× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
Partha Majumdar told Sonia that Tutul is not married
hear-news
player
print-icon

টুটুল বিয়ে করেননি সোনিয়াকে, জানিয়েছেন পার্থ মজুমদারকে

টুটুল-বিয়ে-করেননি-সোনিয়াকে-জানিয়েছেন-পার্থ-মজুমদারকে
সংগীতশিল্পী এস আই টুটুল। ছবি: সংগৃহীত
এ প্রসঙ্গে পার্থ মজুমদারের কাছে জানতে চাইলে তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, ‘টুটুলের সেখানে অনেক পরিশ্রম করে থাকতে হচ্ছে। ওর পাশে কেউ নেই। সে মানসিকভাবেও বিপর্যস্ত। টুটুল ভালো নেই।’

শারমিন সিরাজ সোনিয়াকে বিয়ে করেননি সংগীতশিল্পী এস আই টুটুল, বুধবার ফোনে এ কথা টুটুল জানিয়েছেন সংগীতশিল্পী পার্থ মজুমদারকে।

সন্ধ্যায় নিউজবাংলার সঙ্গে আলাপকালে পার্থ এ কথা জানান। তিনি বলেন, ‘আজকে (বুধবার) টুটুলের সঙ্গে কথা হয়েছে। তার ভাষ্যমতে, টুটুল এখনও সোনিয়াকে বিয়ে করেনি। বিয়ে করার সম্ভাবনা আছে বলে জানিয়েছে আমাকে।’

এস আই টুটুল এখন আছেন আমেরিকায়। সেখানে তিনি শারমিন সিরাজ সোনিয়াকে বিয়ে করেছেন বলে সংবাদ প্রকাশ হয় গত জুলাইয়ের ১৮ তারিখে। সম্প্রতি দেশের কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানানো হয়, টুটুল-সোনিয়া আলাদা থাকছেন। ‘টুটুল লাপাত্তা’ বলেও জানানো হয় একাধিক সংবাদে।

এ প্রসঙ্গে পার্থ মজুমদারের কাছে জানতে চাইলে তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, ‘টুটুলের সেখানে অনেক পরিশ্রম করে থাকতে হচ্ছে। ওর পাশে কেউ নেই। সে মানসিকভাবেও বিপর্যস্ত। টুটুল ভালো নেই।’

পার্থ জানান, তিনি কোনো একটি সংবাদে পড়েছেন যে সোনিয়ার কাছ থেকে জোর করে অর্থ নেয়ার চেষ্টা করেছেন টুটুল। বিষয়টি পার্থর একদমই ভালো লাগেনি।

পার্থ বলেন, ‘টুটুলকে আমি যতটুকু চিনি, সে এ রকম মানসিকতার না। তার পরও অনেক কিছুই হতে পারে। তাই আমি টুটুলকে জিজ্ঞেস করেছিলাম যে তুমি কি জোর করে অর্থ নেয়ার চেষ্টা করেছ?’

টুটুল উত্তরে পার্থকে বলেন, ‘আমেরিকায় আমার তিনটা শোর অর্থ সোনিয়ার কাছে জমা আছে। তাছাড়া আমি নিজেও আমার কিছু অর্থ তার কাছে জমা রেখেছি।’

মঙ্গলবার ফেসবুক স্ট্যাটাসও দেন পার্থ মজুমদার। দীর্ঘ স্ট্যাটাসে টুটুলের সঙ্গে পার্থর আলাপচারিতার কিছু কথা তুলে ধরে পার্থ লেখেন, ‘আমি টুটুলকে সরাসরি প্রশ্ন করেছি, তুমি কি বিয়ে করেছ? ও আমাকে বলেছে, না করিনি, তবে হয়তো করব।

‘আমার কাছে তার লেখা আছে, কথা আছে, কিন্তু কারও বিশ্বাস করে লেখা নিজের একান্ত কথা প্রকাশ করার মতো বেইমানি আর কিছু নাই। তাই সে কাজটি করলাম না। আমি ওকে (টুটুল) বলেছি, বিয়ে করলে করেছ, না করলে করেছ, তা একান্ত তোমার ব্যাপার।

‘ও (টুটুল) আমাকে বলেছে, দাদা আমি করি নি। আমি অন্তত তোমাকে মিথ্যা কথা বলব না।’

সংগীতশিল্পী ও গণমাধ্যমকর্মী তানভীর তারেকের ফেসবুক স্ট্যাটাস দেয়ার ফলে ১৮ জুলাই টুটুল বিয়ে করেছেন বলে সংবাদ প্রকাশ হয়। তানভীর তারেক লেখেন, ‘অভিনন্দন নববিবাহিত যুগলকে। এস আই টুটুল দম্পতির প্রতি ভালোবাসা। ভালো থাকো তোমরা। সুখে কাটুক একটা জীবন।’

এসব বিষয় নিয়ে টুটুলের হোয়াটসঅ্যাপে চেষ্টা করে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

টুটুল-সোনিয়ার বিয়ের খবরটি প্রকাশের পাশাপাশি এও জানা যায় যে, টুটুল-তানিয়ার ২২ বছরের সংসার ভেঙেছে। সে সময় বিষয়টি নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেন তানিয়া আহমেদ।

আরও পড়ুন:
তানিয়ার সঙ্গে সংসার চুকিয়ে সোনিয়ার ঘরে টুটুল

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
Transfer to Ronnies cabin

রনিকে কেবিনে স্থানান্তর

রনিকে কেবিনে স্থানান্তর জনপ্রিয় কৌতুকাভিনেতা আবু হেনা রনি। ছবি: সংগৃহীত
পার্থ শংকর পাল বলেন, ‘তাদের দুজনের শরীরেই আজ ড্রেসিং করা হয়েছে। বেলা ২টায় তাদের কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। কেবিনে তাদের একটু আলাদা করে রাখা হয়েছে। তাদের আরও  কিছুদিন হাসপাতালে থাকতে হবে।’

গাজীপুর পুলিশ লাইনসে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে দগ্ধ কৌতুকাভিনেতা আবু হেনা রনি ও পুলিশ সদস্য জিল্লুর রহমানকে হাই ডিপেন্ডেন্সি ইউনিট (এইচডিইউ) থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের ডাক্তার পার্থ শংকর পাল শনিবার এ তথ্য জানান।

পার্থ শংকর পাল বলেন, ‘তাদের দুজনের শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে বেশ উন্নতি হচ্ছে। তারা কথা বলছেন। স্বাভাবিকভাবেই খাওয়া-দাওয়া করতে পারছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাদের দুজনের শরীরেই আজ ড্রেসিং করা হয়েছে। বেলা ২টায় তাদের কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। কেবিনে তাদের একটু আলাদা করে রাখা হয়েছে। তাদের আরও কিছুদিন হাসপাতালে থাকতে হবে।’

গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে গাজীপুর পুলিশ লাইনসে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) চতুর্থ বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে গ্যাস বেলুন থেকে বিস্ফোরণ ঘটে পাঁচজন আহত হন।

তাদের দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রনি ও পুলিশ সদস্য জিল্লুর রহমানকে ওইদিনই গাজীপুর থেকে ঢাকায় শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন:
বেলুন বিস্ফোরণ: ‘শঙ্কামুক্ত নন’ কৌতুক অভিনেতা রনি
বেলুন বিস্ফোরণে কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি দগ্ধ
বাঁচানো গেল না আগুনে দগ্ধ কলেজ প্রভাষককে
কেরানীগঞ্জে গ্যাস বিস্ফোরণে দগ্ধ: নাতির পর চলে গেলেন নানিও
কেরানীগঞ্জে গ্যাসের আগুনে দগ্ধ আরেকজনের মৃত্যু

মন্তব্য

বিনোদন
18 artists and two organizations received Shilpakala medals

শিল্পকলা পদক পেলেন ১৮ গুণী ও দুই সংগঠন

শিল্পকলা পদক পেলেন ১৮ গুণী ও দুই সংগঠন রাজধানীতে শিল্পকলা একাডেমিতে বৃহস্পতিবার পদক প্রদান অনুষ্ঠানে অতিথিদের সঙ্গে পদকপ্রাপ্তরা। ছবি: নিউজবাংলা
শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে বৃহস্পতিবার বিকেলে পদক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। নির্বাচিতদের হাতে পদক তুলে দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী।

বাঙালি জাতির প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রাম ও অর্জনে বরাবরই বিশেষ ভূমিকা রেখে এসেছেন এ দেশের শিল্পী ও সংস্কৃতিকর্মীরা। নাটক, সংগীত, নৃত্য, আবৃত্তি, চিত্রকর্মসহ শিল্পের সব শাখার মাধ্যমে তাদের অবদান অপরিসীম।

শিল্পের বিভিন্ন শাখায় এই অবদানের জন্য ১৮ গুণী ব্যক্তিত্ব ও দুটি সংগঠন পেলেন ২০১৯ ও ২০২০ সালের শিল্পকলা পদক।

শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় অনুষ্ঠিত হয় পদক বিতরণ অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন ও সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবুল মনসুর।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

অনুষ্ঠানে গুণীজনদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী।

২০১৯ সালে যারা শিল্পকলা পদক পেয়েছেন

নাট্যকলায় মাসুদ আলী খান, কণ্ঠসংগীতে হাসিনা মমতাজ, চারুকলায় আবদুল মান্নান, চলচ্চিত্রে অনুপম হায়াৎ, নৃত্যকলায় লুবনা মারিয়াম, লোকসংস্কৃতিতে শম্ভু আচার্য, যন্ত্রসংগীতে মো. মনিরুজ্জামান, ফটোগ্রাফিতে এম এ তাহের, আবৃত্তিতে হাসান আরিফ ও সৃজনশীল সাংস্কৃতিক সংগঠন ক্যাটাগরিতে ছায়ানট।

২০২০ সালে যারা পদক পেয়েছেন

নাট্যকলায় মলয় ভৌমিক, কণ্ঠসংগীতে মাহমুদুর রহমান বেনু, চারুকলায় শহীদ কবীর, চলচ্চিত্রে শামীম আখতার, নৃত্যকলায় শিবলী মোহাম্মদ, লোকসংস্কৃতিতে শাহ আলম সরকার, যন্ত্রসংগীতে মো. সামসুর রহমান, ফটোগ্রাফিতে আ ন ম শফিকুল ইসলাম স্বপন, আবৃত্তিতে ডালিয়া আহমেদ ও সৃজনশীল সাংস্কৃতিক সংগঠন ক্যাটাগরিতে দিনাজপুর নাট্য সমিতি।

‘শিল্পকলা পদক’প্রাপ্তদের প্রত্যেককে একটি করে স্বর্ণপদক, সনদ ও ১ লাখ টাকার চেক প্রদান করা হয়।

আলোচনা ও পদক প্রদান শেষে শিল্পকলা একাডেমির শিল্পীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় মনোরম সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

আরও পড়ুন:
শিল্পকলা পদক পাচ্ছেন ২০ গুণী ও সংগঠন
‘শিল্পকলা পদক’ এ মনোনীত ১৮ জন ও ২ সংগঠন

মন্তব্য

বিনোদন
Watch Football World Cup on Toffee

টফিতে দেখুন ফুটবল বিশ্বকাপ

টফিতে দেখুন ফুটবল বিশ্বকাপ বাংলালিংকের প্রধান কার্যালয় টাইগার্স ডেনে প্রেস কনফারেন্সে কর্মকর্তারা। ছবি: সংগৃহীত
দেশের ফুটবল প্রেমীরা যেকোনো নেটওয়ার্ক থেকে টফিতে বিশ্বকাপের ম্যাচগুলোর লাইভস্ট্রিমিং দেখতে পারবেন। গুগল প্লে ও অ্যাপ স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যাবে টফি অ্যাপ।

ডিজিটাল বিনোদনের প্ল্যাটফর্ম টফিতে আগামী ফুটবল বিশ্বকাপ লাইভস্ট্রিমিং করবে বাংলালিংক।

ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ কাতার ২০২২-এর লাইসেন্সড মোবাইল ব্রডকাস্টারের একক স্বত্ব পেয়েছে বাংলালিংক। কে স্পোর্টস-এর সঙ্গে একটি সাব-লাইসেন্সিং চুক্তির মাধ্যমে এই স্বত্ব নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। টফিতে আগামী ফুটবল বিশ্বকাপ লাইভস্ট্রিমিং করবে বাংলালিংক।

বাংলালিংকের প্রধান কার্যালয় টাইগার্স ডেনে বৃহস্পতিবার এক প্রেস কনফারেন্সে এই ঘোষণা দেয়া হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলালিংকের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার উপাঙ্গ দত্ত, চিফ করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান, কে স্পোর্টসের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার ফাহাদ মো. আহমেদ করিম।

দেশের ফুটবলপ্রেমীরা যেকোনো নেটওয়ার্ক থেকে টফিতে বিশ্বকাপের ম্যাচগুলোর লাইভস্ট্রিমিং দেখতে পারবেন। গুগল প্লে ও অ্যাপ স্টোর থেকে ডাউনলোড করা যাবে টফি অ্যাপ। এ ছাড়া বিশ্বকাপের রোমাঞ্চকর মুহূর্তগুলো উপভোগ করা যাবে https://toffeelive.com/ এবং টফির অ্যানড্রয়েড টিভি অ্যাপে।

বাংলালিংকের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার উপাঙ্গ দত্ত বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় এই খেলার আসরকে আমাদের ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে নিয়ে আসার লক্ষ্যে কে স্পোর্টসের সঙ্গে চুক্তি করতে পেরে আমরা আনন্দিত। এর মাধ্যমে আমরা দেশের প্রযুক্তি ব্যবহারকারী গ্রাহকদের নিজেদের মতো করে বিশ্বকাপ উপভোগের সুযোগ দিতে চাই।

‘মোবাইলে দেশের যেকোনো স্থান থেকে বিশ্বকাপ দেখার এক নতুন অভিজ্ঞতা পাবেন তারা। বাংলালিংকের গ্রাহকরা আমাদের সর্বোচ্চ গতির ফোরজি দিয়ে স্ট্রিমিং করতে পারবেন। দেশের সব ফুটবলপ্রেমী যাতে খেলা উপভোগ করতে পারে, তাই এই স্ট্রিমিং সার্ভিসটি সব নেটওয়ার্কের জন্য উন্মুক্ত করার পরিকল্পনা করছি আমরা। টফি টিভি অ্যাপের মাধ্যমে এটি উপভোগ করা যাবে অ্যানড্রয়েড টিভিতেও।’

কে স্পোর্টসের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার ফাহাদ মো. আহমেদ করিম বলেন, ‘ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ ২০২২-এর ডিজিটাল ব্রডকাস্টিংয়ের স্বত্বাধিকারী হিসেবে বাংলালিংকের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর আমাদের জন্য একটি আনন্দের ব্যাপার। বিপুলসংখ্যক ব্যবহারকারী ও নিরবচ্ছিন্ন স্ট্রিমিংয়ের কারণে টফি ফুটবলের এই বিশাল আসর লাইভস্ট্রিমিংয়ের জন্য উপযুক্ত একটি প্ল্যাটফর্ম। এটি দেশের ফুটবলপ্রেমীদের জন্য স্বাচ্ছন্দ্যে বিশ্বকাপের ম্যাচ দেখার এক দারুণ সুযোগ।’

বাংলালিংক বিশ্বকাপ চলাকালে গ্রাহকদের জন্য আরও বিভিন্ন সুবিধা নিয়ে আসবে বলেও জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

আরও পড়ুন:
কলম্বিয়ার ফুটবলার খেলানোয় বিশ্বকাপ নিয়ে শঙ্কায় ইকুয়েডর
২৬ জনের দলে জায়গা হলো না আলভেজ, জেসুসের
বাংলাদেশের বিপক্ষে পাকিস্তান দলের মেন্টর হেইডেন
প্রোটিয়া ও আফগানদের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ সাকিবদের
৩ বছর পর ইংল্যান্ড দলে হেইলস

মন্তব্য

বিনোদন
Mother daughter murder

মা-মেয়ের খুনসুটি

মা-মেয়ের খুনসুটি অভিনেত্রী বাঁধন ও তার মেয়ে সায়রা। ছবি: সংগৃহীত
মেয়ের সঙ্গে বাঁধনের রসায়ন আগে থেকেই ভালো। সিঙ্গেল মাদার হওয়ার কারণে একাই বড় বরছেন মেয়েকে। তাই নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়াটাও বেশ।

অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধনকে দেখা যায় ছবিতে। তিনি তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নানা মুহূর্তের ছবি প্রকাশ করেন। আড্ডা, অনুষ্ঠানের অংশ নেয়া, ফ্যাশন, সাজ-পোশাকসহ নানা সময়ের গল্প বলে সেই ছবিগুলো।

এসবের বাইরেও বাঁধনের জীবন আছে। একজন কর্মজীবী নারী হওয়ার পাশাপাশি তিনি একজন মা। বাঁধনের মেয়ের নাম সায়রা। তার বয়স ১২।

মেয়ের সঙ্গে বাঁধনের রসায়ন আগে থেকেই ভালো। সিঙ্গেল মাদার হওয়ার কারণে একাই বড় বরছেন মেয়েকে। তাই নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়াটাও বেশ।

মা-মেয়ের খুনসুটি
অভিনেত্রী বাঁধন ও তার মেয়ে সায়রা। ছবি: সংগৃহীত

সম্প্রতি এ অভিনেত্রী তার ফেসবুক অ্যাকউন্টে বেশ কিছু ছবি পোস্ট করেছেন। যেখানে নানা পোজে ধরা দিয়েছেন মা-মেয়ে। ছবিগুলো পোস্ট করে বাঁধন ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘মাই ওয়ার্ল্ড (আমার পৃথিবী)।’

মা-মেয়ের খুনসুটি
অভিনেত্রী বাঁধন ও তার মেয়ে সায়রা। ছবি: সংগৃহীত

একমাত্র মেয়েকে নিয়েই হয়তো মা’য়ের জগৎ হওয়ার কথা। এর আগে বিভিন্ন স্বাক্ষাৎকারে বাঁধন জানিয়েছেন, মেয়ে তাকে খুব ভালো বোঝে। মাঝে মাঝে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি বুঝতে পারে বাঁধনকে। আর সে জন্যই বাঁধন আরষ্ঠ হয়ে নয়, এগিয়ে যেতে পারছেন স্বমহিমায়।

আরও পড়ুন:
বলিউডের ‘খুফিয়া’য় বাঁধন
পরীমনিকে নিয়ে আমি চিন্তিত: বাঁধন
মুসকান জুবেরী হয়ে ওঠার গল্প শোনালেন বাঁধন
পিলে চমকানো সত্য জানাবেন বাঁধন!
‘মুসকানের মতো বাঁধনের প্রেমে পড়াও কঠিন’

মন্তব্য

বিনোদন
They became a couple at the festival

‘তারা বেঁচে থাকবেন আমাদের হৃদয়ে’

‘তারা বেঁচে থাকবেন আমাদের হৃদয়ে’ মিতা যুবরাজ উৎসবের পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত
উদ্বোধনী বক্তব্যে ফেরদৌসী মজুমদার বলেন, ‘ওপারে এই দুটি মানুষের ভালোবাসা অটুট থাকুক।’

অভিনেতা খালেদ খান অনেকের কাছে যুবরাজ নামে পরিচিত। তিনি মারা যান ২০১৩ সালে। খালেদের স্ত্রী মিতা হক। তিনি দেশের খ্যাতিমান রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী। ২০২১ সালে তিনি পারি জমান অদেখালোকে।

এই দুই গুণী মানুষকে যুগলরূপে পাওয়া গেল উৎসবে। খালেদ খান মারা যাবার পর যুবরাজ সংঘের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছিল ‘যুবরাজ’ উৎসব। মিতা হক মারা যাবার পর উৎসবে যুবরাজের সঙ্গে যুক্ত হলেন তিনি। যেন আজানায় আবারও জুটি বেঁধেছেন তারা, আর পৃথিবীতে হচ্ছে তার উৎসব।

উৎসব প্রসঙ্গে খালেদ খান-মিতা হকের মেয়ে ফারহিন খান জয়িতা বলেন, ‘শিল্পচর্চার পাশাপাশি খালেদ খান-মিতা হক সমাজ ও দেশ নিয়ে ভাবতেন। তারা তাদের সেই ভাবনা-দর্শনকে ছড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছেন বিভিন্নভাবে। এখন তারা নেই, তাতে যেন সেই ভাবনা ও দর্শনের ছড়িয়ে যাওয়া বন্ধ না হয়ে যায়। এজন্যই এ উৎসব।’

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমির নিশাত চত্বরের উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে আরিফ বাউল ও তার দলের বাউল গানের পরিবেশনের মাধ্যমে শুরু হয় মিতা যুবরাজ উৎসব।

‘তারা বেঁচে থাকবেন আমাদের হৃদয়ে’
প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে মিতা যুবরাজ উৎসব উদ্বোধন করেন ফেরদৌসী মজুমদার। ছবি: সংগৃহীত

প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে সন্ধ্যায় জাতীয় নাট্যশালায় উৎসব উদ্বোধন করেন বরেণ্য অভিনয়শিল্পী ফেরদৌসী মজুমদার।

‘বিবিধের মাঝে দেখো মিলন মহান অসাম্প্রদায়িকতা ও মিতা যুবরাজ’ স্লোগানে অনুষ্ঠিত আয়োজনে বক্তব্য রাখেন ফেরদৌসী মজুমদার, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নাসির উদ্দীন ইউসুফু, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি মফিদুল হক, অভিনয়শিল্পী সারা যাকের, নাট্যকার ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক রতন সিদ্দিকী।

উদ্বোধনী বক্তব্যে ফেরদৌসী মজুমদার বলেন, ‘ওপারে এই দুটি মানুষের ভালোবাসা অটুট থাকুক।’

মফিদুল হক বলেন, ‘এই উৎসবের মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের মধ্যে যুবরাজ ও মিতা হকের প্রতিবাদী চেতনাটি ছড়িয়ে যাবে।’

নাসির উদ্দীন ইউসুফ বলেন, ‘পরিবেশনার মাঝে তাদরে সাংস্কৃতিক বিশ্বাস ও দেশের প্রতি যে নিবেদন তা নতুন প্রজন্মের কাছে অনুসরণীয়।’

সারা যাকের বলেন, ‘মিতা যে সমাজকে চিন্তা করত সেই সমাজে সব ধর্মকে শ্রদ্ধা জানাবে সবাই।’

অধ্যাপক রতন সিদ্দিকী বলেন, ‘তারা বেঁচে থাকবেন আমাদের হৃদয়ে।’

‘তারা বেঁচে থাকবেন আমাদের হৃদয়ে’
মিতা যুবরাজ উৎসবে আলোচকেরা। ছবি: সংগৃহীত

বুলবুল ইসলাম ও লাইসা আহমেদ লিসা স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য রাখেন। এরপর নৃত্য পরিবেশন করেন র‍্যাচেল প্রিয়াংকা ও তার দল, সামিনা হোসেন প্রেমা, কস্তুরী মুখার্জি ও তার দল।

‘তারা বেঁচে থাকবেন আমাদের হৃদয়ে’
উৎসবে নৃত্য পরিচালনা করছে র‍্যাচেল প্রিয়াংকা ও তার দল। ছবি: সংগৃহীত

আবৃত্তি পরিবেশন করেন আসাদুজ্জামান নূর, সুবর্ণা মুস্তাফা ও জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়। মাসুম রেজার লেখা ‘আবছায়ায় যুবরাজ’ নামের একটি নাটক মঞ্চস্থ হয়। মোস্তাফিজ শাহীন নির্দেশিত নাটকে অভিনয় করেন ইস্তেখাব দিনার, রওনক হাসান, ত্রপা মজুমদার ও জ্যেতি সিনহা।

‘তারা বেঁচে থাকবেন আমাদের হৃদয়ে’
উৎসবে সংগীত ও আবৃত্তির আয়োজন। ছবি: সংগৃহীত

সবশেষে অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন ভারতের প্রখ্যাত শিল্পী শ্রীকান্ত আচার্য্য। গানের ফাঁকে ফাঁকে তিনি মিতা হককে নিয়ে কিছু স্মৃতিচারণ করে। তিনি জানান, তারা একে-অপরকে দোস্ত বলে সম্মোধন করতেন।

আরও পড়ুন:
মিতা হকের চল্লিশার টাকা গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে দান করলেন মেয়ে

মন্তব্য

বিনোদন
Balloon burst Comedian Ronnie is not immune

বেলুন বিস্ফোরণ: ‘শঙ্কামুক্ত নন’ কৌতুক অভিনেতা রনি

বেলুন বিস্ফোরণ: ‘শঙ্কামুক্ত নন’ কৌতুক অভিনেতা রনি জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি। ফাইল ছবি
শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন এস এম আইউব হোসেন জানান, শুক্রবার রাত থেকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে রনি ও জিল্লুরকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল। শনিবার সকাল ১০টার দিকে তাদের হাই ডিপেনডেন্সি ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়েছে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) চতুর্থ বর্ষপূর্তির অনুষ্ঠানে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে দগ্ধ কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি আশঙ্কামুক্ত নন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন এস এম আইউব হোসেন শনিবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, বিস্ফোরণে রনির শরীরের ২৪ শতাংশ পুড়ে গেছে। একই ঘটনায় জিল্লুর রহমান নামে একজনের দেহের ২০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।

আইউব জানান, শুক্রবার রাত থেকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এ দুজনকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছিল। আজ সকাল ১০টার দিকে তাদের হাই ডিপেনডেন্সি ইউনিটে (এইচডিইউ) স্থানান্তর করা হয়েছে।

রনি ও জিল্লুরের পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেন, ‘দুজনকেই আশঙ্কামুক্ত বলা যাবে না।’

গাজীপুর জেলা পুলিশ লাইনসে শুক্রবার বিকেলে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে রনিসহ পাঁচজন দগ্ধ ও আহত হন।

রনিকে বার্ন ইনস্টিটিউটে নিয়ে আসা সাদিক আল হাসান জানান, জিএমপির বর্ষপূর্তির অনুষ্ঠানে অভিনয় করতে গিয়েছিলেন এ কৌতুক অভিনেতা। সেখানে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরিত হয়। তখন পাশেই দাঁড়িয়ে থাকা রনিসহ অন্যরা দগ্ধ ও আহত হন।

বেলুন বিস্ফোরণ: ‘শঙ্কামুক্ত নন’ কৌতুক অভিনেতা রনি

দগ্ধদের শুরুতে গাজীপুরের তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দগ্ধের মাত্রা বেশি হওয়ায় সেখান থেকে রাতে ঢাকায় পাঠানো হয় রনি ও জিল্লুরকে।

আরও পড়ুন:
এসি বিস্ফোরণের পর হার্ট অ্যাটাকে নারীর মৃত্যু
কয়েল কারখানায় বিস্ফোরণে দগ্ধ ৫
যুক্তরাষ্ট্রে বিস্ফোরণে নিহত ৩, ক্ষতিগ্রস্ত ৩৯ বাড়ি
উত্তরায় গ্যারেজে বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭
সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে ৩ ভাই নিহত

মন্তব্য

বিনোদন
Comedian Abu Hena Rony injured in balloon explosion

বেলুন বিস্ফোরণে কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি দগ্ধ

বেলুন বিস্ফোরণে কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি দগ্ধ বেলুন বিস্ফোরণের পর কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনিকে নেয়া হচ্ছে হাসপাতালে। ছবি: নিউজবাংলা
হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) রফিকুল ইসলাম নিউজবাংলাকে জানান, ৫ জনকে হাসপাতালে আনা হয়েছিল। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আবু হেনা রনিসহ ২ জনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়েছে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে গ্যাস বেলুন বিস্ফোরণে কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি দগ্ধ হয়েছেন। এসময় দগ্ধ ও আহত হয়েছেন আরও ৪ জন।

জেলা পুলিশ লাইন্সে শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (ডিবি ও মিডিয়া) আবু সায়েম নয়ন।

তিনি জানান, আহতদের শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পাঠানো হয়।

বেলুন বিস্ফোরণে কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি দগ্ধ
পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় টিভি শো মীরাক্কেলখ্যাত বাংলাদেশি কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি। ছবি: সংগৃহীত

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) রফিকুল ইসলাম নিউজবাংলাকে জানান, ৫ জনকে হাসপাতালে আনা হয়েছিল। আশঙ্কাজনক অবস্থায় আবু হেনা রনিসহ ২ জনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়েছে। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

দগ্ধ ও আহত অন্যরা হলেন গাজীপুর জেলা পুলিশের কনস্টেবল মোশারফ হোসেন, মেট্রোপলিটন পুলিশের কনস্টেবল রুবেল মিয়া, কনস্টেবল জিল্লুর রহমান ও কনস্টেবল ইমরান হোসেন।

এর মধ্যে আবু হেনা ও জিল্লুর রহমানকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

বেলুন বিস্ফোরণে কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি দগ্ধ

আরএমও আরও জানান, আবু হেনা রনি সবচেয়ে বেশি দগ্ধ হয়েছেন। তার শরীরের ২৫-৩০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের চতুর্থ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

ঘটনার সময় সেখানে ছিলেন নিউজবাংলার প্রতিবেদক। সেখানে কিছু গ্যাস বেলুন রাখা ছিল ওড়ানোর জন্য। কোনো ত্রুটির কারণে বেশ কয়েকবার চেষ্টা করার পরও যখন সেগুলো ওড়াতে ব্যার্থ হন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এরপর সেগুলো নিয়ে যাওয়া হয় অনুষ্ঠানের উদ্বোধন মঞ্চের পেছনে।

বেলুন বিস্ফোরণে কৌতুক অভিনেতা আবু হেনা রনি দগ্ধ
অনুষ্ঠানের উদ্বোধনে বেলুন ওড়ানোর চেষ্টা করছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। কোনো ত্রুটির জন্য ওড়ানো যায়নি বলে বেলুনগুলো নেয়া হয় মঞ্চের পেছনে। ছবি কোলাজ: নিউজবাংলা

কিছুক্ষণ পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ অন্য অতিথিরা অনুষ্ঠানের মূল মঞ্চের দিকে চলে যান। এর পরই বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। উদ্বোধন মঞ্চের পেছনে গিয়ে দেখা যায় সবগুলো বেলুনই বিস্ফোরিত হয়ে চারদিকে ছড়িয়ে আছে। নিচে লুটিয়ে পড়ে আছেন আহতরা।

সেখানে থাকা পুলিশ সদস্যরা আহতদের নিয়ে হাসপাতালের দিকে চলে যান।

কীভাবে বেলুনগুলো বিস্ফোরিত হলো, জানতে চাইলে মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর ওসি রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘বেলুন নিয়ে মঞ্চের পেছনে যাওয়ার পর কয়েকজন বেলুনে লাগানো গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ লেখা ফেস্টুন বেলুন থেকে খুলতে চেষ্টা করতে থাকে। তখন কেউ একজন ফেস্টুনের সুতা লাইটার জ্বালিয়ে বিচ্ছিন্ন করতে চেষ্টা করে। তখনই আগুন লেগে বেলুনগুলো ব্লাস্ট হয়ে যায়।’

আরও পড়ুন:
কয়েল কারখানায় বিস্ফোরণে দগ্ধ ৫
যুক্তরাষ্ট্রে বিস্ফোরণে নিহত ৩, ক্ষতিগ্রস্ত ৩৯ বাড়ি
উত্তরায় গ্যারেজে বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৭
সেপটিক ট্যাংক বিস্ফোরণে ৩ ভাই নিহত
কারখানায় এসি বিস্ফোরণে নিহত ২

মন্তব্য

p
উপরে