× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
Roots Cineclub wants to branch all over the country for 1 15 crores
hear-news
player
print-icon

১-১.৫ কোটিতে সারা দেশে শাখা করতে চায় রুটস সিনেক্লাব

১-১৫-কোটিতে-সারা-দেশে-শাখা-করতে-চায়-রুটস-সিনেক্লাব
সারা দেশে ৫০ ও ২০ সিটের আধুনিক সিনেপ্লেক্স করতে চায় রুটস সিনেক্লাব। ছবি: সংগৃহীত
ঘোষণায় জানানো হয়, রুটস সিনেক্লাবের শাখা করতে খরচ হবে ১ কোটি টাকা, আর রুটস সিনেপ্লেক্সের শাখা করতে খরচ হবে ১.৫ কোটি টাকা।

সিরাজগঞ্জ জেলা সদরের প্রেক্ষাগৃহ রুটস সিনেক্লাব। প্রেক্ষাগৃহ কর্তৃপক্ষের দাবি ‘ক্লাব-নির্ভর মিনি সিনেমাহল ধারণার প্রেক্ষাগৃহ’ এটি। ২২ সিটের এ প্রেক্ষাগৃহটি প্রদর্শন ও সাউন্ড সিস্টেমে খুবই আধুনিক বলে দাবি তাদের।

রুটস সিনেক্লাব কর্তৃপক্ষ সম্প্রতি এক ঘোষণায় জানিয়েছে, তারা সারা দেশে শাখা প্রতিষ্ঠা করতে চায় এবং প্রেক্ষাগৃহের মালিক চাইলে সার্ভার সেবা দিতে চায়। আর এ জন্য তারা আগ্রহপত্রও গ্রহণ শুরু করেছে।

৩০ জুলাই রুটস সিনেক্লাব তাদের ফেসবুক পেজে জানায়, রুটস সিনেক্লাব ১০০ রও বেশি শাখা প্রতিষ্ঠায় সহযোগিতা করতে চায়। আগ্রহপত্র যাচাই বাছাই শেষে ২০২৩ সাল থেকে শাখা প্রতিষ্ঠার প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করা হবে।

২ স্ক্রিনের ‘রুটস সিনেক্লাব’ এবং ৩ স্ক্রিনের ‘রুটস সিনেপ্লেক্স’- দুই ধরণের প্রেক্ষাগৃহ নির্মাণে আগ্রহী রুটস সিনেক্লাব। সিনেক্লাবে থাকবে ৫০ আসনের একটি এবং ২০ আসনের একটি করে ২টি প্রেক্ষাগৃহ। আর সিনেপ্লেক্সে থাকবে ৫০ আসনের ২টি এবং ২০ আসনের একটি নিয়ে ৩টি প্রেক্ষাগৃহ।

সিনেক্লাবে প্রয়োজন হবে ২০০০ স্কয়ারফুট ও কমপক্ষে ১৪ ফুট উচ্চতার একটি ফ্লোর। সিনেপ্লেক্সে প্রয়োজন হবে ৩০০০ স্কয়ারফুটের ফ্লোর। ১৪ ফুট উচ্চতার ফ্লোরে ২০ ফুট দূরত্বে পিলার থাকা জরুরি বলে জানান তারা।

ঘোষণায় জানানো হয়, রুটস সিনেক্লাবের শাখা করতে খরচ হবে ১ কোটি টাকা, আর রুটস সিনেপ্লেক্সের শাখা করতে খরচ হবে ১.৫ কোটি টাকা।

রুটস সিনেক্লাবের চেয়ারম্যান সামিনা ইসলাম নিউজবাংলাকে জানান, প্রেক্ষাগৃহের মালিকানা বা অর্থনৈতিক বণ্টন হবে আলোচনা সাপেক্ষে। ১ কোটি দেড় কোটি টাকা খরচ করতে হবে যিনি আগ্রহী তার। প্রযুক্তিগত সহায়তাসহ সিনেমা সংগ্রহের লিয়াজু করবে রুটস সিনেক্লাব।

সামিনা ইসলাম নিউজবাংলাকে বলেন, ‘যশোর, নারায়ণগঞ্জ এমনকি ঢাকা থেকেও আমাদের সঙ্গে অনেকে কথা বলছেন, আগ্রহ দেখাচ্ছেন। আর কথায় কথায় তো অনেকেই আগ্রহ দেখান।’

প্রেক্ষাগৃহের মালিকরা বলে আসছেন, সিনেমার অভাবে প্রেক্ষাগৃহ পরিচালনা সম্ভব হচ্ছে না। এমন সময় কেন শাখা প্রতিষ্ঠা করার উদ্যোগ, জানতে চাইলে সামিনা ইসলাম বলেন, ‘প্রেক্ষাগৃহ থাকলে সিনেমা প্রদর্শন করে প্রযোজকরা লাভবান হতে পারবেন। বর্তমান সময়ে সেটার অভাব আমরা বুঝতে পারছি। আর বলিউড সিনেমা আসলে সেটা আরও সহজ হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘হলিউড সিনেমা প্রদর্শন করার সুযোগও থাকবে। সেজন্য আমরা সার্ভার নিয়ে কাজ করছি। সেটা হয়ে গেলে অনেকখানি এগিয়ে যেতে পারব।’

২০২৩ সাল থেকে ‘রুটস্’ নিজস্ব ডিসিপি সার্ভার এবং টিকিট অটোমেশনে প্রেক্ষাগৃহ পরিচালনার জন্য সক্ষমতা অর্জনে কাজ করে যাচ্ছে বলে জানান সামিনা ইসলাম।

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
Banners and slogans made by Shakib fans are coming from different districts

বিভিন্ন জেলা থেকে আসছে শাকিব ভক্তরা, তৈরি ব্যানার-স্লোগান

বিভিন্ন জেলা থেকে আসছে শাকিব ভক্তরা, তৈরি ব্যানার-স্লোগান শাকিব খানকে সংবর্ধনা দিতে তৈরি হচ্ছে ব্যানার। ছবি কোলাজ: নিউজবাংলা
শাকিব ভক্তদের সম্মিলিত এ আয়োজন যেন সুন্দরভাবে হয় সেজন্য কিছু গাইডলাইন দিয়ে এক ভক্ত পোস্ট করেছেন গ্রুপে। সেখানে বলা হয়েছে, গরমের জন্য সবাই ক্যাপ, সানগ্লাস, পানির বোতল সঙ্গে রাখতে পারেন।

শাকিব খানকে বরণ করে নিতে প্রস্তুতির শেষ পর্যায়ে তার ভক্তরা। বুধবার সকাল ১২টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্ধরে এসে পৌঁছানোর কথা রয়েছে তার।

বিমানবন্দরে তাকে শুভেচ্ছা জানাতে আসবেন শাকিব খানের ভক্তরা। এ উপলক্ষে বিভিন্ন জেলা থেকে ঢাকার আসছেন নায়কের ভক্তরা। দ্য কিং অফ ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান (অফিশিয়ল গ্রুপ) ফেসবুক গ্রুপে এসব তথ্য দিচ্ছেন ভক্তরা।

গ্রুপে পোস্ট হওয়া তথ্য অনুযায়ী গাজীপুর, সিরজগঞ্জ, চট্টগ্রাম, সিলেট থেকে ভক্তরা আসছেন শাকিবকে সংবর্ধনা জানাতে। প্রিন্ট করা হচ্ছে স্বাগত জানানোর ব্যানার।

শাকিব খান ভক্তদের কাছে এলে কী স্লোগান দেয়া যেতে পারে সেটিও নির্ধারণ করে পোস্ট করা হয়েছে গ্রুপে। স্লোগানগুলো এমন-

‘কিং কিং কিং খান; মেগাস্টার শাকিব খান’

‘শাকিব খানের জন্য; বাংলাদেশ ধন্য’

‘সুপারস্টারের আগমন; শুভেচ্ছায় স্বাগতম’

‘কিং খানের আগমন; শুভেচ্ছায় স্বাগতম’

‘১ ২ ৩; ঢালিউড কিং’

‘১ ২ ৩ ৪; শাকিব খান মেগাস্টার’

‘চলচ্চিত্রের প্রাণ; শাকিব খান, শাকিব খান’

‘আজকের সারাদিন; শাকিবিয়ানদের ঈদের দিন’

বিভিন্ন জেলা থেকে আসছে শাকিব ভক্তরা, তৈরি ব্যানার-স্লোগান
প্রিন্টিং হচ্ছে শাকিব খানকে শুভেচ্ছা জানানোর ব্যানার। ছবি: ভিডিও থেকে নেয়া

শাকিব ভক্তদের সম্মিলিত এ আয়োজন যেন সুন্দরভাবে হয় সেজন্য কিছু গাইডলাইন দিয়ে এক ভক্ত পোস্ট করেছেন গ্রুপে। সেখানে বলা হয়েছে, গরমের জন্য সবাই ক্যাপ, সানগ্লাস, পানির বোতল সঙ্গে রাখতে পারেন।

ইউটিউবাররা ভক্তদের বক্তব্য নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াতে পারে। তাই সতর্ক থেকে শাকিব খানের বর্নাঢ্য ক্যারিয়ার তুলে ধরতে অনুরোধ করা হয়েছে পোস্টে।

সুশৃঙ্খলভাবে দুই লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। লাইন ভেঙে গাড়ির চারপাশে হুমড়ি খেয়ে না পড়ার কথা বলা হয়েছে।

শাকিব ভক্তদের অবস্থান, এটিটিউড ও কথাবার্তা যেন নম্র-ভদ্র হয়, সে ব্যাপারেও বলা হয়েছে সেই পোস্টে।

যুক্তরাষ্ট্রে নয় মাস থেকে বুধবার সকালে ঢাকায় ফিরছেন শাকিব খান। নভেম্বরে আবার যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যাবার কথা রয়েছে তার। বাংলাদেশে মায়া সিনেমার কাজ করার কথা শাকিবের। যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে তিনি রাজকুমার সিনেমার কাজ শুরু করবেন।

আরও পড়ুন:
ঢাকায় শাকিব খানের কর্মপরিকল্পনা কী
ফিরছি প্রিয় মাতৃভূমিতে: শাকিব খান
কেমন চলছে শাকিবের অভ্যর্থনা প্রস্তুতি
ছয়কে নয় করে দেশে ফিরছেন শাকিব
শাকিবের ‘মায়া’ পরিচালনা করা-না করা নিয়ে যা বললেন হিমেল

মন্তব্য

বিনোদন
What is Shakib Khans action plan in Dhaka?

ঢাকায় শাকিব খানের কর্মপরিকল্পনা কী

ঢাকায় শাকিব খানের কর্মপরিকল্পনা কী প্রযোজক, অভিনেতা শাকিব খান। ছবি: সংগৃহীত
শাকিব খান তার এ সফরে সিনেমার প্রি-প্রোডাকশন এবং সিনেমার শুটিং করবেন বলে জানান হিমেল। তবে কোন সিনেমার কাজ করবেন সেটা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রে নয় মাস থকার পর বুধবার ঢাকায় ফিরছেন শাকিব খান। সকাল ১২টার দিকে তিনি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্ধরে এসে পৌঁছাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নিউজবাংলাকে এ তথ্য জানিয়েছেন শাকিব খান প্রযোজিত ও অভিনীত রাজকুমার সিনেমার পরিচালক হিমেল আশরাফ। তিনি এখন যুক্তরাষ্ট্রে আছেন।

তার কাছে ঢাকায় শাকিব খানের কর্মপরিকল্পনা জানতে চাইলে তিনি মেসেঞ্জারে জানান, শাকিব খানের নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে আসার কথা রয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমি যতটুকু জানি, ঢাকায় ফিরেই তিনি কাজ শুরু করবেন না। পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাওয়ানোর একটা ব্যাপার আছে। আর তিনিই মূলত সিদ্ধান্ত নেবেন, কখন কি করবেন।’

শাকিব খান তার এ সফরে সিনেমার প্রি-প্রোডাকশন এবং সিনেমার শুটিং করবেন বলে জানান হিমেল। তবে কোন সিনেমার কাজ করবেন সেটা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি তিনি।

হিমেল বলেন, ‘এগুলো করবেন তো অবশ্যই। কোনটা করবেন, সেটা এখনও জানি না।’

ধারণা করা হচ্ছে ঢাকায় শাকিব খান সরকারি অনুদান পাওয়া মায়া সিনেমার শুটিং করবেন। যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে গিয়ে রাজকুমার সিনেমার কাজ করার কথা জানান হিমেল আশরাফ।

এদিকে শাকিব খানের ঢাকায় ফেরা নিয়ে উচ্ছ্বসিত ভক্তরা। বিমান বন্দরে শাকিবকে সংবর্ধনা দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছেন তারা। সে অনুযায়ী চলছে প্রস্তুতিও।

আরও পড়ুন:
ফিরছি প্রিয় মাতৃভূমিতে: শাকিব খান
কেমন চলছে শাকিবের অভ্যর্থনা প্রস্তুতি
ছয়কে নয় করে দেশে ফিরছেন শাকিব
শাকিবের ‘মায়া’ পরিচালনা করা-না করা নিয়ে যা বললেন হিমেল
নিউ ইয়র্কে শাকিব খানের সিনেমার প্রিমিয়ার

মন্তব্য

বিনোদন
Returning to the beloved motherland Shakib Khan

ফিরছি প্রিয় মাতৃভূমিতে: শাকিব খান

ফিরছি প্রিয় মাতৃভূমিতে: শাকিব খান ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে শাকিব খান জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে রওনা হওয়ার কথা। ছবি: ফেসবুক
শাকিব খান লিখেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে গত ৯টা মাস আমার জীবনে ছিল একটি চ্যালেঞ্জের মতোই এবং আবারও আমি আপনাদের ভালোবাসায় তা সফলভাবে সম্পন্ন করতে পেরেছি।

দেশের পথে শাকিব খান। যুক্তরাষ্ট্র থেকে রওনা হয়েছেন তিনি। নির্মাতা হিমেল আশরাফ ফেসবুকে ছবি পোস্ট করে বিষয়টি জানিয়েছেন। শাকিব খান নিজেও তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে জানিয়েছেন দেশে রওনা হওয়ার কথা।

স্ট্যাটাসের মাধ্যমে শাকিব খান জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রে তার দিনগুলোর কথা। বাংলাদেশ ছেড়ে দূর দেশে তার নতুন জীবন বোধ ও অনুভূতি তৈরী হয়েছে।

এটা তার জীবনে দরকার ছিল বলে মনে করেন ঢালিউডের এই সুপারস্টার।

শাকিব লিখেছেন, ‘জীবন যখনই আমাকে কোনো চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি করেছে, অথবা নিজেই যখন নিজেকে দিয়েছি ভেঙে গড়ার চ্যালেঞ্জ— উপরওয়ালার রহমতে এবং আমার লাখো-কোটি ভক্তের ভালোবাসায় সবসময় আমি জয়ী হয়েছি। যুক্তরাষ্ট্রে বিগত ৯টা মাসও আমার জীবনে ছিল একটি চ্যালেঞ্জের মতোই এবং আবারও আমি আপনাদের ভালোবাসায় তা সফলভাবে সম্পন্ন করতে পেরেছি।’

নতুন কিছু শুরুর আগে কিছুটা বিচ্ছিন্ন থাকতে হয় বলে মনে করেন শাকিব। বলেন, ‘তবে এই নয়টা মাস ছিল অনেকটা অদৃশ্য শেকলে বাঁধা পড়ে থাকা জীবনের মতো। খেয়াল করেছি, মহান ব্যক্তিরা যখন বড় কিছু করেন, তার আগে এমন বিচ্ছিন্ন থাকেন! তারা যখনই নতুন উপলব্ধি নিয়ে আবার শুরু করেন তখনই তাদের সকাল!’

কারা আপন আর কারা কাছে থেকেও দূরের সেটা এ নয় মাসে বুঝতে পেরেছেন দাবি করে শাকিব বলেন, ‘দূরদেশে এই সময়ে অনেককে পেয়েছি, যারা আমাকে তাদের পরিবারের মানুষ ভেবে আপন করে নিয়েছে, সাপোর্ট দিয়েছে মানসিকভাবে। অন্যদিকে এও বুঝেছি, যাদের এতদিন আপন মনে করতাম তারা কেউ কেউ সত্যিকার অর্থে আমার আপন ছিল না। এর মাঝেও আমার এগিয়ে চলার এই জীবনে অন্ধের মতো সবচেয়ে বড় সাপোর্ট ছিল, দেশ-বিদেশে ছড়িয়ে থাকা লাখো-কোটি ভক্ত-অনুসারী—যারা সবসময় আমার পাশে থেকেছে, নি:স্বার্থভাবে ভালোবেসেছে।’

শাকিব খানের মনে হয় নিজের জীবন-দর্শন, বাস্তবতা ও সবকিছুকে নতুন করে চেনা-জানা এবং বোঝার জন্য এই পরিবর্তন ভীষণ প্রয়োজন ছিল।

তিনি বলেন, ‘এ সময়ে খুব কাছ থেকে নিজের জীবনের সবকিছু নতুন করে কল্পনায় এঁকেছি, যেমনটা সিনেমায় করে থাকি। এ সময়টা আমায় পৃথিবী ও নিজের সম্পর্কে নতুন করে ভাবতে সাহায্য করেছে। আজ ফিরছি প্রিয় মাতৃভূমিতে। বেঁচে থাকলে আগামী দিনগুলো আরও সুন্দর হবে ইনশাআল্লাহ।’

শাকিব খান ১৭ আগস্ট দুপুর ১২টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে এসে পৌঁছানোর কথা রয়েছে। তাকে সংবর্ধনা দিতে প্রস্তুতি নিয়েছে তার ভক্তরা।

আরও পড়ুন:
কেমন চলছে শাকিবের অভ্যর্থনা প্রস্তুতি
ছয়কে নয় করে দেশে ফিরছেন শাকিব
‘হাওয়া’ সিনেমায় বন্য প্রাণী আইন লঙ্ঘিত হয়েছে

মন্তব্য

বিনোদন
How are Shakibs reception preparations going?

কেমন চলছে শাকিবের অভ্যর্থনা প্রস্তুতি

কেমন চলছে শাকিবের অভ্যর্থনা প্রস্তুতি ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানকে অভ্যর্থনা জানাতে চলছে ব্যানার ডিজাইনের কাজ। ছবি: নিউজবাংলা
এ উদ্যোগটি কে বা কারা নিয়েছে জানতে চাইলে তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, ‘এটা দ্য কিং অফ ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান (অফিশিয়াল গ্রুপ) ফেসবুক গ্রুপের কোনো পরিকল্পনা না। এটা মূলত শাকিব খানের ভক্তদের পরিকল্পনা।’

নয় মাস পর যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরছেন ঢাকাই সিনেমার অন্যতম ও জনপ্রিয় অভিনেতা শাকিব খান। ১৭ আগস্ট দিনের প্রথম ভাগে ঢাকায় ঢুকবেন বলে জানিয়েছেন নির্মাতা হিমেল আশরাফ।

শাকিব খানের ক্যারিয়ারে এত দিন কখনও দেশের বাইরে ছিলেন না তিনি। দেশে ফেরার মুহূর্তটিকে আনন্দঘন করতে প্রস্তুতি নিচ্ছেন শাকিব ভক্তরা। চলছে সংবর্ধনার প্রস্তুতি।

দ্য কিং অফ ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান (অফিশিয়াল গ্রুপ) নামের ফেসবুক গ্রুপে সংবর্ধনা দেয়ার পরিকল্পনা নিয়ে নানা কথা জানাচ্ছেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের শাকিব ভক্তরা। গ্রুপটিতে এখন সদস্য সংখ্যা ৬ লাখ ১২ হাজারের বেশি।

গ্রুপটির অন্যতম অ্যাডমিন মিফতাহ উদ্দিন (প্রিন্স মিফতাহ) নিউজবাংলাকে জানান, যেমন রেসপন্স পাওয়া যাচ্ছে, তাতে মনে হচ্ছে হাজার হাজার মানুষ আসবে সেদিন। সবাই একসঙ্গে এটা বাস্তবায়নের চেষ্টা করছেন তারা।

এই উদ্যোগটি কে বা কারা নিয়েছে জানতে চাইলে নিউজবাংলাকে মিফতাহ বলেন, ‘শাকিব খানের দেশে আসার ব্যাপারে তো অনেক দিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল। পরে যখন সংবাদমাধ্যমে জানা গেল যে তিনি ১৭ আগস্ট আসবেন, তারপরই মূলত পরিকল্পনা গতি পেতে থাকে।

‘এটা দ্য কিং অফ ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান (অফিশিয়াল গ্রুপ) ফেসবুক গ্রুপের কোনো পরিকল্পনা না। এটা মূলত শাকিব খানের ভক্তদের পরিকল্পনা। এ ক্ষেত্রে গ্রুপ থেকে আমরা পরিকল্পনার সঙ্গে একমত পোষণ করেছি।’

তিনি জানান, ঢাকা ও ঢাকার বাইরে থেকে শাকিব ভক্তরা আসার কথা রয়েছে। তাদের জানিয়ে দেয়া হয়েছে, সবাই যেন শৃঙ্খলার সঙ্গে আয়োজনটি সফল করে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সঙ্গেও কথা বলে রাখার প্রস্তুতি চলছে। শাকিব খানকে বরণ করে নেয়াই তাদের মূল পরিকল্পনা। এর বাইরে আর কোনো কিছু করার কথা এখন পর্যন্ত নেই তাদের।

এই আয়োজনের জন্য কেউ কোনো আর্থিক সহযোগিতা করছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘যেসব ব্যানার, পোস্টার করা হচ্ছে, সেগুলো যার যার নিজস্ব অর্থায়নেই করছে সবাই। যাতায়াত খরচ বলেন, ব্যানারের খরচ বলেন, সবটাই নিজস্ব অর্থায়নে করতে হবে। এখানে কোনো ফান্ড নাই। কেউ টাকা তুলে একসঙ্গে করছে এমনটাও না।’

দ্য কিং অফ ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খান (অফিশিয়াল গ্রুপ) ফেসবুক গ্রুপে একাধিক পোস্টে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের টার্মিনাল-২ সংলগ্ন এলাকায় শাকিব ভক্তদের সকাল ৯-১০টার মধ্যে উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:
ছয়কে নয় করে দেশে ফিরছেন শাকিব
শাকিবের ‘মায়া’ পরিচালনা করা-না করা নিয়ে যা বললেন হিমেল
নিউ ইয়র্কে শাকিব খানের সিনেমার প্রিমিয়ার
সিলেটে বন্যাকবলিতদের জন্য শাকিবের উদ্যোগ
শাকিব খানের অনুদান কেন লাগে, জানালেন পরিচালক

মন্তব্য

বিনোদন
Joy Bangla Slogan in Bollywood Pippa Movie

বলিউডের ‘পিপ্পা’ সিনেমায় ‘জয় বাংলা’ স্লোগান

বলিউডের ‘পিপ্পা’ সিনেমায় ‘জয় বাংলা’ স্লোগান পিপ্পা সিনেমার দৃশ্যে বাংলাদেশের পতাকা এবং জয় বাংলা স্লোগানের মুহূর্ত। ছবি: ট্রেইলার থেকে নেয়া
মুক্তিযুদ্ধের ৪৫তম অশ্বারোহী ট্যাংক স্কোয়াড্রনের ব্রিগেডিয়ার বলরাম সিংয়ের লেখা ‘দ্য বার্নিং চ্যাফি’ বই অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে সিনেমাটি। ব্রিগেডিয়ার বলরাম সিং মুক্তিযুদ্ধে মিত্র বাহিনীর পক্ষে পূর্ব ফ্রন্টে যুদ্ধ করেন।

সোমবার প্রকাশ পেয়েছে বলিউডের মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমা পিপ্পা এর টিজার। তাতে পাওয়া গেল জয় বাংলা স্লোগান। ১ মিনিট ৬ সেকেন্ডের টিজারের ৪১ সেকেন্ডে গিয়ে শোনা যায় স্লোগানটি।

টিজার শুরু হয় পর্দায় ‘৩ ডিসেম্বর ১৯৭১’ লেখা দেখিয়ে। এরপর ইন্দিরা গান্ধীর কণ্ঠ। রেডিওতে তিনি হিন্দিতে বলছেন, ‘কয়েক ঘণ্টা আগে ভারতীয় এয়ারফিল্ডসের ওপর পাকিস্তান বিমান হামলা করেছে। আমি ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী পাকিস্তানের সঙ্গে যুদ্ধের ঘোষণা দিচ্ছি।’

টিজারের ২৪ সেকেন্ডে গিয়ে সিনেমা অভিনেতা ঈশান খট্টরের কণ্ঠে শোনা যায়, ‘ইতিহাসে কোনো যুদ্ধ অন্য কোনো দেশের স্বাধীনতার জন্য করা হয়নি। কিন্তু আজ সুযোগ এসেছে ইতিহাস রচনা করার জন্য।’

পুরো টিজারে বাহিনী, অস্ত্র, গোলাবারুদ, ট্যাংক ও যুদ্ধের দৃশ্য। এতে সহজেই ধারণা করা যায় এটি পিপ্পা যুদ্ধের সিনেমা। যেখানে যুক্ত বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ।

সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে সত্য ঘটনা অবলম্বনে। ইউটিউবে প্রকাশিত সিনেমার টিজারের বিবরণে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের ৪৫তম অশ্বারোহী ট্যাংক স্কোয়াড্রনের ব্রিগেডিয়ার বলরাম সিংয়ের লেখা ‘দ্য বার্নিং চ্যাফি’ বই অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে সিনেমাটি।

ব্রিগেডিয়ার বলরাম সিং মুক্তিযুদ্ধে মিত্র বাহিনীর পক্ষে পূর্ব ফ্রন্টে যুদ্ধ করেন। সঙ্গে ছিলেন তার ভাইবোন। বিবরণে আরও বলা হয়, গরীবপুরে ৪৮ ঘণ্টাব্যাপী অ্যাকশন প্যাকড যুদ্ধের পটভূমিতে তিন ভাইবোনের গল্প হলো পিপ্পা

মুক্তিযুদ্ধে যশোরের গরীবপুরে রাশিয়ান ট্যাংক পিটি-৭৬ ব্যবহার হয়। ৪৫ ক্যালিভারির ১৪ পিটি-৭৬ ট্যাংকের একটি স্কোয়াড্রনের সহায়তায় গরীবপুরে ১৪-পাঞ্জাব ব্যাটালিয়ন পাকিস্তানি দুর্গে আক্রমণ চালায়।

পাকিস্তান বাহিনী এম ২৪ চ্যাফি নামক হালকা ট্যাংক দ্বারা সজ্জিত তৃতীয় স্বাধীন সশস্ত্র স্কোয়াড্রনের সহায়তায় এই আক্রমণ প্রাথমিকভাবে রুখে দেয়। শেষ পর্যন্ত মুক্তিবাহিনীর কাছে পরাস্ত হয় তারা।

ভারতের বিনোদনভিত্তিক নিউজ পোর্টাল বলিউড হাঙ্গামা ২০২১ সালে ফেব্রুয়ারিতে করা এক প্রতিবেদনে সিনেমার নাম পিপ্পা রাখার কারণ হিসেবে জানিয়েছিল, সিনেমায় দেখানো হবে রাশিয়ান ট্যাংক ‘পিটি-৭’, যা স্থলপথ ও জলপথে চলতে পারে। এই ধরনের কোনো বস্তুকে ভারতে স্থানীয়ভাবে ‘পিপ্পা’ বলে ডাকা হয়।

সিনেমায় ঈশান ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন ম্রুনাল ঠাকুর। সিনেমার সংগীত পরিচালনা করেছেন এ আর রহমান। এ বছরের ডিসেম্বরের ২ তারিখে মুক্তি পাবে সিনেমাটি।

আরও পড়ুন:
ডাকাত হয়ে চার বছর পর ফিরছেন রণবীর
‘শাবাশ মিঠু’: মিতালির সঙ্গে ভারতের নারী ক্রিকেটের গল্প
‘চুরা কে দিল মেরা’
মহিমার স্তন ক্যানসারের কথা জানতেন না মা-বাবাও
এক সিনেমায় এক সঙ্গে তারা

মন্তব্য

বিনোদন
Apur movie poster release in Kolkata September release

অপুর কলকাতার সিনেমার পোস্টার প্রকাশ, সেপ্টেম্বরে মুক্তি

অপুর কলকাতার সিনেমার পোস্টার প্রকাশ, সেপ্টেম্বরে মুক্তি বাঁয়ে ‘আজকের শর্টকাট’ সিনেমার পোস্টার, ডানে অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস। ছবি: সংগৃহীত
বাংলাদেশ থেকে অনেক মানুষ ভারতে যান চিকিৎসা করাতে। তাদের নিয়েই সিনেমার গল্প। বাংলাদেশ থেকে যাওয়া তেমনই এক তরুণীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন অপু বিশ্বাস।

দেশের সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস অভিনীত প্রথম কলকাতার সিনেমা আজকের শর্টকাট। ২০১৮ সালে সিনেমাটির শুটিং করেছিলেন তিনি।

তিন বছরেরও বেশি সময় পর সিনেমার ট্রেইলার ও গান প্রকাশ পায়। সোমবার প্রকাশ পেল সিনেমাটির পোস্টার।

এ সিনেমার মাধ্যমে কলকাতায় আত্মপ্রকাশ করছেন অপু বিশ্বাস। সিনেমায় তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন গৌরব চক্রবর্তী।

এতে আরও অভিনয় কেরেছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, গৌরব চক্রবর্তী, সন্দীপ ভট্টাচার্য, বিশ্বনাথ বসু, রাজশ্রী ভৌমিক।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, গল্পের দুই মূল চরিত্র দুই মেরুর। বিশু চরিত্রে অভিনয় করা পরমব্রত বস্তির ছেলে। আর তার বস্তির পাশের বহুতল ভবনে থাকেন গৌরব।

বাংলাদেশ থেকে অনেক মানুষ ভারতে যান চিকিৎসা করাতে। তাদের নিয়েই সিনেমার গল্প; আছে বেকারত্বের সমস্যার কাহিনিও। বাংলাদেশ থেকে যাওয়া তেমনই এক তরুণীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন অপু বিশ্বাস। ঘটনাচক্রে যার পরিচয় হবে গৌরবের সঙ্গে।

দুই বাংলাতেই জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নচিকেতা। তার আগুন পাখির গল্প থেকেই গড়ে উঠেছে সিনেমার গল্প। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সুবীর মণ্ডল।

সিনেমার কাহিনিকারের পাশাপাশি গানের কাজও করেছেন নচিকেতা। সেপ্টেম্বরে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে সিনেমাটির।

আরও পড়ুন:
ফিট থাকতে অপুর নিয়মিত শরীর চর্চা
আমাকে পচানো হয়েছে: অপু বিশ্বাস
অপু বিশ্বাসের ছোট্ট একটা অনুরোধ
‘এই প্রথম মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্রে কাজ করেছি’
কাবাডি ফেডারেশনে নির্বাচনে লড়বেন অপু বিশ্বাস

মন্তব্য

বিনোদন
The release of Ashirvad movie was delayed by the embarrassed producer

‘আশীর্বাদ’ সিনেমার মুক্তি পেছাল, বিব্রত নির্মাতা

‘আশীর্বাদ’ সিনেমার মুক্তি পেছাল, বিব্রত নির্মাতা আশীর্বাদ সিনেমার পোস্টার (বাঁয়ে) ও নির্মাতা মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। ছবি: সংগৃহীত
আশীর্বাদ সিনেমা নিয়ে সেই সংবাদ সম্মেলন হওয়ার পর থেকেই প্রযোজক ও কেন্দ্রীয় চরিত্রের শিল্পীদের মধ্যে বাকযুদ্ধ চলছে। সিনেমার শুরু থেকে শুটিংয়ের সময়ের নানা ঘটনার উদাহরণ টেনে একে অপরকে দোষারোপ করছেন প্রযোজক ও শিল্পীরা।

সরকারি অনুদানের সিনেমা আশীর্বাদ। সম্প্রতি সিনেমাটির সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সিনেমার প্রযোজক জেনিফার ফেরদৌস, পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান মানিকসহ আমন্ত্রিত অতিথিরা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, আশীর্বাদ মুক্তি পাবে ১৯ আগস্ট। কিন্তু রোববার রাতে পরিচালক নিউজবাংলাকে জানান, সিনেমাটির মুক্তি পিছিয়েছে। আশীর্বাদ মুক্তি পাচ্ছে ২৬ আগস্ট।

এর কারণ জানতে চাইলে মানিক বলেন, ‘প্রথমত সিনেমার প্রচারের জন্য আরও কিছু সময় পাওয়া যাবে। দ্বিতীয়ত, আগের কিছু সিনেমা এখনও ভালো যাচ্ছে, ২৬ আগস্ট আরও কিছু প্রেক্ষাগৃহ পাওয়া যাবে।’

সেই সংবাদ সম্মেলনে মানিক বলেছিলেন, ‘গল্পের কারণেই সিনেমাটি সবার দেখা উচিৎ’। কি আছে আশীর্বাদ সিনেমার গল্পে?

মানিক বলেন, ‘আশীর্বাদ মুক্তিযুদ্ধের সিনেমা। আবার এ সময়ের গল্পও আছে। আমার জানা মতে, এ সিনেমাতেই মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুর ভূমিকা দেখান হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এটা একটা ফিকশনাল গল্প। মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুর অবদান নিয়ে কোনো সত্য ঘটনা আছে কি না জানা নেই।’

সিনেমাতে আরও কিছু আছে বলে জানান মানিক। সিনেমাতে যুদ্ধ আছে, প্রেম, বিচ্ছেদ আছে। সিনেমায় বর্তমান সময়ে এসে মাহির অটিজম নিয়ে কাজ করার গল্পও আছে বলে জানান মনিক।

আশীর্বাদ সিনেমা নিয়ে সেই সংবাদ সম্মেলন হওয়ার পর থেকেই প্রযোজকের সঙ্গে কেন্দ্রীয় চরিত্রের শিল্পী মাহিয়া মাহি, রোশানের বাকযুদ্ধ চলছে। সিনেমার শুরু থেকে শুটিংয়ের সময়ের নানা ঘটনার উদাহরণ টেনে একে অপরকে দোষারোপ করছেন প্রযোজক ও শিল্পীরা।

বিষয়টি নিয়ে খুবই বিব্রত জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমি খুবই বিব্রত। আমি বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলব। কয়েকদিনের মধ্যে আমি একটি সংবাদ সম্মেলন করার পরিকল্পনা করছি।’

আরও পড়ুন:
সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে আসছে যেসব আলোচিত সিনেমা
সীমান্তবর্তী এলাকার গ্যাংদের নিয়ে সিনেমা ‘বর্ডার’
‘হাওয়া’ সিনেমায় বন্য প্রাণী আইন লঙ্ঘিত হয়েছে
দেশের সিনেমায় পার্নো, বিষয় নারীর বহুমূত্র-শৌচাগার সমস্যা
সিনেমায় বন্যপ্রাণী আইন লঙ্ঘন, বিএনসি-এর উদ্বেগ

মন্তব্য

p
উপরে