× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

বিনোদন
Raj is very serious Yashs blood acting Mim
hear-news
player
print-icon

রাজ খুবই সিরিয়াস, ইয়াশের রক্তে অভিনয়: মিম

রাজ-খুবই-সিরিয়াস-ইয়াশের-রক্তে-অভিনয়-মিম
পরান-এর তিন অভিনয়শিল্পী রাজ-মিম-ইয়াশ। ছবি: ফেসবুক
দেশের চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিতে রাজের মতো আরও নায়কের দরকার আছে উল্লেখ করে মিম লেখেন, ‘আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে শরীফুল রাজের মতো হিরো আরও দরকার। সে আরও অসাধারণ সব কাজ করুক, সেটাই আমার চাওয়া।’

ঈদে মুক্তি পেয়েছে নির্মাতা রায়হান রাফি পরিচালিত সিনেমা পরান। মুক্তির পর থেকেই দর্শকদের প্রশংসায় ভাসছে সিনেমাটি। শুধু তাই নয়, দর্শকদের আগ্রহের কারণে শো ও হলের সংখ্যাও বেড়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সিনেমাটির প্রধান তিন অভিনয়শিল্পী শরিফুল রাজ, বিদ্যা সিনহা মিম ও ইয়াশ রোহানকে প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন দর্শকরা। এবার সিনেমাটির দুই অভিনেতা রাজ ও ইয়াশকে নিয়ে নিজের অনুভূতি ও মতামত জানালেন অভিনেত্রী মিম।

বুধবার রাতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তিনজনের যৌথ একটি ছবি পোস্ট করে মিম লেখেন, ‘পরানের দুই হিরোকে নিয়ে কিছু বলতে চাই। শুরুতে রোমানকে নিয়ে কিছু বলতে চাই, যার আসল নাম শরীফুল রাজ। সিনেমা করার আগে রাজের সঙ্গে সেভাবে পরিচয় ছিল না৷

‘রিহার্সেলের সময় ফার্স্ট দেখা। অল্প সময়েই এমন মনে হচ্ছিল যেন তার সঙ্গে অনেক দিনের পরিচয়। হাসি, ঠাট্টার সাথে রিহার্সেল হয়ে উঠেছিল আনন্দময়। রাজ খুব সাদাসিধে একটা ছেলে, তবে ভেতরে ভেতরে বেশ চঞ্চল। রাজের মনটা অনেক ভালো।’

তিনি আরও লেখেন, ‘রাজ অনেক স্ট্রাগল করে আজকের এই অবস্থানে এসেছে। রাজ যখন আরও বড় কিছু হবে, তখনও তার মাঝে সেই সিমপ্লিসিটিটা থাকবে বলে আমি আশা করি, যা কিনা এখন আছে। কাজের সময় রাজ খুবই সিরিয়াস থাকে, মাথায় নিজের ক্যারেক্টার ছাড়া আর কিছুই থাকে না তার। অন্য সবকিছু ভুলে যায় সে।

‘নতুনদের মাঝে এটা খুব কম দেখা যায়। কাজের সময় একবারও মনে হয়নি, পরান রাজের তিন নম্বর সিনেমা। সব সময়ই মনে হয়েছে, একজন এক্সপেরিয়েন্সড অভিনেতার সঙ্গে কাজ করছি।’

দেশের চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রিতে রাজের মতো আরও নায়কের দরকার আছে উল্লেখ করে মিম লেখেন, ‘আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে শরীফুল রাজের মতো হিরো আরও দরকার। সে আরও অসাধারণ সব কাজ করুক, সেটাই আমার চাওয়া।’

এরপর ইয়াশের কথা উল্লেখ করে মিম লেখেন, ‘এবার কথা বলব সিফাতকে নিয়ে, মানে আমাদের ইয়াশ রোহান। অনেক সুইট আর কিউট একজন ছেলে যে রকম হয়, ইয়াশ ঠিক সে রকম একজন ছেলে। খুবই ভদ্র, যাকে বলা যায় অতিরিক্ত ভদ্র।

‘খুবই ফ্রেন্ডলি, এক্টিং এর সময় সেই ক্যারেক্টারেই থাকার চেষ্টা করে সে। তিনজনের যখন একত্রে সিন থাকত, খুবই মজা করে কাজ করতাম। খুব ভালো করে রিহার্সাল করতাম।’

অভিনয়শিল্পী পরিবারের সন্তান ইয়াশের অভিনয়গুণে মুগ্ধতা প্রকাশ করে মিম আরও লেখেন, ‘অভিনয় জিনিসটা আসলে ইয়াশের রক্তে। যার বাবা নরেশ ভুঁইয়া আর মা হলেন শিল্পী সরকার অপুর মত অভিনেতা, তাদের ছেলে অসাধারণ অভিনয় তো করবেই!

‘ইয়াশ রোহান খুবই ভালো অভিনেতা। আমি চাই, ইয়াশ যেন ফিল্মে অনেক নিয়মিত হয়, আরও চমৎকার কিছু সিনেমা যেন তার ক্যারিয়ারে যুক্ত হয়।’

এদিকে ঈদে ১১টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেলেও শুক্রবার থেকে ৫৫টি প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি চলবে বলে জানিয়েছে পরান-এর কলাকুশলীরা।

আরও পড়ুন:
‘পরান’-এর দৃশ্য দেখে চোখ দিয়ে পানি পড়েছে: মিম
বন্যার্তদের জন্য পরিবহন সেবা তামিম-সৌম্যের
সীতাকুণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার আহ্বান তামিমের
ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হলেন মিম
‘আমাকে বল দেন, ম্যাচ ঘুরিয়ে দেব’

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
Catherine wants to make paper flowers

‘কাগজের ফুল’ ফোটাতে চান ক্যাথরিন

‘কাগজের ফুল’ ফোটাতে চান ক্যাথরিন নির্মাতা দম্পতি তারেক মাসুদ ও ক্যাথরিন মাসুদ। ছবি: সংগৃহীত
ক্যাথরিন মাসুদ বলেন, “মিশুকও যদি বেঁচে থাকতেন, তাহলেও হয়তো ‘কাগজের ফুল’ সিনেমাটি নিয়ে এগিয়ে যাওয়া যেত। বছরের পর বছর, আস্তে আস্তে একটা টিম পরিণত হয়। তারেক, মিশুক আর আমি কাজ শুরু করেছিলাম ‘আদম সুরত’ দিয়ে। ৩০ বছরের সম্পর্ক। এক মুহূর্তের মধ্যে সেই ৩০ বছরের সম্পর্ক নিঃশেষ হয়ে গেল।”

২০১১ সালের ১৩ আগস্ট। ‘কাগজের ফুল’ সিনেমার লোকেশন দেখে মাইক্রোবাসে ফিরছিলেন নির্মাতা তারেক মাসুদ ও তার সঙ্গীরা। পথে মানিকগঞ্জের ঘিওরে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান তারেক, সাংবাদিক ও সিনেমাটোগ্রাফার মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন।

সেই ট্র্যাজেডিতে নির্মাতার সঙ্গে মৃত্যু হয়েছিল চলচ্চিত্রটিরও। ১১ বছর পর তাতে প্রাণ ফেরানোর ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন তারেকের নির্মাতা স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদ।

আরও পড়ুন: সেই বাসচালক জামিরের মৃত্যুর ২ বছরেও ঘূর্ণিজাল, জীবন সংশয়ে স্ত্রী

সড়কে তারেকের নিহত হওয়ার বার্ষিকীর এক দিন আগে শুক্রবার রাজধানীর কাঁটাবনে পাঠক সমাবেশে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ ইচ্ছার কথা জানান।

মুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটির আয়োজনে তারেক মাসুদের ‘চলচ্চিত্রযাত্রা’ বইয়ের পাঠ পর্যালোচনা শেষে ক্যাথরিনকে প্রশ্ন করা হয় ‘কাগজের ফুল’ নিয়ে। জবাবে তিনি জানান, এই প্রশ্নটা তাকে হাজারবার শুনতে হয়েছে।

ক্যাথরিন বলেন, “আমাদের সবারই স্বপ্ন ছিল ‘কাগজের ফুল’ সিনেমাটা। তখন কাজটা শুরুই হয়নি; আমরা শুধু স্ক্রিপ্টটা লিখেছিলাম। প্রি-প্রোডাকশনের কাজ এগিয়েছিল; লোকেশনগুলো দেখা হচ্ছিল।”

১১ বছর আগের স্মৃতিচারণা করে তার সঙ্গে বর্তমানের তুলনা করেন নির্মাতা ক্যাথরিন। তিনি বলেন, ‘১১ বছর আগে সিনেমার যে বাজেট ছিল, তখন সেটা আমাদের কাছে বিশাল পাহাড়। আমরা মনে করতাম এত বড় বাজেটের সিনেমা কী করে সম্ভব বাংলাদেশে। মনে হয় বাংলাদেশ তো অনেক এগিয়েছে চলচ্চিত্রের ক্ষেত্রে। ভালো ভালো কাজ হচ্ছে। এখন হয়তো সম্ভাবনা আছে এই কাজটা আবার নতুন করে শুরু করার।

‘আমার ইচ্ছা আছে। আমার সঙ্গে এবং আশপাশের মানুষ যারা আছেন, তারা যদি আগ্রহী থাকেন, তাদেরও এই দায়িত্বে অংশগ্রহণ করতে হবে। এই দেশের মাটিতে, এই জগতে যতদিন থাকি, সেটা অবশ্যই আমার ইচ্ছা কাজটা শেষ করার।’

বাইরে থেকে অনেকেই ব্যক্তি ক্যাথরিন মাসুদকে বুঝতে পারছিলেন না বলে জানান নির্মাতা। তিনি বলেন, ‘২০১১ সালের দুর্ঘটনার পর একজন মানুষের ওপর কী চাপটা পড়তে পারে। এক বছরের বাচ্চা আমার হাতে। আমার ওপর যে কী চাপ ছিল, সেটা কেউ বুঝতে পারেনি। আমিও বিষয়টি নিয়ে রাগারাগি করিনি।’

তারেক মাসুদ, মিশুক মুনীর ও ক্যাথরিন একসঙ্গে কাজ করে আসছিলেন। দুজনকে হারিয়ে আরও দিশাহারা হয়ে পড়েন ক্যাথরিন।

তিনি বলেন, “মিশুকও যদি বেঁচে থাকতেন, তাহলেও হয়তো ‘কাগজের ফুল’ সিনেমাটি নিয়ে এগিয়ে যাওয়া যেত।

“বছরের পর বছর, আস্তে আস্তে একটা টিম পরিণত হয়। তারেক, মিশুক আর আমি কাজ শুরু করেছিলাম ‘আদম সুরত’ দিয়ে। ৩০ বছরের সম্পর্ক। এক মুহূর্তের মধ্যে সেই ৩০ বছরের সম্পর্ক নিঃশেষ হয়ে গেল।”

দুর্ঘটনায় নিহত নির্মাতাকে নিয়ে নানা ধরনের কাজ করেছেন ক্যাথরিন। তারেক মাসুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট, বই ও ডিভিডি প্রকাশের মতো কাজের উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি।

ক্যাথরিন বলেন, ‘হয়তো আমরা কেউই ভাবতে পারি না যে, ক্রিয়েটিভ পার্টনার তাদের লাইফ পার্টনার হারানোর পরে এত বড় একটা দায়িত্ব কীভাবে সামলায়। তারপরও কিন্তু আমি এগিয়ে গিয়েছি, চেষ্টা করেছি।’

চার বছর পর যুক্তরাষ্ট্র থেকে ঢাকায় এসেছেন ক্যাথরিন মাসুদ। শনিবার সারা দিন তিনি কাটাবেন ফরিদপুরে তারেক মাসুদের গ্রামের বাড়িতে।

আরও পড়ুন:
সেই বাসচালক জামিরকে নিয়ে হচ্ছে ডকুফিল্ম 
সেই বাসচালক জামিরের মৃত্যুর ২ বছরেও ঘূর্ণিজাল, জীবন সংশয়ে স্ত্রী
তারেক মাসুদের সমাধিতে ফুলেল শ্রদ্ধা
তারেক মাসুদের শেষ ছবির ভাগ্যে কী ঘটল?
প্রয়াণ দিবসে ‘তারেক মাসুদ ও তাঁর স্বপ্নসংক্রান্ত’

মন্তব্য

বিনোদন
Its like a film journey that doesnt stop

‘তারেকই যেন চলচ্চিত্রযাত্রা, যা থামবার নয়’

‘তারেকই যেন চলচ্চিত্রযাত্রা, যা থামবার নয়’ রাজধানীর কাঁটাবনে পাঠক সমাবেশে শুক্রবার সন্ধ্যায় তারেক মাসুদের বই নিয়ে আলোচনা সভায় তার স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদসহ অতিথিরা। ছবি: নিউজবাংলা
নির্মাতা তারেক মাসুদকে নিয়ে তার স্ত্রী ক্যাথরিন বলেন, ‘…তার চলচ্চিত্র ও ভাবনার মধ্য দিয়ে তরুণ চলচ্চিত্রকারের কাছে তারেক মাসুদ নিজেই হয়ে ওঠেন একটি চলচ্চিত্রযাত্রা, যা কখনোই থামবার নয়।’

সঙ্গীদের নিয়ে ফিরছিলেন ‘কাগজের ফুল’ নামের চলচ্চিত্রের লোকেশন দেখে। ফিরতি পথে চারজনের সঙ্গে শিকার হলেন দুর্ঘটনার। তাতে কৃত্রিম ফুলের মতোই হয়ে গেলেন নিষ্প্রাণ।

মর্মান্তিক ঘটনাটি ২০১১ সালের ১৩ আগস্টের। মানিকগঞ্জের ঘিওরে মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায় একসঙ্গে প্রাণ হারিয়েছিলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদ, সাংবাদিক-সিনেমাটোগ্রাফার মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন। তাদের নিহত হওয়ার ১১তম বার্ষিকী আজ।

বেদনাদায়ক সে প্রস্থানের অনেক আগে চলচ্চিত্রযাত্রা শুরু করেছিলেন তারেক মাসুদ। এ যাত্রা কখনও থামবার নয় বলে মনে করেন তার স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদ।

তারেকের অন্তিমযাত্রার বার্ষিকীর এক দিন আগে তার লেখা বই ‘চলচ্চিত্রযাত্রা’ নিয়ে আলোচনায় এ মত দেন নির্মাতার সহধর্মিণী।

রাজধানীর কাঁটাবনে পাঠক সমাবেশে শুক্রবার সন্ধ্যায় ছিল সে আয়োজন। তাতে নির্মাতা ক্যাথরিন বলেন, তারেক নিজের ক্ষেত্রে বুদ্ধিজীবী শব্দটা পছন্দ করতেন না। নিজেকে তিনি চলচ্চিত্র চিন্তাবিদ পর্যন্ত দেখতে পছন্দ করেছেন।

তিনি বলেন, সমাজ, সংস্কৃতি, রাজনীতি নিয়ে এসব চিন্তা তারেকের নির্মাণ, বক্তব্য ও লেখার মধ্য দিয়ে প্রকাশ হতো।

সিনেমা নির্মাণের পাশাপাশি তারেকের স্বপ্ন ছিল লেখাগুলো বই আকারে প্রকাশের। এ কথা কোনো এক রাতে নিবন্ধ লিখতে লিখতে ক্যাথরিনকে বলছিলেন তিনি। তাই তারেকের মৃত্যুর পর যা যা করার তলিকা ক্যাথরিন করেছিলেন, তার মধ্যে শুরুর দিকে ছিল বই প্রকাশ।

স্ত্রী জানান, তারেক নিজেও তার লেখায় আর্কাইভ বা সংরক্ষণকে খুব গুরুত্ব দিয়েছেন। নির্মাতার সৃজনশীল কাজের সঙ্গীরাও তার ভাবনাগুলো লেখার মাধ্যমে সংরক্ষণ করে ছড়িয়ে দিতে চান বর্তমান ও ভবিষ্যতে।

লেখাগুলোর মধ্য দিয়ে প্রায় এক যুগ আগে প্রাণ হারানো তারেক বেঁচে থাকবেন বলে আশা ক্যাথরিনের। তার ভাষ্য, ‘তারেক মাসুদের ভাবনা বর্তমান ও ভবিষ্যতকে যদি নাড়া দিতে পারে, নতুনদের ভাবনা আর তাদের কাজের ওপর যদি প্রভাব ফেলতে পারে, তাহলে সেই সূত্রে তারেক মাসুদকে আমরা জীবিত রাখতে পারব।’

তারেককে ‘সিনেমার ফেরিওয়ালা’ বলা হয়। তিনি সিনেমা নির্মাণ এবং তা নিজেই দর্শক পর্যন্ত পৌঁছে দেয়ার চেষ্টা করে গেছেন। শুধু এ কারণেই তাকে ফেরিওয়ালা বলা হয় কি না, সে প্রশ্ন ছিল আলোচনায় অংশ নেয়া একজনের।

বিষয়টির ব্যাখ্যা করে তারেকের অনেক কাজের সঙ্গী ক্যাথরিন বলেন, ‘সে সিনেমা নির্মাণ করে মানুষের কাছে নিয়ে যেত এবং সিনেমা দেখা শেষে যে আলোচনা হতো, সেখানে তারেক নিজেকে সম্পৃক্ত করত। সে মানুষের সঙ্গে কথা বলত।

‘সিনেমা সম্পর্কে তাদের প্রতিক্রিয়া কী, সেটা জানতে চাইত। সেই প্রতিক্রিয়া নিজের মধ্যে নিয়ে নিত এবং পরে সেগুলো নিয়ে বোঝাপড়া করত।’

আলোচনার একপর্যায়ে ক্যাথরিন মজার ছলে বলেন, তারেক ছিলেন দুঃশ্চিন্তাবিদ। দেশ, সংস্কৃতি, সিনেমা, রাজনীতিসহ নানা বিষয়ে ছিল তার দুঃশ্চিন্তা। তিনি যা লিখেছেন, তার চেয়ে অনেক বেশি বলতেন।

তিনি বলেন, এ বিষয়গুলো যেন থেমে না থাকে, এগুলো যেন ছড়িয়ে যায়, সে জন্য তারেকের অনেক লেখা নিয়ে প্রকাশ করা হয়েছে ‘চলচ্চিত্রযাত্রা’।

তারেকের চলচ্চিত্র ভাবনা নিয়ে লেখা বইয়ের বিষয়ে তার স্ত্রী বলেন, ‘চলচ্চিত্র বা চলচ্চিত্র ভাবনার তাবৎ কিছু নিয়ে তারেক মাসুদের যে চলচ্চিত্রযাত্রা, তা বর্তমানে এসে রূপান্তরিত হয়েছে সাহসে। আর এ সাহসের নাম তারেক মাসুদ।

‘…তার চলচ্চিত্র ও ভাবনার মধ্য দিয়ে তরুণ চলচ্চিত্রকারের কাছে তারেক মাসুদ নিজেই হয়ে ওঠেন একটি চলচ্চিত্রযাত্রা, যা কখনোই থামবার নয়।’

আরও পড়ুন:
সেই বাসচালক জামিরকে নিয়ে হচ্ছে ডকুফিল্ম 
সেই বাসচালক জামিরের মৃত্যুর ২ বছরেও ঘূর্ণিজাল, জীবন সংশয়ে স্ত্রী
তারেক মাসুদের সমাধিতে ফুলেল শ্রদ্ধা
তারেক মাসুদের শেষ ছবির ভাগ্যে কী ঘটল?
প্রয়াণ দিবসে ‘তারেক মাসুদ ও তাঁর স্বপ্নসংক্রান্ত’

মন্তব্য

বিনোদন
Shahrukhs look leaked in Ranveer Alias Brahmastra

রণবীর-আলিয়ার ‘ব্রহ্মাস্ত্র’তে শাহরুখের লুক ফাঁস

রণবীর-আলিয়ার ‘ব্রহ্মাস্ত্র’তে শাহরুখের লুক ফাঁস ব্রহ্মাস্ত্রতের দৃশ্যে রণবীর-আলিয়া ও ফাঁস হওয়া লুকে শাহরুখ (ডানে)। ছবি: সংগৃহীত
এদিকে এই ভিডিও সত্যিই ‘ব্রহ্মাস্ত্রে’র কি না বা কীভাবে প্রকাশ পেল তা জানা যায়নি। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শাহরুখ ভক্তরা দাবি করছেন ‘ব্রহ্মাস্ত্র’তে বনরাস্ত্র-এর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তিনি।

বলিউডের আলোচিত তারকা রণবীর কাপুর ও আলিয়া ভাট জুটির বহুল প্রতীক্ষিত প্রথম সিনেমা ব্রহ্মাস্ত্র। ২০১৭ সালে প্রথম শোনা যায় এই সিনেমার নাম। দীর্ঘদিনের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে আগামী মাসে মুক্তি যাচ্ছে এটি।

গত জুনে প্রকাশ পেয়েছে ব্রহ্মাস্ত্রর ট্রেইলার। চোখ ধাঁধানো ট্রেইলার নজর কেড়েছে দর্শকের।

যেখানে ত্রিশূল হাতে একটি চরিত্রকে দেখা যায়। তার মুখ স্পষ্ট না হলেও চেহারা দেখে অনেকেই অনুমান করছেন সেই ব্যক্তি শাহরুখ খান। কারণ কয়েক মাস আগে এক সাক্ষাৎকারে শাহরুখ স্বীকার করেছিলেন যে ব্রহ্মাস্ত্রতে একটি ক্যামিও চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। তাই নেটিজেনদের অনুমান ট্রেইলারের ওই চরিত্রটি আসলে কিং খান।

এদিকে সম্প্রতি টুইটারে এক ফ্যান পেজ থেকে শাহরুখের ব্রহ্মাস্ত্রর একঝলক ফাঁস হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে; এমনটাই জানিয়েছে ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যম।

অনলাইনে ফাঁস হওয়া ভিডিওতে রক্তাক্ত অবস্থায় হাঁটু গেড়ে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে শাহরুখকে। এতে বলিউডের বাদশাকে তার সিগনেচার পোজে দেখা যাচ্ছে। তার চারদিকে সোনালি আলোর ছটা। এরই মধ্য দিয়ে তাকে হাওয়ায় ভাসতেও দেখা যাচ্ছে।

View this post on Instagram

A post shared by HT City (@htcity)

এদিকে এই ভিডিও সত্যিই ব্রহ্মাস্ত্রের কি না বা কীভাবে প্রকাশ পেল তা জানা যায়নি। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শাহরুখ ভক্তরা দাবি করছেন ব্রহ্মাস্ত্রতে বনরাস্ত্র-এর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তিনি।

অয়ন মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এই সিনেমায় রণবীর-আলিয়া ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ সব চরিত্রে অভিনয় করেছেন অমিতাভ বচ্চন, মৌনী রায় ও দক্ষিণী তারকা নাগার্জুন। আগামী ৯ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাবে ব্রহ্মাস্ত্র

আরও পড়ুন:
রণবীর ‘নারীদের অনুভূতিতে আঘাত করেছেন’ দাবি করে এফআইআর আবেদন
বক্স অফিসে কেমন সাড়া ফেলল রণবীরের ‘শামশেরা’
শাহরুখের ‘ডঙ্কি’ লুক ফাঁস!
শাহরুখের ‘জওয়ান’-এ কি ভিলেন হয়ে আসছেন বিজয় সেতুপতি
আলিয়ার ব্যাঙ ও বিচ্ছুর গল্প শোনার তর সইছে না শাহরুখের

মন্তব্য

বিনোদন
Nuhashs Mashari is becoming an important contender for Oscar nominations

অস্কার মনোনয়নে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগী হয়ে উঠছে নুহাশের ‘মশারী’

অস্কার মনোনয়নে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগী হয়ে উঠছে নুহাশের ‘মশারী’ স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা ‘মশারী’র দৃশ্যে সুনেরাহ বিনতে কামাল। ছবি: সংগৃহীত
নুহাশের স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা ‘মশারী’ প্রথম বাংলাদেশি সিনেমা, যা এসএক্সএসডব্লিউ শর্টস ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল প্রোগ্রামে প্রিমিয়ার হয়েছে, যেখানে এটি সেরা মিডনাইট শর্ট জিতেছে।

আন্তর্জাতিক যে চলচ্চিত্র উৎসবে সিনেমা প্রদর্শিত হলে সরাসরি অস্কারে প্রতিযোগিতা করার যোগ্যতা পাওয়া যায়, সেগুলোর মধ্যে হলিশর্টস চলচ্চিত্র উৎসব অন্যতম। এবার সেখানে প্রদর্শিত হতে যাচ্ছে নুহাশ হুমায়ূনের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র মশারী

উৎসবের পর্দা উঠেছে সিনেমাটি প্রদর্শনের মাধ্যমে। এ বছরের আগস্টে হলিশর্টস ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল তাদের ১৮ বছর উদযাপন করছে। এখানে শীর্ষস্থানীয় নির্মাতা, প্রযোজক, প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো একত্র হয় এবং অনেক চলচ্চিত্র নির্মাতাকে তাদের ক্যারিয়ারের পরবর্তী পর্যায়ে নিয়ে যায়।

নুহাশের স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা মশারী প্রথম বাংলাদেশি সিনেমা, যা এসএক্সএসডব্লিউ শর্টস ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল প্রোগ্রামে প্রিমিয়ার হয়েছে, যেখানে এটি সেরা মিডনাইট শর্ট জিতেছে।

মশারী আটলান্টা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সেরা ন্যারেটিভ শর্টের জন্য পুরস্কারও ঘরে তুলেছে। ২০ আগস্ট সেই পুরস্কার দেয়া হবে।

ফিল্ম বিজনেস ডটকম মশারী সিনেমাটিকে ২০২২ সালের অস্কারের মনোনয়নের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগী বলে উল্লেখ করেছে।

মশারী মূলত ভ্যাম্পায়ার ঘরানার স্বল্পদৈর্ঘ্য সিনেমা, যা বলা হয়েছে নতুন পদ্ধতি। পৌরাণিক রক্ত ​​চোষা দানবদের বসবাসের জন্য একটি অনন্য ল্যান্ডস্কেপ নতুন করে উদ্ভাবন করেছে স্বল্পদৈর্ঘ্যটি।

আরও পড়ুন:
আমেরিকায় পুরস্কৃত নুহাসের সিনেমা
নুহাশ প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে সানড্যান্সে
ফেস্টিভ্যালে নুহাশের ‘মশারী’
নুহাশের পরিচালনায় চারুকলার তিন শিক্ষার্থী
ছবিটা ফেসবুকে দিতে পার: নুহাশকে মা

মন্তব্য

বিনোদন
How is Lal Singh Chadhas response at the box office?

বক্স অফিসে সাড়া কেমন ‘লাল সিং চাড্ডা’র

বক্স অফিসে সাড়া কেমন ‘লাল সিং চাড্ডা’র লাল সিং চাড্ডার দৃশ্যে আমির খান। ছবি: সংগৃহীত
আমিরের ‘থাগস অফ হিন্দুস্তান’ হিন্দি বক্স অফিসের ইতিহাসে সবচেয়ে ফ্লপ সিনেমাগুলোর একটি। সিনেমাটি মুক্তির দিনে ৫২ কোটি রুপি আয় করেছিল। লাল সিং চাড্ডার আয় এর চেয়ে অনেক কম।

একাধিকবার পিছিয়েছে তারিখ। অবশেষে বৃহস্পতিবার মুক্তি পেয়েছে বলিউডের ‘মিস্টার পারফেকশনিস্ট’ আমির খানের বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমা লাল সিং চাড্ডা

হলিউডের সাড়া জাগানো সিনেমা ফরেস্ট গাম্প-এর রিমেক এ সিনেমা মুক্তির আগেই বয়কটের ডাক দিয়েছে ভারতীয় দর্শকদের একাংশ, তবে তা সামলে উঠে বড় পর্দায় প্রদর্শন শুরু করা হয়েছে সিনেমাটি।

মুক্তির পর প্রথম দিন কেমন ব্যবসা করেছে সিনেমাটি, তা প্রতিবেদনে তুলে ধরেছে বক্স অফিস ইন্ডিয়া ডটকম। সংবাদমাধ্যমটির বরাত দিয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়, মুক্তির দিনে সিনেমাটির আয় ১০ কোটি ৭৫ লাখ রুপি, যা হতাশাজনক।

বলিউড হাঙ্গামা বলছে, আমির খানের জন্য বক্স অফিসে এটি গত ১৩ বছরে সর্বনিম্ন ওপেনিং।

আমিরের থাগস অফ হিন্দুস্তান হিন্দি বক্স অফিসের ইতিহাসে সবচেয়ে ফ্লপ সিনেমাগুলোর একটি। সিনেমাটি মুক্তির দিনে ৫২ কোটি রুপি আয় করেছিল। লাল সিং চাড্ডার আয় এর চেয়ে অনেক কম।

বক্স অফিসে সাড়া কেমন ‘লাল সিং চাড্ডা’র
লাল সিং চাড্ডার দৃশ্যে আমির খান ও কারিনা কাপুর। ছবি: সংগৃহীত

১৯৯৪ সালে অস্কারজয়ী সিনেমা ‘ফরেস্ট গাম্প’-এর অফিশিয়াল হিন্দি রিমেক লাল সিং চাড্ডা। এটি পরিচালনা করেছেন অদ্বৈত চন্দন। এতে আমিরের বিপরীতে রয়েছেন কারিনা কাপুর।

আরও পড়ুন:
আইপিএলের মাঝেই এলো ‘লাল সিং চাড্ডা’র ট্রেলার
কবে আসছে আমিরের ‘লাল সিং চাড্ডা’র ট্রেলার
‘আইপিএলে চান্স হবে’, ব্যাট হাতে প্রশ্ন আমিরের
করোনাকালে সিনেমা ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন আমির খান
এক বোতল মদ একাই শেষ করতেন আমির

মন্তব্য

বিনোদন
Border is a movie about gangs in the border area

সীমান্তবর্তী এলাকার গ্যাংদের নিয়ে সিনেমা ‘বর্ডার’

সীমান্তবর্তী এলাকার গ্যাংদের নিয়ে সিনেমা ‘বর্ডার’
সিনেমাটি মুক্তি পাবে ৯ সেপ্টেম্বর। তার আগে প্রচারের অংশ হিসেবে প্রকাশ পেল সিনেমাটির ফার্স্ট লুক পোস্টার। জাজ মাল্টিমিডিয়ার ফেসবুক পেজ থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রকাশ করা হয় পোস্টারটি।

বর্ডার হলো দুই দেশের সীমানা। এই সীমানা দিয়ে বৈধভাবে পার হয় মানুষ, গরু ও নানান দ্রব্যাদি। তেমনি আবার হয় মাদকসহ নানান দ্রব্যাদির চোরাচালান। এই চোরাচালানকে ঘিরে গড়ে ওঠে বেশ কিছু গ্যাং। আবার তাদের মাঝে ঘটে নানা ঘাত, প্রতিঘাত, সংঘাত।

সীমান্তবর্তী এলাকার কিছু মানুষের জীবনচক্র নিয়ে তৈরি হয়েছে সিনেমা ‘বর্ডার’। এর ধারণা দিতে গিয়ে এভাবেই সিনেমাটিকে ব্যাখ্যা করেছে এর পরিবেশক প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া।

সিনেমাটি মুক্তি পাবে ৯ সেপ্টেম্বর। তার আগে প্রচারের অংশ হিসেবে প্রকাশ পেল সিনেমাটির ফার্স্ট লুক পোস্টার।

জাজ মাল্টিমিডিয়ার ফেসবুক পেজ থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় প্রকাশ করা হয় পোস্টারটি। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সৈকত নাসির, কাহিনি আসাদ জামানের।

সিনেমায় অভিনয় করেছেন আশীষ খন্দকার, সুমন ফারুক, সাঞ্জু জন, অধরা খান, রাশেদ মামুন অপু, মৌমিতা মৌ, শাহিন মৃধাসহ অসেকে। সিনেমাটি প্রযোজনা করেছে ম্যাক্সিমাম এন্টারটেইনমেন্ট।

আরও পড়ুন:
‘হাওয়া’ সিনেমায় বন্য প্রাণী আইন লঙ্ঘিত হয়েছে
দেশের সিনেমায় পার্নো, বিষয় নারীর বহুমূত্র-শৌচাগার সমস্যা
সিনেমায় বন্যপ্রাণী আইন লঙ্ঘন, বিএনসি-এর উদ্বেগ
ময়মনসিংহ মাতালো ‘হাওয়া’ টিম
পরাণ, হাওয়া দেখতে এখনও ভিড়

মন্তব্য

বিনোদন
Wildlife laws are violated in Hawa movie

‘হাওয়া’ সিনেমায় বন্য প্রাণী আইন লঙ্ঘিত হয়েছে

‘হাওয়া’ সিনেমায় বন্য প্রাণী আইন লঙ্ঘিত হয়েছে হাওয়া সিনেমার দৃশ্যে চঞ্চল চৌধুরীর পেছনে খাঁচায় রাখা পাখি। ছবি: সংগৃহীত
এদিকে হাওয়া সিনেমা দেখতে দর্শকদের আগ্রহ বেড়েই চলেছে। ২৯ জুলাই মুক্তি পাওয়া সিনেমাটি ১২ আগস্ট থেকে দেখা যাবে দেশের ৪৮ প্রেক্ষাগৃহে। যে সংখ্যা প্রথম সপ্তাহে ছিল ২৩ ও দ্বিতীয় সপ্তাহে ছিল ৪১।

সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া হাওয়া সিনেমায় একটি শালিক পাখিকে খাঁচায় বন্দি অবস্থায় প্রদর্শন ও হত্যা করে খাওয়ার চিত্র দেখানো হয়েছে। এটি বন্য প্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন-২০১২ এর লঙ্ঘন।

বন্য প্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের ওয়াইল্ড লাইফ ইন্সপেক্টর অসীম মল্লিক নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘বিষয়টি নিশ্চিতভাবে আইনের লঙ্ঘন।’

অসীম মল্লিক জানান, তারা সিনেমাটি দেখেছেন। দেখেই এ মন্তব্য করছেন তিনি।

তাহলে এ নিয়ে হাওয়া সিনেমাসংশ্লিষ্টদের ক্ষেত্রে কী ধরনের পদক্ষেপ নেবেন, তা নিশ্চিত করে জানাননি তিনি। অসীম জানান, আইনের আওতায় থেকেই পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

অসীম বলেন, ‘সিনেমায় তো প্রথমেই বলা হয় যে সিগারেট মৃত্যু ঘটায়, বা সিগারেট স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। কিন্তু তারপরও তো সিনেমার মধ্যে সে ধরনের দৃশ্য দেখানো হয়। এটা একটা সতর্কতা। এমন কিছু বিষয় আছে, যেগুলো ঠিকঠাক যাচাই করে পরের পদক্ষেপ নিতে হবে।’

এদিকে হাওয়া সিনেমা দেখতে দর্শকদের আগ্রহ বেড়েই চলেছে। ২৯ জুলাই মুক্তি পাওয়া সিনেমাটি ১২ আগস্ট থেকে দেখা যাবে দেশের ৪৮ প্রেক্ষাগৃহে। যে সংখ্যা প্রথম সপ্তাহে ছিল ২৩ ও দ্বিতীয় সপ্তাহে ছিল ৪১।

অস্ট্রেলিয়াতে সিনেমাটি প্রদর্শিত হতে যাচ্ছে ১৪ আগস্ট থেকে। সেখানে ১৭টি প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি প্রদর্শনের পরিকল্পনা রয়েছে।

আরও পড়ুন:
হাশিম দেখলেন ‘হাওয়া’, ঘুরলেন চারুকলা
‘হাওয়া’ এক নতুন সাহস, দ্বিতীয় সিনেমায় ব্যস্ত হবেন সুমন
‘প্রত্যাশিত সেল হলে পরাণের মুনাফায় ৫টি সিনেমা নির্মাণ সম্ভব’
বিদেশেও হাউসফুল হতে শুরু করেছে ‘হাওয়া’
‘হাওয়া’ আর সিনেপ্লেক্সে মুগ্ধ সিলেটের দর্শক

মন্তব্য

p
উপরে