ক্যামেরার সামনে লেখক ইমন

ক্যামেরার সামনে লেখক ইমন

‘কাগজ’ সিনেমার দৃশ্য ধারণের সময় অভিনেতা ইমন। ছবি: সংগৃহীত

নিউজবাংলাকে ইমন বলেন, ‘গতকাল (বৃহস্পতিবার) থেকে ঢাকাতেই সিনেমাটির শুটিং শুরু করেছি আমরা। তেজগাঁওয়ে একটা পত্রিকা অফিসে এর শুটিং শুরু হয়। কয়েক দিনের মধ্যেই আমরা রাজশাহী যাব, সেখানেও শুট হবে সিনেমাটির।’  

গত জুলাইয়ে কাগজ নামের একটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হন চিত্রনায়ক ইমন ও চিত্রনায়িকা আইরিন।

এর প্রায় দুই মাস পর গত বৃহস্পতিবার থেকে সিনেমাটির শুটিং শুরু করেছেন এই তারকা জুটি।

এ তথ্য শুক্রবার সন্ধ্যায় নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেন ইমন।

তিনি বলেন, ‘গতকাল (বৃহস্পতিবার) থেকে ঢাকাতেই সিনেমাটির শুটিং শুরু করেছি আমরা। তেজগাঁওয়ে একটা পত্রিকা অফিসে এর শুটিং শুরু হয়। আজ ভোর পর্যন্ত শুটিং হয়েছে। আগামীকাল থেকে আবার দৃশ্যধারণ হবে। এরপর কয়েক দিনের মধ্যেই আমরা রাজশাহীর যাব, সেখানেও শুট হবে সিনেমাটির।’

কাগজ সিনেমা সম্পর্কে বিস্তারিত না বললেও গল্প সম্পর্কে হালকা ধারণা দিলেন ইমন।

তিনি জানান, একজন স্বনামধন্য লেখকের জীবনের নানা গল্প নিয়ে নির্মিত হচ্ছে এই সিনেমাটি। সেখানে সেই লেখকের চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। তার চরিত্রের নাম ইমন আহমেদ।

ক্যামেরার সামনে লেখক ইমন
‘কাগজ’ সিনেমার জুটি ইমন ও আইরিন। ছবি: সংগৃহীত

আর এতে মফস্বলের একজন শিক্ষিত মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন আইরিন। তার চরিত্রের নাম রেনু। মফস্বলের মেয়ে হলেও মানসিকভাবে অগ্রসর সেই রেনুর সঙ্গে এক ধরনের সম্পর্ক তৈরি হয় লেখক ইমন আহমেদের।

গীতিকার, সুরকার, প্রযোজক এবং নির্মাতা জুলফিকার জাহেদীর পরিচালনায় কাগজ-এ আরও অভিনয় করছেন শহীদুজ্জামান সেলিম, মাইমুনা ফেরদৌস মম, এলিনা শাম্মী, ফারহান খান রিও, রিয়া বর্মণ, রফিক, শিশির আহমেদ, যুবরাজ বিন আবিদসহ অনেকে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য

অনন্যা পান্ডের বাড়িতেও এনসিবির অভিযান

অনন্যা পান্ডের বাড়িতেও এনসিবির অভিযান

অনন্যা পান্ডের বাড়িতে অভিযান চালাচ্ছে এনসিবি। ছবি: সংগৃহীত

বলিউড অভিনেত্রী অনন্যা পান্ডে বাড়িতেও অভিযান চালাচ্ছে মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)। ইতোমধ্যে অভিনেত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

মাদককাণ্ডে আরও এক বলিউড অভিনেত্রী অনন্যা পান্ডের বাড়িতে অভিযান চালাচ্ছে মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)।

শাহরুখ খানের বাড়িতে এনসিবির তল্লাশির খবরের পরপরই জানা যায়, বলিউড অভিনেতা চাঙ্কি পান্ডের বাড়িতে অর্থাৎ তার মেয়ে অনন্যা পান্ডের বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে সংস্থাটি।

বেশ কিছুক্ষণ তার বাড়িতে তল্লাশি চালায় এনসিবি। সেখান থেকে উদ্ধার করা হয় বেশ কিছু জিনিসপত্র।

ইতিমধ্যে অভিনেত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হচ্ছে, অনন্যার সঙ্গে আরিয়ান মাদক নিয়ে হোয়াটসআপে চ্যাট করেছিলেন। যে চ্যাট হাতে এসেছে এনসিবি কর্তাদের।

এনসিবি সূত্রের বরাত দিয়ে বলা হচ্ছে, অনন্যার সঙ্গে অনেকবার মাদক নিয়ে কথা হয়েছে আরিয়ানের। চ্যাটে তাকে অ্যানি বলে সম্বোধন করেছেন আরিয়ান।

বরাবরই চাঙ্কি পান্ডে ও শাহরুখ খানের সম্পর্ক বেশ ভালো। ছোট থেকেই একে অপরের বন্ধু অনন্যা ও আরিয়ান। এক অভিনেতার সঙ্গে আরিয়ানের মাদক নিয়ে কথাবার্তার তথ্য গতকালই এনসিবির পক্ষ থেকে পেশ করা হয়েছিল আদালতে। তবে কে সেই অভিনেতা সে ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।

বৃহস্পতিবার অনন্যা পান্ডের বাড়িতে তল্লাশির পরই অনুমান করা যায় যে, আরিয়ানের সঙ্গে অনন্যার চ্যাটের কথাই হয়তো উল্লেখ করা হয় আদালতে।

শেয়ার করুন

শাহরুখের বাড়িতে এনসিবির তল্লাশি

শাহরুখের বাড়িতে এনসিবির তল্লাশি

শাহরুখ খানের বাড়িতে তল্লাশি শুরু করেছে এনসিবি। ছবি: সংগৃহীত

ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে শাহরুখের বাড়িতে অভিযান চালাচ্ছে এনসিবি। এর আগে সকাল ৯টায় জেলে গিয়ে ছেলে আরিয়ানের সঙ্গে দেখা করেন শাহরুখ।

মাদক মামলায় বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান গ্রেপ্তারের পর এবার নায়কের বাড়িতে তল্লাশি শেষ করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)।

ভারতীয় একাধিক সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে শাহরুখের বাড়িতে অভিযান শুরু করে সংস্থাটি।

এর আগে সকাল ৯টায় জেলে গিয়ে ছেলে আরিয়ানের সঙ্গে দেখা করে আসেন শাহরুখ। আরিয়ানের সঙ্গে ১৫ মিনিটের জন্য সাক্ষাতের সময় পেয়েছিলেন তিনি।

মুম্বাই হাইকোর্ট থেকে আরিয়ানের জামিনের শুনানির দিন ধার্য হয়েছে আগামী মঙ্গলবার।

আরিয়ান গ্রেপ্তার হওয়ার পর থেকেই অনেকে ধারণা করছিলেন যে, তল্লাশি হতে পারে শাহরুখের বাসা মান্নাতে। তবে, সে বিষয়ে এতদিন মুখ খোলেনি এনসিবি। বৃহস্পতিবার দুপুরে হঠাৎই শুরু হয় অভিযান।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে ভারতীয় সময় ১২টা ৫০ মিনিটে এনসিবি কর্মকর্তারা শাহরুখ খানের বাসায় তল্লাশির জন্য আসে।

চল্লিশ মিনিটের তল্লাশি শেষে এনসিবি কর্মকর্তারা মান্নাত থেকে বের হয়ে যান। টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায় ভারতীয় সময় ১টা ২৯ মিনিটে তারা চলে যান।

তল্লাশিতে আসা এনসিবির এক কর্মকর্তা সংবাদমাধ্যমকে জানান, তদন্ত চলছে। এনসিবি কাউকে ডাকলে, কারও সঙ্গে কথা বলতে গেলে এটা মনে করা ঠিক না যে সেই ব্যক্তি দোষী। তদন্তের জন্য অনেক প্রক্রিয়ায় আগাতে হয়।

শেয়ার করুন

ছেলের সঙ্গে দেখা করতে জেলে শাহরুখ

ছেলের সঙ্গে দেখা করতে জেলে শাহরুখ

ছেলের সঙ্গে দেখা করতে জেলে শাহরুখ খান। ছবি: সংগৃহীত

জেলের মূল গেটে থামে শাহরুখের গাড়ি। গাড়ির পেছনের সিট থেকে নামেন শাহরুখ। একটি গোল গলা টি-শার্ট আর জিনসের ট্রাউজার পরে ছিলেন। মুখ ঢাকা ছিল কালো মাস্কে। চোখে কালো রোদচশমা। মাথার লম্বা চুল পনিটেলে বাঁধা। দেহরক্ষীর বেষ্টনীর সাহায্য নিয়ে দ্রুত জেলের ভিতরে চলে যান।

মাদক মামলায় কারাগারে শাহরুখপুত্র আরিয়ান খান। বুধবার জামিন মেলেনি। তাই ছেলের সঙ্গে দেখা করতে জেলেই হাজির হলেন বলিউড বাদশাহ।

মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো আরিয়ানকে গ্রেপ্তার হওয়ার পর এই প্রথম ছেলের সঙ্গে জেলে গিয়ে দেখা করলেন শাহরুখ। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে মুম্বাইয়ের আর্থার রোড জেলে পৌঁছান শাহরুখ।

শাহরুখের সঙ্গে ছিলেন আইনজীবীদের একটি দল। জেলের ভেতর প্রায় ১৫ মিনিট ছিলেন কিং খান। দ্রুত কথা বলে বের হয়ে আসেন তিনি। তার সঙ্গেই ফেরত যায় আইনজীবীদের দলটিও।

ছেলের সঙ্গে চুপিসারেই দেখা করতে চেয়েছিলেন শাহরুখ। সে কারণে বড় কনভয় বা বড় গাড়ি নিয়ে যাননি তিনি। কালো কাচে ঘেরা একটি ছোট গাড়িতে জেলে যান তিনি।

তবে শাহরুখের আসার খবর আগে থেকেই পেয়ে গিয়েছিলেন অনেকে। ফলে আর্থার রোড জেলের মূল ফটকের বাইরে ভিড় জমে যায়।

জেলের মূল গেটে থামে শাহরুখের গাড়ি। গাড়ির পেছনের সিট থেকে নামেন শাহরুখ। একটি গোল গলা টি-শার্ট আর জিনসের ট্রাউজার পরে ছিলেন। মুখ ঢাকা ছিল কালো মাস্কে। চোখে কালো রোদচশমা। মাথার লম্বা চুল পনিটেলে বাঁধা। দেহরক্ষীর বেষ্টনীর সাহায্য নিয়ে দ্রুত জেলের ভিতরে চলে যান।

প্রশাসনের অনুমতি পেলে সাধারণত এই ধরনের সাক্ষাৎ হয় ৫ থেকে ১০ মিনিটের। শাহরুখ জেলের ভিতরে ছিলেন প্রায় ১৫ মিনিট। তবে ওই সময়ের পুরোটাই তিনি আরিয়ানের সঙ্গে ছিলেন কি না তা নিশ্চিত না।

আরিয়ানের সঙ্গে দেখা করতে জেলে ঢোকা ও বের হওয়ার সময় সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেননি তিনি।

আর্থার রোড জেলটি মুম্বাই শহরের ভেতরেই। এ জেলেই বিশেষ টাডা আদালতে বিচার হয়েছিল বলিউডের নায়ক সঞ্জয় দত্তের। সেখানে বেশ কিছুদিন বন্দিও ছিলেন তিনি।

গত ২ অক্টোবর একটি প্রমোদতরী থেকে আরিয়ানসহ আটজনকে মাদক মামলায় আটক করা হয়।

শেয়ার করুন

রাফির ‘রাস্তা’য় সিয়াম, পারিশ্রমিক ১ হাজার ১ টাকা

রাফির ‘রাস্তা’য় সিয়াম, পারিশ্রমিক ১ হাজার ১ টাকা

সিয়াম আহমেদ ও রায়হান রাফি। ছবি: সংগৃহীত

ঘোষণায় আরও বলা হয়, সিয়াম প্রতি সিনেমায় সম্মানী নেন ১৫ থেকে ২০ লাখ টাকা। কিন্তু জাজের ছেলে সিয়াম ‘রাস্তা’ সিনেমা বাবদ নিয়েছেন ১ হাজার ১ টাকা।

আবারও নতুন সিনেমার ঘোষণা দিল প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। সিনেমার নাম রাস্তা। এটি পরিচালনা করবেন পোড়ামন-২দহন-খ্যাত পরিচালক রায়হান রাফি।

সিনেমার প্রধান পুরুষ চরিত্রে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন সিয়াম আহমেদ। বিষয়টি নিউজবাংলাকে নিশ্চিত করেছেন সিয়াম নিজেই।

তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি রাস্তা সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছি এবং জানুয়ারি থেকে সিনেমাটির দৃশ্যধারণের কাজ শুরু হওয়ার কথা আছে।’

এ ব্যাপারে জাজ মাল্টিমিডিয়ার ফেসবুক পেজ থেকেও একটি ঘোষণা দেয়া হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, সিনেমায় রাফির বিপরীতে অভিনয় করবেন নতুন কোনো অভিনেত্রী।

ঘোষণায় আরও বলা হয়, সিয়াম প্রতি সিনেমায় সম্মানী নেন ১৫ থেকে ২০ লাখ টাকা। কিন্তু জাজের ছেলে সিয়াম রাস্তা সিনেমা বাবদ নিয়েছেন ১ হাজার ১ টাকা।

এ ব্যাপারে সিয়াম নিউজবাংলাকে বলেন, ‘পারিশ্রমিক অন্য রকম একটি বিষয়। জাজ মাল্টিমিডিয়া বা রাফির কাজ মানে আমার কাছে অন্য কিছু। আমি পারিশ্রমিক নিতেও চাইনি কিন্তু চুক্তিপত্রে অর্থের পরিমাণ কিছু একটা লিখতে হয়, সে জন্য অর্থের পরিমাণটি উল্লেখ করা।’

জাজ মাল্টিমিডিয়া সম্প্রতি বেশ কিছু ওয়েব কনটেন্টের ঘোষণা দিয়েছে। জাজের প্রযোজনায় রায়হার রাফির পরিচালানয় আরও একটি নতুন ওয়েব সিরিজ নির্মাণের ঘোষণা আছে। ওয়েব সিরিজটির নাম চক্র

সেটি নিয়ে এখনও বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।

শেয়ার করুন

এবারও জামিন হলো না শাহরুখপুত্রের

এবারও জামিন হলো না শাহরুখপুত্রের

জামিন হলো না শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানের। ছবি: সংগৃহীত

কারাগারেই থাকতে হচ্ছে আরিয়ানকে। তার সঙ্গে আরও দুই অভিযুক্ত আরবাজ মার্চেন্ট ও মুনমুনের জামিন আবেদনও খারিজ হয়েছে।

দফায় দফায় আবেদন করেও জামিন পাচ্ছেন না শাহরুখপুত্র আরিয়ান খান। শেষ বুধবারও শাহরুখপুত্রের জামিনের আবেদন মঞ্জুর করল না মুম্বাইয়ের বিশেষ আদালত।

ফলে কারাগারেই থাকতে হচ্ছে আরিয়ানকে। তার সঙ্গে আরও দুই অভিযুক্ত আরবাজ মার্চেন্ট ও মুনমুনের জামিন আবেদনও খারিজ হয়েছে।

বুধবার আরিয়ানের জামিন শুনানির আগে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) কর্মকর্তারা আদালতের হাতে নতুন তথ্য তুলে দিয়েছেন। যেখানে জানা গেছে, প্রমোদতরির ওই পার্টিতে যোগ দেয়ার আগে উঠতি এক বলিউড অভিনেত্রীর সঙ্গে শাহরুখ খানের ছেলে মাদক বিষয়ে আলোচনা করেছিলেন।

গত সপ্তাহে অর্থাৎ ১৪ অক্টোবরেও আরিয়ানের জামিন আবেদন খারিজ হয়। আদালত ঘোষণা করেছিল, মামলার পরবর্তী শুনানি হবে বুধবার, ২০ অক্টোবর। সেই মতোই শুনানি হয় কিন্তু কারাগার থেকে বের হতে পারলেন না আরিয়ান।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, আরিয়ানের জন্য করা মানত এখনও ভাঙতে পারলেন না শাহরুখপত্নী গৌরী। অর্থাৎ তাদের বাড়ি ‘মান্নাত’-এর চুলায় এবারও মিষ্টি রান্না করার সুযোগ পেলেন না গৌরী খান।

শেয়ার করুন

আসছে ব্যান্ড অ্যাডভার্ব এর নতুন গান

আসছে ব্যান্ড অ্যাডভার্ব এর নতুন গান

অ্যাডভার্ব ব্যান্ড। ছবি: সংগৃহীত

ব্যান্ডের ভোকাল প্রান্ত জানান, অ্যাডভার্ব শ্রোতাদের ভালোবাসায় সিক্ত। তাই ভালো করার দায়িত্বটাও অনেক বেশি। করোনা ও নানা ঝামেলার কারণে চতুর্থ গান রিলিজের সময় পরিবর্তন হচ্ছিল। আরও কিছু এক্টিভিটিস আসবে গানটি প্রকাশের আগে।

২০১৪ সাল। প্রান্ত, সোহাগ, তুহিন মিলে গড়ে তোলেন ব্যান্ড অ্যাডভার্ব। ৬ বছর পর তারা প্রকাশ করে তাদের প্রথম গান ‘কতদূর’। ব্যান্ডটির আরও কিছু গান ‘অবসাদ’ ও ‘কে তোমাকে বাসবে ভালো’ শুনেছেন শ্রোতারা।

ব্যান্ডটি তাদের ‘পূর্বাপর’ অ্যালবামের চতুর্থ গান প্রকাশ করতে যাচ্ছে। গানের শিরোনাম ‘যেখানেই যাচ্ছি থেমে’। গানটির দৈর্ঘ্য ৮ মিনিট। এরই মধ্যে গানটির প্রচারণার শুরু হয়েছে।

ব্যান্ডের গিটারিস্ট রেক্স বলেন, ‘আমরা আমাদের নতুন গানের রের্কডিং শেষ করেছি। হয়ে গেছে মিউজিক ভিডিওর দৃশ্যধারণ। ফেসবুক, ইউটিউবসহ বিভিন্ন ডিজিটাল প্লাটফর্মে গানটির মিউজিক ভিডিও প্রকাশিত হতে যাচ্ছে ২৯ অক্টোবর।’

ব্যান্ডের ভোকাল প্রান্ত জানান, অ্যাডভার্ব শ্রোতাদের ভালোবাসায় সিক্ত। তাই ভালো করার দায়িত্বটাও অনেক বেশি। করোনা ও নানা ঝামেলার কারণে চতুর্থ গান রিলিজের সময় পরিবর্তন হচ্ছিল। আরও কিছু এক্টিভিটিস আসবে গানটি প্রকাশের আগে।

ব্যান্ডের অন্যান্য সদস্যরা হলেন, তুহিন পন্ডিত (বেজিস্ট), সোহাগ (ড্রামার), আব্বাসী লিংকন (গিটারিস্ট)।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তারা জানায়, বাংলাদেশি রক মিউজিক পশ্চিম বাংলায় বেশ জনপ্রিয়। ওপার বাংলায় জেমস, মাইলস, এলআরবি, হালের ওয়ারফেজ ও অন্যান্য ব্যান্ডের মতো অ্যাডভার্বও ছড়িয়ে পড়েছে তাদের গানে নিয়ে। আরও ভালো ভালো গান উপহার দেয়াই ব্যান্ড অ্যাডভার্বের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা।

শেয়ার করুন

সিনেমা ‘ঢাকাড্রিম’: বাস্তবের চেয়েও কঠিন যে স্বপ্ন

সিনেমা ‘ঢাকাড্রিম’: বাস্তবের চেয়েও কঠিন যে স্বপ্ন

ঢাকাড্রিম সিনেমার পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত

পরিচালকের ভাষ্যে ঢাকাড্রিম সিনেমা হলো, ‘আমরা সবাই ঢাকায় আসতে চাই এবং তাদের অনেকে আসি জীবীকার প্রয়োজনে, উচ্চ শিক্ষার জন্য, উন্নত জীবনের আশায়। এ শহরে আসার কারণ অসংখ্য। সেই কারণ ও সংকট খোঁজার চেষ্টা করেছি আমরা।’

সিনেমার নাম ঢাকাড্রিম। নামের সঙ্গে যেমন স্বপ্ন ব্যাপারটি জড়িয়ে আছে, তেমনি সিনেমাতেও স্বপ্নের কথা বলা হয়েছে। তবে এই স্বপ্ন হাতে তুলে দেয়া স্বপ্ন নয়, এই স্বপ্ন পরিশ্রমের মাধ্যমে ছিনিয়ে নেয়ার।

সিনেমাটি দেশে মুক্তি পাচ্ছে ২২ অক্টোবর। সিনেমার পরিচালক সুতপার ঠিকানা খ্যাত প্রসূন রহমান।

তার ভাষ্যে ঢাকাড্রিম সিনেমা হলো, ‘আমরা সবাই ঢাকায় আসতে চাই এবং তাদের অনেকে আসি জীবিকার প্রয়োজনে, উচ্চ শিক্ষার জন্য, উন্নত জীবনের আশায়। এ শহরে আসার কারণ অসংখ্য। সেই কারণ ও সংকট খোঁজার চেষ্টা করেছি আমরা।’

সিনেমা ‘ঢাকাড্রিম’: বাস্তবের চেয়েও কঠিন যে স্বপ্ন
ঢাকাড্রিম সিনেমার দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত

পরিচালক আরও বলেন, ‘আমরা তো ঢাকায় আসি দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে। তাদের একেক জনের একক রকম কারণ। আমরা সিনেমাটি করার আগে শতাধিক মানুষের সাক্ষাৎকার নিয়েছিলাম। সেখানে জানতে চেয়েছিলাম তাদের ঢাকায় আসার কারণ এবং আমরা অদ্ভুত সব কারণ পেয়েছি।

‘সেখান থেকে উল্লেখযোগ্য দশটি কারণ, তাদের সংকট-সংগ্রাম নিয়ে এ সিনেমাটি করা। আগামীকাল যিনি ঢাকায় আসবেন তার আজকের দিনটি কেমন, কেন, কোন আশায়, কোন প্রেক্ষাপটে তিনি ঢাকায় আসছেন, সেটি আমরা ক্যামেরায় তুলে আনার চেষ্টা করেছি।’

সিনেমায় অভিনয় করেছেন প্রয়াত এস এম মহসীন, ফজলুর রহমান বাবু, মুনিরা মিঠু, শাহাদাৎ হোসেন, শাহরীয়ার ফেরদৌস সজীব, পূর্ণিমা বৃষ্টিসহ অনেকে।

সিনেমা ‘ঢাকাড্রিম’: বাস্তবের চেয়েও কঠিন যে স্বপ্ন
ঢাকাড্রিম সিনেমার দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত

অভিনেত্রী মুনিরা মিঠু শুটিংয়ের সময়ের কিছু স্মৃতিচারণা করে বলেন, ‘ঢাকাড্রিম সিনেমায় যে ধরনের চরিত্রে অভিনয় করেছি, তার আগে কখনও করা হয়নি। সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে আমি খুবই খুশি।’

সিনেমাটির জন্য অনেক কষ্ট করতে হয়েছে উল্লেখ করে মুনিরা মিঠু বলেন, ‘মনে আছে, প্রচণ্ড কনকনে হাওয়ায় মানিকগঞ্জের একটি লোকেশনে সারা রাত আমরা গানের একটি দৃশ্যায়ন করেছিলাম। সেটি যখন শেষ হয়, তখন ভোর ৬টা। যখন গাড়িতে উঠলাম, তিন-চারটা কম্বল দিয়ে আমাকে জড়িয়ে ফেলা হলো।’

সিনেমা ‘ঢাকাড্রিম’: বাস্তবের চেয়েও কঠিন যে স্বপ্ন
ঢাকাড্রিম সিনেমার দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকাড্রিম সিনেমা স্বপ্নের কথা বলবে, সে স্বপ্ন পর্দায় দেখানো হলেও তা দেখতে বাস্তবের চেয়েও কঠিন, তেমনটাই জানিয়েছেন সিনেমার অন্য অভিনয়শিল্পীরা।

শেয়ার করুন