কি’র শুটিং শেষে সৌদিকে শাহরুখের ধন্যবাদ বলিউড কিং শাহরুখ খান। ছবি: সংগৃহীত
সম্প্রতি সিনেমাটির সৌদি আরবের শিডিউলের শুটিং শেষ করেছেন শাহরুখ। এক ভিডিও বার্তায় এ তথ্য নিজেই জানিয়েছেন তিনি। সঙ্গে দেশটির আতিথেয়তায় মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন কিং খান।

দীর্ঘ বিরতির পর পর্দায় ফিরতে যাচ্ছেন বলিউড কিং শাহরুখ খান। একসঙ্গে তিনটি সিনেমার কাজ করছেন তিনি। এর মধ্যে অন্যতম খ্যাতিমান নির্মাতা রাজকুমার হিরানির পরিচালিত ডাঙ্কি

সম্প্রতি সিনেমাটির সৌদি আরবের শিডিউলের শুটিং শেষ করেছেন শাহরুখ। বুধবার এক ভিডিও বার্তায় এ তথ্য নিজেই জানিয়েছেন তিনি। সঙ্গে দেশটির আতিথেয়তায় মুগ্ধতা প্রকাশ করেছেন কিং খান।

ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা সেই ভিডিওতে শাহরুখ বলেন, ‘সৌদিতে ডাঙ্কির শুটিং শিডিউল শেষ করার চেয়ে সন্তোষজনক আর কিছু নেই। সৌদির সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়কে বিশেষভাবে ধন্যবাদ, আমাদেরকে এমন বিশেষ দর্শনীয় স্থান, আশ্চর্যজনক ব্যবস্থা এবং উষ্ণ আতিথেয়তার জন্য। সবাইকে অনেক বড় শুকরান (ধন্যবাদ)।’

সঙ্গে সিনেমাটি পরিচালক রাজকুমার হিরানি ও কাস্টদেরও ধন্যবাদ জানান কিং খান।

View this post on Instagram

A post shared by Shah Rukh Khan (@iamsrk)

অভিবাসন নিয়ে নির্মিত হচ্ছে ডাঙ্কি। এতে শাহরুখের সঙ্গে রয়েছেন তাপসী পান্নু।

সিনেমাটির প্রযোজক শাহরুখ পত্নী গৌরী খান। এর কাহিনি লিখেছেন অভিজাত জোশী, রাজকুমার হিরানি এবং কণিকা ধিলোন।

ডাঙ্কির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসে চলতি বছর এপ্রিলে, আগামী বছরের ২২ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে এটি।

আরও পড়ুন:
শাহরুখকে মুম্বাই বিমানবন্দরে থামিয়ে তল্লাশি
‘টাইগার থ্রি’তে দেখা দেবেন ‘পাঠান’
শাহরুখের ‘জওয়ান’-এর বিরুদ্ধে গল্প চুরির অভিযোগ
এবারও বুর্জ খলিফায় ভেসে উঠলেন শাহরুখ  
ভালোবাসার সমুদ্রে বেঁচে থাকাটা সুন্দর: শাহরুখ

মন্তব্য

বিনোদন
New Feluda is coming back on screen with new Jatayu Topse

নতুন জটায়ু-তোপসেকে নিয়ে পর্দায় ফিরছেন নতুন ফেলুদা

নতুন জটায়ু-তোপসেকে নিয়ে পর্দায় ফিরছেন নতুন ফেলুদা ফেলুদা চরিত্র ইন্দ্রনীল, পেছনে বসে আছেন জটায়ু ও তোপসে চরিত্রের অভিনেতা। ছবি: ট্রেইলার থেকে নেয়া
সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সন্দীপ রায়। সিনেমাটির কাস্টিং নিয়ে দর্শকদের মধ্যে ছিল মিশ্র প্রতিক্রিয়া। কারও পছন্দ হলেও চরিত্রাভিনেতাদের পছন্দ হয়নি অনেকেরই।

ছয় বছর পর বড় পর্দায় ফিরছে ফেলুদা। নতুন সিনেমাটির নাম হত্যাপুরী। গত ৩০ নভেম্বর প্রকাশ পেয়েছে সিনেমার ট্রেইলার।

সেখানে পাওয়া গেল নতুন ফেলুদাকে। হত্যাপুরী সিনেমায় ফেলুদা চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত। বাংলা গোয়েন্দাগল্পের আইকনিক এই চরিত্রটিতে এবারই প্রথম অভিনয় করছেন তিনি।

শুধু ফেলুদা নয় পাল্টে গেছে জটায়ু, তোপসেও। জটায়ু চরিত্রে অভিজিত গুহ এবং তোপসে চরিত্রে অভিনয় করেছেন আয়ুষ দাস। একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে আছেন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সন্দীপ রায়। সিনেমাটির কাস্টিং নিয়ে দর্শকদের মধ্যে ছিল মিশ্র প্রতিক্রিয়া। কারও পছন্দ হলেও চরিত্রাভিনেতাদের পছন্দ হয়নি অনেকেরই।

এ নিয়ে নির্মাতা সন্দীপ রায় ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘এই ফেলুদা অ্যান্ড কোম্পানি আমার তো দারুণ লেগেছে। জমজমাট টিমের জমজমাট ছবি। আশা করি ফেলুদা ভক্তদের ভালো লাগবে। তারা ভালোভাবেই গ্রহণ করবেন এই ছবি। টিজারের ফিডব্যাক তো ভালোই পেয়েছি, এখন দেখা যাক ট্রেইলার দেখে কেমন প্রতিক্রিয়া আসে।’

২৩ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে হত্যাপুরী সিনেমা। পুরীতে হবে এবার রহস্যের সমাধান।

আরও পড়ুন:
চলচ্চিত্রকে সময়োপযোগী করতে ‘ক্রিয়েটিভ সামিট’-এর উদ্যোগ
সিনেমা-সংকটে সাময়িক বন্ধ হচ্ছে ‘মধুমিতা’
দৃশ্য কাটার শর্তে ‘জয়ল্যান্ড’-এর নিষেধাজ্ঞা তুলল পাকিস্তান
রাহেলা-সালেহা চরিত্র যুদ্ধে নারীদের ওপর নৃশংসতার প্রতিফলন
আইএফএফআই’র প্রতিযোগিতায় দেশের একটিসহ তিন সিনেমা

মন্তব্য

বিনোদন
Nisho director Rafi is coming to the big screen

বড় পর্দায় আসছেন নিশো, পরিচালক রাফি

বড় পর্দায় আসছেন নিশো, পরিচালক রাফি অভিনেতা আফরান নিশো (বাঁয়ে) এবং পরিচালক রায়হান রাফি (ডানে)। ছবি: সংগৃহীত
অভিনেতা নিশো আরও বলেন, ‘স্ক্রিপ্ট, গল্প, শুটিং সবকিছু খুব ভালোভাবে হলে একটা ভালো কাজ আমরা দিতে পারবো। আমাদের ডেডিকেশন, মেধা, একাগ্রতা নিয়ে যদি আমরা চেষ্টা করি তাহলে কাজটা বৃথা যাবে না।’

বড় পর্দায় কবে আসবেন নিশো? এ প্রশ্ন গত কয়েক বছরে অসংখ্যবার শুনতে হয়েছে জনপ্রিয় অভিনেতা নিশোর। উত্তরে নিশো সব সময় প্রস্তুতির কথা বলে এসেছেন। এবার সেই প্রস্তুতি নেয়া শেষ হয়েছে, বড় পর্দায় আসতে প্রস্তুত নিশো।

বড় পর্দায় নিশোর অভিষেক হবে পরাণ খ্যাত পরিচালক রায়হান রাফির হাত ধরে। নিশোকে নিয়ে সুড়ঙ্গ নামের সিনেমাটি নির্মাণ করবেন রাফি।

বুধবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম চরকি। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় প্রথমবারের মতো ওটিটি প্ল্যাটফর্ম চরকি ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আলফা আই স্টুডিওজ লি: এর যৌথ প্রযোজনায় প্রেক্ষাগৃহে আসতে যাচ্ছে সুড়ঙ্গ সিনেমাটি।

রায়হান রাফি পরিচালিত সিনেমাটিতে নিশোর বিপরীতে থাকছেন অভিনেত্রী তমা মির্জা। সিনেমাটির চিত্রধারণ দ্রুতই শুরু হবে বলে জানানো হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে। আগামী বছরের কোনো একটা ঈদে সিনেমাটি মুক্তি পাবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিজ্ঞপ্তিতে আফরান নিশো বলেন, ‘আমরা খুব ক্যাজুয়ালি কাজটার জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়নি। আমরা বিভিন্ন সেক্টরের কিছু মানুষ এক হয়েছি একটা ভালো কাজ করার জন্য। এর আগেও আমাদের মধ্যে বন্ধুত্ব ছিল, পরিচয় ছিল, কেউ কেউ এক সঙ্গে কাজ করেছি আবার কেউ কোনো কাজ করিনি।

‘বড় পর্দার জন্য আমার প্রথম চুক্তিবদ্ধ হওয়া। আলফা আইয়ের শাকিলের জন্যও এটা প্রথম কোনো বড় পর্দার কাজ। চরকি এর আগেও প্রেক্ষাগৃহে সিনেমা মুক্তি দিয়েছে তবে যৌথভাবে কোনো সিনেমার জন্য এই প্রথম। অঙ্কটা মেলাতে চাই এভাবে- আমি, আলফা আই, চরকি, রাফি, তমা সবাই একত্রিত হয়েছি বিগ স্ক্রিনের জন্য।’

অভিনেতা নিশো আরও বলেন, ‘স্ক্রিপ্ট, গল্প, শুটিং সবকিছু খুব ভালোভাবে হলে একটা ভালো কাজ আমরা দিতে পারবো। আমাদের ডেডিকেশন, মেধা, একাগ্রতা নিয়ে যদি আমরা চেষ্টা করি তাহলে কাজটা বৃথা যাবে না।’

চিত্রনায়িকা তমা মির্জা বলেন, ‘করোনার পরে আবার বড় পর্দার জন্য কাজ করতে যাওয়াটা আনন্দের। সেই সঙ্গে আমার সব থেকে কাছের মানুষ ও বন্ধু রাফির সঙ্গে কাজ করাটাও আমার প্রাপ্তি।

‘আর শুধু তো রাফি, আমি না, নিশো ভাইয়ের মত কো-আর্টিস্ট! এটা চিন্তাই করা যায় না। অনেকের ড্রিম থাকে নিশো ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করার। তো সে জায়গা থেকে নিশো ভাইয়ের সঙ্গে বড় পর্দায় কাজ করার এবং তার ফার্স্ট মুভিতে তার সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করা, আমি মনে করি এটা আমার জন্য অনেক বড় একটা ব্লেসিংস।’

পরিচালক রায়হান রাফি বলেন, ‘সুড়ঙ্গ আমার আরেকটা বড় ও স্বপ্নের কাজ হতে যাচ্ছে। এটার গল্প আমি বেশ আগে ভেবেছিলাম। চরকিকে প্রথম থেকেই আমি বলেছি যে সুড়ঙ্গ বড় পর্দার জন্যই আমি বানাতে চাই। ধীরে ধীরে যুক্ত হলেন শাহরিয়ার শাকিল। নিশো ভাইকে বছর খানেক আগে আমি গল্পটা শুনিয়েছিলাম। উনি শুনে পছন্দ করেন। সেই সঙ্গে যুক্ত হলেন তমা মির্জা। কাজটা নিয়ে এখন আমরা পরিকল্পনা করছি, জলদি শুটিং শুরু হবে।’

আলফা আই স্টুডিওজ লি: এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার শাকিল বলেন, ‘সুড়ঙ্গ আমার জন্য এটা একটা বড় ঘটনা। রায়হান রাফির পরিচালনা, নিশোর প্রথম সিনেমা সেই সঙ্গে তমা মির্জা, দুর্দান্ত একটা প্যাকেজ হবে সিনেমাটি। দর্শকেরও উত্তেজনা তুঙ্গে থাকবে। কারণ অনেকগুলো ব্যাপার একসঙ্গে ঘটতে যাচ্ছে। আমি তো এক্সাইটেড, এর পাশাপাশি রেসপন্সিবিলিটি বেশি মনে হচ্ছে। সব মিলিয়ে সিনেমাটা ঠিকঠাক তৈরি করা এবং দর্শকের কাছে পৌঁছে দেয়া একটা দায়িত্বের জায়গায় চলে গেছে।’

চরকির প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা রেদওয়ান রনি বলেন, ‘চরকি বাংলদেশের সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির জন্য একটা বড় উদ্যোগ নিয়েছে। চরকি প্রতিবছর বড় সিনেমা প্রযোজনার সঙ্গে যুক্ত থাকবে। সেই ধারাবাহিকতায় সুড়ঙ্গ এর সঙ্গে চরকির যুক্ত হওয়া।’

মন্তব্য

বিনোদন
Sanjay Samdars film Manoor on Jeet

জীৎকে নিয়ে সঞ্জয় সমাদ্দারের সিনেমা ‘মানুষ’

জীৎকে নিয়ে সঞ্জয় সমাদ্দারের সিনেমা ‘মানুষ’ জীতকে নিয়ে সঞ্জয় সমদ্দরের সিনেমা ‘মানুষ’। ছবি কোলাজ: নিউজবাংলা
সঞ্জয় জানান, এটি সম্পূর্ণ কলকাতার প্রোডাকশনের সিনেমা। জীৎ, গোপাল মান্দানি এবং অমিত জুমরানির প্রযোজনায় এটি নির্মিত হবে।

কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেতা জীৎকে নিয়ে সিনেমা পরিচালনা করতে যাচ্ছেন দেশের নামকরা নবীন নির্মাতা সঞ্জয় সমাদ্দার। সিনেমাটির নাম মানুষ। সিনেমাটির গল্পও তার।

বুধবার সন্ধ্যায় নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পরিচালক নিজেই।

সঞ্জয় নিউজবাংলাকে বলেন, ‘মানুষ মূলত মানুষেরই গল্প। অন্যভাবে বলা যায় এটা ফেট অ্যান্ড ফাইটের গল্প।’

সিনেমায় জীৎ ছাড়াও অভিনয় করবেন জিতু কমল। সিনেমার শুটিং কবে হবে সেটা এখনও চূড়ান্ত না বলে জানান সঞ্জয়। সিনেমায় কোন অভিনেত্রী অভিনয় করবেন তা এখনই জানাতে চাননি তিনি।

সঞ্জয় জানান, এটি সম্পূর্ণ কলকাতার প্রোডাকশনের সিনেমা। জীৎ, গোপাল মান্দানি এবং অমিত জুমরানির প্রযোজনায় এটি নির্মিত হবে। তাই বাংলাদেশের কোনো অভিনয়শিল্পীকে এ সিনেমায় দেখা যাবে না।

বুধবার সন্ধ্যায় জিৎ তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজ থেকে সিনেমাটির টাইটেল পোস্টার শেয়ার করেছেন। যার ক্যাপশনে লেখা, ‘যখন পশু হয়ে যায়’।

মন্তব্য

বিনোদন
Maid in Chittagong opens in Dhaka Narayanganj Rangamati Khagrachari closes

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জে আসছে ‘মেইড ইন চিটাগং’

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জে আসছে ‘মেইড ইন চিটাগং’ পার্থ বড়ুয়া এবং অপর্ণা ঘোষ। ছবি: সংগৃহীত
কমেডি ঘরানার এ সিনেমায় উঠে এসেছে মেজবান, জব্বারের বলীখেলা, বেলা বিস্কুটের প্রেম নিয়ে হাস্যরসে ভরপুর চট্টগ্রামের আঞ্চলিক সংস্কৃতি।

জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী পার্থ বড়ুয়া অভিনীত মেইড ইন চিটাগং সিনেমাটি চট্টগ্রামে মুক্তির পর এবার আসছে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে। ১৮ নভেম্বর চট্টগ্রামের সুগন্ধা ও সিলভার স্ক্রিনে মুক্তি পায় সিনেমাটি।

আগামী ২ ডিসেম্বর থেকে ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্স (পান্থপথ শাখা) ও ব্লকবাস্টার সিনেমাসে (যমুনা ফিউচার পার্ক) মুক্তি পাবে মেইড ইন চিটাগং

এ ছাড়াও নারায়ণগঞ্জের জয় সিনেমাসেও দেখা যাবে সিনেমাটি। নতুন বছরের জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে সিনেমাটি যাবে দেশের বাইরে।

সিনেমাটির প্ল্যাটফর্ম প্রডিউসার বিঞ্জ এর জেনারেল ম্যানেজার হাসিবুল হাসান সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে হাসিবুল হাসান বলেন, ‘চট্টগ্রামে সিনেমাটি দুই সপ্তাহ ধরে চলছে। চট্টগ্রামের বিভাগের রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়ির হলগুলো বন্ধ ছিল। এ সিনেমার মাধ্যমে প্রেক্ষাগৃহগুলো চালু হচ্ছে। ২ ডিসেম্বর থেকে ওই হলগুলোতে চলবে সিনেমাটি।’

চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় নির্মিত সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন ইমরাউল রাফাত। কমেডি ঘরানার এ সিনেমায় উঠে এসেছে মেজবান, জব্বারের বলীখেলা, বেলা বিস্কুটের প্রেম নিয়ে হাস্যরসে ভরপুর চট্টগ্রামের আঞ্চলিক সংস্কৃতি।

সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন অপর্ণা ঘোষ চিত্রলেখা গুহ, সাজু খাদেম, নাসির উদ্দিন খানসহ অনেকে।

আরও পড়ুন:
‘মেইড ইন চিটাগং’ মুক্তি শুধু চট্টগ্রামে

মন্তব্য

বিনোদন
Omar Farooqs mother based on the true story

সত্য ঘটনার ছায়া অবলম্বনে ‘ওমর ফারুকের মা’

সত্য ঘটনার ছায়া অবলম্বনে ‘ওমর ফারুকের মা’ অভিনেত্রী দিলারা জামান। ছবি: সংগৃহীত
গল্পটি পিরোজপুর জেলার আমড়াঝুড়ি কাউখালী উপজেলার আশোয়া আমড়াঝুড়ি নামক স্থানের ওমর ফারুক ও তার মায়ের গল্প।

মহান মুক্তিযুদ্ধের একটি সত্য ঘটনার ছায়া অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ওমর ফারুকের মা। নাট্যকার মাসুম রেজার চিত্রনাট্যে স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন এম এম জাহিদুর রহমান (বিপ্লব)। সিনেমাটি ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত।

গল্পটি পিরোজপুর জেলার আমড়াঝুড়ি কাউখালী উপজেলার আশোয়া আমড়াঝুড়ি নামক স্থানের ওমর ফারুক ও তার মায়ের গল্প।

সত্য ঘটনার ছায়া অবলম্বনে ‘ওমর ফারুকের মা’

বুধবার পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সিনেমায় ওমর ফারুক ২১ বছরের যুবক, স্বাধীনতার দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন। ১৯৭১ সালের ২৩ মার্চ পিরোজপুরের টাউন ক্লাব চত্বরে স্বাধীন বাংলার পতাকা উত্তোলন করেন ওমর ফারুক।

এক সন্ধ্যায় অন্য মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে নিয়ে পিরোজপুরের ট্রেজারি ভেঙে লুট করেন অস্ত্র। আত্মগোপনে থেকে সুসংগঠিত করতে থাকেন মুক্তিযোদ্ধাদের। যুদ্ধের এক রাতে ফিরে ভাত খাবে বলে মাকে কথা দিয়ে যায় ওমর ফারুক। সেই রাত্রে সে পাক বাহিনীর হাতে ধরা পড়েন ওমর।

সত্য ঘটনার ছায়া অবলম্বনে ‘ওমর ফারুকের মা’

সিনেমায় মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দিলারা জামান, ওমর ফারুকের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সাঈদ বাবু। আরও আছেন বন্যা মির্জা, সাহেদ শরীফ খান, খাইরুল আলম সবুজ, নাজনীন হাসান চুমকি, সালমা রহমান, আইনুন পুতুল, রিপন চৌধুরী, কাজী রাজু, সৈয়দ শুভ্রসহ অনেকে।

শনিবার বিকেলে বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভে এই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটির প্রিমিয়ার শো এর আয়োজন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:
গোয়া উৎসব ও বাজারে প্রভাব ফেলেছে বাংলাদেশ
কলকাতার রাজনৈতিক গল্পের সিনেমায় ফেরদৌস-রোশান
ভারতীয় উৎসবে বাংলাদেশের সিনেমা দেখতে দর্শকের ভিড়
জগজা নেটপ্যাকে দেশের সিনেমা ‘আম-কাঁঠালের ছুটি’
চলচ্চিত্রকে সময়োপযোগী করতে ‘ক্রিয়েটিভ সামিট’-এর উদ্যোগ

মন্তব্য

বিনোদন
The jury has finished watching the film for the National Film Award

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের সিনেমা দেখা শেষ করলেন জুরিরা

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের সিনেমা দেখা শেষ করলেন জুরিরা প্রতীকী ছবি
পূর্ণদৈর্ঘ্য, স্বল্পদৈর্ঘ্য ও প্রামাণ্যচিত্র মিলিয়ে ৪৫ থেকে ৪৭টি সিনেমা দেখেছেন জুরিরা। সিনেমাগুলোকে মার্কিং করে জমাও দিয়েছেন।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের জন্য বাছাই করা সিনেমাগুলো দেখা শেষ করেছেন জুরিরা।

চলচ্চিত্র নির্মাতা ও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের জুরি মোরশেদুল ইসলাম নিউজবাংলাকে বিষয়টি জানিয়েছেন।

২০২১ সালে মুক্তি পাওয়া চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে থেকে ২৮টি বিভাগে দেয়া হবে দেশের চলচ্চিত্রের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার।

সে লক্ষ্যে তথ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী গত ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ২০২১ সালে মুক্তি পাওয়া সিনেমা জমা দিয়েছেন প্রযোজকরা। সেসব সিনেমা দেখা শেষ হয়েছে। সেগুলো নম্বর দিয়ে জমাও দিয়েছেন জুরিরা।

রাজধানীর বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক অনুষ্ঠানে মোরশেদুল ইসলাম চার-পাঁচটি সিনেমার প্রশংসা করেন।

তিনি বলেন, ‘আমি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জুরি বোর্ডের সদস্য। জমা পড়া সব সিনেমা দেখতে হয়েছে। পাঁচ থেকে পাঁচটা সিনেমা বেশ ভালো লেগেছে।’

অনুষ্ঠান শেষে মোরশেদুল ইসলাম নিউজবাংলাকে বলেন, ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য, স্বল্পদৈর্ঘ্য ও প্রামাণ্যচিত্র মিলিয়ে ৪৫ থেকে ৪৭টা সিনেমা দেখেছি। আমরা সিনেমাগুলোকে মার্কিং করে জমাও দিয়ে দিয়েছি।’

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার কবে ঘোষণা করা হবে, তা এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

মন্তব্য

p
উপরে