হারারেতে টাইগারদের অন্য রকম ঈদ

হারারেতে টাইগারদের অন্য রকম ঈদ

ঈদের দিন জিম্বাবুয়েতে ক্রিকেটাররা। ছবি: ফেসবুক

কোয়ারেন্টিনে থাকায় মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করতে পারেননি ক্রিকেটাররা। বায়ো বাবলে থেকেই নামাজ আদায় করে নেয় পুরো স্কোয়াড। ছবি তুলে নিজ নিজ সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডলে পোস্ট করেছেন মুস্তাফিজ, তাসকিন, মিরাজরা।

পূর্ণাঙ্গ সফরে জিম্বাবুয়েতে আছে বাংলাদেশ দল। ঈদুল আজহার দিনটি দেশ থেকে হাজার মাইল দূরে নিজেদের মতো করেই উদযাপন করেছেন সাকিব-মুস্তাফিজরা।

নিজের টুইটার হ্যান্ডলে পুরো স্কোয়াডের বিভিন্ন সদস্যের সঙ্গে ছবি পোস্ট করেছেন মুস্তাফিজুর রহমান।

লিখেছেন, ‘আমাদের তরফ থেকে আপনাদের সবাইকে ঈদ মুবারক’

করোনাভাইরাস মহামারির সময়ে সচেতনতার আহ্বানও ছিল তার পোস্টে। বাংলাদেশের এই বাঁহাতি পেইসার লেখেন, ‘মহামারির সময়ে সবাই নিজের পরিবারের সঙ্গে সুস্থ ও নিরাপদে থাকুন।‘

আর সবশেষে দ্য ফিজ লেখেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১২ বছর পর সিরিজ জয়ে ঈদ আনন্দে যোগ করেছে বাড়তি মাত্রা। মুস্তাফিজ লেখেন, ‘এত বড় জয়ের পর এসেছে এই ঈদ।’

কোয়ারেন্টিনে থাকায় মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করতে পারেননি ক্রিকেটাররা। বায়ো বাবলে থেকেই নামাজ আদায় করে নেয় পুরো স্কোয়াড।

হারারেতে টাইগারদের অন্য রকম ঈদ
হারারেতে ঈদের দিন সাকিব ও মুস্তাফিজ। ছবি: টুইটার



ছবি তুলে নিজ নিজ সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডলে পোস্ট করেছেন মুস্তাফিজ, তাসকিন, মিরাজরা।

তাসকিন নিজের ফেসবুক পেজে সবার সঙ্গে তোলা সেলফি শেয়ার করেছেন। স্কোয়াডের ছবি দিয়ে লেখেন, ‘সবাইকে ঈদ মুবারক।’

এর আগে, মঙ্গলবার ওয়ানডে সিরিজে জিম্বাবুয়েকে ক্লিন সুইপ করার পর তামিম ইকবাল পুরস্কার বিতরণীর সময়ে সবাইকে ঈদ মুবারক জানান। জিম্বাবুয়ে থেকে ওয়ানডে সিরিজ শেষে দেশে ফিরছেন ওয়ানডে অধিয়ায়ক।

পুরস্কার বিতরণীর সময় তামিম বলেন, ‘আমরা এখানে ঈদ পালন করছি। সবাইকে ঈদ মুবারক।’

ঈদের ছুটি খুব বেশি দিন উপভোগ করার সুযোগ পাচ্ছেন না টাইগাররা। কাল থেকে শুরু হচ্ছে দুই দলের তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ।

সিরিজে খেলছেন না তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম। হাঁটুর ইনজুরিতে পড়া তামিমকে বিশ্রাম দেওয়া হচ্ছে। আর বাবা-মার অসুস্থতার কারণে দেশে ফিরেছেন মুশফিকুর রহিম।

আরও পড়ুন:
মুশফিক-তামিম-জামালদের ঈদশুভেচ্ছা
টেন্ডুলকার-কোহলির পর সাকিব
রানের পাহাড় টপকে জিম্বাবুয়েকে ক্লিন সুইপ

শেয়ার করুন

মন্তব্য