× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
Gazi Mazharul Anwar in eternal sleep in Banani
hear-news
player
print-icon

বনানীতে চিরনিদ্রায় গাজী মাজহারুল আনোয়ার

বনানীতে-চিরনিদ্রায়-গাজী-মাজহারুল-আনোয়ার
কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সোমবার সকালে গাজী মাজহারুল আনোয়ারের কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সর্বস্তরের মানুষ। ছবি: নিউজবাংলা
কিংবদন্তি এই গীতিকার ও চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্বের মরদেহ সোমবার সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হয়। সেখানে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মরদেহ আনা হয় এফডিসিতে। সেখানে প্রথম নামাজে জানাযার পর গুলশানে আজাদ মসজিদে দ্বিতীয় দফা জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

কিংবদন্তি গীতিকার ও চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব গাজী মাজহারুল আনোয়ারকে বনানী কবরস্থানে সমাহিত করা হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় এই গীতিকারকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়েছে।

মরহুমের ছেলে সরফরাজ আনোয়ার উপল নিউজবাংলাকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপল বলেন, ‘আমিই বাবাকে কবরে নামিয়েছি। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলামসহ পরিবারের সদস্য ও স্বজনেরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।’

তিনি জানান, গাজী মাজহারুল আনোয়ারের মরদেহ সোমবার সকালে নেয়া হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। সেখানে তাকে গার্ড অফ অনার দেয়া হয়। সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা জানানো শেষে সেখান থেকে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মরদেহ নেয়া হয় এফডিসিতে। সেখানে প্রথম জানাজা শেষে মরদেহ নেয়া হয় চ্যানেল আইতে। পরে গুলশানে আজাদ মসজিদে জানাজা শেষে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয় গাজী মাজহারুল আনোয়ারকে।

বনানীতে চিরনিদ্রায় গাজী মাজহারুল আনোয়ার
সোমবার সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গাজী মাজহারুল আনোয়ারকে গার্ড অফ অনার দেয়া হয়। ছবি: নিউজবাংলা

রোববার সকাল ৭টা ৫৫ মিনিটে মারা যান গাজী মাজহারুল আনোয়ার। তার আগে সকালে তিনি বাথরুমে পড়ে যান। দ্রুত হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। গ্যাসের সমস্যাসহ শারীরিক নানা সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি।

গাজী মাজহারুল আনোয়ারের বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর। জন্ম ১৯৪৩ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি। তিনি ২০০২ সালে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় পুরস্কার একুশে পদক ও ২০২১ সালে সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় মর্যাদা স্বাধীনতা পুরস্কার লাভ করেন।

কিংবদন্তি এই গীতিকার ২০ হাজারের বেশি গানের রচয়িতা। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন পাঁচবার।

সংবাদমাধ্যম বিবিসি বাংলার জরিপে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ২০টি বাংলা গানের তালিকায় রয়েছে তার লেখা তিনটি গান। গান তিনটি হলো- ‘জয় বাংলা বাংলার জয়...’, ‘একতারা তুই দেশের কথা বল রে এবার বল...’ ও ‘একবার যেতে দে না...’।

১৯৬৪ সালে রেডিওতে গান লেখা শুরু শুরু করেন গাজী মাজহারুল আনোয়ার। পাশাপাশি বাংলাদেশ টেলিভিশনের জন্মলগ্ন থেকেই সেখানে গান লিখেছেন। তিনি প্রথম চলচ্চিত্রের জন্য গান লেখেন ১৯৬৭ সালে ‘আয়না ও অবশিষ্ট’ চলচ্চিত্রের জন্য।

তার পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র নান্টু ঘটক মুক্তি পায় ১৯৮২ সালে। তার পরিচালিত চলচ্চিত্রের সংখ্যা ৪১টি।

বনানীতে চিরনিদ্রায় গাজী মাজহারুল আনোয়ার
দুই দফা নামাজে জানাযা শেষে গাজী মাজহারুল আনোয়ারকে সোমবার বিকেলে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হয়। ছবি: নিউজবাংলা

এই কিংবদন্তি একাধারে চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক, রচয়িতা, গীতিকার ও সুরকার। স্বাধীনতা ও দেশপ্রেম নিয়ে তিনি অসংখ্য কালজয়ী গান লিখেছেন।

গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা কালজয়ী গানগুলোর মধ্যে রয়েছে- ‘আছেন আমার মোক্তার আছেন আমার ব্যারিস্টার’, ‘গানের খাতায় স্বরলিপি লিখে’, ‘আকাশের হাতে আছে একরাশ নীল’, ‘শুধু গান গেয়ে পরিচয়’, ‘ও পাখি তোর যন্ত্রণা’, ‘ইশারায় শীষ দিয়ে’, ‘চোখের নজর এমনি কইরা’, ‘এই মন তোমাকে দিলাম’, ‘চলে আমার সাইকেল হাওয়ার বেগে’ ইত্যাদি।

আরও পড়ুন:
‘যুদ্ধের সময় গাজী মাজহারুলের গান শুনে অনুপ্রাণিত হতাম’
এফডিসিতে সংরক্ষণ হবে গাজী মাজহারুলের সৃষ্টিকর্ম
শহীদ মিনারে গাজী মাজহারুলকে শেষ শ্রদ্ধা
শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা, বনানীতে দাফন
গাজীর মরদেহ থাকবে হিমাগারে, পরিবার এলে সিদ্ধান্ত

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
A day long program on BTV on Prime Ministers birthday

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে বিটিভিতে দিনব্যাপী অনুষ্ঠান

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে বিটিভিতে দিনব্যাপী অনুষ্ঠান
জাতীয় জীবনের বহুক্ষেত্রে সাফল্য এসেছে তার সময়ে। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে বাংলাদেশ টেলিভিশনের অনুষ্ঠানসূচি সেজেছে নতুন সাজে। এদিন বিটিভিতে বেশ কয়েকটি বিশেষ অনুষ্ঠান সম্প্রচারিত হবে।

সংকট, চড়াই-উতরাই পেরিয়ে ৭৫ বছর অতিক্রম করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রীর ৭৬তম জন্মদিন। তার নেতৃত্বে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, খাদ্যে স্বনির্ভরতা, নারীর ক্ষমতায়ন, কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, গ্রামীণ অবকাঠামো, যোগাযোগ, জ্বালানি ও বিদ্যুৎ, বাণিজ্য, তথ্যপ্রযুক্তি খাতে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছে বাংলাদেশ।

জাতীয় জীবনের বহুক্ষেত্রে সাফল্য এসেছে তার সময়ে। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে বাংলাদেশ টেলিভিশনের অনুষ্ঠানসূচি সেজেছে নতুন সাজে। এদিন বিটিভিতে বেশ কয়েকটি বিশেষ অনুষ্ঠান সম্প্রচারিত হবে।

এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এমনটাই জানিয়েছে জাতীয় গণমাধ্যমটির অনুষ্ঠান বিভাগ। বিশেষ অনুষ্ঠান ‘কৃষকের হৃদয়ে শেখ হাসিনা’ প্রচারিত হবে সকাল ১০টা ১০ মিনিটে। বিশেষ অনুষ্ঠান ‘গম্ভীরা’ প্রচারিত হবে দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে। দুপুর ১ টা ৪০ মিনিটে প্রচারিত হবে কবিতা আবৃত্তির অনুষ্ঠান।

চলচ্চিত্র ‘হাসিনা: আ ডটার’স টেল’ প্রচারিত হবে দুপুর ৩টা ৩০ মিনিটে। কবিতা আবৃত্তির বিশেষ অনুষ্ঠান প্রচারিত হবে বিকাল ৫টা ৪৫ মিনিটে। সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে প্রচারিত হবে আলেখ্যানুষ্ঠান।

রাত সাড়ে ৮টায় প্রচার হবে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে বিশেষ তথ্যচিত্র ‘জয়তু মাননীয়’। রাত ৮টা ৪০ মিনিটে থাকছে বিশেষ সংগীতানুষ্ঠান ‘শুভ জন্মদিন দেশরত্ন’। রাত ১০টা ২০ মিনিটে থাকছে বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান ‘সাফল্যের সরকার’।

এছাড়াও দিনব্যাপি অনুষ্ঠানের ফাঁকে ফাঁকে প্রচারিত হবে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে শুভেচ্ছা কার্ড, গান ও ইনফোগ্রাফিক্স।

মন্তব্য

বিনোদন
Legal notice to actress Saba seeking compensation of Rs

কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে অভিনেত্রী সাবার আইনি নোটিশ

কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে অভিনেত্রী সাবার আইনি নোটিশ অভিনেত্রী সোহানা সাবা। ছবি: সংগৃহীত
নোটিশে ওই কনটেন্ট ব্যবহার বন্ধ এবং দুই কোম্পানির কাছে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে কোটি টাকা চাওয়া হয়েছে। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

অনুমতি ছাড়া ‘আড্ডা উইথ সোহানা সাবা’ নামের একটি কনটেন্ট ব্যবহার করায় ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে রবি অজিয়াটা লিমিটেডসহ দুটি কোম্পানিকে আইনি নোটিশ দিয়েছেন অভিনেত্রী সোহানা সাবা।

নোটিশে ওই কনটেন্ট ব্যবহার বন্ধ এবং দুই কোম্পানির কাছে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে কোটি টাকা চাওয়া হয়েছে। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

২৫ সেপ্টেম্বর অভিনেত্রী সোহানা সাবার পক্ষে এ নোটিশ দেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মুজিবুল কামাল।

রবি অজিয়াটাসহ তাদের ১২ কর্মকর্তা এবং এম/এস আইনস্টেক স্টুডিও বরাবর এ নোটিশ দেয়া হয়।

পরে এক বার্তায় সোহানা সাবা জানান, চার বছর আগে তারকালয় ‘আড্ডা উইথ সোহানা সাবা’ নামে একটি সেলিব্রিটি টক শোসহ নির্মাণ করেন। যা এম/এস আইনস্টেক স্টুডিস এবং রবি আজিয়াটা লিমিটেডসহ অনেক ডিজিটাল প্লাটফর্মে অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করছে।

সাবা মনে করেন, অনেকেই অর্থিকভাবে লাভবান হয়েছে। কিন্তু এটি তার কপিরাইট করা। এ দুটি কোম্পানি কোনো ধরনের সম্মতি ও লাইসেন্স ছাড়া অনুষ্ঠানগুলো অনলাইন এবং অফলাইন বিভিন্ন চ্যানেলে সম্পচার করেছে যা আইন অনুযায়ী কপিরাইট আইনের লঙ্ঘন।

সাবা বলেন, ‘৪ বছর ধরে ৪২টি পর্ব তৈরি করেছি। এগুলো তারা নিজেদের ইচ্ছা মতো ব্যবহার করে উচ্চ মুনাফা অর্জন করেছে। এটি দেশের আইন অনুযায়ী চুরিরও সামিল। উক্ত কনটেন্টগুলো থেকে আয় করা টাকা তারা আমাকে বুঝিয়ে দেয়নি। এ বিষয়ে অবগত হলে তাদের কাছে যাওয়ার পরও তারা আমার কথা শোনেনি।’

আরও পড়ুন:
সোহানা সাবার ৩ সিনেমা নতুন বছরে
ওয়েব সিরিজে দ্বৈত চরিত্রে সাবা

মন্তব্য

বিনোদন
Jacquelines interim bail

জ্যাকলিনের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন

জ্যাকলিনের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ। ছবি: সংগৃহীত
ইডি গত মাসে জ্যাকলিনের বিরুদ্ধে মামলায় চার্জশিট জমা দিলে অভিনেত্রী অভিযোগ করে বলেন, ইডির তদন্ত পদ্ধতি ভুয়া ও অন্যের মদতপুষ্ট।

অর্থ আত্মসাৎ মামলায় সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে নাম জড়ানোর পর এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) তলব করেছিল বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজকে। সুকেশের সঙ্গে সম্পর্কিত আরও অনেককেই থানায় ডেকেছিল দিল্লির আর্থিক অপরাধ দমন শাখা।

দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে ইডি। এর মধ্যেই ৩৭ বছর বয়সী জ্যাকলিন পেলেন অন্তর্বর্তীকালীন জামিন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

ইডি গত মাসে জ্যাকলিনের বিরুদ্ধে মামলায় চার্জশিট জমা দিলে অভিনেত্রী অভিযোগ করে বলেন, ইডির তদন্ত পদ্ধতি ভুয়া ও অন্যের মদতপুষ্ট।

এ অভিযোগ এনে অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের আপিল করেছিলেন দিল্লির একটি আদালতে। সেই আপিলের পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার জামিন মঞ্জুর হলো তার।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, অস্বীকার করার উপায় নেই যে জ্যাকলিনের ‘স্বপ্নের পুরুষ’ ছিলেন সুকেশ! ২০০ কোটি রুপির অর্থ আত্মসাৎ মামলায় তদন্তে নেমে এমন কথাই জানতে পেরেছে তদন্তকারী। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এও জানিয়েছিল, সুকেশকে বিয়েও করতে চেয়েছিলেন এ নায়িকা। সুকেশের অপরাধের কথা জেনেও তাকে ছেড়ে জাননি জ্যাকলিন।

আরও পড়ুন:
২০০ কোটি রুপি পাচার মামলায় জ্যাকলিনের বিরুদ্ধে চার্জশিট
জ্যাকলিনকে ফের জিজ্ঞাসাবাদ ইডির 
জ্যাকলিনের সঙ্গে বলিউডে অভিষেক হচ্ছে মিশেলের
ব্যক্তিগত মুহূর্তের আরেকটি ছবি ভাইরাল, বিশেষ অনুরোধ জ্যাকলিনের
জ্যাকুলিন-নোরাকে দেয়া সুকেশের উপহার বাজেয়াপ্ত

মন্তব্য

বিনোদন
One night at Prosenjits house

এক রাতে প্রসেনজিতের বাড়িতে

এক রাতে প্রসেনজিতের বাড়িতে অভিনেতা প্রসেনজিতের বাড়িতে দেশের অভিনয়শিল্পী ও কলাকুশলীরা। ছবি: সংগৃহীত
প্রসেনজিৎ ও চঞ্চলের একটি ছবি রয়েছে পোস্ট করা অ্যালবামে। ছবিটি দেখে মনে হচ্ছে দুই বাংলার দুই জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী একে অন্যকে ধরে গান গাইছেন এবং তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে করছেন অঙ্গভঙ্গি।

কলকাতার জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী প্রসেনজিতের বাড়িতে আমন্ত্রিত হয়েছিলেন এ দেশের কয়েকজন শিল্পী-কলাকুশলী। সেখানে রাতের খাবারের আমন্ত্রণ ছিল তাদের। আড্ডা-গানে প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে আমন্ত্রণ পর্বটি।

প্রসেনজিতের আমন্ত্রণে গিয়েছিলেন চঞ্চল চৌধুরী ও তার স্ত্রী-সন্তান, নাট্যকার-অভিনেত্রী দম্পতি বৃন্দাবন দাস, সাহনাজ খুশি ও তাদের দুই সন্তান, বিজরী বরকতুল্লাহ ও ইন্তেখাব দিনার দম্পতি এবং নির্মাতা শাওকি।

আমন্ত্রণ পর্বের কিছু ছবি রোববার রাতে ফেসবুকে পোস্ট করেন অভিনেত্রী বিজরী বরকতুল্লাহ। সেসব ছবিতে পাওয়া গেছে প্রসেনজিতের বাড়ির বাইরের ও ভেতরের দৃশ্য।

এক রাতে প্রসেনজিতের বাড়িতে
বাঁ থেকে- বাইরে থেকে প্রসেনজিতের বাড়ি, চঞ্চল চৌধুরীর সঙ্গে গান, বাড়ির ভেতরের কিছু অংশ। বিজরী বরকতুল্লাহর ফেসবুক থেকে

প্রসেনজিৎ ও চঞ্চলের একটি ছবি রয়েছে পোস্ট করা অ্যালবামে। ছবিটি দেখে মনে হচ্ছে দুই বাংলার দুই জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী একে অন্যকে ধরে গান গাইছেন এবং তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে করছেন অঙ্গভঙ্গি।

ছবিটি শেয়ার করে অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘সবার সঙ্গে ছবি তোলা শেষে আমাকে বললেন, চল বাবু... মনের মানুষ এ আমরা যেমন করে গানের সঙ্গে নাচতাম, সে রকম একটা ছবি তুলি।’

বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত মনের মানুষ সিনেমাটি ২০১০ সালে মুক্তি পায়। এতে একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন চঞ্চল ও প্রসেনজিৎ।

এক রাতে প্রসেনজিতের বাড়িতে
প্রসেনজিতের বাড়ির দেয়ালে রাখা ক্লাসিক সিনেমার পোস্টার। বিজরী বরকতুল্লাহর ফেসবুক থেকে

ছবির ক্যাপশনে বিজরী লিখেছেন, ‘একজন শিল্পীর বিনয় তাকে মানুষ হিসেবে অনেক উঁচুতে নিয়ে যায়। সেটি প্রমাণ করেছেন কলকাতার প্রথিতযশা জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (বুম্বাদা)। তার সৌহার্দ্যপূর্ণ ব্যবহার ও বিনয়ে আমরা মুগ্ধ হলাম।

এক রাতে প্রসেনজিতের বাড়িতে
প্রসেনজিতের বাড়ির একটি কক্ষ। ছবি: বিজরী বরকতুল্লাহর ফেসবুক থেকে

‘তিনি রাতের খাবারের আয়োজন করেছিলেন তার বাড়িতে আমাদের জন্য, মানে বাংলাদেশের কিছু শিল্পীর জন্য। চমৎকার সময় আমরা কাটিয়েছি তার বাড়িতে। ভীষণ পরিপাটি এবং শৈল্পিকতার ছোঁয়ায় পরিপূর্ণ এ বাড়িটির রয়েছে ঐতিহাসিক মর্যাদা। দারুণ একটি সময় কাটালাম আমরা।’

লেখার শেষ পর্যায়ে এমন আয়োজনের উদ্যোগ নেয়ার জন্য চঞ্চল চৌধুরীকে ধন্যবাদ দিয়েছেন বিজরী।

এক রাতে প্রসেনজিতের বাড়িতে
খাবার টেবিলে প্রসেনজিতের সঙ্গে দেশের অভিনয়শিল্পী ও কুশলীরা। ছবি: বিজরী বরকতুল্লাহর ফেসবুক থেকে

ভারতীয় ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচইয়ের ষষ্ঠ সিজনের প্রোজেক্ট ঘোষণার অনুষ্ঠানে অংশ নিতে কলকাতায় অবস্থান করছিলেন দেশের কয়েকজন অভিনয়শিল্পী, নির্মাতা ও কলাকুশলীরা।

আরও পড়ুন:
‘শিখো’তে যুক্ত হলেন চঞ্চল চৌধুরী
এটা স্বপ্নের মতো মনে হচ্ছে: চঞ্চল চৌধুরী
হাওয়ার জন্য বসুন্ধরায় ভিড়, চাপ নেই এসকেএসে
‘চঞ্চল চৌধুরীর ছেলে বলে খুব সহজে অভিনেতা হওয়া যাবে না’
খারাপ ফলে হতাশদের জন্য চঞ্চল আছেন

মন্তব্য

বিনোদন
Wifes smile with Shahrukhs picture

শাহরুখের ছবি নিয়ে স্ত্রীর মস্করা

শাহরুখের ছবি নিয়ে স্ত্রীর মস্করা ইনস্টাতে শেয়ার করা শাহরুখ খানের ছবি (বাঁয়ে) ও গৌরী খান। ছবি: সংগৃহীত
গৌরীর এমন মস্করায় মজা পেয়েছে নেটিজেনরা। অভিনেত্রী রিচা চাড্ডা শাহরুখের পোস্টের মন্তব্যের ঘরে লিখেছেন, ‘যাদের তাড়াতাড়ি বিয়ে হতে যাচ্ছে তাদের আরও সাবধান হতে হবে।’

খালি গায়ে পেশিবহুল শরীরের ছবি পোস্ট করেছেন শাহরুখ। রোববার সেই ছবি নিয়ে ঝড় ওঠে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। বলিউড বাদশাহ প্রতিনিয়ত আসেন না নেট দুনিয়ায়। কিন্তু যখন আসেন, একদম তোলপাড় করে ফেলেন।

নেটিজেনরা শাহরুখের ছবি শেয়ার করছেন, মন্তব্য করছেন। শাহরুখের স্ত্রী গৌরীও একটু মস্করা করার সুযোগ ছাড়েননি।

শাহরুখ তার সেই ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখেছিলেন, “আমি আমার শার্টকে: ‘তুমি থাকলে কেমন হতো? তুমি এ কথায় উদ্বিগ্ন হতে, এ কথায় কতই না হাসতে তুমি, তুমি থাকলে এমনটাই হতো।’ আমিও পাঠানের জন্য অপেক্ষা করে আছি।”

শাহরুখের এই পোস্টটাই নিজের ইনস্টা স্টোরিতে শেয়ার করছেন গৌরী খান। তাতে লিখলেন, ‘হায় সৃষ্টিকর্তা!!! এই মানুষটা এখন নিজের শার্টের সঙ্গেও কথা বলতে শুরু করেছে।’

গৌরীর এমন মস্করায় মজা পেয়েছে নেটিজেনরা। অভিনেত্রী রিচা চাড্ডা শাহরুখের পোস্টের মন্তব্যের ঘরে লিখেছেন, ‘যাদের তাড়াতাড়ি বিয়ে হতে যাচ্ছে তাদের আরও সাবধান হতে হবে।’ অক্টোবরে রিচা বিয়ে করছেন অভিনেতা আলি ফজলকে।

শাহরুখের ছবিতে দেখা যাচ্ছে কাউচের ওপরে আধশোয়া তিনি। বড় বড় চুল, খালি গা, তাতে সিক্স প্যাক পরিষ্কার।

এটি মূলত শাহরুখ খানের মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমা পাঠান এর লুক। ২০২৩ সালের ২৫ জানুয়ারি মুক্তি পাবে সিনেমাটি। সঙ্গে রয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন, জন আব্রাহামসহ অনেকে।

আটলির পরিচালনায় জাওয়ান আসবে জুন মাসে আর তাপসী পান্নুর সঙ্গে রাজকুমার হিরানির ডংকিতে শাহরুখ আসবেন বছরের শেষে। সব মিলিয়ে শাহরুখ ভক্তদের জন্য জমজমাট হতে চলেছে ২০২৩ সালটা।

আরও পড়ুন:
বাতিল হচ্ছে আমির-অক্ষয়ের সিনেমার হাজার শো
‘ভিক্যাট’কে হত্যার হুমকি
বলিউডের ঈদ
২৭ বছর পর এক সিনেমায় বলিউড ‘বাদশাহ-ভাইজান’!
১৮৭১ সালের প্রেক্ষাপটে বাবা-ছেলে রণবীর

মন্তব্য

বিনোদন
This is Saudi Idol

এবার সৌদি আইডল

এবার সৌদি আইডল  সৌদি আরবে শুরু হতে যাচ্ছে 'সৌদি আইডল' রিয়েলিটি শো
এ বছরের শেষ দিকেই ‘সৌদি আইডল’ নামের নতুন এই সংস্করণের সম্প্রচার শুরু হবে বলে জানিয়েছেন সৌদি আরবের জেনারেল এন্টারটেইনমেন্ট অথরিটির (জিইএ) চেয়ারম্যান তুর্কি আল-শেখ। সামনের মাসেই এর শুটিং কার্যক্রম শুরু হবে।

ইন্টারন্যাশনাল ‘আইডল’ টেলিভিশন ফ্র্যাঞ্চাইজি ট্যালেন্ট শোর নতুন সংস্করণ আসতে যাচ্ছে সৌদি আরবে।

এ বছরের শেষ দিকে ‘সৌদি আইডল’ নামের নতুন এই সংস্করণের সম্প্রচার শুরু হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির জেনারেল এন্টারটেইনমেন্ট অথরিটির (জিইএ) চেয়ারম্যান তুর্কি আল-শেখ।

শনিবার দেয়া এক ঘোষণায় এমনটাই জানিয়েছেন তিনি। সামনের মাসেই এর শুটিং কার্যক্রম শুরু হবে। আশা করা হচ্ছে, এই বছরের ডিসেম্বরেই প্রথম পর্বের সম্প্রচার সম্ভব হবে। আরবের জিইএ ও এমবিসি গ্রুপের সহযোগিতায় এই শো চালু হতে যাচ্ছে।

নতুন এই শো-এর মাধ্যমে সৌদি গায়ক-গায়িকা অন্বেষণ করা হবে। আর এর বিচারক হিসেবে থাকছেন সৌদি আরবের গায়ক আসিল আবু বকর, আরব আমিরাতের অভিনেত্রী ও গায়িকা আহলাম, সিরিয়ার গায়িকা আসালা ও সৌদি-ইরাকি সুরকার মাজিদ আল-মোহান্দিস।

অন্যান্য দেশের আইডলের মতো সৌদি আইডলেও থাকছে অডিশন রাউন্ড ও লাইভ পারফরম্যান্স রাউন্ড। প্রাথমিক বাছাইকৃত প্রতিযোগীরা অডিশন রাউন্ডে সুযোগ পাবেন সেখান থেকে বিচারকরা তাদের নির্বাচিত করলে পরের রাউন্ডে যাওয়ার সুযোগ পাবেন।

বৃটেনে ২০০১ সালে প্রথম শুরু হয় পপ আইডল। সেখান থেকে পুরো বিশ্বের ৫৬টি অঞ্চলে এর ফ্র্যাঞ্চাইজি রয়েছে। ২০১৪ সালে লেবাননে শুরু হয় মধ্যপ্রাচ্যের প্রথম আরব আইডল।

আরও পড়ুন:
মদিনায় স্বর্ণের খনি
‘মেয়ে জীবিত না মরে গেছে জানতাম না’
সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই ভাইসহ ৩ বাংলাদেশি নিহত

মন্তব্য

বিনোদন
Iranian Oscar Jayeer calls on the world to stand by the protesters

বিশ্ববাসীকে বিক্ষোভকারীদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান ইরানি অস্কারজয়ীর

বিশ্ববাসীকে বিক্ষোভকারীদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান ইরানি অস্কারজয়ীর  সাইপ্রাসে ইরানি দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভকারীরা। ছবি: সংগৃহীত
কুর্দি তরুণী মাহসা আমিনির মৃত্যুর পর পোশাকের স্বাধীনতার দাবিতে ছড়িয়ে পড়া আন্দোলনে সমর্থন জানাচ্ছেন ইরানের বিশিষ্টজনরা। এবার এই বিক্ষোভের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে বিশ্ববাসীকেও ইরানের বিক্ষোভকারীদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করার আহ্বান জানিয়েছেন দুইবারের অস্কার জয়ী ইরানি পরিচালক আসঘার ফারহাদি।

নৈতিকতা পুলিশের হেফাজতে মাহসা আমিনির মৃত্যুর ঘটনায় সৃষ্ট আন্দোলনে বিক্ষোভকারীদের পাশে দাঁড়িয়ে সংহতি জানাতে বিশ্ববাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দুইবারের অস্কার বিজয়ী ইরানি চলচ্চিত্র পরিচালক আসঘার ফারহাদি।

রোববার ইনস্টাগ্রামে দেয়া এক ভিডিও বার্তায় এ আহ্বান জানান তিনি।

এই সময় চলমান আন্দোলনে পুরুষদের পাশাপাশি প্রতিবাদে নেতৃত্ব দেয়া প্রগতিশীল ও সাহসী নারীদেরও প্রশংসা করেছেন তিনি।

ফারহাদি বলেন, ‘তারা এমন সাধারণ, অথচ মৌলিক অধিকার খুঁজছে যেগুলো রাষ্ট্র তাদের দিতে প্রত্যাখ্যান করেছে।

‘এই সমাজ, বিশেষ করে নারীরা, এই সময়ে এসে কঠোর ও বেদনাদায়ক পথ অতিক্রম করেছে এবং তারা স্পষ্টভাবেই একটি গন্তব্যে পৌঁছেছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি তাদের খুব কাছ থেকে দেখেছি, তারা ১৭ থেকে ২০ বছর বয়সী তরুণ-তরুণী।

বিশ্ববাসীকে বিক্ষোভকারীদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান ইরানি অস্কারজয়ীর
দুইবারের অস্কার জয়ী ইরানি পরিচালক আসঘার ফারহাদি

‘তারা যেভাবে রাস্তায় মিছিল করেছে, আমি তাদের মুখে ক্ষোভ ও আশা দেখেছি । সব বর্বরতাকে উপেক্ষা করে তাদের নিজেদের ভাগ্য বেছে নেয়ার অধিকারের দাবিতে তাদের স্বাধীনতার সংগ্রামকে আমি গভীরভাবে সম্মান করি।’

বিশ্ববাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি সারা বিশ্বের সব শিল্পী, চলচ্চিত্র নির্মাতা, বুদ্ধিজীবী, নাগরিক অধিকার কর্মীদের আহ্বান জানাচ্ছি, যারা মানবিক মর্যাদা ও স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে এবং তারা যাতে ইরানের শক্তিশালী ও সাহসী নারী-পুরুষের প্রতি সংহতি জানিয়ে ভিডিও প্রকাশ করে।’

মূলত জীবনঘনিষ্ঠ চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য পরিচিতি রয়েছে আসঘার ফারহাদির। ২০১১ সালে ‘এ সেপারেশন’ এবং ২০১৬ সালে ‘দ্য সেলসম্যান’ চলচ্চিত্রের জন্য বিদেশি ভাষা ক্যাটাগরিতে দুইবার অস্কার (অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড) জেতেন তিনি।

আমি তাদের মুখে ক্ষোভ ও আশা দেখেছি । সব বর্বরতাকে উপেক্ষা করে তাদের নিজেদের ভাগ্য বেছে নেয়ার অধিকারের দাবিতে তাদের স্বাধীনতার সংগ্রামকে আমি গভীরভাবে সম্মান করি।

এদিকে ‘সঠিক নিয়মে’ হিজাব না পরার অভিযোগে নৈতিকতা পুলিশের হাতে গ্রেপ্তারের পর ২২ বছরের মাহসা আমিনির মৃত্যুর ঘটনায় ক্ষোভের আগুনে জ্বলছে ইরান।

তেহরানসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় গত কয়েক দিনে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের ব্যাপক সংঘর্ষ চলছে।

নারীর পোশাকের স্বাধীনতার দাবিতে এই বিক্ষোভে নারীদের পাশাপাশি ইরানি পুরুষও যোগ দিয়েছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেক নারী নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী পোশাক পরার ঘোষণা দিয়ে ভিডিও পোস্ট করছেন।

বিশ্ববাসীকে বিক্ষোভকারীদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান ইরানি অস্কারজয়ীর
এ সেপারেশন ও দ্য সেলসম্যান চলচ্চিত্রের জন্য অস্কার পেয়েছিলেন আসঘার ফারহাদি

কুর্দি নারী মাহসা আমিনিকে ১৩ সেপ্টেম্বর তেহরানের নৈতিকতা পুলিশ গ্রেপ্তার করে। ইরানের দক্ষিণাঞ্চল থেকে তেহরানে ঘুরতে আসা মাহসাকে একটি মেট্রো স্টেশন থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, তিনি সঠিকভাবে হিজাব করেননি।

পুলিশ হেফাজতে থাকার সময়েই মাহসার হার্ট অ্যাটাক হয়, এরপর তিনি কোমায় চলে যান। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার তার মৃত্যু হয়। পুলিশ মাহসাকে হেফাজতে নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করলেও পরিবারের অভিযোগ গ্রেপ্তারের পর তাকে পেটানো হয়।

মাহসার মৃত্যুর প্রতিবাদে গত কয়েক দিন ধরেই উত্তাল ইরান। ইরানের বিভিন্ন জায়গায় নারীর পোশাকের স্বাধীনতার পক্ষে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষও চলছে।

আরও পড়ুন:
ইরানে পোশাকের স্বাধীনতার বিক্ষোভে মৃত্যু বেড়ে ৫০
ইরানের রাস্তায় এবার হিজাবপন্থিরা
ইরানে পোশাকের স্বাধীনতার বিক্ষোভে মৃত বেড়ে ২৬
হিজাবে রাজি হননি সিএনএনের আমানপোর, ইরানি প্রেসিডেন্টের সাক্ষাৎকার বাতিল
ইরানি সেনারা জনতার পক্ষ নিন: সাবেক ফুটবল তারকা

মন্তব্য

p
উপরে