× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
Janhvi said artistic freedom is part of art for Chitrangda
hear-news
player
print-icon

রণবীরের শরীরী স্বাধীনতায় জাহ্নবী ও চিত্রাঙ্গদার সমর্থন

রণবীরের-শরীরী-স্বাধীনতায়-জাহ্নবী-ও-চিত্রাঙ্গদার-সমর্থন
জাহ্নবী কাপুর, রণবীর সিং ও চিত্রাঙ্গদা সিং। ছবি: সংগৃহীত
চিত্রাঙ্গদা আরও যোগ করেছেন, ‘সত্যি বলতে আমি মনে করি, তাকে চমৎকার লাগছিল। আমি মনে করি, তিনি প্রদর্শন করার জন্য একটি দুর্দান্ত শরীর পেয়েছেন এবং এটি শিল্পের অংশ।’

সম্প্রতি একটি ম্যাগাজিনের জন্য নগ্ন ফটোশুট করেন বলিউড তারকা রণবীর সিং। সেই ছবিগুলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর দেখা গেছে নানা প্রতিক্রিয়া।

এমন ছবির মাধ্যমে ‘নারীদের অনুভূতিতে আঘাত করেছেন’ রণবীর, এমন অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এফআইআরও করেছেন একজন এনজিও কর্মকর্তা।

এমন পরিস্থিতিতে রণবীরের পক্ষে সাধারণ নেটিজনদের পাশাপাশি কথা বলছেন তারকারাও। এবার তার পক্ষে কথা বললেন বলিউড অভিনেত্রী চিত্রাঙ্গদা সিং ও জাহ্নবী কাপুর।

সাম্প্রতি একটি ইভেন্টে যোগ দিয়েছিলেন জাহ্নবী কাপুর। সেখানে রণবীরের শুটের বিরুদ্ধে ক্ষোভ সম্পর্কে অভিনেত্রীকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেছেন, ‘শৈল্পিক স্বাধীনতা’র জন্য কাউকে শাস্তি দেয়া উচিত নয়।

পিঙ্কভিলার শেয়ার সেই ভিডিওতে জাহ্নবীকে বলতে শোনা যায়, ‘আমি মনে করি না যে কাউকে তাদের শৈল্পিক স্বাধীনতার জন্য শাস্তি দেয়া উচিত।’

রণবীরের শরীরী স্বাধীনতায় জাহ্নবী ও চিত্রাঙ্গদার সমর্থন
বলিউড অভিনেত্রী জাহ্নবী কাপুর। ছবি: সংগৃহীত

রণবীর সিংয়ের ফটোশুট নিয়ে অভিনেত্রী ও প্রযোজক চিত্রাঙ্গদা সিংও একই মত পোষণ করেন। তিনি বিষয়টিকে শৈল্পিক এবং সৃজনশীল বলে মনে করেন।

টাইম অফ ইন্ডিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, আমরা একুশ শতকে বাস করছি এবং শাড়ি, স্কার্ট, শর্টস বা অন্য কিছু পরিধান করা সম্পূর্ণরূপে একজনের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত।

রণবীর এবং তার শরীরের প্রশংসা করে অভিনেত্রী বলেন, ‘‘তিনি ‘শিল্পের অংশ’।’’

চিত্রাঙ্গদা আরও যোগ করেছেন, ‘সত্যি বলতে আমি মনে করি, তাকে চমৎকার লাগছিল। আমি মনে করি, তিনি প্রদর্শন করার জন্য একটি দুর্দান্ত শরীর পেয়েছেন এবং এটি শিল্পের অংশ। শিল্প ও এই জিনিস দেখতে সক্ষম হতে আপনার সঠিক চোখ থাকতে হবে। আপনি যদি ভুল দেখেন, যদি আপনি সবকিছুতে নোংরা জিনিস দেখতে পান, তবে সম্ভবত এটি আপনার মনের সঙ্গে কিছু করার আছে।’

রণবীরের শরীরী স্বাধীনতায় জাহ্নবী ও চিত্রাঙ্গদার সমর্থন
বলিউড অভিনেত্রী চিত্রাঙ্গদা সিং। ছবি: সংগৃহীত

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমি দুঃখিত তবুও বলতে হচ্ছে, আগামীকাল যদি একটি মেয়ে স্কার্ট পরে যায় এবং আপনি এটি ভুল খুঁজে পান, আপনার নিজের মাথায় এমন একটি নির্দিষ্ট অসুস্থ মতামত আছে।’

এর আগেও রণবীরের হয়ে কথা বলেছেন, বিদ্যা বালান, আলিয়া ভাট, অর্জুন কাপুর, রাম গোপাল ভার্মাসহ অনেকে।

আরও পড়ুন:
জিমের পোশাক নিয়ে কটাক্ষের জবাব দিলেন জাহ্নবী
‘আশা করি তোমাকে গর্বিত অনুভব করাতে পারব, বাবা’
অবশেষে ‘৮৩’ আসছে
‘সবচেয়ে ভালো মানুষকে’ ভালোবাসার কথা জানালেন জাহ্নবী
‘হেলেন’-এর বলিউড রিমেকে জাহ্নবী

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
Pari would be the best mother Raj

পরী হবে সেরা মা: রাজ

পরী হবে সেরা মা: রাজ ছেলে বুকে জড়িয়ে (বাঁয়ে) ও স্বামী রাজের সঙ্গে পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত
রাজ লেখেন, ‘তোমার সঙ্গে থাকতে পেরে নিজেকে খুবই ভাগ্যবান মনে করছি। তুমিই আমার সব এবং সর্বস্ব উজাড় করে তোমাকে ভালোবাসি…তুমি হবে সেরা মা।’

তিন দিন আগে অভিনয়শিল্পী দম্পতি পরীমনি ও শরিফুল রাজের ঘর আলো করে এসেছে নতুন অতিথি।

রাজধানীর একটি হাসপাতালে বুধবার বিকেলে অস্ত্রোপচারে ভূমিষ্ঠ হয় পরীমনির ছেলেসন্তান। পরে ফেসবুকে ছেলের পুরো নামসহ ছবিও প্রকাশ করেন তারকা এ দম্পতি।

প্রথমবারের মতো মা-বাবা হওয়ার আনন্দে ভাসছেন দুজনই। জীবনের নতুন এই অধ্যায়ে পরীর প্রতি আরও একবার মুগ্ধতা ও ভালোবাসা প্রকাশ করেছেন রাজ।

সন্তান ও পরীর সঙ্গে ৮ সেকেন্ডের একটি ভিডিও শুক্রবার রাতে ফেসবুকে পোস্ট করেন রাজ। সেই ভিডিওর ক্যাপশনে রাজ লেখেন, ‘আমার জীবনে কী সুখ তুমি নিয়ে এসেছ তা বোঝাতে পারব না। জীবনের নতুন অর্থ পাওয়াটা আশীবার্দস্বরূপ, তবে তোমার সঙ্গে দেখা হওয়াটাই আমার জীবনের মোড় পাল্টে দিয়েছে।

‘তোমার সঙ্গে থাকতে পেরে নিজেকে খুবই ভাগ্যবান মনে করছি। তুমিই আমার সব এবং সর্বস্ব উজাড় করে তোমাকে ভালোবাসি…তুমি হবে সেরা মা।’

এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরে ফেসবুকে এক পোস্টে পরীর উদ্দেশে রাজ লেখেন, ‘হ্যাঁ, তুমি এটা করেছ আমার প্রিয় সঙ্গী। আমি সততার সঙ্গে বলতে পারি যে, এটি আমার জীবনের সেরা মুহূর্ত।’

ছেলে রাজ্য যেন তারকার মতো বড় হয়, সেই আশাবাদ ব্যক্ত করে রাজ লেখেন, ‘ওই ছোট পা আমাদের হৃদয়ে সবচেয়ে বড় পায়ের ছাপ তৈরি করেছে। তোমরা দুজনই (পরী ও রাজ্য) আমার জীবনে অলৌকিক ঘটনা ঘটিয়েছ।

‘সে (রাজ্য) যেন তারার মতো বেড়ে ওঠে এবং তাদের বাবা-মার মতো সাহসী হয়। অনেক অনেক অভিনন্দন আমার রকস্টার।’

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেন রাজ ও পরীমনি। চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি তাদের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে। ওই দিন পরীমনির অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরটিও জানাজানি হয়।

আরও পড়ুন:
‘রাজ্য’ এলো রাজ-পরীর ঘরে
হৃদয়ের সবচেয়ে কাছের মানুষকে বন্ধু দিবসের শুভেচ্ছা পরীর
একটা রঙিন প্রজাপতির অপেক্ষায় পরী
‘আমাদের ভালোবাসা ক্রমাগত গভীর হয়েছে-বেড়ে চলেছে’
রাজ-পরীর ঘরে নতুন অতিথি আসার আয়োজন

মন্তব্য

বিনোদন
Sara congratulated herself

নিজেকে শুভেচ্ছা জানালেন সারা

নিজেকে শুভেচ্ছা জানালেন সারা বলিউড অভিনেত্রী সারা আলি খান। ছবি: সংগৃহীত
জন্মদিনে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শুভেচ্ছায় ভাসছেন সারা। বাবা সাইফ থেকে শুরু করে কারিনা কাপুর, আনুশকা শর্মা, অনন্যা পান্ডেসহ অনেক তারকাই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সারাকে।

মাত্র কয়েক বছর হলো বলিউডে যাত্রা শুরু করেছেন সাইফ আলি খানের কন্যা সারা আলি খান। সিনেমা করেছেন হাতে গোনা কয়েকটি। এরই মধ্যেই ‘স্টার কিড’ (তারকা সন্তান) তকমা কাটিয়ে নিজেই হয়ে উঠেছেন নামি তারকা।

আজ তার জন্মদিন। বৃহস্পতিবার ২৭ বছর পূর্ণ করলেন এই অভিনেত্রী। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শুভেচ্ছায় ভাসছেন তিনি।

বাবা সাইফ থেকে শুরু করে কারিনা কাপুর, আনুশকা শর্মা, অনন্যা পান্ডেসহ অনেক তারকাই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সারাকে।

তবে নেটিজেনদেন নজর কেড়েছে সারার নিজেকে শুভেচ্ছা জানানো নোটটি। এদিন ইনস্টাগ্রামে এক স্টোরিতে একটি ছবি পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী। সেই ছবির ওপর তিনি লিখেছেন, ‘শুভ জন্মদিন সারা, সব সময় নিজেকে ভালোবাস, তা যে অবস্থাতেই থাকো না কেন।’

নিজেকে শুভেচ্ছা জানালেন সারা
সারার ইনস্টাগ্রাম স্টোরি (বাঁয়ে)। ছবি: সংগৃহীত

বর্তমানে নিউ ইউর্কে ছুটি কাটাচ্ছেন সারা। কদিন ধরেই সেখান থেকে ইনস্টাগ্রামে ছুটি কাটানোর ছবি পোস্ট করছেন তিনি।

২০১৮ সালে প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের বিপরীতে কেদারনাথ সিনেমা দিয়ে বলিউডে পা রাখেন সারা। এরপর সিম্বাসহ একাধিক হিট সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি।

নিজেকে শুভেচ্ছা জানালেন সারা
বলিউড অভিনেত্রী সারা আলি খান। ছবি: সংগৃহীত

এদিকে সবশেষ সারাকে দেখা গেছে ২০২১ সালের ডিসেম্বরে মুক্তি পাওয়া আতরাঙ্গি রে সিনেমায়। এতে তার বিপরীতে ছিলেন অক্ষয় কুমার ও ধানুশ।

এদিকে আগামীতে সারাকে দেখা যাবে গ্যাসলাইট সিনেমায়। এতে তার বিপরীতে রয়েছেন বিক্রান্ত মেসি।

মন্তব্য

বিনোদন
If Parimani was born in the kingdom of Taslima his name would have been Parmananda

পরীমনির ‘রাজ্য’ তসলিমার ঘরে এলে নাম হতো ‘পরমানন্দ’

পরীমনির ‘রাজ্য’ তসলিমার ঘরে এলে নাম হতো ‘পরমানন্দ’ সন্তানকে বুকে জড়িয়ে পরীমনি ও তসলিমা নাসরিন (ডানে)। ছবি: সংগৃহীত
তসলিমা আরও লেখেন, ‘‘তবে স্বামীর নামের সঙ্গে মিলিয়ে বাচ্চার নাম রাখাটা বিশেষ পছন্দ হয়নি। স্বামীটামীরা আজ আছে, কাল নেই। সন্তান তো চিরদিনের। পরী তার নামের সঙ্গে মিলিয়ে সুন্দর একটি বাংলা নাম রাখতে পারতেন। পরীর জায়গায় আমি হলে ‘রাজ্য’ নয়, ডাকনাম রাখতাম ‘পরমানন্দ’।’’

মা হওয়ার সুখবরে শুভেচ্ছায় ভাসছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমনি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সাধারণ থেকে সেলিব্রেটি, ভক্ত-অনুরাগী ও শুভাকাঙ্ক্ষীরা অভিনন্দনসহ জানাচ্ছেন প্রতিক্রিয়া।

আলোচিত লেখক তসলিমা নাসরিনও দিয়েছেন প্রতিক্রিয়া। নবজাতককে নিয়ে রাখঢাক না করায় পরীমনির প্রশংসা করেছেন তিনি, তবে ‘রাজ্য’ নামটি ঠিক ‘মেনে নিতে পারছেন না’ তসলিমা।

ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে তসলিমা লিখেছেন, ‘সিনেমার নায়িকারা আজকাল একটা ঢং করে, বাচ্চা হলে বাচ্চার মুখ দেখাবে না, পেছন থেকে বাচ্চাকে দেখাবে, অথবা মুখটা একটা লাভ সাইন দিয়ে ঢেকে দেবে। যখন বাচ্চার মুখ দেখার জন্য লোকে অধীর আগ্রহে আর বসে থাকবে না, তখন হয়তো সে মুখ, কয়েক মাস বা কয়েক বছর পর, দেখাবে।’

এ ধরনের দৃষ্টিভঙ্গী এড়িয়ে পরীমনির সন্তানের ছবি প্রকাশের বিষয়টি ভালো লেগেছে তসলিমার। তিনি লেখেন, ‘পরীমনি বাংলাদেশের সিনেমার নায়িকা। তিনি অন্য নায়িকাদের মতো বাচ্চার মুখ না দেখানোর ঢংটা করেননি বলে ভালো লাগলো। প্রথম দিনই বাচ্চার চেহারা দেখিয়ে দিয়েছেন জনগণকে।’

অভিনেত্রী তার ছেলের নাম রেখেছেন শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য। তবে নামটা ‘বিশেষ পছন্দ হয়নি’ আলোচিত এই লেখকের।

তসলিমা লেখেন, ‘‘তবে স্বামীর নামের সঙ্গে মিলিয়ে বাচ্চার নাম রাখাটা বিশেষ পছন্দ হয়নি। স্বামীটামীরা আজ আছে, কাল নেই। সন্তান তো চিরদিনের। পরী তার নামের সঙ্গে মিলিয়ে সুন্দর একটি বাংলা নাম রাখতে পারতেন। পরীর জায়গায় আমি হলে ‘রাজ্য’ নয়, ডাকনাম রাখতাম ‘পরমানন্দ’। ভালো নাম ‘শাহীম মুহাম্মদ’ নয়, রাখতাম ‘পরমানন্দ প্রাণ’।’’

তবে তসলিমার এই পরামর্শকে অবশ্য ‘অযাচিত’ বলে অনেকে সমালোচনা করছেন ফেসবুকে। তবে তার স্ট্যাটাসে বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত এ বিষয়ে সরাসরি কেউ কোনো মন্তব্য করেননি। নিজের ওয়ালের কমেন্ট সেকশন ‘ফ্রেন্ডস অনলি’ রেখেছেন তসলিমা।

রাজধানীর একটি হাসপাতালে বুধবার বিকেলে অস্ত্রোপচারে ভূমিষ্ঠ হয় পরীমনির ছেলেসন্তান।

নবজাতককে বুকে জড়িয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন পরী; জানিয়েছেন ছেলের পুরো নামও।

সেই ছবির ক্যাপশনে পরীমনি লেখেন, ‘শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য। তুমি পৃথিবীর জন্যে আলোর বাহক হও। অভিনন্দন তোমাকে।’

আরও পড়ুন:
‘আমাদের ভালোবাসা ক্রমাগত গভীর হয়েছে-বেড়ে চলেছে’
রাজ-পরীর ঘরে নতুন অতিথি আসার আয়োজন
নাসিরের বিরুদ্ধে পরীমনির মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পেছাল
পরীকে খাওয়াতে এলেন আরেক ‘মা’ 
এমন আদর বাকি জীবনেও চাইলেন পরী

মন্তব্য

বিনোদন
I also have a hard time not standing in line for movies

‘সিনেমার জন্য লাইনে দাঁড়াইনি, কঠিন সময় আমারও আছে’

‘সিনেমার জন্য লাইনে দাঁড়াইনি, কঠিন সময় আমারও আছে’ বলিউড অভিনেত্রী জাহ্নবী কাপুর। ছবি: সংগৃহীত
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, সিনেমাটির পাশাপাশি প্রশংসিত হয়েছে জাহ্নবীর অভিনয়ও। তবে অনেকেই সে সময় সমালোচনা করে বলেছিলেন, সোনার চামচ মুখে নিয়ে যার জন্ম সে কীভাবে অভাবী মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করবে।

বলিউডে আসার সময় থেকেই কটাক্ষ শুনতে হয়েছে জাহ্নবী কাপুরকে। মা বলিউড সিনেমার প্রথম নারী সুপারস্টার শ্রীদেবী, বাবা বলিউডের প্রভাবশালী প্রযোজক বনি কাপুর, আর কী লাগে। তাদের মেয়ের কী কখনও সিনেমায় সুযোগের জন্য পরিশ্রম করতে হবে?

এমন ধারণা থেকেই নেপটিজম নিয়ে নানা কথা শুনতে হয়েছে জাহ্নবীকে। তবে সেই কটাক্ষকে তিনি অনুরাগে পরিণত করার প্রক্রিয়ায় আছেন। গুঞ্জন সাক্সেনা: দ্য কার্গিল গার্ল, ধারাক সিনেমার মাধ্যমে দর্শকদের কাছাকাছি যাওয়ার সুযোগ হয়েছে তার।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে জাহ্নবী অভিনীত সিনেমা গুড লাক জেরি। অভিনয়ে প্রশংসা পেয়েছেন ঠিকই, কিন্তু কটাক্ষ থামেনি।

সিনেমার প্রচার অনুষ্ঠানে এ নিয়ে কথা বলেছেন জাহ্নবী। জানান, একসময় তিনি মেনেই নিয়েছিলেন দর্শক কখনও তাকে মেনে নেবে না।

তিনি বলেন, ‘আমি এখন আর ভাবিই না যে দর্শক হয়তো কখনও এই নেপোটিজমের কারণে আমাকে মেনে নেবে কি নেবে না। তবে আশ্চর্যজনক যে, দর্শক আমাকে নিজের করে নেবে এই মহূর্তটার জন্য এটার জন্য কী অধীরে অপেক্ষা করছিলাম! সেটা মনে হচ্ছে একটু একটু করে সম্ভব হচ্ছে। গুডলাক জেরি দর্শকের কাছে পৌঁছানোর আমার আরেকটা চেষ্টা।’

সিদ্ধার্থ সেনগুপ্তা পরিচালিত গুডলাক জেরি সিনেমায় জাহ্নবী পঞ্জাবে বাস করা বিহারী নারী চরিত্রে অভিনয় করেছেন। যে মায়ের ক্যানসারের চিকিৎসা করার টাকা জোগাড় করতে গিয়ে ড্রাগস পাচারের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, সিনেমাটির পাশাপাশি প্রশংসিত হয়েছে জাহ্নবীর অভিনয়ও। তবে অনেকেই সে সময় সমালোচনা করে বলেছিলেন, সোনার চামচ মুখে নিয়ে যার জন্ম সে কীভাবে অভাবী মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করবে।

এ প্রসঙ্গে সাক্ষাৎকারে জাহ্নবী বলেন, ‘হ্যাঁ আমি মানছি আমাকে কোনোদিন খাবার বা সিনেমায় সুযোগ পাওয়ার জন্য লাইনে দাঁড়াতে হয়নি। কিন্তু তার মানে তো এই না যে, আমার জীবনে কোনো কঠিন পরিস্থিতি আসেনি। আমি কারও কাছ থেকে কোনো আহা উহু চাচ্ছি না। শুধু বলছি খোলা মনে আর মাথায় আমার কাজ দেখুন। কারণ আমি মানুষকে বিনোদন দিতে খুব খাটছি।’

জাহ্নবীর পরের সিনেমা মিলি। এতে থাকবেন মনোজ পাওয়া, সানি কৌশল। এছাড়া মিস্টার অ্যান্ড মিসেস মাহি, বাওয়াল সিনেমাতে অভিনয় করবেন তিনি।

আরও পড়ুন:
জিমের পোশাক নিয়ে কটাক্ষের জবাব দিলেন জাহ্নবী
‘আশা করি তোমাকে গর্বিত অনুভব করাতে পারব, বাবা’
‘সবচেয়ে ভালো মানুষকে’ ভালোবাসার কথা জানালেন জাহ্নবী
‘হেলেন’-এর বলিউড রিমেকে জাহ্নবী
‘গুডলাক জেরি’তে ফুরফুরে জাহ্নবী

মন্তব্য

বিনোদন
Happy Friends Day to the people closest to the heart

হৃদয়ের সবচেয়ে কাছের মানুষকে বন্ধু দিবসের শুভেচ্ছা পরীর

হৃদয়ের সবচেয়ে কাছের মানুষকে বন্ধু দিবসের শুভেচ্ছা পরীর ঢাকায় চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত
পরীমনি লেখেন, ‘আমার সকল ব্যথার কথা আমি খুব সহজেই তোমার কাছে দ্বিধাহীন বলতে পারি। কত অল্প সময়ে হৃদয়ের সব থেকে কাছের মানুষটা আমার আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি।’

বন্ধু। ছোট্ট এ শব্দের মাঝে মিশে আছে যেন পৃথিবীর সব নির্ভরতা। বন্ধুত্ব মানেই জীবনের সবুজতম সম্পর্ক। বন্ধু মানে দুটি দেহের একটি প্রাণ। আরও সহজ করে বলতে গেলে আত্মার কাছাকাছি যে বাস করে, সেই বন্ধু। সুসময় কিংবা অসময়ের সঙ্গী।

বন্ধু মানেই বিশেষ কিছু। বন্ধু মানে নির্ভরতা। বন্ধু মানে আনন্দ, প্রাণ খুলে আড্ডা আর অম্লমধুর খুনসুটি। হৃদয়ের সবটুকু আবেগ নিংড়ে, সবটুকু ভালোবাসা দিয়ে যে জায়গায় কথা বলা যায়, সেই হলো বন্ধু।

তাই তো বন্ধু দিবসে নানাভাবেই বন্ধুর প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করেন অনেকে। তেমনই রোববার বন্ধু দিবসে হৃদয়ের সবচেয়ে কাছের মানুষকে শুভেচ্ছা জানালেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমনি।

দুই বন্ধু মিলে হাতে ফুল ধরে আছেন— এমন একটি ছবি এদিন রাতে ফেসবুকে পোস্ট করেছেন পরীমনি। তার সেই বন্ধুর নাম শরিফুল ইসলাম রাজ। যিনি তার জীবনসঙ্গী।

স্বামী রাজকে মেনশন সেই ছবির ক্যাপশনে পরীমনি লেখেন, ‘হ্যাপি ফ্রেন্ডশিপ ডে রাজ। আমার সকল ব্যথার কথা আমি খুব সহজেই তোমার কাছে দ্বিধাহীন বলতে পারি। কত অল্প সময়ে হৃদয়ের সব থেকে কাছের মানুষটা আমার আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি।’

হৃদয়ের সবচেয়ে কাছের মানুষকে বন্ধু দিবসের শুভেচ্ছা পরীর
সবচেয়ে কাছের বন্ধু ও স্বামী রাজের সঙ্গে পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

প্রতিবছর আগস্ট মাসের প্রথম রোববার সারা বিশ্বে পালিত হয়ে আসছে বন্ধু দিবস। আমাদের দেশেও এখন তা পালন হয়, কিন্তু এই বন্ধু দিবসেরও রয়েছে সুদীর্ঘ ইতিহাস।

১৯৩৫ সাল থেকেই বন্ধু দিবস পালনের প্রথা চলে আসছে আমেরিকাতে। জানা যায়, ১৯৩৫ সালে আমেরিকা সরকার এক ব্যক্তিকে হত্যা করে। দিনটি ছিল আগস্ট মাসের প্রথম শনিবার। তার প্রতিবাদে পরের দিন ওই ব্যক্তির বন্ধুটি আত্মহত্যা করেন।

এরপরই জীবনের নানা ক্ষেত্রে বন্ধুদের অবদান আর তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর লক্ষ্যেই আমেরিকার কংগ্রেস ১৯৩৫ সালে আগস্ট মাসের প্রথম রোববার বন্ধু দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেয়।

মন্তব্য

বিনোদন
Oishi will sing on todays song day

‘আজ গানের দিন’-এ গাইবেন ঐশী

‘আজ গানের দিন’-এ গাইবেন ঐশী শিল্পী রাকিবা ইসলাম ঐশী। ছবি: সংগৃহীত
২০১৭ সালের ‘চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ’ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন ঐশী। জাতীয় পর্যায়ের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে অনেক পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।  

এনিগমা মাল্টিমিডিয়ার নিয়মিত আয়োজন ‘আজ গানের দিন’-এ এবারের শিল্পী রাকিবা ইসলাম ঐশী।

অনুষ্ঠানটির চতুর্থ পর্ব রোববার রাত ১০টায় সরাসরি সম্প্রচারিত হবে এনিগমার ফেসবুক পেজ ও ইউটিউবে। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

ঐশী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগ থেকে স্নাতক সম্পন্ন করে বর্তমানে স্নাতকোত্তরে অধ্যয়নরত। আর গানের তালিম নিচ্ছেন আচার্য রেজওয়ান আলী লাভলুর কাছে। গানকে সঙ্গী করে কাটিয়ে দিতে চান সারা জীবন।

ঐশীর জন্ম ২২ জানুয়ারি সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট গ্রামে। শৈশব থেকেই গান শেখা শুরু করেন তিনি।

২০১৭ সালের ‘চ্যানেল আই সেরাকণ্ঠ’ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন ঐশী। জাতীয় পর্যায়ের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে অনেক পুরস্কার পেয়েছেন তিনি।

বর্তমানে টেলিভিশনের পর্দায় ও ডিজিটাল মিডিয়ায় নিয়মিত গাইছেন এই শিল্পী।

মন্তব্য

বিনোদন
In the video Masu draws the lively Masuda Khan outside

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান মাসুদা খান। ছবি: সংগৃহীত
আর্টের মধ্যে সব সময় থাকতে চান মাসুদা। আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘আমি একদিন বইও লিখতে চাই এবং সব সময় পড়াশোনা করে যেতে চাই। এটাই আমার ক্যারিয়ার চয়েস। জানি একটু এলোমেলো।’

মঞ্চে বসেই কণ্ঠশিল্পী তপু এক ঘোষণা দিলেন। বললেন, ‘দর্শক সারিতে যারা আছেন, তাদের মধ্য থেকে কেউ যদি গান গাইতে চান, তারা মঞ্চে চলে আসুন, আপনাদের গান শুনব আমরা সবাই।’

ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে একজন ছেলে ওঠেন মঞ্চে; নিজের লেখা, সুর করা গান করেন। পরে আরেকজন নারী কণ্ঠশিল্পী যান; তিনি শোনান লালনের গান।

দ্বিতীয় জন যখন মঞ্চে উঠে গেছেন, তখন মঞ্চের নিচে আরেকজন অপেক্ষা করছিলেন। মূলত তিনিই দ্বিতীয় শিল্পী হিসেবে মঞ্চে উঠতে চেয়েছিলেন; কিন্তু মঞ্চের কাছে আসতে দেরি হওয়ায় তৃতীয় হতে হয় তার।

দ্বিতীয় শিল্পী নামার সঙ্গে সঙ্গে প্রবল আগ্রহ নিয়ে মঞ্চে উঠলেন তৃতীয় জন। গাইলেন ‘তোমাকে চাই আমি আরও কাছে’ গানটির প্রথম কয়েক লাইন। গান গাওয়ার পাশাপাশি তার হাসির ফোয়ারা আর অভিব্যক্তির কারণে সবাই তাকে বাহবা দিলেন।

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান
চিত্রশিল্পী, অভিনেত্রী মাসুদা খান। ছবি: সংগৃহীত

মঞ্চ থেকে তিনি নেমে আসার পর গানটি বেজে ওঠে সাউন্ড বক্সে। গানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নেচে ওঠেন তিনি।

তার এই প্রাণবন্ত ভাবটাকে আগত অতিথিরা হাত তালি ও চিৎকারে স্বাগত জানান। গত জুলাইয়ের ২৮ তারিখে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের ঘটনা এটি।

প্রাণবন্ত এ মেয়েটির নাম মাসুদা খান। অনেকে তাকে চিনবেন ‘মাসু আঁকে’ শব্দটি বললে। কারণ এই শব্দে তিনি পরিচিত ফেসবুক ইনস্টাগ্রামে। মাসুদা ছবি আঁকেন, ছবি আঁকা শেখান।

ফেসবুক, ইনস্টায় তার পেজ ও অ্যাকাউন্ট রয়েছে। সেখানে পোস্ট করা ভিডিওগুলো মাসুদাকে ‘মাসু আঁকে’ বলে ভিডিও শুরু করতে দেখা যায়। আঁকার ভিডিও বানানো ছাড়াও ইদানীং তিনি অভিনয় করেন, ফটোশুটে অংশ নেন, কমিক বুক লেখেন।

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান
চিত্রশিল্পী, অভিনেত্রী মাসুদা খান। ছবি: সংগৃহীত

মাসুদা নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমার এখন ২৪ বছর বয়স। আমি একটু এক্সপ্লোর করছি কী কী করতে পারি। অভিনয় করলাম কিছুদিন আগে। ইউএনডিপির সঙ্গে একটা কমিক বুক লিখেছে ও এঁকেছি। মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশেও অংশ নিয়েছিলাম। আমি আসলে অনেক কিছুই ট্রাই করে দেখছি, কোনটা করতে ভালো লাগে।’

মাসুদ লেখাপড়া করছেন ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে, অ্যাপ্লাইড লিঙ্গুইস্টিকস বিষয়ে চতুর্থ বর্ষে। তিনি মনে করছেন, ইংরেজি সাবজেক্টটি তাকে অনেক কিছু করতে সাহায্য করছে।

মাসুদা বলেন, ‘যেহেতু আমার টেকনিক্যাল সাবজেক্ট না, তাই আমার অনেক কিছু করার সুযোগ আছে। যদি আমি ডক্টর বা ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার জন্য পড়তাম, তাহলে সাবজেক্টে ফোকাস বেশি করতে হতো।’

আর্টের মধ্যে সব সময় থাকতে চান মাসুদা। আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘আমি একদিন বইও লিখতে চাই এবং সব সময় পড়াশোনা করে যেতে চাই। এটাই আমার ক্যারিয়ার চয়েস। জানি একটু এলোমেলো।’

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান
চিত্রশিল্পী, অভিনেত্রী মাসুদা খান। ছবি: সংগৃহীত

মাসুদা নিজেকে কনটেন্ট ক্রিয়েটর হিসেবেও দাবি করেন। ফেসবুকে তার পেজের নাম ‘জলতরঙ্গ: মাসু.আকে’স আর্ট জার্নাল উপ’, ইনস্টাগ্রামে তার অ্যাকাউন্টের নাম ‘মাসু.আঁকে’।

ফেসবুক পেজ ও অ্যাকাউন্টে রয়েছে মাসুদার ভিডিও ও নানা ছবি। ২০১৮ থেকে আঁকা নিয়ে তার ভিডিও বানানো শুরু, করোনার সময় সেটি বেড়ে যায়। মাসুদা জানান, শখ থেকেই ভিডিও বানানো শুরু তার।

মাসুদা বলেন, ‘আমার তো আঁকতে ভালো লাগে। প্রথম দিকে সিলি সিলি ভিডিও বানিয়ে বন্ধুদের পাঠাতাম। অনলাইনে আপলোড করার পর অনেকে বললেন যে, ভিডিওগুলো লম্বা করার জন্য। তারপর নিজের পছন্দের পাশাপাশি দর্শকের পছন্দকেও প্রাধান্য দেয়া শুরু করলাম।’

নিজের ফোনেই কনটেন্ট তৈরির সব কাজ করেন মাসুদা। তার ভিডিওতে একটি ইমপারফেকশন থাকবে, সেটাই মাসুদার পছন্দ। মাঝে মাঝে মনে হয় কেউ সাহায্য করলে ভালো হতো, কিন্তু সেটাও তার কাছে তেমন সমস্যার কিছু না।

নিজের প্ল্যাটফর্মটাকে আরও অনেক বড় করতে চান। কিন্তু এ মুহূর্তে সাবস্ক্রাইবাররা যেভাবে ভালোবাসা দিচ্ছে সেটা তার কাছে পারফেক্ট মনে হচ্ছে। যদি সপ্তাহে দুটি করে কনটেন্ট দিতে পারতেন, তাহলে হয়তো ফলোয়ার আরও বাড়ত বলে মনে করেন মাসুদা। কিন্তু যা হচ্ছে বা যেভাবে এগোচ্ছে সেটাও তার কাছে ঠিকই মনে হচ্ছে।

ভিডিওতে ‘মাসু আঁকে’, বাইরে প্রাণবন্ত মাসুদা খান
চিত্রশিল্পী, অভিনেত্রী মাসুদা খান। ছবি: সংগৃহীত

মাসুদা বলেন, ‘ছবি আঁকা আমার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। কিন্তু আমার কিছু এক্সট্রা কারিকুলারও আছে। আমি সব কিছুর একটা ব্যালান্স রাখতে চাই জীবনে।’

কনটেন্ট ক্রিয়েশনের কারণেই চমৎকার, ফাটাফাটি, জোস জোস জায়গায় কোলাবোরেশন করতে পেরেছেন বলে জানান মাসুদা। বলেন, ‘এটা আমার জন্য একটা ক্যারিয়ার চয়েস এবং এটা আমি কনসিডার করছি।’

মাসুদা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ পরিচিত। তার করা ভিডিও কিংবা নানা আয়োজনে তাকে যে প্রাণবন্ত মুডে অন্য মানুষরা আবিষ্কার করেন, তাতে তিনি আরও পছন্দের হয়ে ওঠেন সবার কাছে।

নুহাশ হুমায়ূনের পরিচালনায় একটি কনটেন্টে কাজ করে তার পরিচিতি বেড়েছে আরও কিছুটা। এই পরিচিতি পাওয়ার বিষয়টায় বেশ মজা পাচ্ছেন মাসুদা। কী করবেন তিনি, কী হবে, তা নিয়ে এত ভাবছেন না। সময়টা উপভোগ করছেন আর যে কাজটি করতে ইচ্ছে করছে সেখানে নিজের শতভাগ দিয়ে যুক্ত হচ্ছেন মাসুদা খান।

মন্তব্য

p
উপরে