× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
The history of band music of the country came in the book
hear-news
player
print-icon

বইতে এলো দেশের ব্যান্ড সংগীতের ইতিহাস

বইতে-এলো-দেশের-ব্যান্ড-সংগীতের-ইতিহাস
বাংলা রক মেটাল বইয়ের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে লেখক, প্রকাশক ও অতিথিরা। ছবি: সংগৃহীত
অনুভূতি প্রকাশে বইয়ের লেখক মিলু আমান বলেন, ‘বাংলার রক মেটাল বই প্রকাশের মধ্য দিয়ে আমাদের গর্বের ব্যান্ড সংগীতের ইতিহাস সঠিকভাবে লিখিত হলো। এটি আমাদের ব্যান্ড সংগীতের পূর্ণাঙ্গ এনসাইক্লোপিডিয়া হিসেবে কাজ করবে।’

বই আকারে প্রকাশ পেল বাংলাদেশের ব্যান্ড সংগীতের ইতিহাস ও ১৮০টি ব্যান্ডের বায়োগ্রাফি। বইটির নাম ‘বাংলার রক মেটাল’; লিখেছেন মিলু আমান ও হক ফারুক।

এতে স্থান পেয়েছে পূর্ব পাকিস্তান সময়ে ষাটের দশক থেকে ছয়টি দশকে দেশের ব্যান্ড সংগীতের পথচলার ইতিহাস এবং মহান স্বাধীনতা-পরবর্তী সময় থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত উল্লেখযোগ্য সব দেশি ব্যান্ডের বায়োগ্রাফি।

শুক্রবার বিকেল ৫টায় রাজধানীর বাংলামোটরস্থ বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ পাওয় ‘বাংলার রক মেটাল’ বইটি। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্পন্দন ব্যান্ডের কাজী হাবলু, রেনেসাঁর নকীব খান, গীতিকার শহীদ মাহমুদ জঙ্গী, ফিডব্যাকের ফোয়াদ নাসের বাবু ও লাবু রহমান, মাকসুদ ও ঢাকার মাকসুদুল হক, মাইলসের হামিন আহমেদ, ওয়ারফেজের ইব্রাহিম আহমেদ কমল ও শেখ মনিরুল আহমেদ টিপু, রকস্ট্রাটার আরশাদ আমীন।

এ ছাড়া দেশের নবীব-প্রবীণ সব ব্যান্ডের মিউজিশিয়ান, পাঠক ও ব্যান্ড সংগীতপ্রেমীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে অনুষ্ঠানস্থল। প্রকাশনা অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সংগীতশিল্পী জয় শাহরিয়ার।

অনুভূতি প্রকাশে বইয়ের লেখক মিলু আমান বলেন, ‘বাংলার রক মেটাল বই প্রকাশের মধ্য দিয়ে আমাদের গর্বের ব্যান্ড সংগীতের ইতিহাস সঠিকভাবে লিখিত হলো। এটি আমাদের ব্যান্ড সংগীতের পূর্ণাঙ্গ এনসাইক্লোপিডিয়া হিসেবে কাজ করবে।’

বইটির আরেক লেখক হক ফারুক আহমেদ বলেন, ‘গত ২০টি বছরের সাধনায় লেখা বাংলার রক মেটাল। আমাদের ব্যান্ড সংগীত নিয়ে নানা তথ্যের বিভ্রান্তি দূর করবে এ বই। প্রজন্মের পর প্রজন্মে ব্যান্ড সংগীতের ইতিহাস চর্চায় নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে।’

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, তিনটি ভাগে সাজানো হয়েছে এ বই। প্রথমাংশে ষাটের দশক থেকে শুরু করে আজকের সময় পর্যন্ত বাংলাদেশের ব্যান্ড সংগীতের পটভূমি, ইতিহাস, পথচলা ও নানা পরিবর্তন তুলে ধরা হয়েছে। দ্বিতীয় অংশে ১৮০টি ব্যান্ডের বায়োগ্রাফি ও প্রোফাইল।

প্রোফাইলগুলো সাজানো হয়েছে ব্যান্ডগুলোর জন্মসাল ক্রমান্বয়ে, পুরোনো ব্যান্ড থেকে নতুন ব্যান্ড হিসেবে। দেশের সব প্রখ্যাত ব্যান্ডের পাশাপাশি কিছু সম্ভাবনাময় নতুন ব্যান্ডের প্রোফাইল রাখা হয়েছে। প্রতিটি ব্যান্ডের অ্যালবাম ও গানের তালিকা ডিস্কোগ্রাফি আকারে সন্নিবেশ করা হয়েছে।

আর তৃতীয় অংশে রয়েছে বাংলাদেশ মিউজিক্যাল ব্যান্ডস অ্যাসোসিয়েশনের (বামবা) সংক্ষিপ্ত ইতিহাস এবং আরও কিছু উল্লেখযোগ্য ব্যান্ডের তালিকা।

‘বাংলার রক মেটাল’ প্রকাশ করেছে প্রকাশনা সংস্থা আজব প্রকাশ। প্রচ্ছদ এঁকেছেন নিয়াজ আহমেদ অংশু এবং নামলিপিতে মোস্তাফিজ কারিগর। গ্রাফিক্স ডিজাইন করেছেন কৌশিক জামান। ৪৬৪ পৃষ্ঠার এ বইটির মূল্য ১ হাজার টাকা।

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
Bipasha told about the new time in the film

ছবিতে ‘নতুন সময়’-এর কথা জানালেন বিপাশা

ছবিতে ‘নতুন সময়’-এর কথা জানালেন বিপাশা বলিউড অভিনয়শিল্পী দম্পতি বিপাশা ও করণ মা-বাবা হতে যাচ্ছেন। ছবি: সংগৃহীত
মঙ্গলবার ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, ঢালা সাদা শার্টে বিপাশা এবং তার স্বামী করণ। বিপাশার শরীরে মাতৃত্বের ছাপ।

শুরু হয়ে গেছে জীবনের নতুন সময়, নতুন অধ্যায়। মা হতে চলেছেন অভিনেত্রী বিপাশা বসু। ইনস্টায় নিজেই আনন্দের এ খবর দিয়েছেন তিনি।

লেখা ছাড়াও দুটি ছবি পোস্ট করেছেন বিপাশা। যেখানে দেখা যাচ্ছে তার বেবি বাম্প এবং সঙ্গে রয়েছে অনাগত সন্তানের বাবা করণ সিং গ্রোভার।

মঙ্গলবার ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, ঢালা সাদা শার্টে বিপাশা এবং তার স্বামী করণ। বিপাশার শরীরে মাতৃত্বের ছাপ। হাস্যোজ্জ্বল বিপাশা দু’হাতে আগলে রেখেছেন বেবিবাম্প আদতে অনাগত সন্তানকে। করণও ছুঁয়ে রয়েছেন বেবিবাম্প, আবার চুমু এঁকে দিচ্ছেন সেখানে।

ছবি দিয়ে ক্যাপশনে বিপাশা লিখেছেন, ‘একটা নতুন সময়, একটা নতুন অধ্যায়, নতুন আলো আমাদের জীবনে নতুন রং যোগ করল। আমাদের যেন আরও একটু পূর্ণতা দিল। আমরা স্বতন্ত্রভাবে নিজেদের জীবন শুরু করেছিলাম। শিগগিরই আমরা দুই থেকে তিন হব।’

২০১৬ সালে ভালোবেসে বিয়ে করেন বিপাশা-করণ। বাঙালি নিয়েমে সাত পাক ঘোরেন তারা। ব্যক্তিজীবনকে কিছুটা আড়াল করেই রেখেছেন এ তারকা দম্পতি।

আরও পড়ুন:
১৮৭১ সালের প্রেক্ষাপটে বাবা-ছেলে রণবীর
ডাকাত হয়ে চার বছর পর ফিরছেন রণবীর
‘শাবাশ মিঠু’: মিতালির সঙ্গে ভারতের নারী ক্রিকেটের গল্প
‘চুরা কে দিল মেরা’
মহিমার স্তন ক্যানসারের কথা জানতেন না মা-বাবাও

মন্তব্য

বিনোদন
Supermodel Bella Hadid is now in NFT

সুপার মডেল বেলা হাদিদ এবার এনএফটিতে

সুপার মডেল বেলা হাদিদ এবার এনএফটিতে আমেরিকার সুপার মডেল বেলা হাদিদ। ছবি: সংগৃহীত
২৫ বছর বয়সী আমেরিকার সুপার মডেল বেলা হাদিদ এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, তিনি ভার্চুয়াল দুনিয়ার বিষয়ে আগ্রহী ছিলেন এবং কোভিড লকডাউনে তিনি ভিডিও গেমগুলোতে আসক্ত হয়ে পড়েন। সে সময় তিনি নিজের ভিডিও গেমের চরিত্রের মতো কুল সংস্করণ (অ্যাভাটার) তৈরি করতে চেয়েছিলেন।

আমেরিকার সুপার মডেল বেলা হাদিদের পা এবার ক্যাটওয়াক থেকে মেটাভার্সে এসে পড়েছে। সেখানে নিজের স্বতন্ত্র অস্তিত্বের জন্য তার দরকার ছিল এনএফটি অ্যাভাটার।

বেলার মুখ ও শরীরের থ্রিডি স্ক্যানের ওপর ভিত্তি করে CY-B3LLA নামে মেটাভার্স উপযোগী নন ফাঞ্জিবল টোকেনের সিরিজ করা হয়েছে।

২৫ বছর বয়সী বেলা নিউ ইয়র্ক থেকে রয়টার্সকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, তিনি ভার্চুয়াল দুনিয়ার বিষয়ে আগ্রহী ছিলেন এবং কোভিড লকডাউনে তিনি ভিডিও গেমগুলোতে আসক্ত হয়ে পড়েন। সে সময় তিনি নিজের ভিডিও গেমের চরিত্রের মতো কুল সংস্করণ (অ্যাভাটার) তৈরি করতে চেয়েছিলেন।

সুপার মডেল বেলা হাদিদ এবার এনএফটিতে
বেলা হাদিদের এনএফটি তৈরিতে থ্রিডি স্ক্যানার ব্যবহার হয়েছে

বেলা হাদিদের সিরিজ এনএফটি-গুলো তৈরি করেছে ১০টি দেশের ডিজিটাল আর্টিস্টরা।

তবে এই এনএফটিগুলো ঠিক কবে নাগাদ নিলামে তোলা হবে কিংবা আদৌ হবে কি না তা জানাননি বেলা।

মেটাভার্স নিয়ে আশাবাদী বেলা বলেন, ‘আসছে মাসগুলোতে আমরা একটি নতুন মেটা নেশন তৈরি করব, যেখানে থাকবে সত্যিকার স্থাপনা, হবে অনুষ্ঠানের আয়োজন। যেখানে আমি আপনাদের প্রত্যেকের সঙ্গে দেখা করতে পারব।’

এনএফটি কী?

এনএফটির পূর্ণরূপ ‘নন ফাঞ্জিবল টোকেন’। ব্লকচেইন প্রযুক্তির মাধ্যমে ইমিউটেবল লেজারে যুক্ত হওয়ায় এনএফটি যেকোনো ডিজিটাল অ্যাসেটের ওপর একজন ব্যক্তির নিরঙ্কুশ মালিকানা দেয়।

ইমিউটেবল লেজার বলতে বোঝায় অপরিবর্তনীয় লেজার। এতে কোনো ধরনের পরিবর্তন ঘটানো প্রায় অসম্ভব। এই পদ্ধতিতে ডিজিটাল আর্টকে কপি করা অসম্ভব হয়ে যায়। আপনি অবশ্যই কোনো কিছু নকল করতে পারেন, তবে সেটি আর যাই হোক, পুরোপুরি আগেরটির মতো হবে না।

সুপার মডেল বেলা হাদিদ এবার এনএফটিতে
১০ দেশের ডিজিটাল আর্টিস্টরা বেলার এনএফটি তৈরি করেছেন

উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির দ্য লাস্ট সাপারের হুবহু নকল একটি ছবি কেনা যেতে পারে। তবে তা আর যাই হোক, লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির আঁকা মূল ছবিটি হবে না। সত্যিকার দ্য লাস্ট সাপারের দামও নকলের সমান হবে না।

আসছে মাসগুলোতে আমরা একটি নতুন মেটা নেশন তৈরি করব, যেখানে থাকবে সত্যিকার স্থাপনা, হবে অনুষ্ঠানের আয়োজন। যেখানে আমি আপনাদের প্রত্যেকের সঙ্গে দেখা করতে পারব।

ঠিক তেমনি যখন একটি ডিজিটাল আর্টকে এনএফটি করা হয়, তখন সেটি একটি টোকেনে কনভার্ট হয়ে যায়। এরপর সেই ডিজিটাল আর্টে যদি এক মেগাপিক্সেলও পরিবর্তন করা হয়ে থাকে, সেটির টোকেন বদলে যাবে। কখনোই তা আগেরটির সঙ্গে মিলবে না।

সুপার মডেল বেলা হাদিদ এবার এনএফটিতে
লকডাউনে গেম খেলে এনএফটিতে আগ্রহী হয়ে ওঠেন বেলা হাদিদ

এনএফটি হচ্ছে একটি দলিলের মতো। এটি ডিজিটাল দুনিয়ার যেকোনো কনটেন্টের ওপর ব্যক্তির মালিকানা প্রতিষ্ঠিত করে। ভিঞ্চির আঁকা ছবি নিয়ে কেউ জালিয়াতি করতে পারে, কিন্তু এনএফটি নিয়ে জালিয়াতি অসম্ভব।

এক কথায় এনএফটি হলো এমন একটি সম্পদ, যা ডিজিটাল দুনিয়ায় একটিই আছে। এটি অন্যান্য সম্পদের মতোই কেনাবেচা করা সম্ভব।

আরও পড়ুন:
২৫ কোটির এনএফটি কিনে মাথায় হাত
ক্রিপ্টোকারেন্সি ও এনএফটির আলোচিত যত ঘটনা
মেলানিয়া ট্রাম্পের চোখের ছবি নিলামে

মন্তব্য

বিনোদন
Consciousness Revolution Inspiration Dreams Amlin Bangabandhu Joya

চেতনা, বিপ্লব, অনুপ্রেরণা, স্বপ্নে অমলিন বঙ্গবন্ধু: জয়া

চেতনা, বিপ্লব, অনুপ্রেরণা, স্বপ্নে অমলিন বঙ্গবন্ধু: জয়া বাঁয়ের ছবিটি পোস্ট করে জয়া বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ফেসবুকে। ছবি: সংগৃহীত
বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়ে জয়া লেখেন, ‘শোক নয়, শক্তি হয়ে রয়ে যায় জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমান। জাতীয় শোক দিবসে চির অম্লান বঙ্গবন্ধু জানাই আমার শ্রদ্ধাঞ্জলি।’

জাতীয় শোক দিবসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান প্রদর্শন করছে পুরো দেশ।

সোমবার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও লেখা ও ছবি পোস্ট করে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ও জানাচ্ছেন অনেকে।

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন এবং অনুভূতির কথা জানান।

তিনি লেখেন, ‘আমার অন্তরের মধ্যে যে বাংলাদেশ সব সময় জেগে থাকে, তার দেহ, মন জুড়ে সংগ্রামের অনুপ্রেরণা হয়ে প্রতিধ্বনিত বঙ্গবন্ধুর নাম।’

বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়ে জয়া লেখেন, ‘শোক নয়, শক্তি হয়ে রয়ে যায় জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমান। জাতীয় শোক দিবসে চির অম্লান বঙ্গবন্ধু জানাই আমার শ্রদ্ধাঞ্জলি। চেতনায়, বিপ্লবে, অনুপ্রেরণায়, দিন বদলের স্বপ্নে আপনি অমলিন বঙ্গবন্ধু।’

আরও পড়ুন:
বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জয়ার
শোক প্রকাশের সাধ্য আমার নেই: জয়া
গাফ্‌ফার চৌধুরী চিরকাল অমলিন: জয়া
মিষ্টি পোলাও-মাটন ও বাসি পরেজ খেয়ে ঈদে কেঁদেছিলেন জয়া
সিনেমাটি আমার প্রোফাইলে কিছু অ্যাড করবে: জয়া

মন্তব্য

বিনোদন
May he grow like a star and be brave like his parents Raj

সে যেন তারার মতো বেড়ে ওঠে, বাবা-মার মতো সাহসী হয়: রাজ

সে যেন তারার মতো বেড়ে ওঠে, বাবা-মার মতো সাহসী হয়: রাজ নবজাতক রাজ্য এর পায়ের ছাপ (বাঁয়ে), রাজ্যকে নিয়ে প্রথমবার পরীর কাছে রাজ (ভিডিও থেকে নেয়া)। ছবি কোলাজ: নিউজবাংলা
ছোট রাজ্য যেন তারকার মতো বড় হয়, সেই আশাবাদ ব্যক্ত করে রাজ লেখেন, ‘ওই ছোট পা আমাদের হৃদয়ে সবচেয়ে বড় পায়ের ছাপ তৈরি করেছে। তোমরা দুজনেই (পরী ও রাজ্য) আমার জীবনে অলৌকিক ঘটনা ঘটিয়েছ।

অভিনয়শিল্পী দম্পতি শরিফুল রাজ ও পরীমনির ঘর আলো করে এসেছে তাদের সন্তান শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য। বুধবার বিকেলে পৃথিবীর আলো দেখে নবজাতক।

অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ায় বিকেল থেকেই অপারেশন থিয়েটারে থাকতে হয়েছে রাজকে। নিজের অনুভূতির কথা বলতেই পারেননি ঠিকমতো।

বুধবার সন্ধ্যার দিকে নিজের ফেসবুকে অভিনেতা জানিয়েছিলেন, আলহামদুলিল্লাহ, অভিনন্দন আমার প্রিয় স্ত্রী পরীমনি। ছেলেসন্তান হয়েছে।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজের অনুভূতির কিছু কথা শরিফুল রাজ লিখেছেন তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, প্রথমবার বাবা হওয়াটা জীবনের সেরা মুহূর্ত তার কাছে।

তিনি আরও বলেন, ‘হ্যাঁ, তুমি এটা করেছ আমার প্রিয় সঙ্গী, আমি সততার সঙ্গে বলতে পারি যে, এটি আমার জীবনের সেরা মুহূর্ত।’

ছোট রাজ্য যেন তারকার মতো বড় হয়, সেই আশাবাদ ব্যক্ত করে রাজ লেখেন, ‘ওই ছোট পা আমাদের হৃদয়ে সবচেয়ে বড় পায়ের ছাপ তৈরি করেছে। তোমরা দুজনেই (পরী ও রাজ্য) আমার জীবনে অলৌকিক ঘটনা ঘটিয়েছ।

‘সে (রাজ্য) যেন তারার মতো বেড়ে ওঠে এবং তাদের বাবা-মা এর মতো সাহসী হয়। অনেক অনেক অভিনন্দন আমার রকস্টার।’

লেখার সঙ্গে রাজ একটি ছবি ও একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। ছবিতে দেখা যাচ্ছে নবজাতক রাজ্যর পায়ের ছাপ এবং ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে নবজাতক রাজ্যকে প্রথমবার পরীকে দেখানোর মুহূর্ত। সে সময় রাজ্য ছিল রাজের হাতে।

বৃহস্পতিবার সকালে পরী তার সন্তানের ছবি প্রকাশ করেন ফেসবুকে। সেখানে তিনি তার সন্তানের নাম প্রকাশ করেন এবং ছেলেকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘তুমি পৃথিবীর জন্যে আলোর বাহক হও। অভিনন্দন তোমাকে।’

আরও পড়ুন:
হাওয়ার জন্য বসুন্ধরায় ভিড়, চাপ নেই এসকেএসে
এই উদযাপনটা আমার নয়, দর্শকদের: রাজ
হাসান-রাজের প্রথম দেখা

মন্তব্য

বিনোদন
Posting his sons photo Parimoni wrote "Be a bearer of light"

ছেলের ছবি পোস্ট করে পরীমনি লিখলেন, ‘আলোর বাহক হও’

ছেলের ছবি পোস্ট করে পরীমনি লিখলেন, ‘আলোর বাহক হও’ ছেলের এ ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত
ছেলের ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে পরীমনি লেখেন, ‘শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য। তুমি পৃথিবীর জন্যে আলোর বাহক হও। অভিনন্দন তোমাকে।’

চিত্রনায়িকা পরীমনির কোল আলো করে এসেছে নতুন অতিথি। রাজধানীর একটি হাসপাতালে বুধবার বিকেলে অস্ত্রোপচারে ভূমিষ্ঠ হয় পরীমনির ছেলেসন্তান।

নবজাতককে বুকে জড়িয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেছেন পরী; জানিয়ে দিয়েছেন ছেলের পুরো নামও।

সেই ছবির ক্যাপশনে পরীমনি লেখেন, ‘শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য। তুমি পৃথিবীর জন্যে আলোর বাহক হও। অভিনন্দন তোমাকে।’

সন্তান ছেলে হলে নাম রাজ্য রাখবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন পরীমনি। কথা অনুযায়ী করলেনও তা-ই।

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে বুধবার ৫টা ৩৬ মিনিটে পৃথিবীতে আসে পরী-রাজের সন্তান।

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেন শরিফুল রাজ ও পরীমনি। দীর্ঘদিন গোপনেই ছিল তাদের বিয়ের খবর। চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি তাদের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে।

পরীমনির অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরটিই প্রথমে সামনে আসে। পরে জানা যায় তাদের বিয়ের খবর।

আরও পড়ুন:
রাজ-পরীর ঘরে নতুন অতিথি আসার আয়োজন
নাসিরের বিরুদ্ধে পরীমনির মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল
পরীকে খাওয়াতে এলেন আরেক ‘মা’ 
এমন আদর বাকি জীবনেও চাইলেন পরী
মায়ার জালে পরীর চোখ

মন্তব্য

বিনোদন
The son of the fairy king is seen from afar Chayanika

দূর থেকে দেখতে হচ্ছে পরী-রাজের ছেলেকে: চয়নিকা

দূর থেকে দেখতে হচ্ছে পরী-রাজের ছেলেকে: চয়নিকা নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীর সঙ্গে অভিনেত্রী পরীমনি। ফাইল ছবি
হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে চয়নিকা চৌধুরী বলেন, ‘ভেতরে গিয়ে দেখলাম; দূর থেকেই দেখলাম। কারণ খুব রেস্ট্রিকশন (কড়াকড়ি) আছে। খুবই খুশির খবর। পরী-রাজের ছেলে হয়েছে; রাজপুত্র হয়েছে। অবশ্যই অনেক আনন্দের খবর।’

অভিনয়শিল্পী দম্পতি পরীমনি ও শরিফুল রাজের ঘর আলো করে এসেছে নতুন অতিথি।

রাজধানীর একটি হাসপাতালে বুধবার বিকেলে অস্ত্রোপচারে ভূমিষ্ঠ হয় পরীমনির ছেলেসন্তান।

নবজাতক, তার মা ও বাবাকে দেখতে হাসপাতালে গিয়েছিলেন নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী।

রাত সাড়ে ১০টার দিকে তিনি হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে কথা বলেন সাংবাদিকদের সঙ্গে।

চয়নিকা বলেন, ‘ভেতরে গিয়ে দেখলাম; দূর থেকেই দেখলাম। কারণ খুব রেস্ট্রিকশন (কড়াকড়ি) আছে। খুবই খুশির খবর। পরী-রাজের ছেলে হয়েছে; রাজপুত্র হয়েছে। অবশ্যই অনেক আনন্দের খবর।’

তিনি বলেন, ‘রাজকে দেখলাম। বেচারা খুবই টেনশনে; দুই দিন ধরে খাওয়া-দাওয়া বন্ধ। এখনও খায়নি সে। হয়তো পরী যখন খাবে, তখন সেও খাবে। কারণ দুজন দুজনকে প্রচণ্ড কেয়ার করে ও ভালোবাসে।’

চয়নিকা বলেন, ‘দুজনই ভালো আছে, সুস্থ আছে। খুবই রেস্ট্রিকটেড এবং দর্শনার্থী প্রবেশ নিষেধ।’

নবজাতককে দূর থেকে দেখেছেন জানিয়ে এ নির্মাতা বলেন, ‘আমিও দূর থেকে দেখেছি; কাছ থেকে দেখতে পারিনি। আমাকেও নিষেধ করা হয়েছে, যেহেতু নিয়ম।’

পরী, রাজ ও তাদের সন্তানের জন্য সবাইকে প্রার্থনার আহ্বান জানিয়ে চয়নিকা বলেন, ‘পরীকে অনেক ভালোবাসি। সে আমার সন্তানসম। এ ভালো লাগা বলে বোঝানো যাবে না।’

নবজাতককে কোলে নেয়ার অপেক্ষায় আছেন চয়নিকা। এ অপেক্ষা ৭ থেকে ৯ দিন করতে হবে বলে জানান নির্মাতা।

তিনি বলেন, ‘কিছু নিয়মের মধ্যে আছে নবজাতক। যেহেতু ছোট বাচ্চা, সব নিয়ম মেনেই কোলে নেব এবং তার জন্য অপেক্ষা করব।’

আরও পড়ুন:
নাসিরের বিরুদ্ধে পরীমনির মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল
পরীকে খাওয়াতে এলেন আরেক ‘মা’ 
এমন আদর বাকি জীবনেও চাইলেন পরী
মায়ার জালে পরীর চোখ
মাদকের মামলা: সশরীরে আদালতে যেতে হবে না পরীমনিকে

মন্তব্য

বিনোদন
Parimani is the mother of the boy

‘রাজ্য’ এলো রাজ-পরীর ঘরে

‘রাজ্য’ এলো রাজ-পরীর ঘরে অভিনয়শিল্পী দম্পতি রাজ-পরী। ছবি: সংগৃহীত
পরীমনি ইচ্ছে প্রকাশ করে জানিয়েছিলেন, তার ছেলেসন্তান হলে নাম রাখবেন রাজ্য।

ছেলেসন্তানের জন্ম দিয়েছেন দেশের আলোচিত অভিনেত্রী পরীমনি। বাবা হয়েছেন শরিফুল রাজ। রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে বুধবার ৫টা ৩৬ মিনিটে পৃথিবীতে আসে রাজ-পরীর সন্তান।

শরিফুল রাজ নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমি এখনও ‍ওটির ভেতরে। কথা বলতে পারছি না। অনেকে ফোন করছেন, যেটুকু না বললেই না, সেটুকু বলছি।’

ছেলেকে কোলে নিয়েছিলেন কি না, জানতে চাইলে রাজ হেসে বলেন, ‘হ্যাঁ নিয়েছিলাম’।

নাম প্রকাশ না করা শর্তে এভারকেয়ার হাসপাতালের এক কর্মকর্তা নিউজবাংলাকে বলেন, ‘বেলা ৩টা নাগাদ এখানে ভর্তি হন তিনি (পরীমনি)। সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়েছে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে।'

রাজ-পরীর সন্তানের নাম এখনও ঠিক করা হয়নি। রাজ জানান, এগুলো এখনও ঠিক করেননি তারা এবং এগুলো নিয়ে ভাবছেনও না। ছেলে ও মা সুস্থ আছেন বলে জানান রাজ।

পরীমনি ইচ্ছে প্রকাশ করে সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছিলেন, তার ছেলেসন্তান হলে নাম রাখবেন রাজ্য।

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেন শরিফুল রাজ ও পরীমনি। দীর্ঘদিন গোপনেই ছিল তাদের বিয়ের খবর। চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি তাদের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে। পরীমনির অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরটিই প্রথমে জানা যায়, পরে জানা যায় তাদের বিয়ের খবর।

আরও পড়ুন:
পরীকে খাওয়াতে এলেন আরেক ‘মা’ 
এমন আদর বাকি জীবনেও চাইলেন পরী
মায়ার জালে পরীর চোখ
মাদকের মামলা: সশরীরে আদালতে যেতে হবে না পরীমনিকে
পরীমনির মামলা: নাসির-অমির বিচার শুরু

মন্তব্য

p
উপরে