× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ পৌর নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য

বিনোদন
A web series is being created based on Bipashas story screenplay
hear-news
player

বিপাশার গল্প-চিত্রনাট্যে নির্মিত হচ্ছে ওয়েব সিরিজ

বিপাশার-গল্প-চিত্রনাট্যে-নির্মিত-হচ্ছে-ওয়েব-সিরিজ প্রস্তরকাল প্রদর্শনীতে বিপাশা হায়ত। ছবি: নিউজবাংলা
ওয়েব সিরিজটির নাম ‘আলো ও আঁধারের গল্প’। শাকিল জানান, এটি ড্রামা ঘরানার একটি কাজ। এর অভিনয়শিল্পীরা এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

অভিনেত্রী বিপাশা হায়াতের গল্প ও চিত্রনাট্যে নির্মিত হতে যাচ্ছে ওয়েব সিরিজ। গল্প চূড়ান্ত করার পর চলছে এর চিত্রনাট্যের কাজ।

নিউজবাংলাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওয়েব সিরিজটির প্রযোজক শাহরিয়ার শাকিল। তিনি নিউজবাংলাকে বলেন, ‘আমরা এখনও চিত্রনাট্য হাতে পাইনি। শিগগিরই পেয়ে যাব। আশা করছি জুনের প্রথমেই আমরা শুটিংয়ে যেতে পারব।’

ওয়েব সিরিজটির নাম ‘আলো ও আঁধারের গল্প’। শাকিল জানান, এটি ড্রামা ঘরানার একটি কাজ। এর অভিনয়শিল্পীরা এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

শাকিল আরও বলেন, ‘এটি ৫ পর্বের একটি ওয়েব সিরিজ হবে। চিত্রনাট্য পেলে আমার অভিনয়শিল্পী চূড়ান্ত করব। জুনে শুটিং শুরু করলে দেড় মাসের মতো লাগবে শেষ হতে। তার পর বায়োস্কোপে এটি প্রকাশ পাবে।’

বিপাশা হায়াত এখন দেশেই আছেন। ২৪ এপ্রিল তিনি চলে যাবেন আমেরিকায়। এখন সেখানেই থাকছেন তিনি।

রাজধানীর গ্যালারি চিত্রকে প্রদর্শীত হচ্ছে বিপাশা হায়াতের একক প্রদর্শনী ‘প্রস্তরকাল’। প্রদর্শনীটি চলবে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ১১ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত।

আরও পড়ুন:
বিপাশার ‘প্রস্তরকাল’ শুরু

মন্তব্য

আরও পড়ুন

বিনোদন
Mujib A storm of controversy after the release of the trailer

‘মুজিব’ ট্রেলার নিয়ে বিতর্কের ঝড়

‘মুজিব’ ট্রেলার নিয়ে বিতর্কের ঝড় মুজিব- দ্য মেকিং অফ আ ন্যাশন সিনেমার দৃশ্য। ছবি: ট্রেলার থেকে নেয়া
বঙ্গবন্ধু চরিত্রে আরিফিন শুভর কণ্ঠ, ভিএফএক্স, ইতিহাসের সঙ্গে ট্রেলারের দৃশ্য না মেলার মতো অনেক অসামঞ্জস্যতায় হতাশা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের বিভিন্ন পেশার মানুষ।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীভিত্তিক সিনেমা মুজিব- দ্য মেকিং অফ আ ন্যাশন এর ট্রেলার প্রকাশ পেয়েছে। ১ মিনিট ৩৮ সেকেন্ডের ট্রেলারটি প্রকাশেরর পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয়েছে সমালোচনার ঝড়।

বাঙালির ভীষণ আবেগ-ভালোবাসার মানুষ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে পর্দায় চরিত্রের মাধ্যমে দেখে হতাশ হয়েছেন সিনেমা সংশ্লিষ্ট থেকে শুরু করে সাধারণ দর্শকরা।

বঙ্গবন্ধু চরিত্রে আরিফিন শুভর কণ্ঠ, ভিএফএক্স, ইতিহাসের সঙ্গে ট্রেলারের দৃশ্য না মেলার মতো অনেক অসামঞ্জস্যতা আছে দাবি করে হতাশা প্রকাশ করেছেন দেশের বিভিন্ন পেশার মানুষ।

‘মুজিব’ ট্রেলার নিয়ে বিতর্কের ঝড়
‘মুজিব’ সিনেমায় বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করেছেন আরিফিন শুভ। ছবি: ট্রেলার থেকে নেয়া

দেশের বরেণ্য গীতিকার-সুরকার প্রিন্স মাহমুদ স্ট্যাটাসে লিখেছিলেন, ‘শুভর ভয়েস আবার ডাব করেন’ (সংক্ষিপ্ত)। স্ট্যাটাসটি অবশ্য এখন আর নেই তার ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে।

নির্মাতা গাজী শুভ্র ‘সহমত’ জানিয়েছেন প্রিন্স মাহমুদের বক্তব্যকে।

‘shame…. বনে গেলাম’ লিখেছেন সাংবাদিক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা।

সাংবাদিক, নাট্যকার পলাশ মাহবুব লিখেছেন, ‘Trailer is not satisfactory. (ট্রেলার সন্তোষজনক নয়)’ (সংক্ষিপ্ত)

সাংবাদিক, নির্মাতা, প্রযোজক জসিম আহমেদ লিখেছেন, ‘১২০ কোটি টাকার শ্রাদ্ধ করে এই ভিএফএক্স, এই গ্রিন স্ক্রিন লাইটিং? টিচারের কাম দেখে ছাত্রদের লজ্জা লাগতেছে।’

চলচ্চিত্রকার, চলচ্চিত্র সমালোচক বেলায়াত হোসেন মামুন লেখেন, ‘কি দেখলাম এটা! না দেখলেই ভালো হতো…’ (সংক্ষিপ্ত)

পরিচালক ফাখরুল আরেফীন খান লিখেছেন, ‘আজ দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে আজ দিন টা শুরু করেছি... (মুজিব দ্যা ম্যাকিং অব এ নেশন)।’

চলচ্চিত্র পরিচালক রাশিদ পলাশ লিখেছেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে আমরা সিনেমা বানাবো আবেগ দিয়ে, কলিজা দিয়ে। আপনারা বানাবেন টাকা দিয়ে, এটায় স্বাভাবিক শ্যাম বেনেগাল শাহেব। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে এদেশে সিনেমা হচ্ছে, সামনে আরও হবে, আমরাই বানাবো। সত্যিকারের আবেগ দিয়েই বানাবো। বেঁচে থাকলে দেইখেন।’

সংগীতশিল্পী ফয়সাল রোদ্দী লিখেছেন, ‘মুজিব-দ্যা মেকিং অফ এ নেশন এর ট্রেইলার দেখে হতাশ হয়েছি কিন্তু অবাক হইনি।’ (সংক্ষিপ্ত)

নির্মাতা কৌশিক শংকর দাস লিখেছেন, ‘আচ্ছা পুরো সিনেমাটা রিশুট করা যায় না?? যদিও আমার নিজের কোন প্রত্যাশা ছিল না, তাই হতাশ বা খুশী কোনটাই হইনি। কিন্তু সবার প্রতিক্রিয়া দেখে এটা ছাড়া তো আর কোন উপায় দেখছি না!!’

নির্মাতা বুলবুল বিশ্বাস লিখেছেন, ‘বিচারপতি তোমার বিচার করবে যারা আজ জেগেছে এই জনতা, এই জনতা।’

সাংবাদিক মাহমুদ মানজুর লিখেছেন, ‘ট্রেলারে আমা পূর্ণ হলো না। তবে মুভিতে হবে- সেই বিশ্বাস রাখি।’ (সংক্ষিপ্ত)

মীর শামসুল আলম ট্রেলারের কিছু দৃশ্য ও ইতিহাসের কথা তুলে ধরে লিখেছেন-

“শত কোটি টাকায় মুক্তিসংগ্রামের ইতিহাসের বলৎকার। ‘বলৎকার’ শব্দটি ব্যবহারের জন্য আমি দুঃখিত নই।

১) প্রথম দৃশ্যটি ১৯৫২ সালের ২১ শে ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের গেট দিয়ে ছাত্ররা ‘বাংলার স্বপক্ষে প্লাকার্ড নিয়ে মিছিলে বের হচ্ছে- পুলিশ মুখোমুখি গুলি করছে।

‘মুজিব’ ট্রেলার নিয়ে বিতর্কের ঝড়
ট্রেলারের একটি দৃশ্য। যেটিকে মীর শামসুল আলম ২১ শে ফেব্রুয়ারির ঐতিহাসিক দিনটির সিনেমাটিক ফ্রেম বলে দাবি করেছেন। ছবি: সংগৃহীত

বাজী ধরে বলতে চাই- ঘটনা এইধরনের নয়

ক) ২১ ফেব্রুয়ারি ছাত্ররা প্লাকার্ড বহন করেনি।

খ) প্রথম মিছিল বের হবার অন্তত ৪ ঘণ্টা পর গুলি করা হয়েছে- সেটা মিছিলে নয়- রাস্তার বিভিন্ন পয়েন্টে থেকে ছাত্র জনতার সমাবেশে- গুলি চালানোর ঘণ্টা তিনেক আগেই মিছিল বন্ধ ছিল।

২) দ্বিতীয় দৃশ্যটি ঐতিহাসিক ৩২ নাম্বরের দোতালা বাড়িতে প্রবেশ করছে বালক শেখ কামাল, জামাল ও কিশোরি শেখ হাসিনা।

‘মুজিব’ ট্রেলার নিয়ে বিতর্কের ঝড়
ট্রেলার থেকে নেয়া মীর শামসুল আলম এর পোস্ট করা ছবি।

ইতিহাস বলে ধানমন্ডির ৩২ নাম্বার প্লটে দুই কামরার একতালা বাড়িতে শেখ পরিবার প্রবেশ করেন- এরপর বেগম মুজিবের তৎপরতায় তিল তিল করে ধীরে ধীরে বাড়িটি দোতালায় পরিণত হয়।

৩) তৃতীয় ও চতুর্থ দৃশ্যটি ৭ মার্চের ভাষণের।

‘মুজিব’ ট্রেলার নিয়ে বিতর্কের ঝড়
ট্রেলার থেকে নেয়া মীর শামসুল আলম এর পোস্ট করা ছবি।

বঙ্গবন্ধুর সামনে মঞ্চেই ৩৫ এমএম ফিল্ম ক্যামেরা হাতে বয়স্ক চিত্রগ্রাহক?

ভাষণের চারজন চিত্রগ্রাহককেই আমি ব্যক্তিগতভাবে চিনতাম- একজন আমার আত্নীয়ও- কেউই বয়স্ক ছিলেন না- স্ট্যান্ডসহ ক্যামেরা মঞ্চেও ছিলনা।

‘মুজিব’ ট্রেলার নিয়ে বিতর্কের ঝড়
ট্রেলার থেকে নেয়া মীর শামসুল আলম এর পোস্ট করা ছবি।

১৯৭১ সালে কর্ডলেস মাইক্রোফোন? পুরো ছবিতে যে কি দেখবো?”

ট্রেলারটি দেখে ফেসবুকে হতাশা প্রকাশ করেননি এমন দর্শকও আছেন তবে সংখ্যায় খুবই কম।

অ্যাকটিভিস্ট ওমি রহমান পিয়াল তার ফেসবুকে লিখেছেন, ‘যেই দেশে বঙ্গবন্ধুর নাম পর্যন্ত উচ্চারণ নিষিদ্ধ ছিলো, রাবার দিয়ে ঘইষা ঘইষা মুছার চেষ্টা হইছে তারে, সেই দেশে তারে নিয়া একটা বায়োপিক হইছে। ট্রেলার দেইখ্যা আমরা কইয়া দিলাম এইডা কিছু হয় নাই। মাত্র একটাকা পারিশ্রমিকে সিনেমার মূখ্য চরিত্রে অভিনয় করলো যে, কইলাম তার মেকাপ খারাপ। সোজা বাংলায় শ্যাম বেনেগাল টাকা মাইরা একটা **প্রসব করছেন। রাতারাতি সিনেমাবোদ্ধা বইনা যাওয়া বাঙালী বলতেছে আমারে টেকা দিলে আরো ভালো জিনিস বানায়া দেখাইতাম, খালেদার দুই পদ্মাসেতুর মতো! বাঙালীর এই কনফিডেন্ট প্রলাপ বরাবরই আমারে মুগ্ধ করে। নিজে না পারি অন্যে করলে সেটা খারাপ বলায় আমাদের কখনও সমস্যা হয় নাই…’

(** এর জায়গায় অন্য শব্দ ছিল। যা সম্পাদকীয় মন্ডলির নীতিমালা অনুযায়ী প্রকাশযোগ্য নয়)

সাংবাদিক, লেখক অপূর্ণ রুবেল লিখেছেন, ‘যাদের ট্রেলার ভালো লাগে নাই, তারা দয়া করে জ্ঞান না দিয়ে নিজেরা নিজেরা ট্রেলার বানায়া দেখেন। স্বাবলম্বী হোন।’

সাংবাদিক উদিসা ইসলাম লিখেছেন, ‘ট্রেইলার ঠিকাছে। স্বয়ং বঙ্গবন্ধু অভিনয় করলেও আপ্নেরা এসবই বলতেন। ভাই, শুভ কীভাবে বঙ্গবন্ধু হবে? শুভ বঙ্গবন্ধু চরিত্রে অভিনয় করেছে। গল্পটা দেখেন, একটা সিনেমা হয়েছে কিনা আলোচনা করেন। হুবহু বঙ্গবন্ধুকে খুঁইজেন না।’

লেখক, সাংবাদিক মুনমুন শারমিন শামস লিখেছেন, ‘ট্রেলার আমার মন্দ লাগে নাই। আরেফিন শুভও যথাসাধ্য ভাল করেছেন বলেই মনে হচ্ছে।’

ফ্রান্সে বিশ্বখ্যাত কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের ৭৫তম আসরের তৃতীয় দিন বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় ভারতীয় প্যাভিলিয়নে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ উদ্যোগে নির্মিত এই বায়োপিকের ট্রেলার উদ্বোধন করেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং ভারতের তথ্য ও সম্প্রচার এবং যুব বিষয়ক ও ক্রীড়ামন্ত্রী অনুরাগ সিং ঠাকুর।

আরও পড়ুন:
ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস আজ
মুজিবনগর দিবসে মুজিবনগরে ছুটি
বাঙালির প্রথম সরকার
মুজিবনগর সরকার: ইতিহাসের মাইলফলক  
বার্ন ইনস্টিটিউটে মুজিব কর্নার ও বঙ্গবন্ধু গ্যালারি উদ্বোধন

মন্তব্য

বিনোদন
Siam in Hindi Telugu language movies

হিন্দি ভাষার সিনেমায় সিয়াম

হিন্দি ভাষার সিনেমায় সিয়াম অভিনেতা সিয়াম আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত
ভারতের কলকাতার খিদ্দারপুরের নারী মুসলিম বক্সিং সম্প্রদায়ের ১৭ বছর বয়সী বক্সার শামাকে নিয়ে গড়ে উঠেছে গল্প। এটি একটি মনস্তাত্ত্বিক থ্রিলার।

নেটফ্লিক্সের লিটল থিংস সিরিজের অভিনেত্রী ভারতের মিথিলা পালকার সূর্যবংশীয় সিনেমায় অভিনেতা জাভেদ জাফরির সঙ্গে অভিনয় করতে যাচ্ছেন বাংলাদেশের সিয়াম আহমেদ।

হিন্দি ভাষার সিনেমাটির নাম ইন দ্য রিং। এটি পরিচালনা করবেন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক চলচ্চিত্র নির্মাতা অলকা রাঘুরাম। খবরটি নিশ্চিত করেছে আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন ভ্যারাইটি।

ভারতের কলকাতার খিদ্দারপুরের নারী মুসলিম বক্সিং সম্প্রদায়ের ১৭ বছর বয়সী বক্সার শামাকে নিয়ে গড়ে উঠেছে গল্প। এটি একটি মনস্তাত্ত্বিক থ্রিলার।

শামা জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপে লড়াই করার জন্য তার ডাবলের সঙ্গে জায়গা বিনিময় করেন, যখন তাকে তার আন্টিকে হত্যার অভিযোগে আটক করা হয়।

হিন্দি ভাষার সিনেমায় সিয়াম
ইন দ্য রিং সিনেমার পরিচালক-শিল্পী। ছবি: ভ্যারাইটি

সিনেমার কাস্টিংয়ে রয়েছেন রাজিয়া শবনম। তিনি প্রথম ভারতীয় নারীদের একজন, যিনি আন্তর্জাতিক বক্সিং রেফারি এবং কোচ হয়েছেন।

পরিচালক অলকা রঘুরাম এর আগে কলকাতার মুসলিম নারী বক্সারদের নিয়ে ডকুমেন্টারি বোরকা বক্সার্স পরিচালনা করেছেন।

প্রকল্পটি সিঙ্গাপুরভিত্তিক দর্পণ গ্লোবালের জন্য শ্রেয়শি সেনগুপ্ত এবং ভারতের ওরিজন গ্লোবালের জন্য সৌভিক দাশগুপ্ত প্রযোজনা করছেন, লস অ্যাঙ্গেলভিত্তিক রিক অ্যামব্রোস নির্বাহী প্রযোজক হিসেবে কাজ করছেন।

রঘুরাম ভ্যারাইটিকে বলেছেন, ‘আমি এই স্ক্রিপ্টটি লিখতে শুরু করি যখন আমি ডকুমেন্টারি বোরকা বক্সার্স এর চিত্রগ্রহণ করছিলাম। গল্পের শেষ সংস্করণটি তৈরিতে এক দশকেরও বেশি সময় লেগেছে।’

২০২২ সালের ডিসেম্বরে ভারতে শুরু হবে সিনেমার শুটিং। সেলস, ডিস্ট্রিবিউশন এবং কো-প্রোডাকশনে এই প্রোজেক্টের জন্য সহযোগী খুঁজতে সেনগুপ্ত বর্তমানে কান ফিল্ম মার্কেটে রয়েছেন।

আরও পড়ুন:
বাবা হয়েছেন সিয়াম, সুস্থ আছেন স্ত্রী-সন্তান
বাবা হচ্ছেন সিয়াম
রাফির ‘রাস্তা’য় সিয়াম, পারিশ্রমিক ১ হাজার ১ টাকা

মন্তব্য

বিনোদন
Alia is very nervous

ভীষণ ‘নার্ভাস’ আলিয়া

ভীষণ ‘নার্ভাস’ আলিয়া বলিউড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট। ছবি: সংগৃহীত
আলিয়া লেখেন, ‘আমি আমার প্রথম হলিউড সিনেমার শুটিং করতে যাচ্ছি। আবার নতুনদের মতো মনে হচ্ছে- একই রকম নার্ভাস। আমাকে শুভকামনা জানাও।’

দীর্ঘদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল হলিউড সিনেমায় অভিনয় করতে যাচ্ছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী আলিয়া ভাট। এই খবরের সত্যতা পাওয়া যায় চলতি বছরের মার্চে।

৮ মার্চ নেটফ্লিক্সের টুইটারে ঘোষণা করা হয়, তাদের আসন্ন থ্রিলার সিনেমা হার্ট অফ স্টোন-এ গ্যাল গ্যাডট এবং জেমি ডরনানের সঙ্গে অভিনয় করবেন আলিয়া।

সেই ঘোষণার পর বৃহস্পতিবার জানা গেল, আলিয়া তার প্রথম হলিউড সিনেমা হার্ট অফ স্টোন-এর শুটিং করতে যাচ্ছেন।

এদিন আলিয়া ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি পোস্ট করেন। ক্যাপশনে লেখেন, ‘আমি আমার প্রথম হলিউড সিনেমার শুটিং করতে যাচ্ছি। আবার নতুনদের মতো মনে হচ্ছে- একই রকম নার্ভাস। আমাকে শুভকামনা জানাও।’

আলিয়ার সেই পোস্টে শুভকামনা জানিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, রণবীর সিং, অর্জুন কাপুরসহ বলিউডের সতীর্থরা।

একই ছবি ইনস্টা স্টোরিতে পোস্ট করে আলিয়া লেখেন, ‘হার্ট অফ স্টোন, এখানে আমি এসেছি।’ এই সিনেমাটি পরিচালনা করছেন টম হার্পার।

এদিকে ব্রহ্মাস্ত্র, রকি অওর রানি কি প্রেমকাহানি, ডার্লিংসসহ বেশ কয়েকটি সিনেমা রয়েছে আলিয়ার হাতে।

আরও পড়ুন:
শুরু হয়ে গেছে ‘রালিয়া’র বিয়ের উৎসব
নিমন্ত্রণ ছাড়া ‘রালিয়া’র বিয়েতে যেন মাছিও ঢুকতে পারবে না!
সেজে উঠছে ‘রালিয়া’র বিয়ের স্পটগুলো
রণবীর-আলিয়ার বিয়ে কবে, কোথায়, অতিথি কারা
‘রালিয়া’র বিয়ের খবরে ফের গরম বলিউড

মন্তব্য

বিনোদন
Mujib Biography of L Bangabandhu in the trailer

‘মুজিব’: ট্রেলারে এল বঙ্গবন্ধুর জীবনী

‘মুজিব’: ট্রেলারে এল বঙ্গবন্ধুর জীবনী ‘মুজিব- দ্য মেকিং অফ আ নেশন’ ছবিতে বঙ্গবন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করেছেন আরিফিন শুভ। ছবি: সংগৃহীত
ট্রেলারে খণ্ড খণ্ড করে উঠে এসেছে বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি, পরিবার, মুক্তিযুদ্ধ ও যুদ্ধ-পরবর্তী সময়কাল। ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ, স্বাধীনতার ঘোষণা- সবই এসেছে ট্রেলারে। পাশাপাশি দেখা গেছে মুক্তিযুদ্ধের সময়ে গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের। ট্রেলার শেষ হয়েছে নুসরাত ইমরোজ তিশার কণ্ঠে ‘জয় বাংলা’ ভাষণ দিয়ে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীভিত্তিক সিনেমা ‘মুজিব- দ্য মেকিং অফ আ ন্যাশন’-এর ট্রেলার প্রকাশ পেয়েছে। সিনেমাটির ১ মিনিট ৩৮ সেকেন্ডের ট্রেলার ইউটিউবে প্রকাশ করা হয়েছে।

ফ্রান্সে বিশ্বখ্যাত কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের ৭৫তম আসরের তৃতীয় দিন বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টায় ভারতীয় প্যাভিলিয়নে বাংলাদেশ-ভারত যৌথ উদ্যোগে নির্মিত এই বায়োপিকের ট্রেলার উদ্বোধন করেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এবং ভারতের তথ্য ও সম্প্রচার এবং যুব বিষয়ক ও ক্রীড়ামন্ত্রী অনুরাগ সিং ঠাকুর।

ট্রেলারে খণ্ড খণ্ড করে উঠে এসেছে বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি, পরিবার, মুক্তিযুদ্ধ ও যুদ্ধ-পরবর্তী সময়কাল। ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ, স্বাধীনতার ঘোষণা- সবই এসেছে ট্রেলারে।

পাশাপাশি দেখা গেছে মুক্তিযুদ্ধের সময়ে গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের। ট্রেলার শেষ হয়েছে নুসরাত ইমরোজ তিশার কণ্ঠে ‘জয় বাংলা’ ভাষণ দিয়ে।

ট্রেলারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘চলচ্চিত্রটিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন, জাতির জন্য সংগ্রাম থেকে বিজয় ও পরম আত্মত্যাগের চিত্র ফুটে উঠেছে।

‘বঙ্গবন্ধু, মহাত্মা গান্ধী, মার্টিন লুথার কিং, নেলসন ম্যান্ডেলার মতো মহান মানুষদের জীবনী একটি চলচ্চিত্রে ফুটিয়ে তোলা দুরূহ হলেও বাংলাদেশ ও ভারতের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত এই সিনেমা বঙ্গবন্ধুর চেতনাকে যুগে যুগে জাগ্রত রাখবে এবং মানবতার জন্য আত্মনিবেদনে প্রেরণা যোগাবে।’

অনুরাগ সিং ঠাকুর তার বক্তব্যে বাংলাদেশের সঙ্গে যৌথভাবে বঙ্গবন্ধুর জীবনচিত্র নির্মাণের এ কাজকে তাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দ ও গর্বের বলে বর্ণনা করেন।

ফ্রান্সে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত খন্দকার মোহাম্মদ তালহা, ভারতের রাষ্ট্রদূত জাভেদ আশরাফ, ভারতের তথ্য ও সম্প্রচার সচিব অপূর্ব চন্দ্র, বায়োপিকের পরিচালক শ্যাম বেনেগাল, নির্বাহী প্রযোজক এফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক নুজহাত ইয়াসমিন, বঙ্গবন্ধুর চরিত্রাভিনেতা আরেফিন শুভ, বঙ্গমাতার চরিত্রাভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা, চিত্রনাট্যকার অতুল তিওয়ারি ও শামা জায়েদি, বাংলাদেশ অংশের কাস্টিং পরিচালক বাহার উদ্দিন খেলনসহ দুই দেশের অভিনয় শিল্পীরা ও চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

মন্তব্য

বিনোদন
The search for Adar Bubli is coming to the theaters in June

জুনে প্রেক্ষাগৃহে আসছে আদর-বুবলীর ‘তালাশ’

জুনে প্রেক্ষাগৃহে আসছে আদর-বুবলীর ‘তালাশ’ আজর আজাদ ও বুবলী। ছবি: সংগৃহীত
সিনেমা প্রথমবারের মতো জুটি হয়ে দেখা যাবে বুবলী ও নবাগত চিত্রনায়ক আদর আজাদকে। সিনেমাটি পরিটালনা করেছেন সৈকত নাসির।

রোমান্টিক থ্রিলার গল্পের সিনেমা তালাশ মুক্তি পেতে যাচ্ছে জুনের ১৭ তারিখে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় অনলাইনে প্রকাশ পেয়েছে সিনেমাটির ট্রেলার। সেখানেই জানা যায় সিনেমার মুক্তির তারিখ।

সিনেমা প্রথমবারের মতো জুটি হয়ে দেখা যাবে বুবলী ও নবাগত চিত্রনায়ক আদর আজাদকে। সিনেমাটি পরিটালনা করেছেন সৈকত নাসির।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আদর আজাদ বলেন, ‘দুটি গান ও ফার্স্টলুক প্রকাশের পর এবার প্রকাশ পেল সিনেমাটির ট্রেলার। অনেক আগেই সিনেমাটি মুক্তির কথা থাকলেও করোনার কারণে তা সম্ভব হয়নি। আশা করি পর্দায় আমাদের দেখে দর্শক নিরাশ হবেন না।’

বুবলী বলেন, ‘সিনেমাটির গল্প এক কথায় চমৎকার। দর্শক ভালো গল্পের একটি সিনেমা দেখতে চান। আমি বলব তালাশ একটি ভালো গল্পের সিনেমা। আপনারা দেখলে নিশ্চয়ই তা বুঝতে পারবেন।’

ক্লিওপেট্রা ফিল্মসের ব্যানারে নির্মিত সিনেমাটির কাহিনি পরিচালকের সঙ্গে যৌথভাবে লিখেছেন আসাদ জামান। সিনেমাটিতে আরও অভিনয় করেছেন আসিফ আহসান খান, মাসুম বাশার, মিলি বাশার, যোজন মাহমুদ।

প্রথম সিনেমা মুক্তির আগেই আদর আজাদ-বুবলী জুটি সাইফ চন্দন পরিচালিত লোকাল সিনেমায় দ্বিতীয়বারের মতো জুটি বেঁধে অভিনয় করছেন। বর্তমানে সিনেমাটি নির্মাণাধীন রয়েছে।

আরও পড়ুন:
এখনও বাস চালান ‘কেজিএফ’ খ্যাত যশের বাবা
সেলিম-চঞ্চল নাম শুনেই বিক্রি হয়ে গেছি: সিয়াম
বিনিয়োগকারীরা কেন মাল্টিপ্লেক্সে ঝুঁকছেন
আড়াল ভাঙছেন প্রযোজক আব্দুল আজিজ
রাজধানীর বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরে সিনেপ্লেক্সে প্রদর্শনী শুরু

মন্তব্য

বিনোদন
Censor Pell Beauty Circus release announced soon

সেন্সর পেল ‘বিউটি সার্কাস’, মুক্তির ঘোষণা শিগগিরই

সেন্সর পেল ‘বিউটি সার্কাস’, মুক্তির ঘোষণা শিগগিরই বিউটি সার্কাস সিনেমার দৃশ্যে জয়া আহসান। ছবি: সংগৃহীত
২০১৭ সালে শুরু হয় বিউটি সার্কাস সিনেমার শুটিং। শোনা যায়, অর্থ সংকটে সিনেমাটির কাজ মাঝখানে বন্ধ ছিল। সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রটিতে পরে প্রযোজক হিসেবে যুক্ত হয় ইমপ্রেস টেলিফিল্ম।

জয়া আহসান অভিনীত বিউটি সার্কাস সিনেমাটি কোনো কাটাছেঁড়া ছাড়াই পেয়েছে সেন্সর ছাড়পত্র। বুধবার সিনেমাটি সেন্সর পেয়েছে বলে নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন এর পরিচালক মাহমুদ দিদার।

তিনি বলেন, ‘সিনেমাটি ঈদের আগে সেন্সর বোর্ডে জমা দেয়া হয়েছিল। সিনেমাটি দেখার পর বুধবার সিনেমাটিকে ছাড়পত্র দিয়েছে বোর্ড।’

সেন্সর পাওয়ার পর মুক্তির বিষয় চলে আসে। বিউটি সার্কাস সিনেমাটি কবে মুক্তি পাবে, জানতে চাইলে মাহমুদ দিদার বলেন, ‘মুক্তির বিষয়টা আগামী সপ্তাহে জানা যাবে আশা করছি।’

২০১৭ সালে শুরু হয় বিউটি সার্কাস সিনেমার শুটিং। শোনা যায়, অর্থ সংকটে সিনেমাটির কাজ মাঝখানে বন্ধ ছিল। সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রটিতে পরে প্রযোজক হিসেবে যুক্ত হয় ইমপ্রেস টেলিফিল্ম।

সার্কাস প্যান্ডেল ও গ্রাম্য মেলার আয়োজন করা হয়েছিল সিনেমাটি নির্মাণের সময়। অভিনয়শিল্পীদের পাশাপাশি হাজারখানেক গ্রামবাসী কাজ করেছেন এ সিনেমায়।

সিনেমার গল্প গড়ে উঠেছে সার্কাসের মালিক ও প্রধান নারী শিল্পী বিউটি ও তার সার্কাস দলটি নিয়ে। বিউটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান। তার জাদু প্রদর্শনী আর রূপে পাগল এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তিরা। বিউটিকে নিজের করে পাবার প্রতিযোগিতায় নামে তারা। একসময় হুমকির মুখে পড়ে বিউটির সার্কাস।

সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন ফেরদৌস, তৌকির আহমেদ, গাজী রাকায়েত, এবিএম সুমন, শতাব্দী ওয়াদুদ, হুমায়ূন কবীর সাধুসহ অনেকে।

মন্তব্য

বিনোদন
AR Rahman in an attempt to make a second movie

দ্বিতীয় সিনেমা নির্মাণ প্রচেষ্টায় এ আর রহমান

দ্বিতীয় সিনেমা নির্মাণ প্রচেষ্টায় এ আর রহমান অস্কার, বাফটা এবং গ্র্যামি বিজয়ী ভারতীয় সুরকার এ আর রহমান। ছবি: সংগৃহীত
এ আর রহমানের প্রথম সিনেমা লে মাস্ক। যার প্রিমিয়ার হয় কান ফিল্ম মার্কেটের ‘কান এক্সআর’ প্রোগ্রামে। তবে সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়নি এখনও।

অস্কার, বাফটা এবং গ্র্যামি বিজয়ী ভারতীয় সুরকার এ আর রহমান তার নতুন সিনেমার নাম প্রকাশ করেছেন। না, কোনো নতুন সিনেমায় সংগীত পরিচালক হিসেবে কাজ করতে যাচ্ছেন না তিনি। দ্বিতীয়বারের মতো সিনেমা পরিচালনা করতে যাচ্ছেন, ভ্যারাইটিকে নিশ্চিত করেছেন সেটাই।

আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিন ভ্যারাইটিতে মঙ্গলবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, কনফেশনস নামের নতুন একটি সিনেমা নির্মাণ করতে যাচ্ছেন এ আর রহমান। যেটি হবে ভার্চুয়াল রিয়্যালিটির জন্য।

ভ্যারাইটিকে এ আর রহমান বলেছেন, ‘আমরা একটা সিনেমা করতে চাই যেটা খুবই সহজ, কিন্তু অনুভূতির দিক থেকে খুবই গভীর।’ চলচ্চিত্রটির ৬০ ভাগ চিত্রনাট্য শেষ হয়েছে বলেও জানান এ গুণী সংগীতজ্ঞ।

এ আর রহমানের প্রথম সিনেমা লে মাস্ক। যার প্রিমিয়ার হয় কান ফিল্ম মার্কেটের ‘কান এক্সআর’ প্রোগ্রামে। তবে সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়নি এখনও।

রহমান জানান, তিনি ও তার টিম খুব খুশি যে কাজটি শেষ হয়েছে। ২০১৬ সালে এর কাজ শুরু হয়েছিল। নতুন কাজটি করতে যেন বেশি সময় না লাগে, সেভাবেই কনফেশনস-এর কাজ এগিয়ে নিতে চান রহমান।

লে মাস্ক সিনেমাটির গল্প রহমানের স্ত্রী সায়রার একটি ধারণা থেকে নেয়া।

আরও পড়ুন:
এ আর রহমানের কন্যা খাতিজার বিয়ে
হিন্দি চাপানোর বিরোধিতায় এ আর রহমানের তামিল টুইট
সুরের জাদুতে শেরে বাংলাকে মুগ্ধ করলেন এ আর রহমান
এ আর রহমানের কনসার্টে বৃষ্টির বাধা

মন্তব্য

উপরে